alt

আন্তর্জাতিক

ক্ষতিগ্রস্ত অভিবাসীদের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বৈশ্বিক সংহতি দরকার : রাবাব ফাতিমা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : রোববার, ০৭ জুন ২০২০
image

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা -ফাইল ছবি।

ক্ষতিগ্রস্থ অভিবাসীদের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বৈশ্বিক সংহতি ও সহযোগিতা এবং ‘সুদৃঢ় রাজনৈতিক সদিচ্ছা প্রদর্শনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। তিনি মনে করেন অভিবাসীরা বিশ্বের অনেক জায়গাতেই তাদের অধিকার, জরুরি স্বাস্থ্য পরিষেবা এমনকি চাকরির সুযোগ থেকেও বঞ্চিত হয়েছেন।

‘কোভিড-১৯-এর প্রাক্কালে অভিবাসন: অভিবাসীদের স্বাস্থ্য ও রেমিটেন্স’ শীর্ষক এক উচ্চ পর্যায়ের ভার্চুয়াল আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এই আহ্বান জানান। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন, নিউইয়র্ক থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়।

অভিবাসন সংক্রান্ত সমমনা দেশসমূহ এই ইভেন্টটির আয়োজন করে। বাংলাদেশ, আয়ারল্যান্ড, মেক্সিকো ও বেনিন যৌথভাবে ‘অভিবাসন সংক্রান্ত সমমনা দেশসমূহের গ্রুপ–এর সহআহ্বায়ক। আয়ারল্যান্ডের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন ও প্রবাসী মন্ত্রী সিয়ারান ক্যানন টি ডিসহ অভিবাসী প্রেরণকারী ও গ্রহণকারী দেশসমূহের উল্লেখ্যযোগ্য সংখ্যক রাষ্ট্রদূত উচ্চ পর্যায়ের এই আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া এসডিজি অর্থায়ন বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত ড. মাহমুদ মোহাইয়েলদিন, আইএফএডি, ডব্লিউএইচও এবং অন্যান্য জাতিসংঘ সংস্থাগুলোর উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিগণ সভাটিতে অংশ নেন।

রাবাব ফাতিমা বলেন, অভিবাসীরা হচ্ছেন তাদের গ্রহণকারী দেশগুলোর উন্নয়নে অবদান রাখা প্রথম সারির কর্মী, এমনকি এই করোনাকালেও একথা সত্য; অতএব ওই সকল দেশ কোভিড-১৯ মোকাবিলা ও উত্তরণে যে পরিকল্পনা ও প্যাকেজসমূহ গ্রহণ করেছে তাতে অবশ্যই অভিবাসীদেরকেও অন্তর্ভুক্ত রাখতে হবে। অনেক দেশ থেকে অভিবাসীদেরকে জোরপূর্বক নিজ দেশে ফিরে যেতে বাধ্য করা হচ্ছে। প্রত্যাবর্তনকারীদের ব্যবস্থাপনা অনেক উন্নয়নশীল দেশের জন্য একটি বিরাট চ্যালেঞ্জ; এক্ষেত্রে উন্নয়নশীল দেশগুলোর প্রচেষ্টাসমূহে অবশ্যই জাতিসংঘসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক উন্নয়ন অংশীদার ও অংশীজনদেরকে সহযোগিতার হাত বাড়াতে হবে। নিম্ন ও নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশগুলিতে রেমিট্যান্স প্রবাহ ২০ ভাগ এরও বেশি হ্রাস পাওয়া বিষয়ক বিশ্বব্যাংকের প্রক্ষেপণের কথা তুলে ধরে স্থায়ী প্রতিনিধি সতর্কতা উচ্চারণ করে বলেন, এর পরিণতি হতে পারে খুবই ভয়াবহ যা উন্নয়নশীল বিশ্বের রেমিট্যান্স-নির্ভরশীল পরিবারসমূহকে দারিদ্র্যের দিকে ঠেলে দিতে পারে।

সভাটিতে এ বিষয়ক ফলপ্রসূ আলোচনা হয়। বক্তাগণ উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন এবং নারীর ক্ষমতায়নে অভিবাসন ও রেমিটেন্সের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা স্বীকার করে এর ওপর কোভিড-১৯-এর প্রভাব উন্নয়নশীল দেশগুলিকে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করবে মর্মে মতামত দেন।

ছবি

যে কারণে জনসনের ৬ কোটি করোনা টিকা ফেলে দিতে হবে

ছবি

চার বছর পর বিজেপি ছেড়ে ফের তৃণমূলে পুত্রসহ মুকুল রায়

ছবি

দুর্ভিক্ষের কবলে ইথিওপিয়ার উত্তরাঞ্চল

ছবি

ফাইজার, মডার্নার করোনার টিকায় তরুণদের হৃদযন্ত্রে প্রদাহ: সিডিসি

ছবি

দরিদ্র দেশগুলোকে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেবে জি-৭, আশা জনসনের

ছবি

ভারতে করোনায় একদিনে ৩৪০৩ জনের মৃত্যু

ছবি

মালালাকে হত্যার হুমকি, পাকিস্তানে ধর্মীয় নেতাকে গ্রেপ্তার

ছবি

ব্রাজিলিয়ানদের ‘জঙ্গল’ ডেকে বিপাকে আর্জেন্টাইন প্রেসিডেন্ট

ছবি

মুম্বাইয়ে ভবন ধসে ১১ জনের মৃত্যু

ছবি

মিয়ানমারে সামরিক বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ১২

ছবি

সব রেকর্ড ছাড়িয়ে একদিনে ৬ হাজারের বেশি মৃত্যু ভারতে

ছবি

ডায়ানার সাক্ষাৎকার বিতর্ক : ঘটনা ও তদন্ত

ছবি

৮০ শতাংশ মানুষকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে টিকা দেবে ইতালি

ছবি

কানাডা-যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তের বিধিনিষেধ নিয়ে সিদ্ধান্ত শুক্রবার

ছবি

আমদানি-রপ্তানি শুরুর ব্যবস্থা নিতে দাবি দু’দেশের ব্যবসায়ীদের

ছবি

একদিনেই মৃত সাড়ে ১০ হাজার

ছবি

উত্তরপ্রদেশে বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ১৭

ছবি

ভারতে ৬৬ দিন পর সর্বনিম্ন শনাক্ত, মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ৩ লাখ

ছবি

ভারতে নাগরিকত্ব প্রশ্নে দীর্ঘমেয়াদি ভিসা, দ্বন্দ্বে আসাম সরকার

ছবি

ফের বিশ্বে করোনায় বেড়েছে মৃত্যু

ছবি

কানাডায় ট্রাক চাপায় মুসলিম পরিবারের ৪ জনকে হত্যা

ছবি

মহারাষ্ট্রে স্যানিটাইজার কারখানায় ভয়াবহ আগুন, নিহত ১৭

পূর্ব মিয়ানমারের গ্রামগুলো ফাঁকা, ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে জঙ্গলে!

ছবি

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত কমেছে

ছবি

পাকিস্তানে দুই ট্রেনের সংঘর্ষে নিহত ৩০

ছবি

বাগদাদের মার্কিন কূটনৈতিক কেন্দ্রে রকেট হামলা

ছবি

ইয়েমেনে বিস্ফোরণে ৫ শিশুসহ নিহত ১২

ছবি

বুরকিনা ফাসোতে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ১৩৮

ছবি

১০০ দিন সাগরে ভাসার পর ইন্দোনেশিয়ায় পৌঁছাল ৮১ রোহিঙ্গা

ছবি

১২৪ বছর বয়সে করোনার টিকা নিলেন বিশ্বের সবচেয়ে বয়সী নারী!

ছবি

ভারতে একযোগে পদত্যাগ করলো ৩ হাজার চিকিৎসক

ছবি

শিশুদের ওপর ব্যবহারের অনুমোদন পেল সিনোভ্যাকের টিকা

ছবি

সহকর্মীর মৃত্যুর দায় নিয়ে দ.কোরিয়ার বিমান বাহিনী প্রধানের পদত্যাগ

ছবি

ট্রাম্পকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত নিষিদ্ধ ঘোষণা ফেসবুক

ছবি

বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত-মৃত্যু কমেছে

ছবি

৫৯ চীনা প্রতিষ্ঠানে মার্কিন বিনিয়োগে বাইডেনের নিষেধাজ্ঞা

tab

আন্তর্জাতিক

ক্ষতিগ্রস্ত অভিবাসীদের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বৈশ্বিক সংহতি দরকার : রাবাব ফাতিমা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা -ফাইল ছবি।

রোববার, ০৭ জুন ২০২০

ক্ষতিগ্রস্থ অভিবাসীদের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বৈশ্বিক সংহতি ও সহযোগিতা এবং ‘সুদৃঢ় রাজনৈতিক সদিচ্ছা প্রদর্শনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। তিনি মনে করেন অভিবাসীরা বিশ্বের অনেক জায়গাতেই তাদের অধিকার, জরুরি স্বাস্থ্য পরিষেবা এমনকি চাকরির সুযোগ থেকেও বঞ্চিত হয়েছেন।

‘কোভিড-১৯-এর প্রাক্কালে অভিবাসন: অভিবাসীদের স্বাস্থ্য ও রেমিটেন্স’ শীর্ষক এক উচ্চ পর্যায়ের ভার্চুয়াল আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এই আহ্বান জানান। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন, নিউইয়র্ক থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়।

অভিবাসন সংক্রান্ত সমমনা দেশসমূহ এই ইভেন্টটির আয়োজন করে। বাংলাদেশ, আয়ারল্যান্ড, মেক্সিকো ও বেনিন যৌথভাবে ‘অভিবাসন সংক্রান্ত সমমনা দেশসমূহের গ্রুপ–এর সহআহ্বায়ক। আয়ারল্যান্ডের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন ও প্রবাসী মন্ত্রী সিয়ারান ক্যানন টি ডিসহ অভিবাসী প্রেরণকারী ও গ্রহণকারী দেশসমূহের উল্লেখ্যযোগ্য সংখ্যক রাষ্ট্রদূত উচ্চ পর্যায়ের এই আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া এসডিজি অর্থায়ন বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত ড. মাহমুদ মোহাইয়েলদিন, আইএফএডি, ডব্লিউএইচও এবং অন্যান্য জাতিসংঘ সংস্থাগুলোর উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিগণ সভাটিতে অংশ নেন।

রাবাব ফাতিমা বলেন, অভিবাসীরা হচ্ছেন তাদের গ্রহণকারী দেশগুলোর উন্নয়নে অবদান রাখা প্রথম সারির কর্মী, এমনকি এই করোনাকালেও একথা সত্য; অতএব ওই সকল দেশ কোভিড-১৯ মোকাবিলা ও উত্তরণে যে পরিকল্পনা ও প্যাকেজসমূহ গ্রহণ করেছে তাতে অবশ্যই অভিবাসীদেরকেও অন্তর্ভুক্ত রাখতে হবে। অনেক দেশ থেকে অভিবাসীদেরকে জোরপূর্বক নিজ দেশে ফিরে যেতে বাধ্য করা হচ্ছে। প্রত্যাবর্তনকারীদের ব্যবস্থাপনা অনেক উন্নয়নশীল দেশের জন্য একটি বিরাট চ্যালেঞ্জ; এক্ষেত্রে উন্নয়নশীল দেশগুলোর প্রচেষ্টাসমূহে অবশ্যই জাতিসংঘসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক উন্নয়ন অংশীদার ও অংশীজনদেরকে সহযোগিতার হাত বাড়াতে হবে। নিম্ন ও নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশগুলিতে রেমিট্যান্স প্রবাহ ২০ ভাগ এরও বেশি হ্রাস পাওয়া বিষয়ক বিশ্বব্যাংকের প্রক্ষেপণের কথা তুলে ধরে স্থায়ী প্রতিনিধি সতর্কতা উচ্চারণ করে বলেন, এর পরিণতি হতে পারে খুবই ভয়াবহ যা উন্নয়নশীল বিশ্বের রেমিট্যান্স-নির্ভরশীল পরিবারসমূহকে দারিদ্র্যের দিকে ঠেলে দিতে পারে।

সভাটিতে এ বিষয়ক ফলপ্রসূ আলোচনা হয়। বক্তাগণ উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন এবং নারীর ক্ষমতায়নে অভিবাসন ও রেমিটেন্সের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা স্বীকার করে এর ওপর কোভিড-১৯-এর প্রভাব উন্নয়নশীল দেশগুলিকে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করবে মর্মে মতামত দেন।

back to top