alt

সম্পাদকীয়

রংপুরের আবহাওয়া অফিসে রাডার বসানো হোক

: সোমবার, ১৬ মে ২০২২

রংপুর আবহাওয়া অফিসের রাডারটি অকেজো হয়ে আছে এক দশকেরও বেশি সময় ধরে। ফলে আবহাওয়ার আগাম বার্তা পেতে ঢাকাসহ অন্যান্য আবহাওয়া অফিসের তথ্যের ওপর নির্ভর করতে হয়। এতে যেমন সময়ক্ষেপণ হয়, তেমনি যথাসময়ে আবহাওয়ার তথ্য পাওয়া যায় না। এ নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এখন প্রাকৃতিক দুর্যোগও বাড়ছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ আবহাওয়া পূর্বাভাস না পাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রংপুরের আশপাশের প্রায় ৪০০-৫০০ কিলোমিটার এলাকার বাসিন্দারা। তারা দুর্যোগের আগাম প্রস্তুতি নিতে ব্যর্থ হচ্ছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এলাকার কৃষকরা। অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি, তীব্র তাপপ্রবাহ, অসময়ে কালবৈশাখী, শিলাবৃষ্টিসহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগই অনেকটা মোকাবিলা করতে হচ্ছে আবহাওয়ার পূর্বাভাস ছাড়াই। ফলে কৃষিনির্ভর স্থানীয় অর্থনীতি পড়েছে সংকটে। তাদের উৎপাদন ব্যয় বেড়েছে, প্রায়ই নষ্ট হচ্ছে খেতের ফসল।

কৃষিকাজে আবহাওয়ার আগাম খবর জানা খুবই গুরুত্বপর্ণ। রাডার ব্যবহার করে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ, কালবৈশাখীর কারণে শিলাবৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা ও ঘূর্ণিঝড় প্রবাহের দিকনির্ণয় করা হয়। তাছাড়া রাডার থেকে প্রাপ্ত চিত্র দেখে কালবৈশাখীর কারণে শিলাবৃষ্টি হওয়ার আগাম পূর্বাভাসও করা যায়। যদিও ঢাকার সঙ্গে সমন্বয় করে এখন কাজ করা হচ্ছে। তারপরও স্থানীয় আবহাওয়া অফিসের তথ্যের সঙ্গে এর পার্থক্য থেকেই যায়। স্থানীয়ভাবে যতটা গুরুত্ব দিয়ে এলাকাভেদে আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়া হতো, কেন্দ্রীয়ভাবে সেটা সম্ভব নয়। উত্তরবঙ্গের ভূপ্রকৃতি দেশের অন্যান্য অঞ্চল থেকে আলাদা।

এক দশকেরও বেশি সময় ধরে রংপুরের রাডারটি অচল হয়ে পড়ে আছে। যদিও এর আয়ুষ্কাল শেষ হয়েছিল এক যুগেরও পূর্বে। এতদিনেও সেখানে রাডার হয়নি। এ কারণে প্রশ্ন উঠেছে যে, সংশ্লিষ্টরা এর গুরুত্ব ও প্রয়োজন সঠিকভাবে উপলব্ধি করতে পারছে কিনা।

আশার কথা হলো, রংপুরে নতুন ডপলার রাডার স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। গাজীপুর আবহাওয়া কার্যালয়ে এ রাডারের কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন রংপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ। আমরা আশা করবো, এ কাজ সময়মতো শেষ হবে, যথাসময়ে রাডার স্থাপন করা হবে। কোন কারণে যেন এ কাজ পিছিয়ে না যায়।

নওগাঁয় সড়ক নির্মাণে অনিয়ম

জন্মনিবন্ধনে বাড়তি ফি আদায় বন্ধ করুন

দ্রুত বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ সংস্কার করুন

শিক্ষক লাঞ্ছনা ও শিক্ষক সংগঠনগুলোর ভূমিকা

আবাসিক হলগুলোতে শিক্ষার্থী নির্যাতন বন্ধ করুন

বন্যাপরবর্তী পুনর্বাসন কাজে সর্বাত্মক উদ্যোগ নিতে হবে

রাজধানীর খালগুলোকে দখলমুক্ত করুন

ভোজ্যতেলের দাম দেশের বাজারে কেন কমছে না

টিসিবির কার্ড বিতরণে অনিয়ম

রেলের দুর্দশা

ভূমিকম্পে বিপর্যস্ত আফগানিস্তানের পাশে দাঁড়ান

কিশোর-কিশোরী ক্লাবের নামে হরিলুট

চাই টেকসই বন্যা ব্যবস্থাপনা

উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা কার্যক্রমে হরিলুট বন্ধ করুন

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো নিয়ে বিতর্ক

ছত্রাকজনিত রোগের চিকিৎসা প্রসঙ্গে

পাহাড় ধসে মৃত্যু থামবে কবে

বজ্রপাতে মৃত্যু প্রতিরোধে জনসচেতনতা বাড়াতে হবে

এবার কি জলাবদ্ধতা থেকে রাজধানীবাসীর মুক্তি মিলবে

ফেরির টিকিট নিয়ে দালালদের অপতৎপরতা বন্ধ করুন

বন্যার্তদের সর্বাত্মক সহায়তা দিন

চিংড়ি পোনা নিধন প্রসঙ্গে

টানবাজারের রাসায়নিক দোকানগুলো সরিয়ে নিন

নদীর তীরের মাটি কাটা বন্ধে ব্যবস্থা নিন

মাদক বাণিজ্য বন্ধ করতে হলে শর্ষের ভূত তাড়াতে হবে

শূন্যপদে দ্রুত শিক্ষক নিয়োগ দিন

বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ান

ডেঙ্গু প্রতিরোধে এখনই সতর্ক হোন

বখাটেদের যন্ত্রণা থেকে নারীর মুক্তি মিলবে কীভাবে

নওগাঁয় আম চাষিদের হিমাগার স্থাপনের দাবি

বস্তিবাসী নারীদের জন্য চাই নিরাপদ গোসলখানা

শিল্পবর্জ্যে বিপন্ন পরিবেশ

বস্তিবাসীর সমস্যার টেকসই সমাধান করতে হবে

শিশু নিপীড়ন রোধের দায়িত্ব নিত হবে সমাজকে

বিজেপির দুই নেতার বিরুদ্ধে ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগ প্রসঙ্গে

অনুকরণীয় উদাহরণ

tab

সম্পাদকীয়

রংপুরের আবহাওয়া অফিসে রাডার বসানো হোক

সোমবার, ১৬ মে ২০২২

রংপুর আবহাওয়া অফিসের রাডারটি অকেজো হয়ে আছে এক দশকেরও বেশি সময় ধরে। ফলে আবহাওয়ার আগাম বার্তা পেতে ঢাকাসহ অন্যান্য আবহাওয়া অফিসের তথ্যের ওপর নির্ভর করতে হয়। এতে যেমন সময়ক্ষেপণ হয়, তেমনি যথাসময়ে আবহাওয়ার তথ্য পাওয়া যায় না। এ নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এখন প্রাকৃতিক দুর্যোগও বাড়ছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ আবহাওয়া পূর্বাভাস না পাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রংপুরের আশপাশের প্রায় ৪০০-৫০০ কিলোমিটার এলাকার বাসিন্দারা। তারা দুর্যোগের আগাম প্রস্তুতি নিতে ব্যর্থ হচ্ছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এলাকার কৃষকরা। অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি, তীব্র তাপপ্রবাহ, অসময়ে কালবৈশাখী, শিলাবৃষ্টিসহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগই অনেকটা মোকাবিলা করতে হচ্ছে আবহাওয়ার পূর্বাভাস ছাড়াই। ফলে কৃষিনির্ভর স্থানীয় অর্থনীতি পড়েছে সংকটে। তাদের উৎপাদন ব্যয় বেড়েছে, প্রায়ই নষ্ট হচ্ছে খেতের ফসল।

কৃষিকাজে আবহাওয়ার আগাম খবর জানা খুবই গুরুত্বপর্ণ। রাডার ব্যবহার করে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ, কালবৈশাখীর কারণে শিলাবৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা ও ঘূর্ণিঝড় প্রবাহের দিকনির্ণয় করা হয়। তাছাড়া রাডার থেকে প্রাপ্ত চিত্র দেখে কালবৈশাখীর কারণে শিলাবৃষ্টি হওয়ার আগাম পূর্বাভাসও করা যায়। যদিও ঢাকার সঙ্গে সমন্বয় করে এখন কাজ করা হচ্ছে। তারপরও স্থানীয় আবহাওয়া অফিসের তথ্যের সঙ্গে এর পার্থক্য থেকেই যায়। স্থানীয়ভাবে যতটা গুরুত্ব দিয়ে এলাকাভেদে আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়া হতো, কেন্দ্রীয়ভাবে সেটা সম্ভব নয়। উত্তরবঙ্গের ভূপ্রকৃতি দেশের অন্যান্য অঞ্চল থেকে আলাদা।

এক দশকেরও বেশি সময় ধরে রংপুরের রাডারটি অচল হয়ে পড়ে আছে। যদিও এর আয়ুষ্কাল শেষ হয়েছিল এক যুগেরও পূর্বে। এতদিনেও সেখানে রাডার হয়নি। এ কারণে প্রশ্ন উঠেছে যে, সংশ্লিষ্টরা এর গুরুত্ব ও প্রয়োজন সঠিকভাবে উপলব্ধি করতে পারছে কিনা।

আশার কথা হলো, রংপুরে নতুন ডপলার রাডার স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। গাজীপুর আবহাওয়া কার্যালয়ে এ রাডারের কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন রংপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ। আমরা আশা করবো, এ কাজ সময়মতো শেষ হবে, যথাসময়ে রাডার স্থাপন করা হবে। কোন কারণে যেন এ কাজ পিছিয়ে না যায়।

back to top