alt

রাজনীতি

সরকারকে গ্রাহকের টাকা ফিরিয়ে দিতে হবে: সংসদে রুমিন ফারহানা

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

সরকারের গাফিলতির কারণে ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জের মতো প্রতিষ্ঠান ব্যবসার নামে প্রতারণা করে হাজার কোটি টাকা লুট করেছে বলে মন্তব্য করেছেন, বিএনপি থেকে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ রুমিন ফারহানা। যাঁরা টাকা দিয়ে প্রতারিত হয়েছেন, তাঁদের টাকা সরকারকে ফিরিয়ে দিতে হবে। পরে সরকার ওই সব প্রতিষ্ঠান থেকে টাকা আদায় করবে।

আজ (১৬ সেপ্টেম্বর) বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এই দাবি জানান।

তিনি বলেন, ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জসহ অনেকে ই-কমার্স ব্যবসা শুরু করার সময়ই বোঝা গিয়েছিল তারা প্রতারণা করবে। তারা অর্ধেক দামে পণ্য বিক্রির অফার দিয়েছিল। প্রচুর মানুষ বিনিয়োগ করেছে। এখন হাজার কোটি টাকা নিয়ে তারা আর পণ্য দিচ্ছে না। শুধু মানুষকে দোষ দিলে হবে না। এই প্রতিষ্ঠানগুলো গোপনে ব্যবসা করেনি। যে পরিামণ বিজ্ঞাপন দিয়ে তারা ব্যবসা করেছে, তাতে সরকারের নীতিনির্ধারকদের এটি না জানার কথা নয়। তারা ক্রিকেট দলের স্পনসরও হয়েছিল। তিনি বলেন, অন্য সবকিছু বাদ দিলেও প্রতিযোগিতা আইন অনুযায়ী, এই ধরনের ব্যবসা চলতে পারে না। কিন্তু সরকার কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

পয়েন্ট অব অর্ডারে জাতীয় পার্টির সাংসদ পীর ফজলুর রহমান বলেন, অবৈধ ভিওআইপির ভয়াবহ সিন্ডিকেটের কারণে সরকার বিপুল রাজস্ব হারাচ্ছে। মাসে ৩৭৫ কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে। এর সঙ্গে জড়িত টেলিটক। এ বিষয়ে তিনি জাতীয় সংসদে ৩০০ বিধিতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করেন।

পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে বিএনপির সাংসদ হারুনুর রশীদ তিনটি বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করেছিলেন। তাঁর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারদলীয় হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ বলেছিলেন, পরীমনির প্রতি বিএনপির হারুনের এত আগ্রহ কেন। তিনি এই বক্তব্য এক্সপাঞ্জ করার দাবি জানান। সংসদের আগামী অধিবেশনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিবৃতি দেবেন বলেও তিনি আশা করেন।

বিএনপির আরেক সাংসদ জি এম সিরাজ বলেন, খালেদা জিয়া তাঁর নেত্রী। সংসদে তাঁর নেত্রী শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধুকন্যার মেগা প্রজেক্টে তিনি আনন্দিত হন। একইভাবে মেগা দুর্নীতি তাঁকে ব্যথিত করে। তিনি বলেন, গরিবদের জন্য করা ঘর ধসে পড়েছে। কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এগুলো হাতুড়ি দিয়ে ভাঙা হয়েছে। জি এম সিরাজ দাবি করেন, দুর্নীতি দমন কমিশনের একজন পরিচালক তাঁকে বলেছেন, এই বক্তব্যের পর দুদকের তদন্ত থেমে গেছে।

ছবি

কারমাইকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা

যশোরে রাজাকার পরিবারের দুই সন্তান পেলেন আ.লীগের মনোনয়ন

ছবি

কুমিল্লার ঘটনা কিভাবে ঘটেছে বিএনপি নেতারাই ভালো জানেন: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

সন্দেহ ভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

ছবি

মেয়র জাহাঙ্গীরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত ১৯ নভেম্বর

ছবি

আইসিইউতে থাকা রওশন এরশাদের অবস্থা উন্নতি

ছবি

সড়কে শৃঙ্খলা আনাই বড় চ্যালেঞ্জ: ওবায়দুল কাদের

নারায়ণগঞ্জে ১৬ ইউপিতে বাছাইয়ে বাদ পড়লেন ৪১ জন

ছবি

বিএনপি নেতারা নিজেদের অক্ষমতা আড়াল করতে পুরনো রেকর্ড বাজিয়ে যাচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

কাদের মির্জার রাজনৈতিক ভাবে মৃত্যু হয়েছে -- খিজির হায়াত খান

ছবি

বিএনপি নিজেরাই রাজনৈতিকভাবে সাম্প্রদায়িক: ওবায়দুল কাদের

ছবি

সখীপুরে আ.লীগ মনোনীত চার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মতবিনিময়

ওবায়দুল কাদের মিথ্যুক, প্রতারক, বিশ্বাস ঘাতক, তার নেতার চরিত্র নেই : কাদের মির্জা

নোয়াখালীতে আলীগের সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশ

ছবি

আওয়ামী লীগ এই অপশক্তিকে মোকাবিলা করবে

ছবি

রাষ্ট্রবিরোধী দল নয়, বিরোধী দল চাই: এলজিআরডি মন্ত্রী

ছবি

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদত্যাগ চান জিএম কাদের

ছবি

নারায়ণগঞ্জে ১৬ ইউপি চেয়ারম্যান পদে ৬৪ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

ছবি

যারা সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করে তারাই কুমিল্লার ঘটনা ঘটিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের জন্য ষড়যন্ত্র চলছে: জিএম কাদের

ভোটারের দ্বারে দ্বারে প্রার্থীরা,দিচ্ছেনপ্রতিশ্রুতি

ছবি

সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নাম্বার ওয়ান পৃষ্ঠপোষক বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

ছবি

বিএনপির বক্তব্যই প্রমাণ করে কুমিল্লার ঘটনায় তাদের ইন্ধন রয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

নারায়ণগঞ্জে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে নৌকা প্রার্থীর মিছিল

ছবি

রূপগঞ্জে আ’লীগে পাঁচ প্রার্থীর মনোয়নপত্র দাখিল

ছবি

সরকার ‘কাচের ঘরে’ বসে ‘লম্বা লম্বা’ কথা বলছে: মির্জা আব্বাস

ছবি

সরকারি মহলের ইঙ্গিতেই সাম্প্রদায়িক হামলা: মির্জা ফখরুল

ছবি

বিএনপি সাম্প্রদায়িকতাকে উসকে দিচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

ছবি

মন্দিরে হামলা মামলায় মনোয়ন বাতিল নৌকার ২ ইউপি প্রার্থীর

ছবি

মানুষের দৃষ্টি ভিন্ন খাতে নিতে কুমিল্লার ঘটনা ঘটানো হয়েছে : ফখরুল

ছবি

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চায় একটি মহল : কাদের

ছবি

মনোনয়নপত্র জমা দিলেন শেরিফা কাদের

ছবি

খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দিতে হবে, এটাই জনগণের দাবি: মির্জা ফখরুল

ছবি

বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার চোরাগলি খোঁজে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

আওয়ামী লীগের পালানোর ইতিহাস নেই, কখনও পালাবে না: কৃষিমন্ত্রী

ছবি

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা দেশে সম্ভব না: মির্জা ফখরুল

tab

রাজনীতি

সরকারকে গ্রাহকের টাকা ফিরিয়ে দিতে হবে: সংসদে রুমিন ফারহানা

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

সরকারের গাফিলতির কারণে ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জের মতো প্রতিষ্ঠান ব্যবসার নামে প্রতারণা করে হাজার কোটি টাকা লুট করেছে বলে মন্তব্য করেছেন, বিএনপি থেকে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ রুমিন ফারহানা। যাঁরা টাকা দিয়ে প্রতারিত হয়েছেন, তাঁদের টাকা সরকারকে ফিরিয়ে দিতে হবে। পরে সরকার ওই সব প্রতিষ্ঠান থেকে টাকা আদায় করবে।

আজ (১৬ সেপ্টেম্বর) বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এই দাবি জানান।

তিনি বলেন, ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জসহ অনেকে ই-কমার্স ব্যবসা শুরু করার সময়ই বোঝা গিয়েছিল তারা প্রতারণা করবে। তারা অর্ধেক দামে পণ্য বিক্রির অফার দিয়েছিল। প্রচুর মানুষ বিনিয়োগ করেছে। এখন হাজার কোটি টাকা নিয়ে তারা আর পণ্য দিচ্ছে না। শুধু মানুষকে দোষ দিলে হবে না। এই প্রতিষ্ঠানগুলো গোপনে ব্যবসা করেনি। যে পরিামণ বিজ্ঞাপন দিয়ে তারা ব্যবসা করেছে, তাতে সরকারের নীতিনির্ধারকদের এটি না জানার কথা নয়। তারা ক্রিকেট দলের স্পনসরও হয়েছিল। তিনি বলেন, অন্য সবকিছু বাদ দিলেও প্রতিযোগিতা আইন অনুযায়ী, এই ধরনের ব্যবসা চলতে পারে না। কিন্তু সরকার কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

পয়েন্ট অব অর্ডারে জাতীয় পার্টির সাংসদ পীর ফজলুর রহমান বলেন, অবৈধ ভিওআইপির ভয়াবহ সিন্ডিকেটের কারণে সরকার বিপুল রাজস্ব হারাচ্ছে। মাসে ৩৭৫ কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে। এর সঙ্গে জড়িত টেলিটক। এ বিষয়ে তিনি জাতীয় সংসদে ৩০০ বিধিতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করেন।

পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে বিএনপির সাংসদ হারুনুর রশীদ তিনটি বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করেছিলেন। তাঁর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারদলীয় হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ বলেছিলেন, পরীমনির প্রতি বিএনপির হারুনের এত আগ্রহ কেন। তিনি এই বক্তব্য এক্সপাঞ্জ করার দাবি জানান। সংসদের আগামী অধিবেশনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিবৃতি দেবেন বলেও তিনি আশা করেন।

বিএনপির আরেক সাংসদ জি এম সিরাজ বলেন, খালেদা জিয়া তাঁর নেত্রী। সংসদে তাঁর নেত্রী শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধুকন্যার মেগা প্রজেক্টে তিনি আনন্দিত হন। একইভাবে মেগা দুর্নীতি তাঁকে ব্যথিত করে। তিনি বলেন, গরিবদের জন্য করা ঘর ধসে পড়েছে। কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এগুলো হাতুড়ি দিয়ে ভাঙা হয়েছে। জি এম সিরাজ দাবি করেন, দুর্নীতি দমন কমিশনের একজন পরিচালক তাঁকে বলেছেন, এই বক্তব্যের পর দুদকের তদন্ত থেমে গেছে।

back to top