alt

ক্যাম্পাস

সংস্কৃতি ও গবেষণায় রোল মডেল হবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়: উপাচার্য

প্রতিনিধি, জবি : বুধবার, ০২ জুন ২০২১
image

গবেষণায় ও সংস্কৃতিক ভিত্তি একটা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উপাদান। এই দুই খাতে যদি উন্নয়ন না হয় তাতো উচ্চশিক্ষা কেন্দ্র হবে না। গবেষণা ও সংস্কৃতি দিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে দেশ বিদেশের কাছে পরিচয় করাবো। আমি যদি ব্যর্থ হই তাহলে বিদায় নিবো।

সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে নবনিযুক্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক এসব মন্তব্য করেন।

সেশনজট নিরসন ও পরীক্ষা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষে সেশনজট তৈরি হয়েছে। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ বর্ষে যারা আছে তাদের আগে পরীক্ষা নেওয়ার চিন্তা আছে। যাতে তারা পাশ করে দ্রুত চলে যেতে পারে এবং চাকরি করতে পারে। যোগদানের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডীন ও বিভাগের চেয়ারম্যানদের সাথে আলোচনা করে পরীক্ষা ও সেশনজট নিরসনের পদক্ষেপ নেয়া হবে। খুব দ্রুত সময়েই এই সংকট নিরসন করে ফেলবো বলে আমি আশা রাখি।

এসময় তিনি বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে গবেষণা খাত দিয়ে দেশে-বিদেশে একটি মডেল বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে তুলে ধরবো। এখানে যাতে সংস্কৃতি, শিক্ষা ও গবেষণার মান যাতে বৃদ্ধি পায় সেগুলো নিয়ে কাজ করার চেষ্টা থাকবে। আমি ইউজিসির গবেষণা কমিটিতে ছিলাম। তখন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কোনো প্রজেক্ট দেখিনি। প্রজেক্ট না আসলে বাজেট দেয়া সম্ভব না। গবেষণা নিয়ে আমার বৃহৎ পরিকল্পনা আছে।

দ্বিতীয় ক্যাম্পাস প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেরানীগঞ্জ ক্যাম্পাস নিয়ে আমার পরিকল্পনা রয়েছে এবং কিভাবে দ্রুত বাস্তবায়ন করা যায় সেই বিষয়ে পদক্ষেপ নিবো।

উল্লেখ্য, বুধবার (১লা জুন) চার বছরের জন্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞান অনুষদের ডীন ও উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. ইমদাদুল হক।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রথম উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীব বিজ্ঞানের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ. কে. এম. সিরাজুল ইসলাম খান। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিভাগের অধ্যাপক আবু হোসেন সিদ্দিক দ্বিতীয় উপাচার্য হিসেবে একবছর দায়িত্ব পালন করেন।

২০০৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মেসবাহ উদ্দিন আহমেদকে তৃতীয় উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার। ২০১৩ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ওই বছরের ১৯ মার্চ অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমানকে চার বছরের জন্য চতুর্থ উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার। প্রথম মেয়াদ শেষে ২০১৭ সালে তাকে পুনরায় দ্বিতীয় মেয়াদে নিয়োগ দেওয়া হয়।

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদনে ভোগান্তি

ছবি

গবেষণা প্রকাশের জন্য শিক্ষক ও গবেষকদের অনুদান দেবে ঢাবি

ছবি

উনিশ দিন বন্ধ থাকবে ঢাবির অফিস

ছবি

নিরাপত্তা চেয়ে রাবি শিক্ষার্থীর জিডি

ছবি

ঢাবির জন্মশতবর্ষে কবিতা-প্রবন্ধ ও থিম সং আহ্বান

ফের পেছালো ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা, শুরু ১ অক্টোবর

ছবি

জবি বিজ্ঞান ক্লাবের যাত্রা শুরু

ছবি

জন্ডিসে আক্রান্ত হয়ে রাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

ঢাবির ক-খ-গ-ঘ-চ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড কার্যক্রম স্থগিত

ছবি

একজন অক্সিজেন ফেরিওয়ালার গল্প

ছবি

ডেঙ্গুতে মারা গেলেন জবি শিক্ষক

ছবি

ঢাবির শতবর্ষের উদ্বোধন, ১০০ বৃক্ষরোপণের কর্মসূচি

ছবি

ক্যাম্পাসে সশরীরে হবে না ঢাবির শতবর্ষ পূর্তি অনুষ্ঠান

ছবি

লকডাউনেও সশরীরে পরীক্ষা নিলো ঢাবি

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় নিরাপত্তা বাড়ানোর দাবি

ছবি

সুসম নিয়োগ নীতিমালা প্রণয়নসহ নীলদলের ২২ দাবি

ছবি

ফি দেয়ার সময় বাড়লো

ছবি

নীতিমালা ভেঙ্গে পরিকল্পনা পরিচালক নিয়োগ

‘সিনিয়র রোভার মেট’ নির্বাচিত হলেন জবির ২২ রোভার

ছবি

জবি লিও ক্লাবের সভাপতি এরফান, সেক্রেটারি রাওফুন

ছবি

‘খেলার মাঠে বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ চলবে না’

ছবি

অনির্দিষ্টকালের জন্য প্রশাসন ভবনে তালা!

ছবি

করোনাকালে সশরীরে ঢাবির পরীক্ষা, উপস্থিতি শতভাগ

ঈদের পর ইবিতে পরীক্ষা

ছবি

প্রাথমিক শিক্ষকদের বকেয়া ভাতার দাবীতে মানববন্ধন

ছবি

ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক থেকে ছাত্রলীগের সভাপতি

ছবি

ঢাবি শিক্ষক লীনা তাপসীর বিরুদ্ধে পিএইচডি জালিয়াতির অভিযোগ

ছবি

পুলিশের লাঠিচার্জে ছত্রভঙ্গ ‘৩২ চাই’ মিছিল

ছবি

করোনার টিকা প্রার্থী জবির সাড়ে নয় হাজার শিক্ষার্থী

ছবি

’অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ নজিরবিহীন’

ছবি

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে রাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

জাবিতে ছয় শিক্ষক নিয়োগ বন্ধে হাইকোর্টে রিট

ছবি

শেষ সময়েও বিতর্কিত কর্মকান্ড বেরোবির উপাচার্য কলিমউল্লার

ছবি

বেরোবিতে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নিতে গড়িমসি প্রশাসনের

ঢাবি শিক্ষক মোর্শেদের অপসারণ কেন অবৈধ নয় : হাইকোর্ট

ছবি

জবিতে ক্লাস-পরীক্ষার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ১৩ জুন

tab

ক্যাম্পাস

সংস্কৃতি ও গবেষণায় রোল মডেল হবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়: উপাচার্য

প্রতিনিধি, জবি
image

বুধবার, ০২ জুন ২০২১

গবেষণায় ও সংস্কৃতিক ভিত্তি একটা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উপাদান। এই দুই খাতে যদি উন্নয়ন না হয় তাতো উচ্চশিক্ষা কেন্দ্র হবে না। গবেষণা ও সংস্কৃতি দিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে দেশ বিদেশের কাছে পরিচয় করাবো। আমি যদি ব্যর্থ হই তাহলে বিদায় নিবো।

সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে নবনিযুক্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক এসব মন্তব্য করেন।

সেশনজট নিরসন ও পরীক্ষা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষে সেশনজট তৈরি হয়েছে। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ বর্ষে যারা আছে তাদের আগে পরীক্ষা নেওয়ার চিন্তা আছে। যাতে তারা পাশ করে দ্রুত চলে যেতে পারে এবং চাকরি করতে পারে। যোগদানের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডীন ও বিভাগের চেয়ারম্যানদের সাথে আলোচনা করে পরীক্ষা ও সেশনজট নিরসনের পদক্ষেপ নেয়া হবে। খুব দ্রুত সময়েই এই সংকট নিরসন করে ফেলবো বলে আমি আশা রাখি।

এসময় তিনি বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে গবেষণা খাত দিয়ে দেশে-বিদেশে একটি মডেল বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে তুলে ধরবো। এখানে যাতে সংস্কৃতি, শিক্ষা ও গবেষণার মান যাতে বৃদ্ধি পায় সেগুলো নিয়ে কাজ করার চেষ্টা থাকবে। আমি ইউজিসির গবেষণা কমিটিতে ছিলাম। তখন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কোনো প্রজেক্ট দেখিনি। প্রজেক্ট না আসলে বাজেট দেয়া সম্ভব না। গবেষণা নিয়ে আমার বৃহৎ পরিকল্পনা আছে।

দ্বিতীয় ক্যাম্পাস প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেরানীগঞ্জ ক্যাম্পাস নিয়ে আমার পরিকল্পনা রয়েছে এবং কিভাবে দ্রুত বাস্তবায়ন করা যায় সেই বিষয়ে পদক্ষেপ নিবো।

উল্লেখ্য, বুধবার (১লা জুন) চার বছরের জন্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞান অনুষদের ডীন ও উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. ইমদাদুল হক।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রথম উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীব বিজ্ঞানের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ. কে. এম. সিরাজুল ইসলাম খান। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিভাগের অধ্যাপক আবু হোসেন সিদ্দিক দ্বিতীয় উপাচার্য হিসেবে একবছর দায়িত্ব পালন করেন।

২০০৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মেসবাহ উদ্দিন আহমেদকে তৃতীয় উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার। ২০১৩ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ওই বছরের ১৯ মার্চ অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমানকে চার বছরের জন্য চতুর্থ উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার। প্রথম মেয়াদ শেষে ২০১৭ সালে তাকে পুনরায় দ্বিতীয় মেয়াদে নিয়োগ দেওয়া হয়।

back to top