alt

সারাদেশ

মেঘনা বাঁচাতে উদ্যোগ নেয়ার আহবান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক: : শনিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২২

বুড়িগঙ্গার মত করুণ পরিণতির হাত থেকে মেঘনা কে বাঁচাতে উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানিয়েছেন বিশিষ্ট জনেরা। তারা বলেন অবিলম্বে মেঘনা নদীর দখল ও দূষণ রোধ করতে না পারলে অল্প সময়ের মধ্যে মেঘনা নদীও বুড়িগঙ্গার মত পরিণত হবে। তাই অবিলম্বে সরকারসহ সংশ্লিষ্টদের মেঘনা নদী বাঁচানোর উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানিয়েছেন বক্তারা।

পরিবেশ ও নদী রক্ষা উন্নয়ন ফাউন্ডেশন (ইআরপিডিএফ) আয়োজিত এক মুক্ত আলোচনায় বক্তারা এ মন্তব্য করেন।

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে ‘মেঘনা নদীর দখলরোধ ও পাড় সংরক্ষণ’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে আয়োজক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এইচ এম সুমনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের ৪৮ নদী সমীক্ষা প্রকল্পের ওয়াটার রিসোর্স এক্সপার্ট সাজিদুর রহমান সরদার, রিভার এন্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এজাজ, বাংলাদেশ রিভার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মনির হোসেন, বিআইডব্লিউটিএ মেঘনা পোর্ট পরিচালক মোবারক হোসেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা সহকারি পরিচালক হায়াত মাহমুদ রাকিব, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোটের্র আইনজীবি ও অত্র ফাউন্ডেশনের আইন উপদেষ্টা এডভোকেট লায়ন এম এ মজিদ, এডভোকেট শিব্বির আহমদ ও বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলনের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মো. আনোয়ার হোসেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, মেঘনা নদীকে বুড়িগঙ্গা নদীর রুপে দেখতে না চাইলে এখনি মেঘনা নদী দখল ও দূষণ রোধে সকলের এগিয়ে আসা উচিৎ। এছাড়াও মেঘনা নদী দখল, দূষণের তালিকায় সিটি গ্রুপ, ওরিয়েন গ্রুপ, আমান সিমেন্ট, টিকে গ্রুপ, মেঘনা গ্রুপসহ অন্যান্য শিল্পপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের ব্যবস্থা নিতে হবে। জাতীয় নদী রা কমিশনের তথ্য অনুযায়ী মেঘনা গ্রুপ নদীর ৮৫ একর জমি দখল করেছে। মতার অপব্যবহার করে নদীর জমি ও সাধারন মানুষের জমি দখল করে ভূগদখল করছে।

বক্তারা জানায়, আনন্দ শিপইয়ার্ড নামের জাহাজ নির্মানকারী প্রতিষ্ঠানের ১৩ একর জমি জবরদখল করে এবং সেই জমিতে থাকা সাত হাজার গাছ কেটে ফেলে। এখনি নদী দখল রোধ করতে না পারলে ভবিষৎতে মেঘনার নদীর অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে কষ্ট হবে বলে আলোচনা উঠে আসে।

মেঘনা গ্রুপসহ দখলদারী সকল শিল্পপ্রতিষ্ঠানকে উদ্দেশ্য করে পরিবেশ ও নদী রা উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বলেন, নদীর অধিকার নদীকে ফিরিয়ে দিতে আমরা বদ্ধপরিকর। সেই সাথে দেশের নদীর অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে সরকারের প্রতি জোর দাবী জানান।

ছবি

শুধু নির্দেশনা দিয়েই শেষ, বিধি মানার কোন লক্ষণ নেই বাস-ট্রেনে

ধরন নিয়ে বিভ্রান্তি, বেড়েই চলেছে সংক্রমণ

নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতির নির্বাচন কাল

ছবি

দশমিনায় বেড়েছে সরিষা আবাদ

জাটকা বাঁচলে ইলিশ হবে দুই লাখ টন

ছবি

কিশোরগঞ্জে বোরো রোপণের ধুম

কিশোরগঞ্জে নতুন করোনা শনাক্ত ১৬

চুয়াডাঙ্গায় করোনা আক্রান্ত ডিসি সিভিল সার্জন

প্রতিবেশগত সঙ্কটাপন্ন ঘোষণার ২২ বছরেও পদক্ষেপ নেই

নবজাতকের কপাল কাটা : মামলা

চট্টগ্রামে হু হু করে বাড়ছে করোনা : স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই

ছবি

ডক্টরস প্লাটফরম ইন ফিনল্যান্ডের কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন

নারায়ণগঞ্জের মতোই সংসদ নির্বাচন চমৎকার হবে : তথ্যমন্ত্রী

‘ক্লিন সেন্ট মার্টিন’ প্রকল্প উদ্বোধন

কুমিল্লায় সহিংসতা মামলায় চেয়ারম্যানসহ জেলে ৪

ছবি

নদী ভাঙনে একশ’ গজে দুই স্কুল : টানাটানি শিক্ষার্থীদের

ছবি

আরসা প্রধানের ভাই গ্রেফতারের পর যা তথ্য দিয়েছেন তা যাচাই-বাছাই চলছে

ছবি

আইভীর হ্যাটট্রিক, তবে কমেছে ভোটের ব্যবধান

ছবি

মালিক সমিতির সিদ্ধান্তই মানছে না পরিবহন মালিকরা

করোনা, সংক্রমণ ছড়াচ্ছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টই

ছবি

ভিটামিন ডি এর অভাবে করোনা আক্রান্তসহ নানা রোগের ঝুকি বেশী

মেঘনায় হত্যা চেষ্টা মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৪জন জেলহাজতে

ছবি

বদলগাছী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ সরবরাহ

ছবি

বাংলাদেশের পাশে থাকা ভারতের কর্তব্য : সহকারী হাইকমিশনার

কিশোরগঞ্জে নতুন করোনা শনাক্ত ৪

ছবি

ফসলি জমির উর্বর মাটি ভাটায় : ফসল হুমকিতে

ছবি

২ জেলায় বেহাল সড়ক : বাড়ছে প্রাণহানি

গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের ২শ’ মিটার বিড়ম্বনার অবসান

করোনা আক্রান্ত রাসিক মেয়র ও বাগমারার সাংসদ

ছবি

বাসের ধাক্কায় ২ মোটর সাইকেল আরোহী নিহত

ছবি

কক্সবাজারের ডিসি করোনা আক্রান্ত

ছবি

মধ্যপ্রাচ্যের বিমানে অযৌক্তিক ভাড়া: প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

ছবি

পার্বত্য অঞ্চল হবে সম্পদ শান্তিতে সমৃদ্ধ

পুলিশের লাঠিচার্জে ছত্রভঙ্গ চাকরিপ্রত্যাশীদের অবরোধ

ছবি

১৯২ কেন্দ্রের ফল: আইভী ১৬১২৭৩, তৈমূর ৯২১৭১

বন্ধুমহলের মিলনমেলা

tab

সারাদেশ

মেঘনা বাঁচাতে উদ্যোগ নেয়ার আহবান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক:

শনিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২২

বুড়িগঙ্গার মত করুণ পরিণতির হাত থেকে মেঘনা কে বাঁচাতে উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানিয়েছেন বিশিষ্ট জনেরা। তারা বলেন অবিলম্বে মেঘনা নদীর দখল ও দূষণ রোধ করতে না পারলে অল্প সময়ের মধ্যে মেঘনা নদীও বুড়িগঙ্গার মত পরিণত হবে। তাই অবিলম্বে সরকারসহ সংশ্লিষ্টদের মেঘনা নদী বাঁচানোর উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানিয়েছেন বক্তারা।

পরিবেশ ও নদী রক্ষা উন্নয়ন ফাউন্ডেশন (ইআরপিডিএফ) আয়োজিত এক মুক্ত আলোচনায় বক্তারা এ মন্তব্য করেন।

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে ‘মেঘনা নদীর দখলরোধ ও পাড় সংরক্ষণ’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে আয়োজক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এইচ এম সুমনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের ৪৮ নদী সমীক্ষা প্রকল্পের ওয়াটার রিসোর্স এক্সপার্ট সাজিদুর রহমান সরদার, রিভার এন্ড ডেল্টা রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এজাজ, বাংলাদেশ রিভার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মনির হোসেন, বিআইডব্লিউটিএ মেঘনা পোর্ট পরিচালক মোবারক হোসেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা সহকারি পরিচালক হায়াত মাহমুদ রাকিব, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোটের্র আইনজীবি ও অত্র ফাউন্ডেশনের আইন উপদেষ্টা এডভোকেট লায়ন এম এ মজিদ, এডভোকেট শিব্বির আহমদ ও বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলনের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মো. আনোয়ার হোসেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, মেঘনা নদীকে বুড়িগঙ্গা নদীর রুপে দেখতে না চাইলে এখনি মেঘনা নদী দখল ও দূষণ রোধে সকলের এগিয়ে আসা উচিৎ। এছাড়াও মেঘনা নদী দখল, দূষণের তালিকায় সিটি গ্রুপ, ওরিয়েন গ্রুপ, আমান সিমেন্ট, টিকে গ্রুপ, মেঘনা গ্রুপসহ অন্যান্য শিল্পপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের ব্যবস্থা নিতে হবে। জাতীয় নদী রা কমিশনের তথ্য অনুযায়ী মেঘনা গ্রুপ নদীর ৮৫ একর জমি দখল করেছে। মতার অপব্যবহার করে নদীর জমি ও সাধারন মানুষের জমি দখল করে ভূগদখল করছে।

বক্তারা জানায়, আনন্দ শিপইয়ার্ড নামের জাহাজ নির্মানকারী প্রতিষ্ঠানের ১৩ একর জমি জবরদখল করে এবং সেই জমিতে থাকা সাত হাজার গাছ কেটে ফেলে। এখনি নদী দখল রোধ করতে না পারলে ভবিষৎতে মেঘনার নদীর অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে কষ্ট হবে বলে আলোচনা উঠে আসে।

মেঘনা গ্রুপসহ দখলদারী সকল শিল্পপ্রতিষ্ঠানকে উদ্দেশ্য করে পরিবেশ ও নদী রা উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বলেন, নদীর অধিকার নদীকে ফিরিয়ে দিতে আমরা বদ্ধপরিকর। সেই সাথে দেশের নদীর অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে সরকারের প্রতি জোর দাবী জানান।

back to top