alt

বাংলাদেশ

হাত বাড়ালেই হাই-ভোল্টেজ তার! আতঙ্কে শতাধিক পরিবার

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)
image
বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার আড়পাড়া ও চাপালী কুঠিপাড়া গ্রামের উপর দিয়ে যাওয়া ৩৩ হাজারের ‘হাই-ভোল্টেজ’ তারের নিচে চরম ঝুঁকির মধ্যে বসবাস করছে প্রায় শতাধিক পরিবারের লোকজন। এ বিভাগের নিয়ম অনুসারে ‘হাই-ভোল্টেজ’-এ তারের সঞ্চালন লাইনের নিচে কোন বসতবাড়ি বা স্থাপনা থাকার কথা না। পাশে কমপক্ষে ১০ ফুট ফাঁকা থাকতে হবে। কিন্তু বসতঘরের পাশ ঘেষেই ঝুলছে চরম ঝুঁকিপূর্ণ হাই ভোল্টেজের বিপজ্জনক তার। এ সমস্যা থেকে রেহাই পেতে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত আবেদন করলেও সমাধানে কর্তৃপক্ষের কোন নজর নেই।

সরেজমিনে কালীগঞ্জ পৌর এলাকার আড়পাড়ার মধূপট্টি, নদীপাড়া, মাঠপাড়া,দরগাপাড়া,চাপালী কুঠিপাড়াসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণভাবে ঝুলে আছে ৩৩ হাজার হাই-ভোল্টেজের সঞ্চালন বিদ্যুত লাইনের তার।

আড়পাড়া দরগাপাড়া গ্রামের ব্যাংকার মোজাম্মেল হক ও পল্লী চিকিৎসক আব্দুল জব্বার জানান, তাদের বসতঘরের একবারে নিকট দিয়ে চলে গেছে হাই ভোল্টেজের এ বিদ্যুৎ লাইন। যে কারণে সব সময় পরিবারের শিশুদের নিয়ে চিন্তায় থাকতে হয়।

এ এলাকার আরেক বাসিন্দা হাবিব ওসমান জানান, আজ থেকে ৪০ বছর আগে বিদ্যুতের লাইনটি টানা হয়। তখন এতো জনবসতি ছিলনা। এখন ঘনবসতি গড়ে উঠেছে। আবার উদাসীনতার কারণে অনেকে বিপদজনক তার ঘেষেই ঘর তুলেছেন। এ এলাকায় অহরোহ ঘটছে দুর্ঘটনা। এলাকার সচেতন মহল দীর্ঘদিন ধরে তাদের ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার কথা সংশ্লিষ্ট বিভাগকে জানালেও কোন সুরাহা হয়নি। এ সমস্ত এলাকার বাসিন্দারা জানান, তাদের বাসাবাড়ির ছাদ বা ঘরের অল্প ওপর দিয়েই চলে গেছে লাইন। যে কারণে অনেকে ঘরও করতে নির্মাণ করতে পারছে না। বসত বাড়ির ওপর দিয়ে যাওয়া বিপদজনক এই তারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ যদি কভার পরানো দিয়ে তাহলেও কিছুটা হলেও নিরাপদে বসবাস করতে পারত।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকোর) ভারপ্রাপ্ত আবাসিক প্রকৌশলী সাইদুল ইসলাম জানান, এটা অনেক আগে স্থাপিত হয়েছে। এ বিষয়ে ৩ মাস আগে ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আমি বিদ্যুৎ এলাকাটি সরেজমিনে পরিদর্শন করি। তিনি জানান, আসলেই পরিবারগুলো খুবই ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাস করছে। বিষয়টি উপরের কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।

ছবি

লকডাউন ও করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত রূপগঞ্জের কর্মহীনদের মাঝে ঈদসামগ্রী বিতরণ

ছবি

চট্টগ্রামের দুর্গম পাহাড়ে ভেজাল মদের কারখানা

ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব : আরও ৩ জন গ্রেফতার

ছবি

বাসচাপায় প্রাণ গেল দুই মোটরসাইকেল আরোহীর

ছবি

উপাচার্যদের দুর্নীতির তদন্ত, কোন ব্যবস্থা নেয়া হয় না

ছবি

বিজিবি দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না জনস্রোত

ছবি

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট : সতর্ক বার্তা জনস্বাস্থ্যবিদদের

ছবি

কক্সবাজার শহরে অস্ত্র-গুলিসহ ৩ সন্ত্রাসী আটক

ছবি

ভাড়াটিয়া কর্তৃক অবরুদ্ধ হোটেল কল্লোল’র মালিক!

ছবি

ময়মনসিংহে সিটি কর্পোরেশনের ঈদ উপহার বিতরণ

ছবি

এনার্জিপ্যাকের ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক উদ্বোধন

ছবি

অর্ধেক দামে মোটরসাইকেল দিচ্ছে থলে ডট এক্সওয়াইজেড

ছবি

করোনাকালে অসহায় মানুষের জন্য তাসাউফ ফাউন্ডেশনের “পাশেই আছি” কর্মসূচী পালন

ছবি

অব্যবহৃতই থাকছে আবু নাসের হাসপাতালের পরিচালক, উপ-পরিচালকের বাসভবন

ছবি

বিয়ানীবাজারে ঈদ শপিংয়ে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

ছবি

চেয়ারম্যানের অত্যাচার নির্যাতন থেকে বাচঁতে প্রধানমন্ত্রীর সহানুভূতি কামনা

ছবি

নওগাঁয় বিভিন্ন রোগিদের সরকারী সহায়তা প্রদান

ছবি

নারায়ণগঞ্জে করোনা হাসপাতালে বসেছে অক্সিজেন ট্যাংক

ছবি

মামুনুলের রিমান্ড শুনানি পেছাল

ছবি

সিলেটে মাজারে রক্তের ছােপ

ছবি

জাফলংয়ে সিরাত প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ সম্পন্ন

ছবি

পত্নীতলায় গোল্ডেন তরমুজ চাষে সফল মিজানুর

ছবি

করোনা: গ্রামের মানুষের রঙ্গরস

ছবি

মির্জাপুরে মাটি ব্যবসায়ীর তিনদিনের জেল

ছবি

মির্জাপুরে ঈমামদের সম্মানি প্রদান

বিশেষ মহলের চাপে বন্ধ বাসদের মানবতার বাজার

কিশোরগঞ্জে মনি সিংহ ফরহাদ ট্রাস্টের ত্রাণ

ছবি

করতোয়ার বালু তুলে তীর ভরাট, হুমকিতে সড়ক : ভাঙন আশঙ্কা

সোনাইমুড়িতে যুবককে পিটিয়ে হত্যা : আটক ২

ছবি

অনাবৃষ্টিতে সেচ সংকট বীজতলা ফেটে চৌচির

বাইক হাতে বেপরোয়া কিশোররা : নিত্য দুর্ঘটনা

ফেসবুক স্ট্যাটাসে ধর্ম অবমাননা, আটক : এক

ছবি

শিল্পে ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবহার টিউবওয়েলে উঠছে না পানি

পঞ্চগড় সড়কে মৃত্যু ১

ঈশ্বরদীতে হেরোইনসহ যুবক গ্রেফতার

মির্জাগঞ্জে মাস্ক না পড়ায় ৮ জনকে জরিমানা

tab

বাংলাদেশ

হাত বাড়ালেই হাই-ভোল্টেজ তার! আতঙ্কে শতাধিক পরিবার

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)
image
বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার আড়পাড়া ও চাপালী কুঠিপাড়া গ্রামের উপর দিয়ে যাওয়া ৩৩ হাজারের ‘হাই-ভোল্টেজ’ তারের নিচে চরম ঝুঁকির মধ্যে বসবাস করছে প্রায় শতাধিক পরিবারের লোকজন। এ বিভাগের নিয়ম অনুসারে ‘হাই-ভোল্টেজ’-এ তারের সঞ্চালন লাইনের নিচে কোন বসতবাড়ি বা স্থাপনা থাকার কথা না। পাশে কমপক্ষে ১০ ফুট ফাঁকা থাকতে হবে। কিন্তু বসতঘরের পাশ ঘেষেই ঝুলছে চরম ঝুঁকিপূর্ণ হাই ভোল্টেজের বিপজ্জনক তার। এ সমস্যা থেকে রেহাই পেতে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত আবেদন করলেও সমাধানে কর্তৃপক্ষের কোন নজর নেই।

সরেজমিনে কালীগঞ্জ পৌর এলাকার আড়পাড়ার মধূপট্টি, নদীপাড়া, মাঠপাড়া,দরগাপাড়া,চাপালী কুঠিপাড়াসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণভাবে ঝুলে আছে ৩৩ হাজার হাই-ভোল্টেজের সঞ্চালন বিদ্যুত লাইনের তার।

আড়পাড়া দরগাপাড়া গ্রামের ব্যাংকার মোজাম্মেল হক ও পল্লী চিকিৎসক আব্দুল জব্বার জানান, তাদের বসতঘরের একবারে নিকট দিয়ে চলে গেছে হাই ভোল্টেজের এ বিদ্যুৎ লাইন। যে কারণে সব সময় পরিবারের শিশুদের নিয়ে চিন্তায় থাকতে হয়।

এ এলাকার আরেক বাসিন্দা হাবিব ওসমান জানান, আজ থেকে ৪০ বছর আগে বিদ্যুতের লাইনটি টানা হয়। তখন এতো জনবসতি ছিলনা। এখন ঘনবসতি গড়ে উঠেছে। আবার উদাসীনতার কারণে অনেকে বিপদজনক তার ঘেষেই ঘর তুলেছেন। এ এলাকায় অহরোহ ঘটছে দুর্ঘটনা। এলাকার সচেতন মহল দীর্ঘদিন ধরে তাদের ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার কথা সংশ্লিষ্ট বিভাগকে জানালেও কোন সুরাহা হয়নি। এ সমস্ত এলাকার বাসিন্দারা জানান, তাদের বাসাবাড়ির ছাদ বা ঘরের অল্প ওপর দিয়েই চলে গেছে লাইন। যে কারণে অনেকে ঘরও করতে নির্মাণ করতে পারছে না। বসত বাড়ির ওপর দিয়ে যাওয়া বিপদজনক এই তারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ যদি কভার পরানো দিয়ে তাহলেও কিছুটা হলেও নিরাপদে বসবাস করতে পারত।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকোর) ভারপ্রাপ্ত আবাসিক প্রকৌশলী সাইদুল ইসলাম জানান, এটা অনেক আগে স্থাপিত হয়েছে। এ বিষয়ে ৩ মাস আগে ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আমি বিদ্যুৎ এলাকাটি সরেজমিনে পরিদর্শন করি। তিনি জানান, আসলেই পরিবারগুলো খুবই ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাস করছে। বিষয়টি উপরের কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।

back to top