alt

আন্তর্জাতিক

হ্দরোগ প্রতিরোধে অ্যাসপিরিনের ব্যবহার কমানোর পরামর্শ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ১৩ অক্টোবর ২০২১

প্রথম হৃদ্‌রোগ বা স্ট্রোক প্রতিরোধে অ্যাসপিরিনের ব্যবহার কমিয়ে আনা উচিত বলে মত দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞদের একটি প্যানেল। গতকাল মঙ্গলবার দ্য নিউইয়র্ক টাইমস এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়।

ইউএস প্রিভেনটিভ সার্ভিসেস টাস্কফোর্সের (ইউএসপিএসটিএফ) প্যানেল গতকাল এ সুপারিশ করে। ১৬ জন স্বাধীন বিশেষজ্ঞকে নিয়ে এ প্যানেল গঠিত।

প্যানেলের খসড়া সুপারিশে বলা হয়, কার্ডিওভাসকুলার বা হৃদ্‌রোগের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিরা যদি নিয়মিত স্বল্পমাত্রার অ্যাসপিরিন গ্রহণ করেন, তবে তাঁরা মারাত্মক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সম্মুখীন হতে পারেন। তাই চিকিৎসকদের উচিত হৃদ্‌রোগের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা বেশির ভাগ ব্যক্তিকে নিয়মিত গ্রহণের জন্য স্বল্পমাত্রার অ্যাসপিরিন আর না দেওয়া।

সুবিধার চেয়ে গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ঝুঁকি অনেক বেশি—এমন তথ্য-প্রমাণের ওপর ভিত্তি করে এ সুপারিশ প্রস্তাব করেছে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞ প্যানেল।

হৃদ্‌রোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে অনেকে রক্ত পাতলা করার ওষুধ অ্যাসপিরিন সেবন করেন। একসময় হৃদ্‌রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অ্যাসপিরিনকে একটি উল্লেখযোগ্য ও সুলভ উপায় হিসেবে বিবেচনা করা হতো। কিন্তু মার্কিন বিশেষজ্ঞ প্যানেলের নতুন খসড়া সুপারিশ হৃদ্‌রোগের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা লাখো প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির নিয়মিত অ্যাসপিরিন গ্রহণের বিষয়টিকে প্রভাবিত করতে পারে।

গবেষণায় দেখা গেছে, কেউ নিয়মিত অ্যাসপিরিন শুরুর পর অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণের ঝুঁকি তুলনামূলকভাবে দ্রুত ঘটে। যাঁরা ইতিমধ্যে স্বল্পমাত্রার অ্যাসপিরিন নিচ্ছেন, তাঁদের এখন চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলা উচিত বলে মত দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞ প্যানেল।

তবে যাঁরা ইতিমধ্যে অ্যাসপিরিন গ্রহণ করছেন বা যাঁরা হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে প্রস্তাবিত এ নির্দেশিকা প্রযোজ্য হবে না।

ইউএসপিএসটিএফের সদস্য চিয়েন-ওয়েন সেং বলেন, ‘চিকিৎসকের সঙ্গে কথা না বলে আমরা কাউকে আর অ্যাসপিরিন গ্রহণ বন্ধের পরামর্শ দিচ্ছি না। আর কেউ যদি ইতিমধ্যে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত বা স্ট্রোক করে থাকেন, সে ক্ষেত্রে তো অবশ্যই নয়।’

চিয়েন-ওয়েন সেং আরও বলেন, যাঁরা হৃদ্‌রোগের ক্রমবর্ধমান ঝুঁকিতে আছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে অ্যাসপিরিন গ্রহণের বিষয়ে আগের নির্দেশনা আর থাকছে না।

মার্কিন বিশেষজ্ঞ প্যানেলের সুপারিশের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ৬০ বছর বা তার বেশি বয়সী যেসব মানুষ হৃদ্‌রোগের ঝুঁকিতে আছেন, তাঁদের প্রথম হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হওয়া প্রতিরোধে দৈনিক স্বল্পমাত্রার অ্যাসপিরিন গ্রহণ শুরু করা উচিত নয়। কারণ, এতে সুবিধার চেয়ে অভ্যন্তরীণ রক্তপাতের ঝুঁকি বেশি হতে পারে।

ছবি

কান্দাহারে শিয়া মসজিদে হামলায় নিহত বেড়ে ৪৭, দায় স্বীকার আইএসের

যুক্তরাজ্যে ৪৩,০০০ মানুষের ভুল কোভিড নেগেটিভ সনদ

ছবি

বিদেশীদের ওপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

ছুরিকাঘাতে নিহত ব্রিটিশ এমপি ডেভিড অ্যামেস

ছবি

আফগানিস্তানে জুমার নামাজে বিস্ফোরণ, নিহত বেড়ে ৩২

ছবি

কাশ্মীরে প্রাণ গেলো আরও ২ ভারতীয় সেনার

ছবি

বিক্ষোভে রক্তপাতের পর আজ শোক পালন করছে লেবানন

ছবি

তিন বছর পর জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলে ফিরল যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

বিদেশি পর্যটকদের ১৯ মাস পর অনুমতি দিচ্ছে ভারত

ছবি

নভেম্বর থেকে সিডনির কোয়ারেন্টিন তুলে দেওয়ার চিন্তা

ছবি

আইসিইউতে বিল ক্লিনটন

ছবি

অর্থ নেই, কাবুলের এতিমখানার শিশুদের খাবারে টান

ছবি

তুরস্ক সফরে তালেবানের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

তাইওয়ানে আবাসিক ভবনে অগ্নিকাণ্ডে ৪৬ জনের মৃত্যু, আহত ৪১

ছবি

মোস্তফা পুরস্কার পেলেন ৫ মুসলিম বিজ্ঞানী

ছবি

ড. মনমোহন সিংয়ের দ্রুত আরোগ্য ও সুস্বাস্থ্য কামনা করছি: মোদী

ছবি

বাইডেনের জীবন বাঁচানো আফগান দোভাষী উদ্ধার

ছবি

ইরাক ও সিরিয়া থেকে সন্ত্রাসীরা ‘সক্রিয়ভাবে’ আফগানিস্তানে ঢুকছে: পুতিন

ছবি

করোনার উৎপত্তি খোঁজার এটাই শেষ সুযোগ হতে পারে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

ছবি

স্ত্রীরা স্বামীদের সমান উপার্জন করতে পারে না: বৈশ্বিক জরিপ

ছবি

এবার নতুন চাকরিতে হ্যারি-মেগান

ছবি

আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মার দেখা মিলল হংকংয়ে

ছবি

বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা ফের বেড়েছে

ছবি

আফগানিস্তানে বিপর্যয় এড়ানোর অঙ্গীকার জি-২০ নেতাদের

ছবি

নেপালে বাস খাদে পড়ে ৩২জন নিহত

ছবি

আফগানিস্তানের মাটি যেন মৌলবাদ ও সন্ত্রাসবাদের ঘাঁটি না হয়: মোদি

ছবি

আইএস নির্মূলে আমেরিকার সহযোগিতার কোনো প্রয়োজন নেই: তালেবান

ছবি

সৌদি আরবে ড্রোন হামলায় তিন বাংলাদেশি আহত

ছবি

তালেবান সরকারের জবাবদিহি চায় ভারত

ছবি

চিন্তার কারণ নেই, সবকিছু ঠিক আছে: পুতিন

ছবি

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতার কার্যালয়ে আগুন

ছবি

বয়স্কদের সিনোভ্যাক-সিনোফার্ম টিকার তৃতীয় ডোজ দিতে সুপারিশ

ছবি

ফিলিপিন্সে ঘূর্ণিঝড় কমপাসুর প্রভাবে বন্যা, ভূমিধসে ৯ জন নিহত

ছবি

নোবেল পুরস্কারে জেন্ডার কোটা হবে না : সুইডিশ অ্যাকাডেমি

ছবি

টিকায় ৯০ শতাংশ ঝুঁকি কমে: গবেষণা

ছবি

ইরাকের নির্বাচন : এগিয়ে মোক্তাদা আল সদরের দল

tab

আন্তর্জাতিক

হ্দরোগ প্রতিরোধে অ্যাসপিরিনের ব্যবহার কমানোর পরামর্শ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ১৩ অক্টোবর ২০২১

প্রথম হৃদ্‌রোগ বা স্ট্রোক প্রতিরোধে অ্যাসপিরিনের ব্যবহার কমিয়ে আনা উচিত বলে মত দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞদের একটি প্যানেল। গতকাল মঙ্গলবার দ্য নিউইয়র্ক টাইমস এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়।

ইউএস প্রিভেনটিভ সার্ভিসেস টাস্কফোর্সের (ইউএসপিএসটিএফ) প্যানেল গতকাল এ সুপারিশ করে। ১৬ জন স্বাধীন বিশেষজ্ঞকে নিয়ে এ প্যানেল গঠিত।

প্যানেলের খসড়া সুপারিশে বলা হয়, কার্ডিওভাসকুলার বা হৃদ্‌রোগের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিরা যদি নিয়মিত স্বল্পমাত্রার অ্যাসপিরিন গ্রহণ করেন, তবে তাঁরা মারাত্মক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সম্মুখীন হতে পারেন। তাই চিকিৎসকদের উচিত হৃদ্‌রোগের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা বেশির ভাগ ব্যক্তিকে নিয়মিত গ্রহণের জন্য স্বল্পমাত্রার অ্যাসপিরিন আর না দেওয়া।

সুবিধার চেয়ে গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ঝুঁকি অনেক বেশি—এমন তথ্য-প্রমাণের ওপর ভিত্তি করে এ সুপারিশ প্রস্তাব করেছে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞ প্যানেল।

হৃদ্‌রোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে অনেকে রক্ত পাতলা করার ওষুধ অ্যাসপিরিন সেবন করেন। একসময় হৃদ্‌রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অ্যাসপিরিনকে একটি উল্লেখযোগ্য ও সুলভ উপায় হিসেবে বিবেচনা করা হতো। কিন্তু মার্কিন বিশেষজ্ঞ প্যানেলের নতুন খসড়া সুপারিশ হৃদ্‌রোগের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা লাখো প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির নিয়মিত অ্যাসপিরিন গ্রহণের বিষয়টিকে প্রভাবিত করতে পারে।

গবেষণায় দেখা গেছে, কেউ নিয়মিত অ্যাসপিরিন শুরুর পর অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণের ঝুঁকি তুলনামূলকভাবে দ্রুত ঘটে। যাঁরা ইতিমধ্যে স্বল্পমাত্রার অ্যাসপিরিন নিচ্ছেন, তাঁদের এখন চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলা উচিত বলে মত দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞ প্যানেল।

তবে যাঁরা ইতিমধ্যে অ্যাসপিরিন গ্রহণ করছেন বা যাঁরা হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে প্রস্তাবিত এ নির্দেশিকা প্রযোজ্য হবে না।

ইউএসপিএসটিএফের সদস্য চিয়েন-ওয়েন সেং বলেন, ‘চিকিৎসকের সঙ্গে কথা না বলে আমরা কাউকে আর অ্যাসপিরিন গ্রহণ বন্ধের পরামর্শ দিচ্ছি না। আর কেউ যদি ইতিমধ্যে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত বা স্ট্রোক করে থাকেন, সে ক্ষেত্রে তো অবশ্যই নয়।’

চিয়েন-ওয়েন সেং আরও বলেন, যাঁরা হৃদ্‌রোগের ক্রমবর্ধমান ঝুঁকিতে আছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে অ্যাসপিরিন গ্রহণের বিষয়ে আগের নির্দেশনা আর থাকছে না।

মার্কিন বিশেষজ্ঞ প্যানেলের সুপারিশের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ৬০ বছর বা তার বেশি বয়সী যেসব মানুষ হৃদ্‌রোগের ঝুঁকিতে আছেন, তাঁদের প্রথম হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হওয়া প্রতিরোধে দৈনিক স্বল্পমাত্রার অ্যাসপিরিন গ্রহণ শুরু করা উচিত নয়। কারণ, এতে সুবিধার চেয়ে অভ্যন্তরীণ রক্তপাতের ঝুঁকি বেশি হতে পারে।

back to top