alt

নগর-মহানগর

সড়কে ব্যারিকেড, সন্দেহ হলেই ফেরত পাঠানো হচ্ছে ঘরে

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১

বৈশ্বিক করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন থেকেই দেশে চলছে কঠোর লকডাউন। সংক্রমণ রুখতে সবাইকে ঘরে থাকার নির্দেশনা থাকলেও তবু বের হচ্ছেন লোকজন।

তবে পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা সড়কে কঠোরভাবে লকডাউন বাস্তবায়নে কাজ করছেন। অনেক সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে যান চলাচল।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকাল থেকে রাজধানীর প্রতিটি মোড় ও সড়কে থাকা ইউলুপের কাছাকাছি জায়গায় বসানো হয়েছে পুলিশের তল্লাশি চৌকি। দেওয়া হয়েছে ব্যারিকেড।

এদিকে সড়কে বের হওয়া ব্যক্তিরা যার যার প্রয়োজন দেখিয়ে গন্তব্যে যাওয়ার জোর দাবি করছেন। তবে একদমই জরুরি প্রয়োজন ছাড়া এবং উপযুক্ত কারণ দেখানো গেলেই কেবল তাদের যেতে দেওয়া হচ্ছে। অন্যথায় তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে বাড়ির দিকে।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে সরেজমিনে ঘুরে লকডাউনের এ চিত্রই দেখা যায়।

রাজধানীর আব্দুল্লাহপুর, হাউজবিল্ডিং, আজমপুর, জসীমউদ্দীন ইউলুপ, বিমানবন্দর ইউলুপ, খিলক্ষেত, কুড়িল, বাড্ডা, রামপুরা, মহাখালী, বনানী, গুলশান, বারিধারা, মিরপুর, পল্লবী, গুলিস্তান, পল্টন, কালশীসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সড়কে যানবাহন ও পথচারীদের চলাচল নিয়ন্ত্রণে রেখেই কাজ করছে পুলিশ।

এদিকে পাড়া-মহল্লার অলি-গলিতেও রয়েছে পুলিশের টহল।

সড়কের আব্দুল্লাহপুর মোড়ে সরেজমিনে দেখা যায় টঙ্গী থেকে আগত যানবাহনগুলো ব্রিজের মুখে আটকে রাখা হয়েছে। বাকি সড়কগুলো একেবারে ফাঁকা। সাধারণ মানুষ অনেকেই হেঁটে চলাচল করছেন। সড়কে চেকপোস্টে থাকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাদের বাইরে বের হওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করছেন। যদি উপযুক্ত কারণ কিংবা মুভমেন্ট পাস সঙ্গে থাকে তবে তাদের যেতে দেওয়া হচ্ছে। পাস ছাড়া সবাইকে ঘরে ফিরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করছেন পুলিশ সদস্যরা।

আব্দুল্লাহপুর তল্লাশি চৌকিতে দায়িত্বরত পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জিল্লুর রহমান বলেন, গতকাল রাত ১২টা থেকেই এদিকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সকাল থেকে এখানে অনেক যানবাহন ও মানুষদের ভিড় হয়েছে। সবাই কোনো না কোনো বাহানা নিয়েছে হাজির হচ্ছেন। তবে আমরা মুভমেন্ট পাস ছাড়া কাউকে যেতে দিচ্ছি না। ক্ষেত্র বিশেষে কেউ যৌক্তিক কোনো কারণ দেখালে সে বিষয়ে খোঁজ-খবর নিয়ে সত্যতা পেলে তাকে যেতে দেওয়া হচ্ছে।

হাউজবিল্ডিংয়ের নর্থটাওয়ারের সামনে থাকা উভয় পাশের সড়ক বন্ধ রাখা হয়েছে। সেখানেও পুলিশ সদস্য মোতায়েন রয়েছেন। উত্তরার আজমপুর, জসীমউদ্দীন ইউলুপ, বিমানবন্দরসহ রাজধানীর সবকয়টি গুরুত্বপূর্ণ সিগন্যাল ও পয়েন্টে পুলিশের তল্লাশি চৌকি বসানো।

এসব চৌকিতে থানা পুলিশের সঙ্গে ট্রাফিক বিভাগের সদস্যরাও একত্রে দায়িত্ব পালন করছেন। এসব তল্লাশি চৌকিতে আটকে থাকা যানবাহনগুলোর কাগজপত্র তল্লাশি করছে ট্রাফিক পুলিশ। একই সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হওয়ার কারণ ও কোথায় যাবেন, কী কারণে? এসব জিজ্ঞাসা করছেন থানা পুলিশের সদস্যরা।

জসীমউদ্দীন ইউলুপের তল্লাশি চৌকিতে দায়িত্বরত পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. হাবীব জানান, লকডাউনে ঘর থেকে বের হওয়াই মানা। তবুও যারা যানবাহন নিয়ে আসছেন তাদের কাগজপত্র ঠিক রয়েছে কিনা সেগুলো তল্লাশি করা হচ্ছে। এছাড়াও জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে সড়কে মুভমেন্ট করতে দেওয়া হচ্ছে না।

প্রধান সড়কের পাশাপাশি গলির মুখগুলো বন্ধ করে রাখা হয়েছে। এদিকে রাজধানীর বিভিন্ন বড় বড় শপিংমল ও দোকানপাট বন্ধ থাকতে দেখা গেছে। তবে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য, ওষুধের দোকান, সীমিত আকারে বাজার খোলা থাকতে দেখা গেছে।

ছবি

নিজস্ব অফিসে বৃহত্তর নোয়াখালী কর্মকর্তা ফোরাম

ছবি

অনলাইনে পোশাক বিক্রির নামে প্রতারণা, নারীসহ গ্রেপ্তার

ছবি

রাজধানীতে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিভ্রাট

ছবি

ঈদে ছুটির দাবিতে মিরপুরে সড়কে পোশাক শ্রমিকরা

ছবি

সংসদ ভবনে হামলার পরিকল্পনার অভিযোগ, গ্রেপ্তার ২

ছবি

শহরে চলছে গণপরিবহন

ছবি

স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন: বন্ধ করে দেয়া হলো চায়না মার্কেট

ছবি

মতিঝিলে হোটেলের কক্ষে যুবকের ঝুলন্ত লাশ

ছবি

গণপরিবহন চালুর দাবিতে রাজধানীতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

ছবি

চট্রগ্রামে এপ্রিলে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৩৫ জনের মৃত্যু

ছবি

নবজাতকের লাশ ঢামেক এলাকায় ফেলে গেল কুকুর!

ছবি

আরমানিটোলায় অগ্নিকাণ্ড : চলে গেলেন আশিকুর, স্ত্রী লাইফ সাপোর্টে

ছবি

বন্ধ ছাপাখানা-বাঁধাইখানা, দিন চলে না ফরহাদ-রেজাউলের

ছবি

গুলশানের ফ্ল্যাট থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধার

ছবি

গ্রিল কেটে পালায় কেমিক্যাল ব্যবসায়ী মোস্তফা

ছবি

ঢাকার তাপমাত্রা আজও থাকতে পারে ৪০ ডিগ্রির কাছাকাছি

ছবি

‘আল্লাহ আমাকে নিয়ে যান তবু আমার ছেলে ও বউয়ের প্রাণভিক্ষা দেন’

ছবি

আরমানিটোলায় আগুন: লাইফ সাপোর্টে সেই নবদম্পতি

ছবি

পুরান ঢাকায় কেমিক্যাল গোডাউনে আগুন

ছবি

মুভমেন্ট পাস নিয়ে প্রাইভেটকারে হেরোইন পাচার!

ছবি

আরমানিটোলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহত বেড়ে ৪

রাজধানীসহ বিভিন্ন অঞ্চলে কালবৈশাখী

রাজধানীর শব্দ ও বায়ু দূষণের জরিপ করবে ক্যাপস

মুভমেন্ট পাস নিয়ে প্রাইভেটকার যোগে মাদক ব্যবসা

ছবি

মেট্রোরেল নির্মাণ কাজের অগ্রগতি ৬১.৪৯ শতাংশ: সেতুমন্ত্রী

ছবি

দেড় ঘণ্টা পর নিভল বালুর মাঠ বস্তির আগুন

ছবি

খিলগাঁওয়ে কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

ছবি

করোনাকালে বেড়েছে ধর্ষণ: সিআইডি

ছবি

ছেলের ছোড়া এসিড ঝলসালো পরিবারের ৫ সদস্যের শরীর

লকডাউনে নারী চিকিৎসকের পরিচয়পত্র দেখতে গিয়ে তোলপাড়

ছবি

বাতিল ফ্লাইটের টিকিট দিচ্ছে সাউদিয়া, প্রবাসীদের ভিড়

হাসপাতালের বেডে সুইসাইড নোট রেখে করোনা রোগীর আত্মহত্যা

ছবি

লকডাউনে পুরান ঢাকার ইফতারির বাজারে কোন হাঁকডাক নেই

ছবি

মহাখালীতে ১০০ শয্যার আইসিইউসহ করোনা হাসপাতাল কাল চালু হচ্ছে

ছবি

চাকরিজীবী পরিচয়ে বাসা ভাড়া নিয়ে জাল টাকার ব্যবসা

ছবি

রাজধানীতে গাড়িচাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

tab

নগর-মহানগর

সড়কে ব্যারিকেড, সন্দেহ হলেই ফেরত পাঠানো হচ্ছে ঘরে

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১

বৈশ্বিক করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন থেকেই দেশে চলছে কঠোর লকডাউন। সংক্রমণ রুখতে সবাইকে ঘরে থাকার নির্দেশনা থাকলেও তবু বের হচ্ছেন লোকজন।

তবে পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা সড়কে কঠোরভাবে লকডাউন বাস্তবায়নে কাজ করছেন। অনেক সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে যান চলাচল।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকাল থেকে রাজধানীর প্রতিটি মোড় ও সড়কে থাকা ইউলুপের কাছাকাছি জায়গায় বসানো হয়েছে পুলিশের তল্লাশি চৌকি। দেওয়া হয়েছে ব্যারিকেড।

এদিকে সড়কে বের হওয়া ব্যক্তিরা যার যার প্রয়োজন দেখিয়ে গন্তব্যে যাওয়ার জোর দাবি করছেন। তবে একদমই জরুরি প্রয়োজন ছাড়া এবং উপযুক্ত কারণ দেখানো গেলেই কেবল তাদের যেতে দেওয়া হচ্ছে। অন্যথায় তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে বাড়ির দিকে।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে সরেজমিনে ঘুরে লকডাউনের এ চিত্রই দেখা যায়।

রাজধানীর আব্দুল্লাহপুর, হাউজবিল্ডিং, আজমপুর, জসীমউদ্দীন ইউলুপ, বিমানবন্দর ইউলুপ, খিলক্ষেত, কুড়িল, বাড্ডা, রামপুরা, মহাখালী, বনানী, গুলশান, বারিধারা, মিরপুর, পল্লবী, গুলিস্তান, পল্টন, কালশীসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সড়কে যানবাহন ও পথচারীদের চলাচল নিয়ন্ত্রণে রেখেই কাজ করছে পুলিশ।

এদিকে পাড়া-মহল্লার অলি-গলিতেও রয়েছে পুলিশের টহল।

সড়কের আব্দুল্লাহপুর মোড়ে সরেজমিনে দেখা যায় টঙ্গী থেকে আগত যানবাহনগুলো ব্রিজের মুখে আটকে রাখা হয়েছে। বাকি সড়কগুলো একেবারে ফাঁকা। সাধারণ মানুষ অনেকেই হেঁটে চলাচল করছেন। সড়কে চেকপোস্টে থাকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাদের বাইরে বের হওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করছেন। যদি উপযুক্ত কারণ কিংবা মুভমেন্ট পাস সঙ্গে থাকে তবে তাদের যেতে দেওয়া হচ্ছে। পাস ছাড়া সবাইকে ঘরে ফিরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করছেন পুলিশ সদস্যরা।

আব্দুল্লাহপুর তল্লাশি চৌকিতে দায়িত্বরত পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জিল্লুর রহমান বলেন, গতকাল রাত ১২টা থেকেই এদিকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সকাল থেকে এখানে অনেক যানবাহন ও মানুষদের ভিড় হয়েছে। সবাই কোনো না কোনো বাহানা নিয়েছে হাজির হচ্ছেন। তবে আমরা মুভমেন্ট পাস ছাড়া কাউকে যেতে দিচ্ছি না। ক্ষেত্র বিশেষে কেউ যৌক্তিক কোনো কারণ দেখালে সে বিষয়ে খোঁজ-খবর নিয়ে সত্যতা পেলে তাকে যেতে দেওয়া হচ্ছে।

হাউজবিল্ডিংয়ের নর্থটাওয়ারের সামনে থাকা উভয় পাশের সড়ক বন্ধ রাখা হয়েছে। সেখানেও পুলিশ সদস্য মোতায়েন রয়েছেন। উত্তরার আজমপুর, জসীমউদ্দীন ইউলুপ, বিমানবন্দরসহ রাজধানীর সবকয়টি গুরুত্বপূর্ণ সিগন্যাল ও পয়েন্টে পুলিশের তল্লাশি চৌকি বসানো।

এসব চৌকিতে থানা পুলিশের সঙ্গে ট্রাফিক বিভাগের সদস্যরাও একত্রে দায়িত্ব পালন করছেন। এসব তল্লাশি চৌকিতে আটকে থাকা যানবাহনগুলোর কাগজপত্র তল্লাশি করছে ট্রাফিক পুলিশ। একই সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হওয়ার কারণ ও কোথায় যাবেন, কী কারণে? এসব জিজ্ঞাসা করছেন থানা পুলিশের সদস্যরা।

জসীমউদ্দীন ইউলুপের তল্লাশি চৌকিতে দায়িত্বরত পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. হাবীব জানান, লকডাউনে ঘর থেকে বের হওয়াই মানা। তবুও যারা যানবাহন নিয়ে আসছেন তাদের কাগজপত্র ঠিক রয়েছে কিনা সেগুলো তল্লাশি করা হচ্ছে। এছাড়াও জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে সড়কে মুভমেন্ট করতে দেওয়া হচ্ছে না।

প্রধান সড়কের পাশাপাশি গলির মুখগুলো বন্ধ করে রাখা হয়েছে। এদিকে রাজধানীর বিভিন্ন বড় বড় শপিংমল ও দোকানপাট বন্ধ থাকতে দেখা গেছে। তবে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য, ওষুধের দোকান, সীমিত আকারে বাজার খোলা থাকতে দেখা গেছে।

back to top