alt

জাতীয়

দেশ ও জনগণের জন্য সরকারি কর্মকর্তাদের কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১

দেশ ও জনগণের জন্য কাজ করতে সরকারি কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভালো কাজের জন্য যেমন পুরস্কার তেমনই খারাপ কাজে ক্ষমা করা হবে না।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে ‘জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস’ উদযাপন এবং ‘জনপ্রশাসন পদক ২০২০ ও ২০২১’ প্রদান অনুষ্ঠানে (ভার্চ্যুয়াল) এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক পদকপ্রাপ্তদের হাতে পদক তুলে দেন। অনুষ্ঠানে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন সভাপতিত্ব করেন। সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সচিবসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও সচিবগণ উপস্থিত ছিলেন।

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তির যুগে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন আসবে। নতুন উদ্ভাবন হবে তার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। তাহলেই আমরা বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারব।

জনপ্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, জনপ্রশাসনে যারা আছেন তাদের জনগণের সেবা করা, দেশের সেবা করা- এটাই সবচেয়ে বড় কাজ। আজকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এই করোনার কারণে আমরা অনেকটা পিছিয়ে গেছি। এর মধ্যেও আমরা কাজ করে যাচ্ছি এখানে জনপ্রশাসনের অবদান রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার গঠন করা বা ক্ষমতায় আসা ভোগ বিলাসের বিষয় নয়। আমি প্রধানমন্ত্রী হয়েছি বলে অনেক কিছু হয়েছি তা নয়। এটা একটা বিশাল দায়িত্ব। এটা সরকারি কর্মকর্তাদেরও দায়িত্ব। কারণ জনগণই আমাদের ভরণ পোষণ করে।

দেশের জনগণকে ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ করোনার হাত থেকে মুক্তি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে ভ্যাকসিন কেনা আমরা শুরু করেছি। ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হয়েছে। ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন দিতে হবে। যাতে দেশের সকলেই সুরক্ষিত থাকে।

সবাইকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনার কথা উল্লেখ করে সরকার প্রধান বলেন, ইতোমধ্যে আমি নির্দেশ দিয়েছি‑ পরিবারে যারা.. ড্রাইভার থেকে শুরু করে বাড়িতে যারা কাজ করে তাদের জন্য ভ্যাকসিন দিয়ে দেওয়া হয়। তাহলে সবাই সুরক্ষিত থাকতে পারবে। এর জন্য প্রয়োজনে যত টাকা লাগবে, যত ভ্যাকসিনের প্রয়োজন হবে আমরা কিনব। ভবিষ্যতে আমরা বাংলাদেশে ভ্যাকসিন তৈরি করব। যাতে মানুষের কোন অসুবিধা না হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ গ্রাম পর্যায় পর্যন্ত দেশের মানুষ সেবা পাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা মানুষ ব্যাপকভাবে পাচ্ছে। আমরা দেশের মানুষকে যে সকল সহযোগিতা করছি তার সবকিছুই এখন ডিজিটাল পদ্ধতিতে হচ্ছে। এতে আমাদের কাজ যথাযথ হচ্ছে, সময় বাঁচছে।

সরকার গঠন বা ক্ষমতায় আসা ভোগ-বিলাসের বিষয় নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রী হয়ে গেছি বিধায় মহান কিছু হয়ে গেছি তা নয়। এটা একটা বিরাট দায়িত্ব। এখানে সরকারি কর্মচারীদের দায়িত্ব রয়েছে। বাংলাদেশের জনগণ তো আপনাদের ভরণপোষণ-খাওয়ার জোগাড় সবই করে। কাজেই তাদের জন্য আমরা কতটুকু করতে পারলাম, তাদের কতটুকু দিতে পারলাম‑ এটাই সবচেয়ে বড় বিষয়। তাদের সার্বিক উন্নয়ন আমাদের সকলের দায়িত্ব।

তিনি বলেন, প্রত্যেকে আন্তরিকতার সাথে কাজ করেছি বলেই আজকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে অল্প সময়ের মধ্যে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হতে পেরেছি। সবাই যার যার জায়গায় কাজ করেছে বলেই মানুষ তার সুফল পেয়েছে, দেশের উন্নতি হয়েছে। নাহলে কখনোই আমরা এত তাড়াতাড়ি উন্নতি করতে পারতাম না।

তিনি বলেন, এই করোনার সময় সেবা দিতে গিয়ে প্রশাসন থেকে শুরু করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অনেকেই জীবন দিয়ে গেছে। আমাদের দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরাও সর্বক্ষণ সক্রিয় রয়েছে। তারাও জনগণের পাশে রয়েছে। করোনায় আমরাও আমাদের অনেক নেতাকর্মীকে হারিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের উপর অনেক বার আঘাত এসেছে। বারবার ঝড়-ঝাপটা গেছে। এবারের সরকারের সময় আমাদের অনেক প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হয়েছে। কিন্তু একে একে সেগুলো আমরা মোকাবিলা করে এগিয়ে যাচ্ছি।

ছবি

দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে পিকআপের ধাক্কায় দুই ভাইসহ নিহত ৩

ছবি

জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় ভাষণ দেয়ার দিন কাল

ছবি

করোনায় মৃত্যু আরও ৩১, শনাক্তের হার ৪.৫৪

ছবি

ডেঙ্গুতে একদিনে আক্রান্ত আরও ১৮৯ জন

ছবি

বিশ্বব্যাপী ‘স্থিতিশীল খাদ্য ব্যবস্থা’ গড়ে তুলতে প্রধানমন্ত্রীর ৫ পরামর্শ

ছবি

ধনী-দরিদ্রের মধ্যে ‘ভ্যাকসিন বিভাজন’ দূর করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

কোভিড উপসর্গ থাকলে শিক্ষার্থীকে স্কুলে পাঠানো যাবে না : শিক্ষামন্ত্রী

এক কোটির বেশি লোক একসঙ্গে টিকা পাবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ছবি

ডেঙ্গু নতুন আক্রান্ত আরও ২৫৪ জন

ছবি

‘বিমানবন্দরের পিসিআর ল্যাবে শনিবারের মধ্যে করোনা পরীক্ষা শুরু’

২০২২ সালে ঢাকা-কক্সবাজার সরাসরি ট্রেনে : রেলমন্ত্রী

ছবি

চার মাসে করোনায় সর্বনিম্ন মৃত্যু ২৪, শনাক্তের হার নিম্নমুখী

ছবি

আফগান সঙ্কটে ‘ঢাকা পড়েনি’ রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনের বিষয়টি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কৃষকরা ফসলের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন : খাদ্যমন্ত্রী

ছবি

১৮-এর নিচে সবাই শিশু, বিষয়টি ভাবনার সময় এসেছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

সিনোফার্মের টিকা এল আরো ৫৫ লাখ ডোজ

ছবি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক শক্তিগুলোর নিষ্ক্রিয়তায় মর্মাহত বাংলাদেশ

ছবি

পরিবারে বাল্য বিয়ে থাকলে ভিজিডি সহায়তা নয়, সংসদীয় কমিটির সুপারিশ

ছবি

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত আরও ২২৯ রোগী হাসপাতালে

ছবি

করোনায় মৃত্যু বেড়ে ৩৬, শনাক্তের হার নিম্নমুখী

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর এসডিজি পুরস্কারপ্রাপ্তি দেশের ইতিহাসে মাইলফলক: ওবায়দুল কাদের

ছবি

কুইক রেন্টাল ৫টি বিদ্যুৎকেন্দ্রের মেয়াদ আরও দুই বছর বাড়ছে

ছবি

পরমাণুর শান্তিপূর্ণ ব্যবহারে নবাগত রাষ্ট্রের জন্য মডেল বাংলাদেশ: স্থপতি ইয়াফেস ওসমান

ছবি

রূপপুর এনপিপি পরিচালনায় প্রয়োজন দক্ষ জনবল

ছবি

কোন সাংবাদিক অহেতুক হয়রানির শিকার হবেন না: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

একদিনে ডেঙ্গুতে নতুন আক্রান্ত ২৪৬ জন

ছবি

সহপাঠ : ঢাকায় ৯% বিদ্যালয়ে মেয়েদের পৃথক শৌচাগার নেই

ছবি

করোনা শনাক্তের হার ৪.৬৯, মৃত্যু ২৬

অর্থায়ন ও মায়ানমারের আগ্রহ নেই আটকে আছে ট্রান্স এশিয়ান রেলরুট

ছবি

করোনায় প্রায় ৪ মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু ২৬

ছবি

ডেঙ্গুতে চব্বিশ ঘন্টায় আক্রান্ত আরও ২৭৫ জন

ছবি

বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী সৌদি আরব

ছবি

বাংলাদেশে নতুন প্রচলিত চায়না দুয়ারী জাল কেন বিপজ্জনক?

ছবি

জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

১৬০ ইউপি ও ৯ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে

আজ দেশের ১৬০টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচন

tab

জাতীয়

দেশ ও জনগণের জন্য সরকারি কর্মকর্তাদের কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১

দেশ ও জনগণের জন্য কাজ করতে সরকারি কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভালো কাজের জন্য যেমন পুরস্কার তেমনই খারাপ কাজে ক্ষমা করা হবে না।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে ‘জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস’ উদযাপন এবং ‘জনপ্রশাসন পদক ২০২০ ও ২০২১’ প্রদান অনুষ্ঠানে (ভার্চ্যুয়াল) এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক পদকপ্রাপ্তদের হাতে পদক তুলে দেন। অনুষ্ঠানে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন সভাপতিত্ব করেন। সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সচিবসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও সচিবগণ উপস্থিত ছিলেন।

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তির যুগে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন আসবে। নতুন উদ্ভাবন হবে তার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। তাহলেই আমরা বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারব।

জনপ্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, জনপ্রশাসনে যারা আছেন তাদের জনগণের সেবা করা, দেশের সেবা করা- এটাই সবচেয়ে বড় কাজ। আজকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এই করোনার কারণে আমরা অনেকটা পিছিয়ে গেছি। এর মধ্যেও আমরা কাজ করে যাচ্ছি এখানে জনপ্রশাসনের অবদান রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার গঠন করা বা ক্ষমতায় আসা ভোগ বিলাসের বিষয় নয়। আমি প্রধানমন্ত্রী হয়েছি বলে অনেক কিছু হয়েছি তা নয়। এটা একটা বিশাল দায়িত্ব। এটা সরকারি কর্মকর্তাদেরও দায়িত্ব। কারণ জনগণই আমাদের ভরণ পোষণ করে।

দেশের জনগণকে ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ করোনার হাত থেকে মুক্তি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে ভ্যাকসিন কেনা আমরা শুরু করেছি। ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হয়েছে। ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন দিতে হবে। যাতে দেশের সকলেই সুরক্ষিত থাকে।

সবাইকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনার কথা উল্লেখ করে সরকার প্রধান বলেন, ইতোমধ্যে আমি নির্দেশ দিয়েছি‑ পরিবারে যারা.. ড্রাইভার থেকে শুরু করে বাড়িতে যারা কাজ করে তাদের জন্য ভ্যাকসিন দিয়ে দেওয়া হয়। তাহলে সবাই সুরক্ষিত থাকতে পারবে। এর জন্য প্রয়োজনে যত টাকা লাগবে, যত ভ্যাকসিনের প্রয়োজন হবে আমরা কিনব। ভবিষ্যতে আমরা বাংলাদেশে ভ্যাকসিন তৈরি করব। যাতে মানুষের কোন অসুবিধা না হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ গ্রাম পর্যায় পর্যন্ত দেশের মানুষ সেবা পাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা মানুষ ব্যাপকভাবে পাচ্ছে। আমরা দেশের মানুষকে যে সকল সহযোগিতা করছি তার সবকিছুই এখন ডিজিটাল পদ্ধতিতে হচ্ছে। এতে আমাদের কাজ যথাযথ হচ্ছে, সময় বাঁচছে।

সরকার গঠন বা ক্ষমতায় আসা ভোগ-বিলাসের বিষয় নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রী হয়ে গেছি বিধায় মহান কিছু হয়ে গেছি তা নয়। এটা একটা বিরাট দায়িত্ব। এখানে সরকারি কর্মচারীদের দায়িত্ব রয়েছে। বাংলাদেশের জনগণ তো আপনাদের ভরণপোষণ-খাওয়ার জোগাড় সবই করে। কাজেই তাদের জন্য আমরা কতটুকু করতে পারলাম, তাদের কতটুকু দিতে পারলাম‑ এটাই সবচেয়ে বড় বিষয়। তাদের সার্বিক উন্নয়ন আমাদের সকলের দায়িত্ব।

তিনি বলেন, প্রত্যেকে আন্তরিকতার সাথে কাজ করেছি বলেই আজকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে অল্প সময়ের মধ্যে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হতে পেরেছি। সবাই যার যার জায়গায় কাজ করেছে বলেই মানুষ তার সুফল পেয়েছে, দেশের উন্নতি হয়েছে। নাহলে কখনোই আমরা এত তাড়াতাড়ি উন্নতি করতে পারতাম না।

তিনি বলেন, এই করোনার সময় সেবা দিতে গিয়ে প্রশাসন থেকে শুরু করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অনেকেই জীবন দিয়ে গেছে। আমাদের দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরাও সর্বক্ষণ সক্রিয় রয়েছে। তারাও জনগণের পাশে রয়েছে। করোনায় আমরাও আমাদের অনেক নেতাকর্মীকে হারিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের উপর অনেক বার আঘাত এসেছে। বারবার ঝড়-ঝাপটা গেছে। এবারের সরকারের সময় আমাদের অনেক প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হয়েছে। কিন্তু একে একে সেগুলো আমরা মোকাবিলা করে এগিয়ে যাচ্ছি।

back to top