alt

জাতীয়

কম খরচে ডিআরআইসিএমের মানসম্পন্ন কিট

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে ৫০০০ কিট উপহার দিল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০
image

মঙ্গলবার (২৬ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার কাছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রণালয়ের পক্ষে করোনা শনাক্তের ৫ হাজার কিট হস্তান্তর করেন ডিআরআইসিএমের পরিচালক ড. মালা খান।

বিজ্ঞান ও প্রযু্ক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমানের নির্দেশে করোনা শনাক্তের ৫ হাজার কিট স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে হস্তান্তর করা হয়েছে। করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) টেস্টের নমুনা সংগ্রহের জন্য অল্প খরচে দেশেই আন্তর্জাতিক মানের ডিটিএম কিট তৈরি করেছে বিজ্ঞান ও প্রযু্ক্তি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিসিএসআইআর এর অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ডিআরআইসিএম। মঙ্গলবার (২৬ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার কাছে কিট হস্তান্তর করেন ডিআরআইসিএমের পরিচালক ড. মালা খান।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এ বিষয়ে বলেন, বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের (বিসিএসআইআর) অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ‘ডেজিগনেটেড রেফারেন্স ইন্সটিটউট ফর কেমিক্যাল মেজারমেন্টসের (ডিআরআইসিএম) পরিচালক ড. মালা খানের নেতৃত্বে এক দল গবেষক ল্যাবরেটরিতে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রিত পদ্ধতিতে সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি, ইউএসএ) এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) গাইডলাইন অনুযায়ি ভাইরাল ট্রান্সপোর্ট মিডিয়া (ভিটিএম) কিট তৈরি করছে। ইতোমধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক কিটটি ব্যবহারের জন্য সবুজ সংকেত দেয়া হয়েছে।

স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেন, দেশে তৈরি সঠিক মানের এই ভিটিএম কিট করোনা টেস্টের ক্ষেত্রে আমদানি নির্ভরতা যেমন কমাবে, তেমনি বৈদেশকি মুদ্রা সাশ্রয়ও সম্ভব হবে।

ডিআরআইসিএমের পরিচালক ও প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মালা খান বলেন, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে নমুনা সংগ্রহ করে জেলা বা বিভাগীয় পর্যায়ের ল্যাবে এনে পরীক্ষা করতে দীর্ঘ সময় লাগে। আমাদের তৈরী ভিটিএম কিটে সংগৃহীত নমুন ৪ ডিগ্রি তাপমাত্রায় সহজেই ৩দিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়। তাই এই কিট করোনা পরীক্ষায় সঠিক ফলাফল দিতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

ভিটিএম কী?

ভিটিএম হচ্ছে লবন, প্রোটিন এবং অ্যান্টিবায়োটিকের সমন্বয়ে তৈরি এক বিশেষ ধরণের সল্যুশন বা দ্রবণ, যার মাধ্যমে ভাইরাস সংগ্রহ, ট্রান্সপোর্ট এবং দীর্ঘ সময় সংরক্ষণ করা যায়। সার্স কোভ-২ এর নমুনা সংগ্রহের জন্য বিশেষ ধরণের ভিটিএম তৈরির গাইডলাইন দিয়েছে সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি, ইউএসএ) এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউিএইচও)।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমানের নির্দেশে এবং মন্ত্রীপরিষদ সচিব একেএম আনোয়ার ইসলামের উৎসাহে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব প্রকৌশলী মো. আনোয়ার হোসেন ও বিসিএসআইআরের চেয়ারম্যান (সরকারের অতিরিক্ত সচিব) মো. ফারুক আহমেদের নিয়মিত তদারকিতে ডিআরআইসিএমের বিজ্ঞানী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা করোনা প্রতিরোধ সামগ্রী তৈরীতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

দিনরাত কাজ করছে ডিআরআইসিএম:

করোনা মহামারিতে বিভিন্ন হাসপাতালের চিকিৎসক ও রোগীদের সুরক্ষায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার, জীবাণুনাশক, ভিটিএম এবং বি-ক্লিন জার্মিসাইডাল ডিভাইস তৈরির কাজ করছে ডিআরআইসিএম। ল্যাবে উৎপাদিত এসব সামগ্রী বিতরণ অব্যহত রেছেছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ), ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে এসব সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, গত প্রায় দুই মাস যাবৎ সাতটি হাসপাতালসহ পুলিশ এবং সেনাবাহিনীতে বিসিএসআইআর নির্মিত হ্যান্ড স্যানিটাইজার, জীবাণুনাশক, ভিটিএম এবং বি-ক্লিন জার্মিসাইডাল ডিভাইস সরবরাহ করা হচ্ছে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এ বিষয়ে বলেন, আমাদের বিজ্ঞানীরা দিনরাত পরিশ্রম করে করোনা প্রতিরোধক স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী তৈরি করেছেন, যা আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন। করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশের চিকিৎসকদের নিরাপত্তাসহ স্বাস্থ্য সুরক্ষায় রোগীদের মধ্যে এসব সামগ্রী বিনামূল্যে বিতরণ কমসূচি চলমান আছে।

ছবি

বইয়ের জগৎ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা

ছবি

‘করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ’

ছবি

‘সিনোফার্মের টিকা কিনতে চীনের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন’

ছবি

এবারও বাংলাদেশ থেকে হজে যাওয়া হচ্ছে না

ছবি

দেশে করোনায় আরও ৩৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৩৭

ছবি

উত্তাল সাগর, চার সমুদ্র বন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা

ছবি

তিন আসনের উপনির্বাচনে আ’লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

ছবি

এ বছর চার মাসে বজ্রপাতে ১৭৭ জনের মৃত্যু

ছবি

চাঁদ দেখা যায়নি, রোববার থেকে জিলকদ মাস শুরু

ছবি

দেশে করোনায় মৃত্যু ১৩ হাজার ছাড়াল

ছবি

রাজধানীসহ সারাদেশে দিনভর থেমে থেমে বৃষ্টির সম্ভাবনা

ছবি

১০ লাখের বেশি টিকা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র: ড. মোমেন

ছবি

করোনার ভুয়া রিপোর্ট ঠেকাতে বিদেশগামীদের নতুন নির্দেশনা

ছবি

স্টিমকার গেমিং অ্যাপে জুয়া, আড্ডা ও টাকা পাচার

ছবি

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে ঘুরবে ‘বিশ্ব’ বাংলাদেশ

ছবি

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগের ২২ কোটি ২৫ লাখ টাকা অনুদান

ছবি

নতুন সেনাপ্রধান এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ

ছবি

অগ্নিকাণ্ডে দক্ষিণ আফ্রিকায় দুই বাংলাদেশি পরিবারের ৬ জন নিহত

ছবি

দেশে করোনায় মৃত্যু ৪০, শনাক্ত আড়াই হাজারের বেশি

ছবি

সবাই বলে টিকা দেবে, কবে দেবে বলে না : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

সরকারি তথ্যে গোপনীয়তায় গণমাধ্যমকে সম্মান দেখানোর আহ্বান

ছবি

সন্ত্রাস,জঙ্গিবাদ, ও মানুষ হত্যা করে কেউ বেহেশতে যাবে না :প্রধানমন্ত্রী

ছবি

একযোগে ৫০টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

১৪০টি দেশের মধ্যে অবস্থান ১৩৭

ছবি

বেঁধে দেয়া দামে এলপি গ্যাস বিক্রিতে অনাগ্রহী ব্যবসায়ীরা

ছবি

দেশে করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৫৩৭

ছবি

করোনায় বাহরাইনে ৭০ বাংলাদেশির মৃত্যু

ছবি

আবেদনের এক সপ্তাহের মধ্যে কোয়ারেন্টিন ভর্তুকির টাকা হাতে পাবেন সৌদি প্রবাসীরা

যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

অর্ধশত মডেল মসজিদের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

নৌবাহিনী প্রধানের সাথে বিমান বাহিনীর প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ

ছবি

দেশে করোনায় এক মাসে সর্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্ত

ছবি

জুনের প্রথম সপ্তাহে বজ্রপাতে প্রাণ হারালো ৫৬ জন

ছবি

দেশে ভ্যাকসিনের কোনো সংকট হবে না

ছবি

জাতিসংঘের সহ-সভাপতি নির্বাচিত বাংলাদেশ

ছবি

কাউন্টারে ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু

tab

জাতীয়

কম খরচে ডিআরআইসিএমের মানসম্পন্ন কিট

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে ৫০০০ কিট উপহার দিল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

মঙ্গলবার (২৬ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার কাছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রণালয়ের পক্ষে করোনা শনাক্তের ৫ হাজার কিট হস্তান্তর করেন ডিআরআইসিএমের পরিচালক ড. মালা খান।

মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০

বিজ্ঞান ও প্রযু্ক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমানের নির্দেশে করোনা শনাক্তের ৫ হাজার কিট স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে হস্তান্তর করা হয়েছে। করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) টেস্টের নমুনা সংগ্রহের জন্য অল্প খরচে দেশেই আন্তর্জাতিক মানের ডিটিএম কিট তৈরি করেছে বিজ্ঞান ও প্রযু্ক্তি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিসিএসআইআর এর অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ডিআরআইসিএম। মঙ্গলবার (২৬ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার কাছে কিট হস্তান্তর করেন ডিআরআইসিএমের পরিচালক ড. মালা খান।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এ বিষয়ে বলেন, বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের (বিসিএসআইআর) অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ‘ডেজিগনেটেড রেফারেন্স ইন্সটিটউট ফর কেমিক্যাল মেজারমেন্টসের (ডিআরআইসিএম) পরিচালক ড. মালা খানের নেতৃত্বে এক দল গবেষক ল্যাবরেটরিতে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রিত পদ্ধতিতে সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি, ইউএসএ) এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) গাইডলাইন অনুযায়ি ভাইরাল ট্রান্সপোর্ট মিডিয়া (ভিটিএম) কিট তৈরি করছে। ইতোমধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক কিটটি ব্যবহারের জন্য সবুজ সংকেত দেয়া হয়েছে।

স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেন, দেশে তৈরি সঠিক মানের এই ভিটিএম কিট করোনা টেস্টের ক্ষেত্রে আমদানি নির্ভরতা যেমন কমাবে, তেমনি বৈদেশকি মুদ্রা সাশ্রয়ও সম্ভব হবে।

ডিআরআইসিএমের পরিচালক ও প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মালা খান বলেন, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে নমুনা সংগ্রহ করে জেলা বা বিভাগীয় পর্যায়ের ল্যাবে এনে পরীক্ষা করতে দীর্ঘ সময় লাগে। আমাদের তৈরী ভিটিএম কিটে সংগৃহীত নমুন ৪ ডিগ্রি তাপমাত্রায় সহজেই ৩দিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়। তাই এই কিট করোনা পরীক্ষায় সঠিক ফলাফল দিতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

ভিটিএম কী?

ভিটিএম হচ্ছে লবন, প্রোটিন এবং অ্যান্টিবায়োটিকের সমন্বয়ে তৈরি এক বিশেষ ধরণের সল্যুশন বা দ্রবণ, যার মাধ্যমে ভাইরাস সংগ্রহ, ট্রান্সপোর্ট এবং দীর্ঘ সময় সংরক্ষণ করা যায়। সার্স কোভ-২ এর নমুনা সংগ্রহের জন্য বিশেষ ধরণের ভিটিএম তৈরির গাইডলাইন দিয়েছে সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি, ইউএসএ) এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউিএইচও)।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমানের নির্দেশে এবং মন্ত্রীপরিষদ সচিব একেএম আনোয়ার ইসলামের উৎসাহে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব প্রকৌশলী মো. আনোয়ার হোসেন ও বিসিএসআইআরের চেয়ারম্যান (সরকারের অতিরিক্ত সচিব) মো. ফারুক আহমেদের নিয়মিত তদারকিতে ডিআরআইসিএমের বিজ্ঞানী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা করোনা প্রতিরোধ সামগ্রী তৈরীতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

দিনরাত কাজ করছে ডিআরআইসিএম:

করোনা মহামারিতে বিভিন্ন হাসপাতালের চিকিৎসক ও রোগীদের সুরক্ষায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার, জীবাণুনাশক, ভিটিএম এবং বি-ক্লিন জার্মিসাইডাল ডিভাইস তৈরির কাজ করছে ডিআরআইসিএম। ল্যাবে উৎপাদিত এসব সামগ্রী বিতরণ অব্যহত রেছেছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ), ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে এসব সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, গত প্রায় দুই মাস যাবৎ সাতটি হাসপাতালসহ পুলিশ এবং সেনাবাহিনীতে বিসিএসআইআর নির্মিত হ্যান্ড স্যানিটাইজার, জীবাণুনাশক, ভিটিএম এবং বি-ক্লিন জার্মিসাইডাল ডিভাইস সরবরাহ করা হচ্ছে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এ বিষয়ে বলেন, আমাদের বিজ্ঞানীরা দিনরাত পরিশ্রম করে করোনা প্রতিরোধক স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী তৈরি করেছেন, যা আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন। করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশের চিকিৎসকদের নিরাপত্তাসহ স্বাস্থ্য সুরক্ষায় রোগীদের মধ্যে এসব সামগ্রী বিনামূল্যে বিতরণ কমসূচি চলমান আছে।

back to top