alt

খেলা

জাতীয় লীগে ঢাকার ষষ্ঠ শিরোপা

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক : বুধবার, ২৪ নভেম্বর ২০২১

দেশের প্রধান ঘরোয়া টুর্নামেন্ট জাতীয় ক্রিকেট লীগের (এনসিএল) এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকা বিভাগ। ষষ্ঠ রাউন্ডে খুলনা বিভাগকে ১৭৯ রানে হারিয়ে সাত বছর পর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাজধানীর দলটি। বুধবার বিকেএসপির মাঠে ঢাকার দেয়া ৩৭৯ রানের লক্ষে খেলতে নেমে ১৯৯ রানে অলআউট হয় খুলনা। ষষ্ঠবারের মতো জাতীয় লীগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তাইবুর রহমানের দল।

৩৭৯ রানের চাপ মাথায় নিয়ে মঙ্গলবার শেষ বিকেলে ব্যাটিং শুরু করেছিল খুলনা। ইমরুল কায়েস-অমিত মজুমদার কোন বিপদ ছাড়াই দিন শেষ করে আসেন। চতুর্থ দিন সকালে শুরুতেই ফেরেন ইমরুল। এরপর অমিতের সঙ্গী হন রবিউল ইসলাম। দু’জনে পানিপানের বিরতি পর্যন্ত ব্যাটিং করেন নির্বিঘ্নে। কিন্তু এরপরেই যেন ধস নামে খুলনার ব্যাটিংয়ে। দলীয় ৪৩ রানে অমিত আউট হন ব্যক্তিগত ২০ রানে। এরপর মাত্র ২৯ রান না যোগ হতেই খুলনা হারায় আরও ৪ উইকেট। শূন্য রানে ফেরেন সৌম্য। তার আউটের ক্ষত না মুছতেই সাজঘরে ফেরেন ক্রিজে থিতু হওয়া ব্যাটসম্যান রবি। তার ব্যাট থেকে আসে ৯২ বলে ২০ রান।

আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে মোহাম্মদ মিঠুন ফেরেন ১৪ রানে। তার আউটের পর ক্রিজে এসে রানের খাতা খুলতে পারেননি জিয়া। পানিপানের বিরতি থেকে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যাওয়ার আগে খুলনার হারের চিত্রনাট্য লেখা হয়ে যায়। এরপর নাহিদুল ইসলাম-ইমরানুজ্জামানের ব্যাটে লড়াই করেছিল খুলনা। দু’জনে টুকে টুকে সময় পার করে ড্রয়ের দিকে নেয়ার চেষ্টা করতে ছিলেন। কিন্তু নাহিদুল ১০৯ বলে ৪০ রানের বেশি করতে পারেননি। তারপরেই ফেরেন ইমরানুজ্জমান। ১০৭ বলে ৩২ রান আসে ইমরানের ব্যাট থেকে।

এরপর ক্রিজে আসেন মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী। তিনি ৬৩ বলে ২৯ রান করে লড়াই করেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারেননি। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আল আমিন ১৯ রানে আউট হলে বড় ব্যবধানে জিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পায় ঢাকা। ঢাকার হয়ে একাই ৫ উইকেট নেন অধিনায়ক তাইবুর। ১৭.১ ওভারে ৮৯ রান দিয়ে তিনি এই উইকেটগুলো নেন। এছাড়া তিন উইকেট নেন শুভাগত হোম। ম্যাচসেরার পুরস্কারও উঠে তার হাতে।

প্রথম স্তরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ ছিল রংপুরের সামনেও। ২৮.৮৯ পয়েন্ট নিয়ে তারা শীর্ষে ছিল। কিন্তু সিলেটের বিপক্ষে ড্র হওয়ায়, আর ঢাকা ম্যাচ জেতায় ভাগ্য সহায় হয়নি। জাতীয় লীগে ঢাকা সর্বশেষ ২০১৩-১৪ সেশনে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। গত আসরের চ্যাম্পিয়ন ছিল খুলনা। মোট সাতবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল তারা। আর এবার চ্যাম্পিয়ন তো দূরে থাক, দলটিকে নেমে যেতে হচ্ছে এক ধাপ নিচে, দ্বিতীয় স্তরে। সিলেট রংপুরের বিপক্ষে ড্র হওয়ায় রুপসা পাড়ের দলটি নেমে যাচ্ছে পরের স্তরে।

ছবি

টেস্টে দেশের সর্বাধিক রান মুশফিকের

ছবি

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হকির জন্য ২৮ জনের প্রাথমিক দল

ছবি

মোহামেডানের জয়ে দুর্দান্ত দিয়াবাত

ছবি

দুই দিন আগেই বাংলাদেশ ছাড়ছেন ফিল্যান্ডার

ছবি

১০ জনের এতিয়ের বিপক্ষে পিএসজির সহজ জয়

ছবি

মেসির হ্যাট্রিক-অ্যাসিস্ট, রামোসের অভিষেক

ছবি

কানপুরে সমানতালে লড়ছে নিউজিল্যান্ড-ভারত

ছবি

তৃতীয় দিন শেষে চালকের আসনে পাকিস্তান

ছবি

সাদমান, শান্ত, মোমিনুলের বিদায়ে চাপে বাংলাদেশ

ছবি

তাইজুলের স্পিন যাদুতে এগিয়ে বাংলাদেশ

ছবি

তাণ্ডব চালিয়ে তাইজুলের ৫ উইকেট, দিশেহারা পাকিস্তান

ছবি

লাঞ্চের পর ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পাকিস্তান

ছবি

অধিনায়ক বাবরকে ফিরিয়ে দিলেন মিরাজ

ছবি

সাউদাম্পটনকে ৪ গোল দিয়েছে লিভারপুল

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

ভিয়ারিয়ালকে হারিয়েছে বার্সেলোনা

ছবি

নারী ক্রিকেট দলের বিশ্বকাপের স্বপ্ন পূরণ

কানপুর টেস্ট

ছবি

অনুশীলনে ফিরলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের রাজপুত্র

ছবি

চ্যাম্পিয়ন হলো মেরিনার্স

ছবি

এখন পর্যন্ত খেলা দুই পক্ষেই আছে: লিটন

ছবি

উইন্ডিজ দলে পাঁচ নতুন মুখ

ছবি

নাভার্স-নাইন্টিতে মুশফিকের রেকর্ড

ছবি

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ‘ঝুঁকি নিবেন না জকোভিচ’

ছবি

লিটন-মুশফিকের ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ ইনজামাম

ছবি

টি-২০তে ওপেনাররা মজাটা নষ্ট করে দিচ্ছে : গেইল

ছবি

বিশ্বকাপের আগেই ছিটকে যাচ্ছেন রোনালদো কিংবা-মানচিনিরা

ছবি

চুক্তি নবায়নে সঙ্কা, সুযোগ নিতে চায় নিউক্যাসল

ছবি

উদ্বোধনী ম্যাচে শেখ রাসেলের জয়

ছবি

ওয়ানডে বিশ্বকাপে টাইগ্রেসরা

ছবি

বাংলাদেশের বোলারদের হতাশার দিন

ছবি

ওমিক্রনে বাতিল বাছাইপর্ব, বিশ্বকাপে নারী দল

ছবি

নারীদের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে করোনার হানা

ছবি

পেস-সুইংয়ে দূর্বল সেই পুরনো বাংলাদেশ

ছবি

সাজঘরে ফিরলেন মুশফিকও

ছবি

দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই সাজঘরে লিটন

tab

খেলা

জাতীয় লীগে ঢাকার ষষ্ঠ শিরোপা

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক

বুধবার, ২৪ নভেম্বর ২০২১

দেশের প্রধান ঘরোয়া টুর্নামেন্ট জাতীয় ক্রিকেট লীগের (এনসিএল) এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকা বিভাগ। ষষ্ঠ রাউন্ডে খুলনা বিভাগকে ১৭৯ রানে হারিয়ে সাত বছর পর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাজধানীর দলটি। বুধবার বিকেএসপির মাঠে ঢাকার দেয়া ৩৭৯ রানের লক্ষে খেলতে নেমে ১৯৯ রানে অলআউট হয় খুলনা। ষষ্ঠবারের মতো জাতীয় লীগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তাইবুর রহমানের দল।

৩৭৯ রানের চাপ মাথায় নিয়ে মঙ্গলবার শেষ বিকেলে ব্যাটিং শুরু করেছিল খুলনা। ইমরুল কায়েস-অমিত মজুমদার কোন বিপদ ছাড়াই দিন শেষ করে আসেন। চতুর্থ দিন সকালে শুরুতেই ফেরেন ইমরুল। এরপর অমিতের সঙ্গী হন রবিউল ইসলাম। দু’জনে পানিপানের বিরতি পর্যন্ত ব্যাটিং করেন নির্বিঘ্নে। কিন্তু এরপরেই যেন ধস নামে খুলনার ব্যাটিংয়ে। দলীয় ৪৩ রানে অমিত আউট হন ব্যক্তিগত ২০ রানে। এরপর মাত্র ২৯ রান না যোগ হতেই খুলনা হারায় আরও ৪ উইকেট। শূন্য রানে ফেরেন সৌম্য। তার আউটের ক্ষত না মুছতেই সাজঘরে ফেরেন ক্রিজে থিতু হওয়া ব্যাটসম্যান রবি। তার ব্যাট থেকে আসে ৯২ বলে ২০ রান।

আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে মোহাম্মদ মিঠুন ফেরেন ১৪ রানে। তার আউটের পর ক্রিজে এসে রানের খাতা খুলতে পারেননি জিয়া। পানিপানের বিরতি থেকে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যাওয়ার আগে খুলনার হারের চিত্রনাট্য লেখা হয়ে যায়। এরপর নাহিদুল ইসলাম-ইমরানুজ্জামানের ব্যাটে লড়াই করেছিল খুলনা। দু’জনে টুকে টুকে সময় পার করে ড্রয়ের দিকে নেয়ার চেষ্টা করতে ছিলেন। কিন্তু নাহিদুল ১০৯ বলে ৪০ রানের বেশি করতে পারেননি। তারপরেই ফেরেন ইমরানুজ্জমান। ১০৭ বলে ৩২ রান আসে ইমরানের ব্যাট থেকে।

এরপর ক্রিজে আসেন মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী। তিনি ৬৩ বলে ২৯ রান করে লড়াই করেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারেননি। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আল আমিন ১৯ রানে আউট হলে বড় ব্যবধানে জিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পায় ঢাকা। ঢাকার হয়ে একাই ৫ উইকেট নেন অধিনায়ক তাইবুর। ১৭.১ ওভারে ৮৯ রান দিয়ে তিনি এই উইকেটগুলো নেন। এছাড়া তিন উইকেট নেন শুভাগত হোম। ম্যাচসেরার পুরস্কারও উঠে তার হাতে।

প্রথম স্তরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ ছিল রংপুরের সামনেও। ২৮.৮৯ পয়েন্ট নিয়ে তারা শীর্ষে ছিল। কিন্তু সিলেটের বিপক্ষে ড্র হওয়ায়, আর ঢাকা ম্যাচ জেতায় ভাগ্য সহায় হয়নি। জাতীয় লীগে ঢাকা সর্বশেষ ২০১৩-১৪ সেশনে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। গত আসরের চ্যাম্পিয়ন ছিল খুলনা। মোট সাতবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল তারা। আর এবার চ্যাম্পিয়ন তো দূরে থাক, দলটিকে নেমে যেতে হচ্ছে এক ধাপ নিচে, দ্বিতীয় স্তরে। সিলেট রংপুরের বিপক্ষে ড্র হওয়ায় রুপসা পাড়ের দলটি নেমে যাচ্ছে পরের স্তরে।

back to top