alt

খেলা

চট্টগ্রামে প্রথম অনুশীলনে মোমিনুলের দল

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক : বুধবার, ২৪ নভেম্বর ২০২১

চট্টগ্রামে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১ম টেস্টের জন্য বাংলাদেশের পুরো স্কোয়াডের একসঙ্গে প্রথম অনুশীলন হলো বুধবার। সাদমানের সঙ্গে ওপেনার হিসেবে স্কোয়াডে আছেন সাইফ হাসান। তবে জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামের ড্রেসিং রুম প্রান্তের নেটে সাদমানের পাশে শুরুতে ব্যাটিং করলেন মাহমুদুল।

পেস বোলিং অবশ্য নয়, মাহমুদুল শুরুতে খেললেন স্পিনারদের। মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলামদের সামনে শুরুতে কিছুটা অস্বস্তি দেখা গেল তার ব্যাটিংয়ে। মিরাজ এসময় তাকে বেশ সাহসও জোগালেন প্রেরণাদায়ী কথায়। পরে অবশ্য তাকে দেখা গেল সাবলীল ব্যাটিং করতে।

এক প্রান্তের নেট সেশন শেষে আরেক প্রান্তের পালা। মাঝখানে ‘শিক্ষা গ্রহণ পর্ব।’ প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ও টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ বেশ কিছুক্ষণ কথা বললেন দলের এই নবীন সদস্যের সঙ্গে।

এরপর মাহমুদুল চলে গেলেন প্রেসবক্স প্রান্তের নেটে। সেখানে অপেক্ষায় তিন আর্ম থ্রোয়ার। এবার অবশ্য বেশ স্বচ্ছন্দ ২১ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। তার মূল শক্তির জায়গা সোজা ব্যাটে খেলা। টেকনিক খুব জটিল নয় তার, বরং ‘সিম্পল’ ও প্রথাগত। চেষ্টা করেন বল যতটা সম্ভব দেরিতে খেলার। অফ ড্রাইভ, কাভার ড্রাইভ ও ইনসাইড আউট শট তার দারুণ। ফ্লিকও খারাপ খেলেন না। নেটে সেসবের সবকিছুই মেলে ধরেন মাহমুদুল।

জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন তিনি প্রথমবার। এই চট্টগ্রামে তার টেস্ট অভিষেক হয়ে গেলেও থাকবে না খুব বিস্ময়ের কিছু। চোটে ছিটকে পড়া সাকিব আল হাসানের জায়গায় যদি কোনো ব্যাটসম্যান খেলানোর সিদ্ধান্ত নেয় দল, সেই জায়গাটি নিয়ে লড়াই হবে ইয়াসির আলি চৌধুরি ও মাহমুদুলের।

অভিষেক হলে মাহমুদুলের জন্য সেটি হবে একরকম রূপকথাই। গতবছরই অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলেছেন তিনি। দলের শিরোপা জয়ের অবিস্মরণীয় সাফল্যে তার অবদানও ছিল দারুণ। সেমিফাইনালে করেছিলেন অসাধারণ এক সেঞ্চুরি।

যুব বিশ্বকাপের পর সেখানেই আটকে থাকেননি তিনি। উন্নতির পথ ধরে ছুটে চলেছেন দ্রুতই। আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে গত মার্চে একদিনের ম্যাচের সিরিজে ৭১.২৫ গড়ে ২৮৫ রান করে সর্বোচ্চ স্কোরার হন তিনি। ৫ ইনিংসে সেঞ্চুরি ছিল একটি, ফিফটি দুটি। প্রিমিয়ার লীগ টি-২০তে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোরার তিনি। ওল্ডডিওএইচএসের হয়ে ৩৯২ রান করেন ৪৩.৫৫ গড় ও ১২১.৩৬ স্ট্রাইক রেটে।

রঙিন পোশাকের দুই সংস্করণের পর মাহমুদুল রানের জোয়ার ধরে রাখেন সাদা পোশাকেও। এবার জাতীয় লীগে জোড়া শূন্য দিয়ে শুরু করলেও পরের দুই ম্যাচে করেন দারুণ দুটি সেঞ্চুরি। পরের ম্যাচে আউট হন ৮৩ রান করে। সেই ম্যাচেই মাঝপথেই টেস্ট দলে ডাক পেয়ে চলে আসেন চট্টগ্রামে।

শেষ পর্যন্ত এখানেই টেস্ট অভিষেক হবে কিনা, তা জানা যাবে শুক্রবারই। তবে স্কোয়াডে জায়গা পেয়েও রোমাঞ্চ কম নয় মাহমুদুলের।

‘আসলে এই অনুভূতিটা প্রকাশ করার মতো নয়। সবারই স্বপ্ন থাকে টেস্ট স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়ার, জাতীয় দলে জায়গা পাওয়ার। প্রথমবারের মতো টেস্ট দলে সুযোগ পেয়েছি, আমি অনেক খুশি।’

‘জাতীয় লীগে বেশ কয়েকটি ইনিংস ভালো খেলেছি। আমার আত্মবিশ্বাস এখন ভালো। তার আগে এইচপি ও ‘এ’ দলের প্রস্তুতি ম্যাচেও ভালো ইনিংস খেলেছি। সামনের ম্যাচগুলোতে ভালো করার জন্য আমি প্রস্তুুত।’

আপাতত বাংলাদেশ ক্রিকেটও তৈরি হচ্ছে নতুন এক তারার ঝলকানি দেখার জন্য।

ছবি

টেস্টে দেশের সর্বাধিক রান মুশফিকের

ছবি

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হকির জন্য ২৮ জনের প্রাথমিক দল

ছবি

মোহামেডানের জয়ে দুর্দান্ত দিয়াবাত

ছবি

দুই দিন আগেই বাংলাদেশ ছাড়ছেন ফিল্যান্ডার

ছবি

১০ জনের এতিয়ের বিপক্ষে পিএসজির সহজ জয়

ছবি

মেসির হ্যাট্রিক-অ্যাসিস্ট, রামোসের অভিষেক

ছবি

কানপুরে সমানতালে লড়ছে নিউজিল্যান্ড-ভারত

ছবি

তৃতীয় দিন শেষে চালকের আসনে পাকিস্তান

ছবি

সাদমান, শান্ত, মোমিনুলের বিদায়ে চাপে বাংলাদেশ

ছবি

তাইজুলের স্পিন যাদুতে এগিয়ে বাংলাদেশ

ছবি

তাণ্ডব চালিয়ে তাইজুলের ৫ উইকেট, দিশেহারা পাকিস্তান

ছবি

লাঞ্চের পর ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পাকিস্তান

ছবি

অধিনায়ক বাবরকে ফিরিয়ে দিলেন মিরাজ

ছবি

সাউদাম্পটনকে ৪ গোল দিয়েছে লিভারপুল

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

ভিয়ারিয়ালকে হারিয়েছে বার্সেলোনা

ছবি

নারী ক্রিকেট দলের বিশ্বকাপের স্বপ্ন পূরণ

কানপুর টেস্ট

ছবি

অনুশীলনে ফিরলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের রাজপুত্র

ছবি

চ্যাম্পিয়ন হলো মেরিনার্স

ছবি

এখন পর্যন্ত খেলা দুই পক্ষেই আছে: লিটন

ছবি

উইন্ডিজ দলে পাঁচ নতুন মুখ

ছবি

নাভার্স-নাইন্টিতে মুশফিকের রেকর্ড

ছবি

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ‘ঝুঁকি নিবেন না জকোভিচ’

ছবি

লিটন-মুশফিকের ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ ইনজামাম

ছবি

টি-২০তে ওপেনাররা মজাটা নষ্ট করে দিচ্ছে : গেইল

ছবি

বিশ্বকাপের আগেই ছিটকে যাচ্ছেন রোনালদো কিংবা-মানচিনিরা

ছবি

চুক্তি নবায়নে সঙ্কা, সুযোগ নিতে চায় নিউক্যাসল

ছবি

উদ্বোধনী ম্যাচে শেখ রাসেলের জয়

ছবি

ওয়ানডে বিশ্বকাপে টাইগ্রেসরা

ছবি

বাংলাদেশের বোলারদের হতাশার দিন

ছবি

ওমিক্রনে বাতিল বাছাইপর্ব, বিশ্বকাপে নারী দল

ছবি

নারীদের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে করোনার হানা

ছবি

পেস-সুইংয়ে দূর্বল সেই পুরনো বাংলাদেশ

ছবি

সাজঘরে ফিরলেন মুশফিকও

ছবি

দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই সাজঘরে লিটন

tab

খেলা

চট্টগ্রামে প্রথম অনুশীলনে মোমিনুলের দল

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক

বুধবার, ২৪ নভেম্বর ২০২১

চট্টগ্রামে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১ম টেস্টের জন্য বাংলাদেশের পুরো স্কোয়াডের একসঙ্গে প্রথম অনুশীলন হলো বুধবার। সাদমানের সঙ্গে ওপেনার হিসেবে স্কোয়াডে আছেন সাইফ হাসান। তবে জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামের ড্রেসিং রুম প্রান্তের নেটে সাদমানের পাশে শুরুতে ব্যাটিং করলেন মাহমুদুল।

পেস বোলিং অবশ্য নয়, মাহমুদুল শুরুতে খেললেন স্পিনারদের। মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলামদের সামনে শুরুতে কিছুটা অস্বস্তি দেখা গেল তার ব্যাটিংয়ে। মিরাজ এসময় তাকে বেশ সাহসও জোগালেন প্রেরণাদায়ী কথায়। পরে অবশ্য তাকে দেখা গেল সাবলীল ব্যাটিং করতে।

এক প্রান্তের নেট সেশন শেষে আরেক প্রান্তের পালা। মাঝখানে ‘শিক্ষা গ্রহণ পর্ব।’ প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ও টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ বেশ কিছুক্ষণ কথা বললেন দলের এই নবীন সদস্যের সঙ্গে।

এরপর মাহমুদুল চলে গেলেন প্রেসবক্স প্রান্তের নেটে। সেখানে অপেক্ষায় তিন আর্ম থ্রোয়ার। এবার অবশ্য বেশ স্বচ্ছন্দ ২১ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। তার মূল শক্তির জায়গা সোজা ব্যাটে খেলা। টেকনিক খুব জটিল নয় তার, বরং ‘সিম্পল’ ও প্রথাগত। চেষ্টা করেন বল যতটা সম্ভব দেরিতে খেলার। অফ ড্রাইভ, কাভার ড্রাইভ ও ইনসাইড আউট শট তার দারুণ। ফ্লিকও খারাপ খেলেন না। নেটে সেসবের সবকিছুই মেলে ধরেন মাহমুদুল।

জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন তিনি প্রথমবার। এই চট্টগ্রামে তার টেস্ট অভিষেক হয়ে গেলেও থাকবে না খুব বিস্ময়ের কিছু। চোটে ছিটকে পড়া সাকিব আল হাসানের জায়গায় যদি কোনো ব্যাটসম্যান খেলানোর সিদ্ধান্ত নেয় দল, সেই জায়গাটি নিয়ে লড়াই হবে ইয়াসির আলি চৌধুরি ও মাহমুদুলের।

অভিষেক হলে মাহমুদুলের জন্য সেটি হবে একরকম রূপকথাই। গতবছরই অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলেছেন তিনি। দলের শিরোপা জয়ের অবিস্মরণীয় সাফল্যে তার অবদানও ছিল দারুণ। সেমিফাইনালে করেছিলেন অসাধারণ এক সেঞ্চুরি।

যুব বিশ্বকাপের পর সেখানেই আটকে থাকেননি তিনি। উন্নতির পথ ধরে ছুটে চলেছেন দ্রুতই। আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে গত মার্চে একদিনের ম্যাচের সিরিজে ৭১.২৫ গড়ে ২৮৫ রান করে সর্বোচ্চ স্কোরার হন তিনি। ৫ ইনিংসে সেঞ্চুরি ছিল একটি, ফিফটি দুটি। প্রিমিয়ার লীগ টি-২০তে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোরার তিনি। ওল্ডডিওএইচএসের হয়ে ৩৯২ রান করেন ৪৩.৫৫ গড় ও ১২১.৩৬ স্ট্রাইক রেটে।

রঙিন পোশাকের দুই সংস্করণের পর মাহমুদুল রানের জোয়ার ধরে রাখেন সাদা পোশাকেও। এবার জাতীয় লীগে জোড়া শূন্য দিয়ে শুরু করলেও পরের দুই ম্যাচে করেন দারুণ দুটি সেঞ্চুরি। পরের ম্যাচে আউট হন ৮৩ রান করে। সেই ম্যাচেই মাঝপথেই টেস্ট দলে ডাক পেয়ে চলে আসেন চট্টগ্রামে।

শেষ পর্যন্ত এখানেই টেস্ট অভিষেক হবে কিনা, তা জানা যাবে শুক্রবারই। তবে স্কোয়াডে জায়গা পেয়েও রোমাঞ্চ কম নয় মাহমুদুলের।

‘আসলে এই অনুভূতিটা প্রকাশ করার মতো নয়। সবারই স্বপ্ন থাকে টেস্ট স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়ার, জাতীয় দলে জায়গা পাওয়ার। প্রথমবারের মতো টেস্ট দলে সুযোগ পেয়েছি, আমি অনেক খুশি।’

‘জাতীয় লীগে বেশ কয়েকটি ইনিংস ভালো খেলেছি। আমার আত্মবিশ্বাস এখন ভালো। তার আগে এইচপি ও ‘এ’ দলের প্রস্তুতি ম্যাচেও ভালো ইনিংস খেলেছি। সামনের ম্যাচগুলোতে ভালো করার জন্য আমি প্রস্তুুত।’

আপাতত বাংলাদেশ ক্রিকেটও তৈরি হচ্ছে নতুন এক তারার ঝলকানি দেখার জন্য।

back to top