alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

বদলগাছীতে

ত্রাণ নিতে এসে হয়রানীর শিকার ৩৩৩ শে আবেদনকারীরা

প্রতিনিধি, বদলগাছী (নওগাঁ) : শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

নওগাঁর বদলগাছীতে ‘জাতীয় তথ্য বাতায়ন কলসেন্টার ৩৩৩’ নম্বরে ফোন করে খাদ্য সহায়তা নিতে গিয়ে অসহায়রা হয়রানীর স্বীকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলায় খাদ্য সহায়তা নিতে গিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থেকে কেউ কেউ খাদ্য না পেয়ে অবশেষে ফিরে যেতে হয়েছে।

জানা গেছে, খাদ্য সহায়তা চেয়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ‘৩৩৩’ নম্বরে ফোন করে অসহায়রা। পরে উপজেলা ইউএনও অফিস থেকে অসহায়দের ফোন করে উপজেলায় আসতে বলা হয়। এরপর গত ১৩ সেপ্টেম্বর উপজেলা চত্ত্বরে সকালে ত্রাণ নিতে এসে প্রায় অর্ধশত পুরুষ ও মহিলা। কিন্তু বেলা ৪ টা পর্যন্ত তাদের কোন খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়নি। পরে বিকেল ৫ টার দিকে ত্রাণ নিতে আসা মাত্র ২৮ জন ব্যক্তিকে ত্রাণ দেই। আর বাঁকী লেঅকেরা ত্রাণ না পেয়ে তাদের ফিরে যেতে হয়েছে।

আরো জানা যায়, ‘৩৩৩’ নম্বরে যারা ত্রাণের জন্য আবেদন করে সেই তালিকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে আবেদনকারীদের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার সহ একটি তালিকা প্রেরণ করেন জাতীয় তথ্য বাতায়ন সেন্টার। সেই তালিকাটি যাচাই-বাচাই পূর্বক সরবরাহ করতে হবে ত্রাণ। কিন্তু তালিকা আসার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কোন যাচাই-বাচাই করে না বলে অভিযোগও রয়েছে।

দেউলিয়া গ্রামের আলিফ উদ্দীনের স্ত্রী বৃদ্ধা আজেদা (৫৯) বলেন, গত ৫ সেপ্টেম্বর উপজেলা থেকে ফোন করে বেলা ১১ টার মধ্যে ত্রাণ নিতে উপজেলায় আসতে বলা হয়। ফোন পাওয়ার পর সময়মতো উপজেলায় আসি। কিন্তু সারাদিন বসে রাখার পর আমাকে বলে ত্রাণ ফুরিয়ে গেছে এবং কয়েকদিন পর আসতে বলা হয়। দুই-তিনবার ঘুরতে হয়েছে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর আবারো আমাকে আসতে বলা হয়। সকাল ১০ থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত উপজেলা চত্বরে অপেক্ষা করা হলেও ত্রাণ না পেয়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। আমি আর কখনো ত্রাণ নিতে আসবোনা। তাঁদের আচরন খুব খারাপ।

ত্রাণ নিতে আসা ফাজেদ, শাপলা, আসলাম, আঞ্জুআরাসহ একাধীক ব্যক্তিরা বলেন, ইউএনও অফিস থেকে ফোন দিয়ে আমাদের ১২ টার মধ্যে আসতে বলে। আমরা সময় মতো আসলেও বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত আমাদেরকে বসিয়ে রাখা হয়। বসে থেকে থেকে অফিসের লোকদের কাছে আমরা গিয়ে ত্রাণ কখন দিবেন বলে জানতে চাইলে তাঁরা আমাদের সাথে খারাপ আচরণ করে । আমরা গরীব মানুষ মানুষের কাজকর্ম করে খাই। ডেকে নিয়ে এসে এভাবে ঘন্টার পর ঘন্টা আমাদেরকে বসে রেখে হয়রানী করা হয়েছে।

ডাঙ্গীসারা গ্রামের লাকী বেগম অভিযোগ করে বলেন, বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ইউএনও অফিস থেকে ফোন করে বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ত্রাণ নিতে উপজেলায় আসতে বলা হয়। ফোন পেয়ে বৃস্পতিবার দুপুরে ত্রাণ নিতে আসি। কিন্তু আমাকে ত্রাণ না দিয়ে খারাপ ব্যবহার করে বলেন পরে আবার জানানো হবে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মাহবুবুর রহমান বলেন, ৩৩৩ শে যারা ফোন করে খাদ্য সহায়তা চায় তাঁদের ফিরতি তালিকা আসার পর যাচাই-বাচাই পূর্বক তাঁদেরকে ত্রাণ দিতে হবে। কারন যারা ফোন করে খাদ্য সহায়তা চান তারা যে সবাই ত্রাণ পাবে এমন কথা নয়। কারণ অনেকেই বাড়িতে চাল রেখে খাদ্য নেওয়ার জন্য ফোন দেই। কারণ যাদের বাড়িতে ২০ কেজি চাল থাকবে তারা এই খদ্য সহায়তা পাবেনা। তিনি আরো বলেন, আমি অতিরিক্ত দ্বায়ীত্বে থাকার করণে বিষয়টি সম্পর্ণরুপে ইউএনও স্যার দেখেন। তিনিই বিষয়টি ভালো বলতে পারবেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলপনা ইয়াসমিনের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ৩৩৩ শে ফোন দেওয়া ব্যক্তিদের আমরা যাচাই করে ত্রাণ দিই। কিন্তু ত্রাণ নিতে আসা ব্যক্তিরা বলেন, আমাদের কোন যাচাই-বাচাই করা হয়নি বলে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন , আমরা ফোন করে ইউনিয়ন মেম্বার-চেয়ারম্যানের কাছ থেকে খোঁজ নেই। অভিযোগকারী ব্যক্তিরা বলেন, আপনার অফিস থেকে ফোন করে তাঁদেরকে ত্রাণ নিতে আসতে বলা হয়েছে বলে অপর প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোন কোন ব্যক্তি ত্রাণ পাননি সেই তালিকা নিয়ে আপনি অফিসে আসেন আমি দেখবো বলে ফোন কেটে দেন।

এলাকার সচেতন মহল বলেন, গরীব মানুষদের ত্রাণ দেওয়ার জন্য ফোন করে ডেকে এনে ঘন্টার পর ঘন্টা বসিয়ে রেখে হয়রানীকরা ঠিক নয়। প্রতিদিনিই আমরা দেখি ত্রাণ নিতে আসা ব্যক্তিদের সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত বসিয়ে রাখতে। কেন এই গরীবদের প্রতি ইউএনওর অবহেলা। তারা আরো বলেন, এই ইউএনও এখানে যোগদানের পর থেকে আমরা দেখছি তিনি কোন নিয়মকানুনের তোয়াক্কা করেন না।

ছবি

সাবেক মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফের এপিএস আরও দুই দিনের রিমান্ডে

ছবি

ঘরের মেঝে খুঁড়ে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার, আটক ১

ছবি

কুবিতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারির ঘটনায় আহত ১০

কুমিল্লায় সোশাল মিডিয়ায় অপপ্রচারের অভিযোগে আরও একজন গ্রেপ্তার

জবির চার শিক্ষার্থীসহ পাঁচ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট

বোয়ালমারীতে পুলিশের ওপর হামলা : আটক ৩

চাকরির বিজ্ঞাপনে প্রতারিত ১২শ’ যুবক : আটক ৩

ছবি

মিতু হত্যা : নারাজি আবেদনে বলা হয়, ‘বাবুল ষড়যন্ত্রের শিকার’

ছবি

কুমিল্লায় ‘উসকানি’ দিয়ে মন্দিরে হামলা : আটক ৪৩

ছবি

এহসান গ্রুপ, কিউকমসহ ১০ প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব স্থগিত

ছবি

বিতর্কিত কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জন দাস কারাগারে

ছবি

তসলিমা নাসরিনসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

ছবি

রাজধানীতে মাদক বিরোধী অভিযানে আটক ৪২

বিয়ের পাঁচ দিনের মাথায় স্বামীকে অচেতন করে নববধূ উধাও

মুদি দোকানি থেকে মানব পাচারকারী

ছবি

রাজউকের সাবেক গাড়ি চালক ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

যৌতুক, পরকীয়ায় বাধা দেয়াই কাল হয় স্বর্ণার

খিলগাঁওয়ে সিআইডি ইন্সপেক্টর শামসুদ্দিনের অত্যাচার, আতঙ্কে ১০ পরিবার

ছবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় নুরকে অব্যাহতি

লক্ষ্মীপুরে তাস খেলা বিবাদে জেলেকে হত্যার অভিযোগ

ছবি

ভান্ডারিয়ায় ফুটপাত দখল করে দোকান : যানজট

পাথরঘাটায় ছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদী ৩ ছাত্রকে মারধর

প্রতিবাদী বৃদ্ধাকে মারধর

চেয়ারম্যানের প্রতারণায় হিন্দু পরিবার নিঃস্ব : তদন্তের নির্দেশ

ফরিদপুরে সাবেক মন্ত্রীর এপিএস ফুয়াদ আটক

ছবি

সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফের এপিএস ফুয়াদ গ্রেপ্তার

ছবি

মধ্যপ্রাচ্যে মানবপাচারকারী চক্রের প্রধানসহ আটক ৮

কিডনি বেচাকেনায় প্রতারণা, প্রতি কিডনি ২০ লাখ টাকা

শতাধিক ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারের দুর্নীতির অনুসন্ধানে দুদক

বগুড়ায় খাদ্যবান্ধব কর্মসুচীর ৭১ বস্তা চাল আটক

চাটখিলে অবাধে চলছে হাইড্রোলিক ট্রাক : দুর্ঘটনা প্রতিদিন

দুই জেলায় মা ইলিশ ধরায় ১৮২ জেলের কারাদন্ড শরীয়তপুর

কিশোরগঞ্জে ইয়াবা, যুবক ধৃত

সৈয়দপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার

ছবি

সুইস ব্যাংকে প্রিন্স মুসার বিলিয়ন ডলারের সকল তথ্য মিথ্যা: ডিবি

হাতিয়ায় পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

বদলগাছীতে

ত্রাণ নিতে এসে হয়রানীর শিকার ৩৩৩ শে আবেদনকারীরা

প্রতিনিধি, বদলগাছী (নওগাঁ)

শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

নওগাঁর বদলগাছীতে ‘জাতীয় তথ্য বাতায়ন কলসেন্টার ৩৩৩’ নম্বরে ফোন করে খাদ্য সহায়তা নিতে গিয়ে অসহায়রা হয়রানীর স্বীকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলায় খাদ্য সহায়তা নিতে গিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থেকে কেউ কেউ খাদ্য না পেয়ে অবশেষে ফিরে যেতে হয়েছে।

জানা গেছে, খাদ্য সহায়তা চেয়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ‘৩৩৩’ নম্বরে ফোন করে অসহায়রা। পরে উপজেলা ইউএনও অফিস থেকে অসহায়দের ফোন করে উপজেলায় আসতে বলা হয়। এরপর গত ১৩ সেপ্টেম্বর উপজেলা চত্ত্বরে সকালে ত্রাণ নিতে এসে প্রায় অর্ধশত পুরুষ ও মহিলা। কিন্তু বেলা ৪ টা পর্যন্ত তাদের কোন খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়নি। পরে বিকেল ৫ টার দিকে ত্রাণ নিতে আসা মাত্র ২৮ জন ব্যক্তিকে ত্রাণ দেই। আর বাঁকী লেঅকেরা ত্রাণ না পেয়ে তাদের ফিরে যেতে হয়েছে।

আরো জানা যায়, ‘৩৩৩’ নম্বরে যারা ত্রাণের জন্য আবেদন করে সেই তালিকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে আবেদনকারীদের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার সহ একটি তালিকা প্রেরণ করেন জাতীয় তথ্য বাতায়ন সেন্টার। সেই তালিকাটি যাচাই-বাচাই পূর্বক সরবরাহ করতে হবে ত্রাণ। কিন্তু তালিকা আসার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কোন যাচাই-বাচাই করে না বলে অভিযোগও রয়েছে।

দেউলিয়া গ্রামের আলিফ উদ্দীনের স্ত্রী বৃদ্ধা আজেদা (৫৯) বলেন, গত ৫ সেপ্টেম্বর উপজেলা থেকে ফোন করে বেলা ১১ টার মধ্যে ত্রাণ নিতে উপজেলায় আসতে বলা হয়। ফোন পাওয়ার পর সময়মতো উপজেলায় আসি। কিন্তু সারাদিন বসে রাখার পর আমাকে বলে ত্রাণ ফুরিয়ে গেছে এবং কয়েকদিন পর আসতে বলা হয়। দুই-তিনবার ঘুরতে হয়েছে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর আবারো আমাকে আসতে বলা হয়। সকাল ১০ থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত উপজেলা চত্বরে অপেক্ষা করা হলেও ত্রাণ না পেয়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। আমি আর কখনো ত্রাণ নিতে আসবোনা। তাঁদের আচরন খুব খারাপ।

ত্রাণ নিতে আসা ফাজেদ, শাপলা, আসলাম, আঞ্জুআরাসহ একাধীক ব্যক্তিরা বলেন, ইউএনও অফিস থেকে ফোন দিয়ে আমাদের ১২ টার মধ্যে আসতে বলে। আমরা সময় মতো আসলেও বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত আমাদেরকে বসিয়ে রাখা হয়। বসে থেকে থেকে অফিসের লোকদের কাছে আমরা গিয়ে ত্রাণ কখন দিবেন বলে জানতে চাইলে তাঁরা আমাদের সাথে খারাপ আচরণ করে । আমরা গরীব মানুষ মানুষের কাজকর্ম করে খাই। ডেকে নিয়ে এসে এভাবে ঘন্টার পর ঘন্টা আমাদেরকে বসে রেখে হয়রানী করা হয়েছে।

ডাঙ্গীসারা গ্রামের লাকী বেগম অভিযোগ করে বলেন, বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ইউএনও অফিস থেকে ফোন করে বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ত্রাণ নিতে উপজেলায় আসতে বলা হয়। ফোন পেয়ে বৃস্পতিবার দুপুরে ত্রাণ নিতে আসি। কিন্তু আমাকে ত্রাণ না দিয়ে খারাপ ব্যবহার করে বলেন পরে আবার জানানো হবে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মাহবুবুর রহমান বলেন, ৩৩৩ শে যারা ফোন করে খাদ্য সহায়তা চায় তাঁদের ফিরতি তালিকা আসার পর যাচাই-বাচাই পূর্বক তাঁদেরকে ত্রাণ দিতে হবে। কারন যারা ফোন করে খাদ্য সহায়তা চান তারা যে সবাই ত্রাণ পাবে এমন কথা নয়। কারণ অনেকেই বাড়িতে চাল রেখে খাদ্য নেওয়ার জন্য ফোন দেই। কারণ যাদের বাড়িতে ২০ কেজি চাল থাকবে তারা এই খদ্য সহায়তা পাবেনা। তিনি আরো বলেন, আমি অতিরিক্ত দ্বায়ীত্বে থাকার করণে বিষয়টি সম্পর্ণরুপে ইউএনও স্যার দেখেন। তিনিই বিষয়টি ভালো বলতে পারবেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলপনা ইয়াসমিনের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ৩৩৩ শে ফোন দেওয়া ব্যক্তিদের আমরা যাচাই করে ত্রাণ দিই। কিন্তু ত্রাণ নিতে আসা ব্যক্তিরা বলেন, আমাদের কোন যাচাই-বাচাই করা হয়নি বলে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন , আমরা ফোন করে ইউনিয়ন মেম্বার-চেয়ারম্যানের কাছ থেকে খোঁজ নেই। অভিযোগকারী ব্যক্তিরা বলেন, আপনার অফিস থেকে ফোন করে তাঁদেরকে ত্রাণ নিতে আসতে বলা হয়েছে বলে অপর প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোন কোন ব্যক্তি ত্রাণ পাননি সেই তালিকা নিয়ে আপনি অফিসে আসেন আমি দেখবো বলে ফোন কেটে দেন।

এলাকার সচেতন মহল বলেন, গরীব মানুষদের ত্রাণ দেওয়ার জন্য ফোন করে ডেকে এনে ঘন্টার পর ঘন্টা বসিয়ে রেখে হয়রানীকরা ঠিক নয়। প্রতিদিনিই আমরা দেখি ত্রাণ নিতে আসা ব্যক্তিদের সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত বসিয়ে রাখতে। কেন এই গরীবদের প্রতি ইউএনওর অবহেলা। তারা আরো বলেন, এই ইউএনও এখানে যোগদানের পর থেকে আমরা দেখছি তিনি কোন নিয়মকানুনের তোয়াক্কা করেন না।

back to top