alt

বাংলাদেশ

একদিনের নোটিশে গণপরিবহন ছাড়া কারখানা খুলে শ্রমিক হয়রানির প্রতিবাদ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১

একদিনের নোটিশে গণপরিবহন ও নিরাপত্তা ছাড়া কারখানা খুলে শ্রমিক হয়রানির প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতি। শনিবার (৩১ জুলাই) শ্রমিক সংগঠনটির উদ্যোগে সব শ্রমিক এলাকায় যার যার জায়গায় দাঁড়িয়ে নেতাকর্মীরা এই প্রতিবাদ জানান।

শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে বেলা সাড়ে ১২টায় গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতির কেন্দ্রীয় সভা প্রধান তাসলিমা আখ্তার, সাধারণ সম্পাদক জুলহাসনাইন বাবু, অর্থ সম্পাদক প্রবীর সাহা এবং দপ্তর সম্পাদক মুসা কলিমুল্লাহ প্রতিবাদ জানান।

একই সময়ে আশুলিয়া, সাভার, মিরপুর, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রামসহ দেশে শ্রমিক অঞ্চলে শ্রমিকদের সঙ্গে নিয়ে প্রতিবাদ জানান গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতির স্থানীয় নেতারা। দেশে শ্রমিকসহ সব শ্রেণী-পেশার নাগরিকদের এই ঘটনার প্রতিবাদে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে ছবিসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদ ও প্রচারণার আহ্বানও জানান তারা।

আশুলিয়ায় কার্যালয়ের সামনে আশুলিয়া শাখার সভাপ্রধান বাবুল হোসেন, শামীম হোসেন, আশরাফ, শাহিদা বেগম, ফারিয়া রহমান, বিল্লাল হোসেনসহ নেতারা প্রতিবাদ জানান।

সাভারে রানা প্লাজা শাখার উদ্যোগে রানা প্লাজা কার্যালয়ের সামনে সংগঠক সেলিনা আক্তারসহ নেতৃবৃন্দ যার যার জায়গায় প্রতিবাদী প্ল্যাকার্ড নিয়ে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ জানান। মিরপুরে মজনু মিয়া, নুরুল ইসলাম, জেসমিনসহ অন্যান্য নেতৃত্ব রূপনগরের দুয়ারীপাড়ায় প্রতিবাদ জানান।

নারায়ণগঞ্জে বন্দর পুলিশ ফাঁড়ির সামনে নারায়ণগঞ্জের সভা প্রধান অঞ্জন দাস, সাধারণ সম্পাদক কাওসার হামিদসহ অন্য নেতত্ব ও শ্রমিকরা প্রতিবাদে অংশ নেন। চট্টগ্রামে কেন্দ্রীয় সহ-সভাপ্রধান এবং চট্টগ্রামের নেতা হাসান মারুফ রুমি, নুরুল ইসলাম, শহীদ শিমুলসহ অন্যান্যরা প্রতিবাদ জানান। এছাড়া শ্রমিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার ব্যক্তিরা সংহতি জানিয়ে যার যার অবস্থানে প্রতিবাদ জানান ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদী প্রচার চালান।

প্রতিবাদসমূহে কেন্দ্রীয় সভাপ্রধান তাসলিমা আখ্তার, সাধারণ সম্পাদক ও অন্যান্য নেতৃত্বরা বলেন, আজ থেকে পরিবহন ছাড়া আবারও কারখানার দিকে লাখো শ্রমিকের ঢল নামছে। শনিবার সন্ধ্যায় কোনরকম গণপরিবহন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত না করে অকস্মাৎ কারখানা খোলার সিদ্ধান্তে শ্রমিকরা চরম হয়রানির শিকার হচ্ছেন, যা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক।

ছবি

ইউপি নির্বাচন : সহিংসতা সংঘর্ষ গোলাগুলি, নিহত ২

ছবি

তিনবিঘা পরিদর্শন করলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

ছবি

ঝালকাঠির রাস্তায় অসুস্থ ২ শিশু সন্তানকে ফেলে মা উধাও

ছবি

টিকা রপ্তানি শুরু হলে বাংলাদেশ আগেই পাবে: ভারতীয় হাই কমিশন

ছবি

নিরাপদ শহরের সূচকে ঢাকার উন্নতি

ছবি

বাংলাদেশের ১১০ নৌসেনা জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা পদক পেলেন

ছবি

দুয়েকটি ঘটনা ছাড়া নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে: ইসি সচিব

ছবি

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে ১৬৫০ কর্মকর্তার নিয়োগ বৈধ

ছবি

দুর্গাপূজায় ৩ কোটি টাকার অনুদান দিলেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

কনডেম সেল বিষয়ে প্রতিবেদন চাইল হাইকোর্ট

ছবি

সাংবাদিক নেতাদের ভীতি প্রদর্শনের জন্য ব্যাংক হিসাব তলব: মির্জা ফখরুল

টেকনাফে চার ইউনিয়নে ভোট শেষ, গণনা চলছে

ছবি

স্বাশিপের সভাপতি ড. আবদুল মান্নান চৌধূরী ও সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান সাজু পূন:নির্বাচিত

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃত করায় ৭ বছরের কারাদন্ড

ছবি

বাগেরহাটে দুই প্রার্থীর ভোট বর্জন, সহিংসতায় ৫০ জন আহত

ছবি

টাকা বিনিয়োগ করে গ্রাহক নিঃস্ব হওয়ার পরই ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার: হাইকোর্ট

খুলনায় ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীদের সংঘর্ষ, ককটেল বিস্ফোরণে আহত ৫

ছবি

পাসপোর্ট সংশোধনের সুযোগ দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন

হাতিয়ায় আ.লীগের প্রার্থীসহ ৬ প্রার্থীর ভোট বর্জন

ছবি

ছাদবাগানে জায়গা হয়নি কেশরদাম ফুলের

নোয়াখালীতে হার্ট অ্যাটাকে বিএনপি নেতার মৃত্যু

ছবি

কক্সবাজারে নির্বাচনী সহিংসতা : নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২

ছবি

কক্সবাজারে ভোটকেন্দ্রে গোলাগুলিতে নিহত ১, গুলিবিদ্ধ ৪

ছবি

ইউপি নির্বাচনে বিনাপ্র্রতিদ্বন্দ্বিতার হার বাড়ছে

করোনা সংক্রমণ নিম্নমুখী

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে যুবলীগ নেতাকে অভ্যর্থনা মিল্কি হত্যার আসামি চঞ্চলের

আগের লাঙল যেভাবে যায়, পেছনের লাঙল সেভাবেই যায়

ছবি

কুয়াকাটা পর্যটন সৈকত প্রায় গিলে খাচ্ছে সাগর

ছবি

দীর্ঘ চব্বিশ বছর ভাত না খেয়ে ভালই আছেন শিবালয়ের আকাশ

সাংবাদিকদের রাষ্ট্রের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র

সামঞ্জস্যপূর্ণ সাজার চর্চা নিশ্চিতে নীতিমালা প্রণয়নে হাইকোর্টের রুল

ছবি

হেলসিঙ্কি থেকে নিউইয়র্কের পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ছবি

টেকনাফে নৌকার প্রচারনার গাড়িতে আগুন ও ভাংচুর

ছবি

দণ্ডিতের অপরাধের সাজা নির্ধারণে নীতিমালা নিয়ে হাই কোর্টের রুল

ছবি

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট ফেরতের আবেদন নাকচ

ছবি

সংরক্ষিত বনভূমিতে কোনো প্রশিক্ষণ অ্যাকাডেমি নয়: সংসদীয় কমিটি

tab

বাংলাদেশ

একদিনের নোটিশে গণপরিবহন ছাড়া কারখানা খুলে শ্রমিক হয়রানির প্রতিবাদ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১

একদিনের নোটিশে গণপরিবহন ও নিরাপত্তা ছাড়া কারখানা খুলে শ্রমিক হয়রানির প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতি। শনিবার (৩১ জুলাই) শ্রমিক সংগঠনটির উদ্যোগে সব শ্রমিক এলাকায় যার যার জায়গায় দাঁড়িয়ে নেতাকর্মীরা এই প্রতিবাদ জানান।

শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে বেলা সাড়ে ১২টায় গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতির কেন্দ্রীয় সভা প্রধান তাসলিমা আখ্তার, সাধারণ সম্পাদক জুলহাসনাইন বাবু, অর্থ সম্পাদক প্রবীর সাহা এবং দপ্তর সম্পাদক মুসা কলিমুল্লাহ প্রতিবাদ জানান।

একই সময়ে আশুলিয়া, সাভার, মিরপুর, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রামসহ দেশে শ্রমিক অঞ্চলে শ্রমিকদের সঙ্গে নিয়ে প্রতিবাদ জানান গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতির স্থানীয় নেতারা। দেশে শ্রমিকসহ সব শ্রেণী-পেশার নাগরিকদের এই ঘটনার প্রতিবাদে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে ছবিসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদ ও প্রচারণার আহ্বানও জানান তারা।

আশুলিয়ায় কার্যালয়ের সামনে আশুলিয়া শাখার সভাপ্রধান বাবুল হোসেন, শামীম হোসেন, আশরাফ, শাহিদা বেগম, ফারিয়া রহমান, বিল্লাল হোসেনসহ নেতারা প্রতিবাদ জানান।

সাভারে রানা প্লাজা শাখার উদ্যোগে রানা প্লাজা কার্যালয়ের সামনে সংগঠক সেলিনা আক্তারসহ নেতৃবৃন্দ যার যার জায়গায় প্রতিবাদী প্ল্যাকার্ড নিয়ে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ জানান। মিরপুরে মজনু মিয়া, নুরুল ইসলাম, জেসমিনসহ অন্যান্য নেতৃত্ব রূপনগরের দুয়ারীপাড়ায় প্রতিবাদ জানান।

নারায়ণগঞ্জে বন্দর পুলিশ ফাঁড়ির সামনে নারায়ণগঞ্জের সভা প্রধান অঞ্জন দাস, সাধারণ সম্পাদক কাওসার হামিদসহ অন্য নেতত্ব ও শ্রমিকরা প্রতিবাদে অংশ নেন। চট্টগ্রামে কেন্দ্রীয় সহ-সভাপ্রধান এবং চট্টগ্রামের নেতা হাসান মারুফ রুমি, নুরুল ইসলাম, শহীদ শিমুলসহ অন্যান্যরা প্রতিবাদ জানান। এছাড়া শ্রমিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার ব্যক্তিরা সংহতি জানিয়ে যার যার অবস্থানে প্রতিবাদ জানান ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদী প্রচার চালান।

প্রতিবাদসমূহে কেন্দ্রীয় সভাপ্রধান তাসলিমা আখ্তার, সাধারণ সম্পাদক ও অন্যান্য নেতৃত্বরা বলেন, আজ থেকে পরিবহন ছাড়া আবারও কারখানার দিকে লাখো শ্রমিকের ঢল নামছে। শনিবার সন্ধ্যায় কোনরকম গণপরিবহন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত না করে অকস্মাৎ কারখানা খোলার সিদ্ধান্তে শ্রমিকরা চরম হয়রানির শিকার হচ্ছেন, যা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক।

back to top