alt

বাংলাদেশ

নিষেধাজ্ঞা ও স্বাস্থ্য হুমকি উপেক্ষা করে মৎস্য ঘেরে মুরগির খামার

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, বরিশাল
image
রোববার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯

সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছের খাদ্য হিসেবে বরিশালের অধিকাংশ মাছের ঘেরে মৎস্য চাষিরা ব্যবহার করছেন ক্ষতিকর মুরগির মল। যা জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। মুরগির মলের কারণে ক্ষতিকর দিক বিবেচনায় বর্তমানে অনেকেই চাষের মাছ খাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন।

সূত্রমতে, জেলার ছোট-বড় কয়েক হাজার খামারে বিভিন্ন প্রজাতির মাছের চাষ করা হয়ে থাকে। ওইসব খামারের মাছ স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে প্রতিদিনই দেশের বিভিন্নস্থানে রফতানি হয়ে থাকে। মৎস্যচাষে সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে জেলার অনেক চাষি ইতোমধ্যে পুরস্কারও পেয়েছেন। তবে মাছের খাদ্যের দাম অতিরিক্ত বেড়ে যাওয়ায় এখন মাছের খাদ্য হিসেবে মুরগির মল ব্যবহার করছেন স্থানীয় মৎস্যচাষিরা। কম দামে পাওয়া মুরগির মল জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর জেনেও খাদ্য হিসেবে তা মাছের খামারে ব্যবহার করছেন চাষিরা।

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার কার্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত এক চিকিৎসক জানান, মুরগির মলের সঙ্গে যেসব সামগ্রী থাকে আবার মাছের মধ্য দিয়ে মানুষের শরীরে প্রবেশ করলে তা মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকিকে বাড়িয়ে দেয়। তাছাড়া মুরগির মলে থাকা অতিরিক্ত ক্যালসিয়াম, ফসফরাস পুকুরের পরিবেশ ও পানি নষ্ট করে। ওই উপাদানগুলো পানিতে অক্সিজেনের স্বল্পতা ঘটানোর মাধ্যমে মাছের স্বাস্থ্যের ক্ষতি ও রোগ জীবাণু বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

শেবাচিম হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলেন, মুরগির খাবারে নানারকম এন্টিবায়োটিক ও কেমিকেল থাকায় সেগুলো মলের মাধ্যমে মাছের শরীরে প্রবেশ করে। এগুলো সহজে ধ্বংস হয় না। তাই এগুলো মাছের মাধ্যমে পরে মানুষের শরীরে প্রবেশ করে ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগের জন্ম নেবার সম্ভাবনা থাকে। এজন্যই মাছের খাবার হিসেবে মুরগির মল ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে সরকার। জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. নূর আলম জানান, নিরাপদ খাদ্যের জন্য মুরগির মল মাছের খাবার হিসেবে ব্যবহার করাটা জনস্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

ছবি

চট্টগ্রামের দুর্গম পাহাড়ে ভেজাল মদের কারখানা

ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব : আরও ৩ জন গ্রেফতার

ছবি

বাসচাপায় প্রাণ গেল দুই মোটরসাইকেল আরোহীর

ছবি

উপাচার্যদের দুর্নীতির তদন্ত, কোন ব্যবস্থা নেয়া হয় না

ছবি

বিজিবি দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না জনস্রোত

ছবি

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট : সতর্ক বার্তা জনস্বাস্থ্যবিদদের

ছবি

কক্সবাজার শহরে অস্ত্র-গুলিসহ ৩ সন্ত্রাসী আটক

ছবি

ভাড়াটিয়া কর্তৃক অবরুদ্ধ হোটেল কল্লোল’র মালিক!

ছবি

ময়মনসিংহে সিটি কর্পোরেশনের ঈদ উপহার বিতরণ

ছবি

এনার্জিপ্যাকের ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক উদ্বোধন

ছবি

অর্ধেক দামে মোটরসাইকেল দিচ্ছে থলে ডট এক্সওয়াইজেড

ছবি

করোনাকালে অসহায় মানুষের জন্য তাসাউফ ফাউন্ডেশনের “পাশেই আছি” কর্মসূচী পালন

ছবি

অব্যবহৃতই থাকছে আবু নাসের হাসপাতালের পরিচালক, উপ-পরিচালকের বাসভবন

ছবি

বিয়ানীবাজারে ঈদ শপিংয়ে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

ছবি

চেয়ারম্যানের অত্যাচার নির্যাতন থেকে বাচঁতে প্রধানমন্ত্রীর সহানুভূতি কামনা

ছবি

নওগাঁয় বিভিন্ন রোগিদের সরকারী সহায়তা প্রদান

ছবি

নারায়ণগঞ্জে করোনা হাসপাতালে বসেছে অক্সিজেন ট্যাংক

ছবি

মামুনুলের রিমান্ড শুনানি পেছাল

ছবি

সিলেটে মাজারে রক্তের ছােপ

ছবি

জাফলংয়ে সিরাত প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ সম্পন্ন

ছবি

পত্নীতলায় গোল্ডেন তরমুজ চাষে সফল মিজানুর

ছবি

করোনা: গ্রামের মানুষের রঙ্গরস

ছবি

মির্জাপুরে মাটি ব্যবসায়ীর তিনদিনের জেল

ছবি

মির্জাপুরে ঈমামদের সম্মানি প্রদান

বিশেষ মহলের চাপে বন্ধ বাসদের মানবতার বাজার

কিশোরগঞ্জে মনি সিংহ ফরহাদ ট্রাস্টের ত্রাণ

ছবি

করতোয়ার বালু তুলে তীর ভরাট, হুমকিতে সড়ক : ভাঙন আশঙ্কা

সোনাইমুড়িতে যুবককে পিটিয়ে হত্যা : আটক ২

ছবি

অনাবৃষ্টিতে সেচ সংকট বীজতলা ফেটে চৌচির

বাইক হাতে বেপরোয়া কিশোররা : নিত্য দুর্ঘটনা

ফেসবুক স্ট্যাটাসে ধর্ম অবমাননা, আটক : এক

ছবি

শিল্পে ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবহার টিউবওয়েলে উঠছে না পানি

পঞ্চগড় সড়কে মৃত্যু ১

ঈশ্বরদীতে হেরোইনসহ যুবক গ্রেফতার

মির্জাগঞ্জে মাস্ক না পড়ায় ৮ জনকে জরিমানা

কলাপাড়ায় যুবকের মরদেহ উদ্ধার

tab

বাংলাদেশ

নিষেধাজ্ঞা ও স্বাস্থ্য হুমকি উপেক্ষা করে মৎস্য ঘেরে মুরগির খামার

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, বরিশাল
image
রোববার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯

সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছের খাদ্য হিসেবে বরিশালের অধিকাংশ মাছের ঘেরে মৎস্য চাষিরা ব্যবহার করছেন ক্ষতিকর মুরগির মল। যা জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। মুরগির মলের কারণে ক্ষতিকর দিক বিবেচনায় বর্তমানে অনেকেই চাষের মাছ খাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন।

সূত্রমতে, জেলার ছোট-বড় কয়েক হাজার খামারে বিভিন্ন প্রজাতির মাছের চাষ করা হয়ে থাকে। ওইসব খামারের মাছ স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে প্রতিদিনই দেশের বিভিন্নস্থানে রফতানি হয়ে থাকে। মৎস্যচাষে সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে জেলার অনেক চাষি ইতোমধ্যে পুরস্কারও পেয়েছেন। তবে মাছের খাদ্যের দাম অতিরিক্ত বেড়ে যাওয়ায় এখন মাছের খাদ্য হিসেবে মুরগির মল ব্যবহার করছেন স্থানীয় মৎস্যচাষিরা। কম দামে পাওয়া মুরগির মল জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর জেনেও খাদ্য হিসেবে তা মাছের খামারে ব্যবহার করছেন চাষিরা।

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার কার্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত এক চিকিৎসক জানান, মুরগির মলের সঙ্গে যেসব সামগ্রী থাকে আবার মাছের মধ্য দিয়ে মানুষের শরীরে প্রবেশ করলে তা মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকিকে বাড়িয়ে দেয়। তাছাড়া মুরগির মলে থাকা অতিরিক্ত ক্যালসিয়াম, ফসফরাস পুকুরের পরিবেশ ও পানি নষ্ট করে। ওই উপাদানগুলো পানিতে অক্সিজেনের স্বল্পতা ঘটানোর মাধ্যমে মাছের স্বাস্থ্যের ক্ষতি ও রোগ জীবাণু বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

শেবাচিম হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলেন, মুরগির খাবারে নানারকম এন্টিবায়োটিক ও কেমিকেল থাকায় সেগুলো মলের মাধ্যমে মাছের শরীরে প্রবেশ করে। এগুলো সহজে ধ্বংস হয় না। তাই এগুলো মাছের মাধ্যমে পরে মানুষের শরীরে প্রবেশ করে ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগের জন্ম নেবার সম্ভাবনা থাকে। এজন্যই মাছের খাবার হিসেবে মুরগির মল ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে সরকার। জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. নূর আলম জানান, নিরাপদ খাদ্যের জন্য মুরগির মল মাছের খাবার হিসেবে ব্যবহার করাটা জনস্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

back to top