alt

সারাদেশ

শিক্ষকের অপকর্ম ধামাচাপা দিতে দায়সারা তদন্ত কমিটি!

প্রতিনিধি, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) : শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিম এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক ও বিভিন্ন নারীর কাছে নিজের অশ্লীল ছবি দেওয়ার ঘটনায় দায়সারা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটিতে তার চেয়ে নিম্নপদে কর্মরত সদস্য রয়েছে; যা নিয়মতান্ত্রিকভাবে হয়নি। ফলে এ তদন্ত কমিটি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। অভিভাবকদের ধারণা এটি দায়সারা এবং ওই শিক্ষককে রক্ষা করার কমিটি।

জানা গেছে, স্কুলশিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিম সম্প্রতি যশোরে এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক কাজ করতে গিয়ে স্থানীয়দের কাছে ধরা পড়েন। এরপর তাকে মারধর করেন স্থানীয়রা। এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। কিন্তু জেলা শিক্ষা অফিস থেকে এ ঘটনায় একটি দায়সারা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে কালীগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মধুসূদন সাহাকে। বাকি দুই সদস্য হলেন- বারবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম ও সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক রুহুল আমিন। সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা-২০১৮ এর ধারা ৫ এর উপবিধি-২ মোতাবেক অভিযুক্ত সরকারি কর্মচারী পদমর্যাদার নি¤েœ নহেন এমন তিনজন গেজেটেড কর্মকর্তার সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া মিলন জানান, একজন সরকারি কর্মচারীর অপরাধের তদন্ত কোনভাবেই বেসরকারি বা অভিযুক্ত ব্যক্তির নিচের পদের কেউ তদন্ত করতে পারেন না। শিক্ষক অসিমকান্ডে যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে সেটি একদমই দায়সারা ও ভুয়া।

ঝিনাইদহ জেলা শিক্ষা অফিসার শেখ মনিরুল ইসলাম জানান, সরকারি কর্মচারীদের অপরাধের তদন্ত কমিটি গঠনের আইনটি তার জানা নেই। যদি আইনে এমন থাকে তাহলে তদন্ত কমিটি পরিবর্তন করা হবে।

এদিকে ঘটনার কয়েক দিন পার হলেও ওই শিক্ষকের ব্যাপারে প্রশাসন কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় ক্ষোভে ফুসছে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। তারা অবিলম্বে শিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিমের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। একজন শিক্ষকের এমন নৈতিক অবক্ষয় মানতে পারছেন না এলাকাবাসী। প্রশাসনের পক্ষ থেকে শাস্তির ব্যবস্থা না করলে মানববন্ধনসহ কঠোর কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যালয়টির প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা।

ছবি

মাদক বহনকারী পিকআপের ধাক্কায় উল্টে গেল র‌্যাবের গাড়ি, নিহত ৩

ছবি

শরীয়তপুরের ডমুড্যা দেশের দ্বিতীয় ডিজিটাল ভিলেজ হচ্ছে

৩০ দিনের মধ্যে খাল দখলদারদের তালিকার নির্দেশ

১২ ঘণ্টার ব্যবধানে ফের খুন বৃদ্ধা

১২ লাখের সড়কে নামমাত্র কাজ

ছবি

ঘোড়াঘাটে আমন ধানের বাম্পার ফলন ও দাম পেয়ে কৃষকরা খুশি

ছবি

৫১ বছরেও বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি বঞ্চিত মানদা

দুই জেলায় ইয়াবা গ্রেপ্তার তিনজন

ছবি

সাভারে কোটি টাকার হেরোইনসহ মাদক কারবারি আটক

মজুরি ১শ’ টাকার পরিবর্তে ৩শ’ দাবি পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের

ছবি

পাখির কিচিরমিচিরে মুখর ডাকবাংলো

পীরগাছা মহিলা কলেজে অবৈধভাবে অধ্যক্ষ নিয়োগের পাঁয়তারা

ছবি

আশ্রয়ণের ১৪ ঘরের ৭টিই বিক্রি প্রশ্নের মুখে তালিকা প্রণয়ন

আর্জেন্টিনা সমর্থকদের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১৫

দোকান বরাদ্দের ইজারা বাতিল দাবিতে সবজি ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট

ছবি

৪৫০ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার, ১১ জনের রিমান্ড আবেদন

ছবি

হাতির আক্রমণে প্রাণ গেল কৃষকের

ছবি

নারায়ণগঞ্জে নেতাকে না পেয়ে ছেলেকে নিয়ে গেছে পুলিশ

ছবি

নিজের গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন, তরুণের মৃত্যু

ছবি

মিরসরাইয়ে ছাত্রদল নেতাকে ‘পিটিয়ে’ পুলিশে দিল ছাত্রলীগ

রংপুরে চালকল মালিকদের খাদ্য বিভাগের সঙ্গে চুক্তি করতে অনীহা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ডাবল মাডার : ৪ বছর পর রহস্য উদ্ঘাটন

ছবি

খাগড়াছড়িতে পরিবহন ধর্মঘট

ছবি

রামুতে পাহাড় ধসে একই পরিবারের ৪ জন নিহত

গাজীপুরে গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো ৫ ইটভাটা, ২৪ লাখ টাকা জরিমানা

ছবি

নানিয়ারচরে ইউপিডিএফ সংগঠককে গুলি করে হত্যা!

ছবি

অনুমোদন ছাড়াই চলছে ইটভাটা

ছবি

বিরামপুরে বাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ, নারীসহ দুজনের মৃত্যু

ছবি

মেসিভক্তের বিয়ের ‘আর্জেন্টিনা গেট’, নির্মাণকারী ব্রাজিল সমর্থক

ছবি

কালীগঞ্জ : মা ও শিশু হাসপাতালে নার্স দিয়েই চলছে চিকিৎসাসেবা

ছবি

বাবা-মার সঙ্গে ঝগড়া করে ঘর পুড়িয়ে দিল ছেলে

ছবি

প্রেমিকার বাবা–ভাইয়ের পিটুনিতে তরুণের মৃত্যু

ফরিদপুরে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত জেলা প্রশাসকের মতবিনিময়

হাসপাতাল-ক্লিনিকের লাইসেন্স দেখে চিকিৎসককে সেবা প্রদানের নির্দেশ

তিতাসে পুলিশের সামনে থেকে তুলে নিয়ে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ছবি

  কক্সবাজারে প্রধানমন্ত্রী সড়ক বিভাগের ৩টি সড়ক উদ্বোধন করবেন 

tab

সারাদেশ

শিক্ষকের অপকর্ম ধামাচাপা দিতে দায়সারা তদন্ত কমিটি!

প্রতিনিধি, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)

শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিম এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক ও বিভিন্ন নারীর কাছে নিজের অশ্লীল ছবি দেওয়ার ঘটনায় দায়সারা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটিতে তার চেয়ে নিম্নপদে কর্মরত সদস্য রয়েছে; যা নিয়মতান্ত্রিকভাবে হয়নি। ফলে এ তদন্ত কমিটি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। অভিভাবকদের ধারণা এটি দায়সারা এবং ওই শিক্ষককে রক্ষা করার কমিটি।

জানা গেছে, স্কুলশিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিম সম্প্রতি যশোরে এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক কাজ করতে গিয়ে স্থানীয়দের কাছে ধরা পড়েন। এরপর তাকে মারধর করেন স্থানীয়রা। এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। কিন্তু জেলা শিক্ষা অফিস থেকে এ ঘটনায় একটি দায়সারা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে কালীগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মধুসূদন সাহাকে। বাকি দুই সদস্য হলেন- বারবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম ও সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক রুহুল আমিন। সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা-২০১৮ এর ধারা ৫ এর উপবিধি-২ মোতাবেক অভিযুক্ত সরকারি কর্মচারী পদমর্যাদার নি¤েœ নহেন এমন তিনজন গেজেটেড কর্মকর্তার সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া মিলন জানান, একজন সরকারি কর্মচারীর অপরাধের তদন্ত কোনভাবেই বেসরকারি বা অভিযুক্ত ব্যক্তির নিচের পদের কেউ তদন্ত করতে পারেন না। শিক্ষক অসিমকান্ডে যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে সেটি একদমই দায়সারা ও ভুয়া।

ঝিনাইদহ জেলা শিক্ষা অফিসার শেখ মনিরুল ইসলাম জানান, সরকারি কর্মচারীদের অপরাধের তদন্ত কমিটি গঠনের আইনটি তার জানা নেই। যদি আইনে এমন থাকে তাহলে তদন্ত কমিটি পরিবর্তন করা হবে।

এদিকে ঘটনার কয়েক দিন পার হলেও ওই শিক্ষকের ব্যাপারে প্রশাসন কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় ক্ষোভে ফুসছে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। তারা অবিলম্বে শিক্ষক মনোয়ার হোসেন অসিমের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। একজন শিক্ষকের এমন নৈতিক অবক্ষয় মানতে পারছেন না এলাকাবাসী। প্রশাসনের পক্ষ থেকে শাস্তির ব্যবস্থা না করলে মানববন্ধনসহ কঠোর কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যালয়টির প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা।

back to top