alt

রাজনীতি

শাজাহান খান জামায়াত-বিএনপিকে পুনর্বাসিত করেছেন : মাদারীপুর আ.লীগ সভাপতি

‌জেলা বার্তা পরি‌বেশক, মাদারীপুর : মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাংসদ শাজাহান খান মাদারীপুরে জামায়াত-বিএনপিকে পুনর্বাসিত করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা। সোমবার (৭ জুন) রাতে জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা অভিযোগ করেন, ‘শাজাহান খান ঢাকায় গিয়ে খালেদা জিয়াকে গালাগালি করে বক্তব্য দেন। আবার রাতেই মাদারীপুরে এসে জামায়াত-শিবির ও বিএনপিকে নিয়ে মিটিং করেন। তাদের পুনর্বাসন করছেন। এসব কিন্তু ভালো লক্ষণ না। আওয়ামী লীগের লোক চিকিৎসার অভাবে ধুঁকে ধুঁকে মরে, আপনি তাদের সহযোগিতা করেন না। অথচ আপনি সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে গিয়ে বিএনপির লোকদের সহযোগিতা করেন। সেই প্রমাণও আমাদের কাছে আছে।’

রোববার (৬ জুন) বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা করেছিলেন সাংসদ শাজাহান খান-সমর্থিত মুক্তিযোদ্ধারা। এই প্রসঙ্গ টেনে শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা বলেন, ‘শাজাহান খানের নেতৃত্বে আমার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা হয়েছে। সেই প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান হাওলাদার। কী তাঁর পরিচয়? তিনি জাসদ ও বিএনপি করেছেন। বিএনপির এমন এক নেতা কী আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগ চাইতে পারেন? এটা যারা আমরা আওয়ামী লীগ করি, তাদের জন্য লজ্জার।’

সাংসদ শাজাহান খানের আগের ইতিহাস টেনে জেলা আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘বুকে হাত রেখে বলেন, ১৫ বছর আগে আপনাদের কী ছিল? এখন কী হয়েছেন? এখন যা হয়েছেন, তা রাজৈরন্ডমাদারীপুর মানুষের ভোটে। আপনি এমপি-মন্ত্রী হয়েছেন, কিন্তু জনগণের কোনো উন্নয়ন হয়নি। সাধারণ কর্মীদের কোনো উন্নয়ন হয়নি।’ তিনি অভিযোগ করেন, ‘রাজৈরের ৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ মাদারীপুরের অসংখ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সভাপতি শাজাহান খান নিজে, তাঁর স্ত্রী ও সন্তান।’

শাজাহান খানের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে শাহাবুদ্দিন মোল্লা বলেন, ‘শাজাহান খান যাঁদের দিয়ে আমার পদত্যাগ চান, এটা ভালো লক্ষণ না। জেলা আওয়ামী লীগের অফিসে আসার মতো সৎসাহস আপনার নেই। আমার বিরুদ্ধে কোনো কথা থাকলে তা আওয়ামী লীগের পরিবারের মধ্যে আলোচনা করুন। ফেসবুকে রাজাকার, আলবদরদের সন্তানদের দিয়ে আমাদের ও আওয়ামী লীগের কুৎসা রচনা করে যাচ্ছেন, এটা ভালো লক্ষণ না। আমি বলতে চাই, এসব বন্ধ করুন।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি জাহাঙ্গীর কবির, সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মাদারীপুর পৌরসভার মেয়র খালিদ হোসেন, যুবলীগের সভাপতি আতাহার হোসেন ব্যাপারী, ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হো‌সেন অ‌নিকসহ অন্যরা।

ছবি

সার্চ কমিটির মাধ্যমেই নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে: ড. রাজ্জাক

ছবি

দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে বিএনপি ষড়যন্ত্র করছে: তাজুল ইসলাম

ছবি

মেগা প্রকল্প উদ্বোধন হলে বিএনপি নেতারা চোখে সর্ষে ফুল দেখবে: সেতুমন্ত্রী

ছবি

সরকার পুরো প্রশাসনকে দলীয়করণ করে ফেলেছে: মির্জা ফখরুল

ছবি

বিএনপির ঐক্যের শক্তি হাওয়ায় মিলিয়ে গেছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

বঙ্গবন্ধুর খুনি নূরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর দাবি তথ্য প্রতিমন্ত্রীর

ছবি

রাজশাহীতে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় জামিন পেলেন বিএনপির শীর্ষ তিন নেতা

ছবি

বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে দেশে বিরাজনীতিকরণ চলছে: জিএম কাদের

ছবি

দেশের উন্নয়ন করে সরকার ইতিহাস সৃষ্টি করেছে: পরিকল্পনামন্ত্রী

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর জাতিসংঘ সফরে কোনো অর্জন নেই: মির্জা ফখরুল

ছবি

আবার সহিংসতার করলে দাঁতভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে: বিএনপিকে কাদের

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর বেশির ভাগ সফরসঙ্গীই নিজ খরচে গেছেন: হাছান মাহমুদ

ছবি

প্রধানমন্ত্রী অসহায়দের পাশে আছেন: শিল্পমন্ত্রী

ছবি

নির্বাচন নামের শব্দ নিয়ে আর কোনো আলোচনা নয়: গয়েশ্বর চন্দ্র রায়

ছবি

বিএনপি সব সময় পেছনের দরজা পছন্দ করে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের কবর জাতীয় সংসদ চত্বরে থাকতে পারে না: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

ছবি

ষড়যন্ত্র ও সমালোচনার পার্থক্য সরকাকে বুঝতে হবে: প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

ছবি

বিএনপি তৃণমূল নেতাদের পরামর্শ সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেবেন শীর্ষ নেতৃত্ব

ছবি

বিএনপি দেশকে অস্থিতিশীল করে অগ্রযাত্রার গতি থামিয়ে দিতে চায়: ওবায়দুল কাদের

জনগণ চাইলে খালেদা জিয়াকে বিদেশ যেতে দেওয়া হবে: আইনমন্ত্রী

ছবি

মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর ‘ক্রাউন জুয়েল’ অর্জনে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

ছবি

গণতন্ত্রী পার্টির মাস্ক বিতরণ

ছবি

দেশের মানুষ ‘ভালো’ আছে বলে বিএনপি ‘ভালো’ নেই: ওবায়দুল কাদের

ছবি

আ.লীগ দেশ পরিচালনার সব ক্ষেত্রেই সম্পূর্ণ ব্যর্থ: মির্জা ফখরুল

ছবি

বাকশাল কৃষকের কল্যাণেই হয়েছিল: পরিকল্পনামন্ত্রী

মাদারীপুরের আ’লীগের ‘বিরোধ মেটাতে’ শাজাহান খানের ডাকে সাড়া দেননি কেউ

ছবি

খালেদা জিয়া কি জেলে না মুক্ত?

ছবি

আ.লীগ-বিএনপি ‘সংকটে’ জাপার ভবিষ্যত উজ্জ্বল: জিএম কাদের

ছবি

ভোটারদের নির্বাচন বিমুখতা, গণতন্ত্রের জন্য অশনিসংকেত: মাহবুব তালুকদার

ছবি

মেয়র তাহেরের ছেলে লক্ষ্মীপুরে ১০ যুবলীগ নেতা-কর্মীকে পেটালেন

ছবি

বর্তমানে দেশের কেউ ভালো নেই, শান্তিতে নেই: মির্জা ফখরুল

ছবি

স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে: ওবায়দুল কাদের

ছবি

সরকার যে কারো ব্যাংক হিসাব তলব করতে পারে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

নির্বাচন কমিশনের ক্ষমতা সাধারণ মানুষের কাছে দৃশ্যমান নয়: জি এম কাদের

ছবি

সাংবাদিক নেতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠি অপ্রত্যাশি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

tab

রাজনীতি

শাজাহান খান জামায়াত-বিএনপিকে পুনর্বাসিত করেছেন : মাদারীপুর আ.লীগ সভাপতি

‌জেলা বার্তা পরি‌বেশক, মাদারীপুর

মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাংসদ শাজাহান খান মাদারীপুরে জামায়াত-বিএনপিকে পুনর্বাসিত করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা। সোমবার (৭ জুন) রাতে জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা অভিযোগ করেন, ‘শাজাহান খান ঢাকায় গিয়ে খালেদা জিয়াকে গালাগালি করে বক্তব্য দেন। আবার রাতেই মাদারীপুরে এসে জামায়াত-শিবির ও বিএনপিকে নিয়ে মিটিং করেন। তাদের পুনর্বাসন করছেন। এসব কিন্তু ভালো লক্ষণ না। আওয়ামী লীগের লোক চিকিৎসার অভাবে ধুঁকে ধুঁকে মরে, আপনি তাদের সহযোগিতা করেন না। অথচ আপনি সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে গিয়ে বিএনপির লোকদের সহযোগিতা করেন। সেই প্রমাণও আমাদের কাছে আছে।’

রোববার (৬ জুন) বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা করেছিলেন সাংসদ শাজাহান খান-সমর্থিত মুক্তিযোদ্ধারা। এই প্রসঙ্গ টেনে শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা বলেন, ‘শাজাহান খানের নেতৃত্বে আমার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা হয়েছে। সেই প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান হাওলাদার। কী তাঁর পরিচয়? তিনি জাসদ ও বিএনপি করেছেন। বিএনপির এমন এক নেতা কী আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগ চাইতে পারেন? এটা যারা আমরা আওয়ামী লীগ করি, তাদের জন্য লজ্জার।’

সাংসদ শাজাহান খানের আগের ইতিহাস টেনে জেলা আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘বুকে হাত রেখে বলেন, ১৫ বছর আগে আপনাদের কী ছিল? এখন কী হয়েছেন? এখন যা হয়েছেন, তা রাজৈরন্ডমাদারীপুর মানুষের ভোটে। আপনি এমপি-মন্ত্রী হয়েছেন, কিন্তু জনগণের কোনো উন্নয়ন হয়নি। সাধারণ কর্মীদের কোনো উন্নয়ন হয়নি।’ তিনি অভিযোগ করেন, ‘রাজৈরের ৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ মাদারীপুরের অসংখ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সভাপতি শাজাহান খান নিজে, তাঁর স্ত্রী ও সন্তান।’

শাজাহান খানের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে শাহাবুদ্দিন মোল্লা বলেন, ‘শাজাহান খান যাঁদের দিয়ে আমার পদত্যাগ চান, এটা ভালো লক্ষণ না। জেলা আওয়ামী লীগের অফিসে আসার মতো সৎসাহস আপনার নেই। আমার বিরুদ্ধে কোনো কথা থাকলে তা আওয়ামী লীগের পরিবারের মধ্যে আলোচনা করুন। ফেসবুকে রাজাকার, আলবদরদের সন্তানদের দিয়ে আমাদের ও আওয়ামী লীগের কুৎসা রচনা করে যাচ্ছেন, এটা ভালো লক্ষণ না। আমি বলতে চাই, এসব বন্ধ করুন।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি জাহাঙ্গীর কবির, সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মাদারীপুর পৌরসভার মেয়র খালিদ হোসেন, যুবলীগের সভাপতি আতাহার হোসেন ব্যাপারী, ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হো‌সেন অ‌নিকসহ অন্যরা।

back to top