alt

প্রযুক্তি

জনপ্রিয় গেম ফ্রি ফায়ার ও পাবজি বন্ধের সুপারিশ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক : শনিবার, ২৯ মে ২০২১
image

অবশেষে বাংলাদেশে বন্ধই হচ্ছে জনপ্রিয় দুই গেম ফ্রি ফায়ার ও পাবজি। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনে (বিটিআরসি) এরই মধ্যে বিষয়টি নিয়ে সুপারিশ করেছে শিক্ষা ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

দুই মন্ত্রণালয় থেকে এমন সুপারিশ পেয়ে এ নিয়ে আলোচনা করেছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। আলোচনায় ওই দুই গেমের আসক্তি নিয়ে উদ্বেগ জানানো হয়।

এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের আজ শনিবার বিকেলে বলেন, ‘গত সপ্তাহে শিক্ষামন্ত্রী মহোদয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয়ের সঙ্গে কথা বলে বিটিআরসিতে এ দুটি গেম বন্ধের সুপারিশ করেছে। কেননা ওই দুটি গেম কিশোর-কিশোরী ও তরুণদের মধ্যে আসক্তি তৈরি করেছে। এখন বিটিআরসি সিদ্ধান্ত নিবে এ দুটি কবে বন্ধ হচ্ছে।’

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়, করোনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সম্প্রতি গেম দুটিতে মাত্রাতিরিক্ত আসক্তি বেড়েছে শিক্ষার্থীদের।

এদিকে, গত বুধবার বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন এক বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, করোনা মহামারিতে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার ফলে অনলাইনভিত্তিক ক্লাসের জন্য অভিভাবকরা সন্তানদের হাতে ল্যাপটপ, মোবাইল ডিভাইস তুলে দিতে বাধ্য হচ্ছে। এ সুযোগে তরুণ প্রজন্ম এ গেম দুটির প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে।

ফ্রি ফায়ার ও পাবজি আসক্তির ভয়াবহতা তুলে ধরতে উদাহরণ দেন মহিউদ্দিন আহমেদ, গত ২১ মে চাঁদপুরে মামুন (১৪) নামে এক তরুণ মোবাইলের ডেটা কেনার টাকা না পেয়ে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করে।

মহিউদ্দিন বলেন, আমরা যখন আগামীর তরুণ প্রজন্মকে সহজলভ্য দ্রুতগতির ইন্টারনেট প্রাপ্তির জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি, ঠিক তখন আগামী তরুণ প্রজন্ম প্রযুক্তির অপব্যবহার করে বিপথগামী হয়েছে, যা আমাদের ভাবিয়ে তুলেছে। টেলিযোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং নিয়ন্ত্রক কমিশনকে দ্রুত এবং দ্রুততার সহিত এ গেমগুলোর অপব্যবহার বন্ধ এবং প্রযুক্তির ভালো দিক তুলে ধরতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি জনসচেতনতা গড়তে আহ্বান জানাচ্ছি।

এ ছাড়া আরও কিছু কারণ দেখানো হয়েছে গেম দুটি বন্ধের বিষয়ে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এ ধরনের গেম খেলার ফলে বিপুল পরিমাণ অর্থ বিদেশে চলে যাচ্ছে। অনলাইনে গেম খেলার পাশাপাশি ভার্চুয়ালি অর্থ লেনদেন হচ্ছে এমএমএস প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে। আর এতে করে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রাষ্ট্র, সমাজ, ব্যক্তি ও পরিবার।

সম্প্রতি নেপালে পাবজি নিষিদ্ধ করে দেশটির আদালত। একই কারণে ভারতের গুজরাটেও এ গেম খেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল। এমনকি গেমটি খেলার জন্য কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছিল। বাংলাদেশেও পাবজি সাময়িকভাবে বন্ধ করা হয়েছিল, পরে আবার চালু করা হয়।

চীনা প্রতিষ্ঠানের ২০১৯ সালে তৈরি করা যুদ্ধ গেম ফ্রি ফায়ার ২০১৭ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার গেম ডেভেলপার প্রতিষ্ঠান ব্লু হোয়েলের অনলাইন ভিডিও গেমটির মতোই। ২০১৯ সালে এটি বিশ্বব্যাপী সর্বাধিক ডাউনলোড করা মোবাইল গেম। গেমটি অন্য খেলোয়াড়কে হত্যা করার জন্য অস্ত্র এবং সরঞ্জামের সন্ধানে একটি দ্বীপে প্যারাসুট থেকে পরা ৫০ জন ও তার অধিক খেলোয়াড়কে অন্তর্ভুক্ত করে। বর্তমানে ফ্রি ফায়ারের উন্নত সংস্করণে কাজ চলছে যা ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স নামে পরিচিত।

অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে বন্দুক দিয়ে মসজিদে মুসলমানদের হত্যা এবং সেই দৃশ্য ফেসবুক লাইভের বিষয়টি অনেকেই পাবজির সঙ্গে তুলনা করেন। এসব গেম কোমলমতিদের ওপর মনস্তাত্বিক প্রভাব ফেলছে এবং তরুণদের আগ্রাসী করে তুলছে বলে মত দিয়েছেন মনোবিজ্ঞানীরা।

ছবি

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০২১ এর রেজিস্ট্রেশন শুরু

ছবি

হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সংযোজন

ছবি

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী

ছবি

এখন ফেসবুকে জানা যাবে বাংলাদেশে কোথায় টিকাকেন্দ্র

ছবি

শিক্ষার্থীদের জন্য ডিজিটাল দক্ষতা বিষয়ক কর্মশালা আয়োজন করবে ইউনিভার্সাল কলেজ বাংলাদেশ ও মোনাশ কলেজ অস্ট্রেলিয়া

ছবি

টেক স্টার্টআপ: বাংলাদেশ-ভারত ওয়েবিনার সিরিজ শুরু

ছবি

বাংলাদেশের আইসিটি খাতে ভারতের সহযোগিতা আরো প্রসারিত হবে বলে আমরা আশাবাদী: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

ছবি

এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে দারিদ্র্য দূরীকরণে প্রান্তিক পর্যায়ে ডিজিটাল কানেক্টিভিটি বাড়ানোর আহ্বান বিশেষজ্ঞদের

ফেইসবুকের বিকল্প হিসেবে আসছে ‘যোগাযোগ’

ছবি

বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি মূল্যায়নে প্রথম পুরস্কার গ্রহণ করল আইসিটি বিভাগ

ছবি

মালয়েশিয়াতে প্রবাসী নারীদের নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি

২ হাজারের বেশি হাসপাতালকে ডিজিটাল পদ্ধতির আওতায় আনা হবে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

শুরু হলো ৪র্থ বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াড ২০২১ এর একটিভেশন

ছবি

হুয়াওয়ের সাসটেইনেবিলিটি রিপোর্ট ২০২০ প্রকাশ

ছবি

শুরু হয়েছে অনলাইন শিশু-কিশোর বিজ্ঞান কংগ্রেস ২০২১-এর রেজিষ্ট্রেশন

ছবি

নারী উদ্যেক্তাদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা উন্নয়ন ও ডিজিটালাইজেশনে সহায়তা দেবে লেনোভো

ছবি

ডিজিটাল উদ্ভাবন এবং পরিবেশ সুরক্ষায় অবদান রাখায় আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেলো রবি

ছবি

আইসিটি বিভাগের বিগত অর্থবছরের এডিপি পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত: অগ্রগতি ৮৮ শতাংশ

ছবি

দারাজের নতুন চিফ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার এ.এইচ.এম. হাসিনুল কুদ্দুস (রুশো)

ছবি

বাংলাদেশের সিটি ইউনিভার্সিটি ও চীনের উহান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি ইউনিভার্সিটির মধ্যে চুক্তি

ছবি

বাংলাদেশের সিটি ইউনিভার্সিটি ও চীনের উহান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি ইউনিভার্সিটির মধ্যে চুক্তি

ছবি

মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০২১ এ হুয়াওয়ের পাঁচটি অ্যাওয়ার্ড অর্জন

ছবি

বিভিন্ন দেশের মধ্যে ডিজিটাল কোভিড ভ্যাকসিন পাসপোর্ট চালুর জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি পলকের আহ্বান

ছবি

বৈশ্বিক কার্বন নিঃসরণ ২০ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে আনতে সক্ষম আইসিটি

ছবি

বঙ্গবন্ধুর জীবনী তুলে ধরার জন্য ডিজিটাল মিডিয়া সবচেয়ে শক্তিশালী মাধ্যম: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

ছবি

শুরু হচ্ছে ৬ দিনের বিআইটিএম এডমিশন সামিট জুলাই ২০২১

ছবি

‘এক দেশ এক রেট-কোন পথে বাংলাদেশের ইন্টারনেট’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠিত

ছবি

এসএমই উদ্যোক্তাদের সাস ওয়েবসাইট ও সোশ্যাল সাইটে যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানান বেসিস সভাপতি

ছবি

ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্টার (এনইআইআর) তিন মাসের জন্য পরীক্ষামূলকভাবে চালু

ছবি

‘আমাদের মুজিব’ শীর্ষক রচনা ও ‘মুজিবের কাছে চিঠি’ লেখা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ

ছবি

ব্যবহারকারীদের অনন্য অভিজ্ঞতা দানে মাইক্রোসফট নিয়ে এল উইন্ডোজ ১১

ছবি

ভ্যাট নিবন্ধন নিল মাইক্রোসফট

ছবি

আন্তর্জাতিক সাইবার নিরাপত্তা সূচকে বাংলাদেশের ২৫ ধাপ উন্নতি

ছবি

আইসিটি বিভাগ ও এর অধীন দপ্তর/সংস্থার সাথে ২০২১-২২ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর

ছবি

২০৩০ সালের মধ্যে দেশের বিদ্যালয়সমূহ হাইস্পিড ইন্টারনেট কানেক্টিভিটিতে যুক্ত হবেঃ আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

ছবি

বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস ২০২০: দেশে তৈরি সফটওয়্যার ব্যবহারের আহ্বান জানালেন বাণিজ্যমন্ত্রী

tab

প্রযুক্তি

জনপ্রিয় গেম ফ্রি ফায়ার ও পাবজি বন্ধের সুপারিশ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক
image

শনিবার, ২৯ মে ২০২১

অবশেষে বাংলাদেশে বন্ধই হচ্ছে জনপ্রিয় দুই গেম ফ্রি ফায়ার ও পাবজি। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনে (বিটিআরসি) এরই মধ্যে বিষয়টি নিয়ে সুপারিশ করেছে শিক্ষা ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

দুই মন্ত্রণালয় থেকে এমন সুপারিশ পেয়ে এ নিয়ে আলোচনা করেছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। আলোচনায় ওই দুই গেমের আসক্তি নিয়ে উদ্বেগ জানানো হয়।

এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের আজ শনিবার বিকেলে বলেন, ‘গত সপ্তাহে শিক্ষামন্ত্রী মহোদয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয়ের সঙ্গে কথা বলে বিটিআরসিতে এ দুটি গেম বন্ধের সুপারিশ করেছে। কেননা ওই দুটি গেম কিশোর-কিশোরী ও তরুণদের মধ্যে আসক্তি তৈরি করেছে। এখন বিটিআরসি সিদ্ধান্ত নিবে এ দুটি কবে বন্ধ হচ্ছে।’

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়, করোনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সম্প্রতি গেম দুটিতে মাত্রাতিরিক্ত আসক্তি বেড়েছে শিক্ষার্থীদের।

এদিকে, গত বুধবার বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন এক বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, করোনা মহামারিতে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার ফলে অনলাইনভিত্তিক ক্লাসের জন্য অভিভাবকরা সন্তানদের হাতে ল্যাপটপ, মোবাইল ডিভাইস তুলে দিতে বাধ্য হচ্ছে। এ সুযোগে তরুণ প্রজন্ম এ গেম দুটির প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে।

ফ্রি ফায়ার ও পাবজি আসক্তির ভয়াবহতা তুলে ধরতে উদাহরণ দেন মহিউদ্দিন আহমেদ, গত ২১ মে চাঁদপুরে মামুন (১৪) নামে এক তরুণ মোবাইলের ডেটা কেনার টাকা না পেয়ে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করে।

মহিউদ্দিন বলেন, আমরা যখন আগামীর তরুণ প্রজন্মকে সহজলভ্য দ্রুতগতির ইন্টারনেট প্রাপ্তির জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি, ঠিক তখন আগামী তরুণ প্রজন্ম প্রযুক্তির অপব্যবহার করে বিপথগামী হয়েছে, যা আমাদের ভাবিয়ে তুলেছে। টেলিযোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং নিয়ন্ত্রক কমিশনকে দ্রুত এবং দ্রুততার সহিত এ গেমগুলোর অপব্যবহার বন্ধ এবং প্রযুক্তির ভালো দিক তুলে ধরতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি জনসচেতনতা গড়তে আহ্বান জানাচ্ছি।

এ ছাড়া আরও কিছু কারণ দেখানো হয়েছে গেম দুটি বন্ধের বিষয়ে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এ ধরনের গেম খেলার ফলে বিপুল পরিমাণ অর্থ বিদেশে চলে যাচ্ছে। অনলাইনে গেম খেলার পাশাপাশি ভার্চুয়ালি অর্থ লেনদেন হচ্ছে এমএমএস প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে। আর এতে করে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রাষ্ট্র, সমাজ, ব্যক্তি ও পরিবার।

সম্প্রতি নেপালে পাবজি নিষিদ্ধ করে দেশটির আদালত। একই কারণে ভারতের গুজরাটেও এ গেম খেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল। এমনকি গেমটি খেলার জন্য কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছিল। বাংলাদেশেও পাবজি সাময়িকভাবে বন্ধ করা হয়েছিল, পরে আবার চালু করা হয়।

চীনা প্রতিষ্ঠানের ২০১৯ সালে তৈরি করা যুদ্ধ গেম ফ্রি ফায়ার ২০১৭ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার গেম ডেভেলপার প্রতিষ্ঠান ব্লু হোয়েলের অনলাইন ভিডিও গেমটির মতোই। ২০১৯ সালে এটি বিশ্বব্যাপী সর্বাধিক ডাউনলোড করা মোবাইল গেম। গেমটি অন্য খেলোয়াড়কে হত্যা করার জন্য অস্ত্র এবং সরঞ্জামের সন্ধানে একটি দ্বীপে প্যারাসুট থেকে পরা ৫০ জন ও তার অধিক খেলোয়াড়কে অন্তর্ভুক্ত করে। বর্তমানে ফ্রি ফায়ারের উন্নত সংস্করণে কাজ চলছে যা ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স নামে পরিচিত।

অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে বন্দুক দিয়ে মসজিদে মুসলমানদের হত্যা এবং সেই দৃশ্য ফেসবুক লাইভের বিষয়টি অনেকেই পাবজির সঙ্গে তুলনা করেন। এসব গেম কোমলমতিদের ওপর মনস্তাত্বিক প্রভাব ফেলছে এবং তরুণদের আগ্রাসী করে তুলছে বলে মত দিয়েছেন মনোবিজ্ঞানীরা।

back to top