alt

সারাদেশ

সৈকতে ঝুকি নিয়ে খেলাধূলা করছে শিশুরা

প্রচন্ড ঢেউয়ের সময় দূর্ঘটনার আশংকা, ট্যুরিস্ট পুলিশের সতর্ক নজরদারী

বাকী বিল্লাহ : সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে শিশুরা ঝুকি নিয়ে খেলাধূলা করছে। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিচ্ছিন্ন ভাবে অনেক স্থানীয় শিশু সৈকতের বিভিন্ন বীচে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অবুঝ এই সব শিশুরা সৈকতের বালি,পানির বোতল নিয়ে অবস্থান করছে। কিছুক্ষণ পরপর বীচে পানির ঢেউ তীরে আঘাত করেছে। যে কোন মূহুৃর্তে মারাত্বক দূর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

ট্যুরিস্ট পুলিশের কক্্রবাজার রিজিয়নের পুলিশ কর্মকর্তারা সংবাদকে জানান, সৈকতের বীচে বালি ও পানিতে খেলাধূলাকারি শিশুদের নিরাপত্তায় তাদেরকে সহায়তা করছেন। খেলতেও সহযোগীতার হাত বাড়িয়েছেন। শিশুরা যাতে বিপাকে না পড়েন তার জন্য ট্যুরিষ্ট পুলিশ সতর্ক নজর রাখছেন।

ট্যুরিস্ট পুলিশের কক্সবাজার রিজিয়নের এসপি মোঃ জিল্লুর রহমান সংবাদকে মুঠোফোনে জানান, প্রতিদিন কোন কোন সময় কমলমতি এই সব শিশুরা পানির বোতলসহ অন্যান্য খেলা নিয়ে সৈকতে বেশী সময় থাকেন। ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে অবশ্য এই সব কোমলমতি শিশুদের যত্ন ও নজর দেয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা সংবাদকে জানান, সৈকতে কিছু শিশু দিনভর পানি ,কলা ,বাদাম মুরি, চনাচুরও বিক্রি করে থাকে। আবার কিছু শিশু এমনি সৈকতে খেলাধূলা করে। আবার কিছু পথ শিশু আছে। সৈকতে প্রচন্ড ঢেউয়ের সময় বা ঝড়ের সময় এই সব শিশুরা ঝুকিতে থাকে। যে কোন সময় তা বড় ধরনের বিপদ হওয়ার আশংকা করছেন। ট্যুরিষ্ট পুলিশ তাদেরকে পাহারা দিয়ে কতক্ষণ রাখবে।

অপর দিকে ট্যুরিষ্ট পুলিশ কন্ট্রোল থেকে বলা হয়েছে, কক্সবাজারে দেশী বিদেশী পর্যটকদের সুবিধার্থে ট্যুরিস্ট পুলিশ সম্প্রতি ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেণ্টার চালু করেছেন। ওই সার্ভিস সেণ্টারে যোগাযোগ করলে দেশের যে কোন এলাকা থেকে পর্যটকরা কক্সবাজারে গেলে ভ্রমণ সংক্রান্ত সকল সহযোগীতা পাবেন।

পর্যটক সেবা সহজীকরণ করতে কক্সবাজার টুরিষ্ট পুলিশের প্রধান কার্যালয়ের সামনে কন্ট্রোর রুম চালু করা হয়েছে। সমুদ্র সৈকতের লাবনী বীচ সংলগ্ন ট্যুরিষ্ট পুলিশের কার্যালয়ের সামনে কন্ট্রোল রুম থেকে সেবা দেয়া হচ্ছে। জরুরি দরকার হলে কন্ট্রোল রুমের ফোন নম্বরে ০১৩২০১৬০০০০ যোগাযোগ করলে সেবা কার্যক্রম পাবেন।

টুরিস্ট পুলিশ কর্মকর্তারা সংবাদকে জানান, কোন পর্যটক কক্সবাজার গিয়ে যদি হোটেল রুম বুকিং করতে সহায়তা চায়। তাও করে দেয়া যাবে। জেলার বিভিন্ন পর্যটন স্পটে ঘুরতে যেতে কেউ মাইক্রোবাস, পিকআপ, অটোরিকশা (টম) ভাড়া করতে সহযোগীতা চাইলে ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে সহযোগীতা করা হবে।

এমনকি পর্যটকরা কোন হোটেলে ভাত-নাস্তা খাইলে তাদের (পর্যটক) সুবিধা হবে সব কিছুই পর্যটকদের জানিয়ে গাইডলাইন দেয়া হবে। পর্যটকরা কক্সবাজারে গিয়ে যোগাযোগ করলে ট্যুরিস্ট পুলিশ সেবা দিবে। সেবার মান এখন প্রতিদিন বাড়ানো হচ্ছে।

আসছে শীত মৌসুমে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতসহ বিভিন্ন পর্যটন স্পট গুলোতে দেশী বিদেশী কয়েক লাখ পর্যটক যাবেন। সেখানে পর্যটকদের থাকার জন্য রয়েছে ৪শর বেশী আবাসিক হোটের ও গেস্টরুম আছে। পর্যটকরা হোটেলে অবস্থান নিয়ে সৈকত ছাড়াও সেণ্টমার্টিন, টেকনাফসহ বিভিন্ন স্পটে বেড়াতে পারবেন। আর পর্যটকদের নিরাপত্তায় এখন সমুদ্র সৈকতের বিভিন্ন স্পট গুলোতে ট্যুরিস্ট পুলিশ নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছেন।

উল্লেখ্য রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন বিভাগ ও জেলা শহর থেকে ছুটির দিনে ঈদ কিংবা পূর্জাসহ বিভিন্ন ছুটির সময় নানা পেশার হাজার হাজার পর্যটক পর্যকবাজারে ছুটে যান। আসছে পর্যটন মৌসুমে নতুন আকর্ষণ কক্সবাজারে রেল চালু করা হরবে। চলতি বছর তা আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হবে। এই জন্য অত্যাধুনিক রেল স্টেশন তৈরী করা হয়েছে। আর কক্সবাজার বিমানবন্দরকে আরও উন্নত করা হয়েছে। ফলে এই বছর কক্সবাজারে পর্যটকদের সমাগম অনেক বেশী হবে বলে আশা করা হচ্ছে। যার কারনে এখন কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এখন দেশী বিদেশীদের কাছে আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।

ট্যুরিষ্ট পুলিশের কন্ট্রোল থেকে বলা হয়েছে, আসছে পর্যটন মৌসুমে কক্সবাজারে দেশী বিদেশী পর্যটকদের সুবিধার্থে ট্যুরিস্ট পুলিশ ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেণ্টার চালু করেছেন। ওই সার্ভিস সেণ্টারে যোগাযোগ করলে দেশের যে কোন এলাকা থেকে পর্যটকরা কক্সবাজারে গেলে ভ্রমণ সংক্রান্ত সকল সহযোগীতা পাবেন।

পর্যটক সেবা সহজীকরণ করতে কক্সবাজার টুরিষ্ট পুলিশের প্রধান কার্যালয়ের সামনে এখন কন্ট্রোর রুম চালু করা হয়েছে। সমুদ্র সৈকতের লাবনী বীচ সংলগ্ন ট্যুরিষ্ট পুলিশের কার্যালয়ের সামনে কন্ট্রোল রুম থেকে সেবা দেয়া হচ্ছে। কান পর্যটক কক্সবাজার গিয়ে যদি হোটেল রুম বুকিং করতে সহায়তা চায়। তাও করে দেয়া যাবে। জেলার বিভিন্ন পর্যটন স্পটে ঘুরতে যেতে কেউ মাইক্রোবাস, পিকআপ, অটোরিকশা (টম) ভাড়া করতে সহযোগীতা চাইলে ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে সহযোগীতা করা হবে।

ছবি

পেটে গজ রেখেই সেলাই, রোগী আইসিইউতে

রামেকে দুদকের আকস্মিক অভিযান মিলেছে বহু অভিযোগের সত্যতা

রংপুরে জঙ্গি তৎপরতার দায়ে তিন জনের ৪ বছরের দণ্ড

ছবি

দোহারে ব্রি ধান-৮৯ এর ওপর মাঠ দিবস ও কারিগরি সেশন

ছবি

হাওরের প্রায় শতভাগ বোরো ধান কাটা শেষ

ছবি

সুন্দরগঞ্জে ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, ভাটা বন্ধের নির্দেশ

ছবি

রায়গঞ্জে ভাঙা ব্রিজে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল, ঘটছে দুর্ঘটনা

ছবি

পোরশায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিশু নিহত

ছবি

চট্টগ্রামে প্রবাসীর স্বর্ণ ছিনতাইকালে এসআই গ্রেপ্তার

ছবি

ডিমলায় সংস্কারের দুদিন পরই উঠে যাচ্ছে কোটি টাকার কার্পেটিং

ছবি

সিরাজগঞ্জে শিশু ধর্ষণ মামলায় বৃদ্ধের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

পেটে গজ রেখেই সেলাই, সংকটাপূর্ণ রোগী আইসিইউতে

ছবি

বাগাতিপাড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকের বাড়িতে হামলা

জমি বিবাদে গৃহবধূকে হত্যা, গ্রেপ্তার ৪

ছবি

ইন্দুরকানীতে সংস্কারের অভাবে সড়ক বেহাল

সংবাদ-এর ৭৪ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে আলোচনা

ছবি

কুড়িগ্রামে এক টাকায় ১০টি হাতপাখা বিক্রি

ছবি

করলা চাষে দ্বিগুণ লাভে খুশি কৃষক

ছবি

দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও কাউখালীর ঐতিহ্যবাহী শীতলপাটির কদর

ছবি

সাড়ে ৮ বিঘা জমির ফসল কাটল দুর্বৃত্তরা

ছবি

বগুড়ায় আলুর হিমাগার থেকে এক লাখ ডিম উদ্ধার

ছবি

মৌলভীবাজার সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন স্থগিত

ছবি

সাটুরিয়া উপজেলা নির্বাচন এমপি এক প্রার্থীকে সমর্থন উদ্বেগ উৎকণ্ঠায় ভোটাররা

ছবি

সিরাজগঞ্জে হেরোইন রাখার দায়ে দুই যুবকের যাবজ্জীবন

সংবাদ প্রতিনিধি হারাধন পেলেন মাদার তেরেসা অ্যাওয়ার্ড

ছবি

আনোয়ারায় অধ্যক্ষের রুমে দুই শিক্ষকের মারামারি, শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ছবি

মুন্সীগঞ্জ আব্দুল আজহার উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে দশগুণ বেশি মূল্যে মনোনয়নপত্র বিক্রি

ছবি

মুকসুদপুরে অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধার

ছবি

ডাকাতি করতে গিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৪

ছবি

লক্ষ্মীছড়ির স্থগিত দুই কেন্দ্রের ভোট ২৯ মে

ছবি

অটোরিকশা চালকদের তাণ্ডবের ঘটনায় ৪ মামলা, আসামি প্রায় ২৫০০

ছবি

র‍্যাব হেফাজতে নারী মৃত্যুর ঘটনায় ক্যাম্প কমান্ডার প্রত্যাহার

ছবি

লিচু : তাপপ্রবাহে লোকসানের আশঙ্কায় বাগানি ও ব্যবসায়ীরা

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম ‘নিখোঁজ’ দাবি পরিবারের

ছবি

বান্দরবানে ৩ ‘কেএনএফ সদস্যের’ মরদেহ উদ্ধার

গাজীপুরে কারখানার ১০ তলার ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নারী শ্রমিকের মৃত্যু

tab

সারাদেশ

সৈকতে ঝুকি নিয়ে খেলাধূলা করছে শিশুরা

প্রচন্ড ঢেউয়ের সময় দূর্ঘটনার আশংকা, ট্যুরিস্ট পুলিশের সতর্ক নজরদারী

বাকী বিল্লাহ

সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে শিশুরা ঝুকি নিয়ে খেলাধূলা করছে। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিচ্ছিন্ন ভাবে অনেক স্থানীয় শিশু সৈকতের বিভিন্ন বীচে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অবুঝ এই সব শিশুরা সৈকতের বালি,পানির বোতল নিয়ে অবস্থান করছে। কিছুক্ষণ পরপর বীচে পানির ঢেউ তীরে আঘাত করেছে। যে কোন মূহুৃর্তে মারাত্বক দূর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

ট্যুরিস্ট পুলিশের কক্্রবাজার রিজিয়নের পুলিশ কর্মকর্তারা সংবাদকে জানান, সৈকতের বীচে বালি ও পানিতে খেলাধূলাকারি শিশুদের নিরাপত্তায় তাদেরকে সহায়তা করছেন। খেলতেও সহযোগীতার হাত বাড়িয়েছেন। শিশুরা যাতে বিপাকে না পড়েন তার জন্য ট্যুরিষ্ট পুলিশ সতর্ক নজর রাখছেন।

ট্যুরিস্ট পুলিশের কক্সবাজার রিজিয়নের এসপি মোঃ জিল্লুর রহমান সংবাদকে মুঠোফোনে জানান, প্রতিদিন কোন কোন সময় কমলমতি এই সব শিশুরা পানির বোতলসহ অন্যান্য খেলা নিয়ে সৈকতে বেশী সময় থাকেন। ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে অবশ্য এই সব কোমলমতি শিশুদের যত্ন ও নজর দেয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা সংবাদকে জানান, সৈকতে কিছু শিশু দিনভর পানি ,কলা ,বাদাম মুরি, চনাচুরও বিক্রি করে থাকে। আবার কিছু শিশু এমনি সৈকতে খেলাধূলা করে। আবার কিছু পথ শিশু আছে। সৈকতে প্রচন্ড ঢেউয়ের সময় বা ঝড়ের সময় এই সব শিশুরা ঝুকিতে থাকে। যে কোন সময় তা বড় ধরনের বিপদ হওয়ার আশংকা করছেন। ট্যুরিষ্ট পুলিশ তাদেরকে পাহারা দিয়ে কতক্ষণ রাখবে।

অপর দিকে ট্যুরিষ্ট পুলিশ কন্ট্রোল থেকে বলা হয়েছে, কক্সবাজারে দেশী বিদেশী পর্যটকদের সুবিধার্থে ট্যুরিস্ট পুলিশ সম্প্রতি ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেণ্টার চালু করেছেন। ওই সার্ভিস সেণ্টারে যোগাযোগ করলে দেশের যে কোন এলাকা থেকে পর্যটকরা কক্সবাজারে গেলে ভ্রমণ সংক্রান্ত সকল সহযোগীতা পাবেন।

পর্যটক সেবা সহজীকরণ করতে কক্সবাজার টুরিষ্ট পুলিশের প্রধান কার্যালয়ের সামনে কন্ট্রোর রুম চালু করা হয়েছে। সমুদ্র সৈকতের লাবনী বীচ সংলগ্ন ট্যুরিষ্ট পুলিশের কার্যালয়ের সামনে কন্ট্রোল রুম থেকে সেবা দেয়া হচ্ছে। জরুরি দরকার হলে কন্ট্রোল রুমের ফোন নম্বরে ০১৩২০১৬০০০০ যোগাযোগ করলে সেবা কার্যক্রম পাবেন।

টুরিস্ট পুলিশ কর্মকর্তারা সংবাদকে জানান, কোন পর্যটক কক্সবাজার গিয়ে যদি হোটেল রুম বুকিং করতে সহায়তা চায়। তাও করে দেয়া যাবে। জেলার বিভিন্ন পর্যটন স্পটে ঘুরতে যেতে কেউ মাইক্রোবাস, পিকআপ, অটোরিকশা (টম) ভাড়া করতে সহযোগীতা চাইলে ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে সহযোগীতা করা হবে।

এমনকি পর্যটকরা কোন হোটেলে ভাত-নাস্তা খাইলে তাদের (পর্যটক) সুবিধা হবে সব কিছুই পর্যটকদের জানিয়ে গাইডলাইন দেয়া হবে। পর্যটকরা কক্সবাজারে গিয়ে যোগাযোগ করলে ট্যুরিস্ট পুলিশ সেবা দিবে। সেবার মান এখন প্রতিদিন বাড়ানো হচ্ছে।

আসছে শীত মৌসুমে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতসহ বিভিন্ন পর্যটন স্পট গুলোতে দেশী বিদেশী কয়েক লাখ পর্যটক যাবেন। সেখানে পর্যটকদের থাকার জন্য রয়েছে ৪শর বেশী আবাসিক হোটের ও গেস্টরুম আছে। পর্যটকরা হোটেলে অবস্থান নিয়ে সৈকত ছাড়াও সেণ্টমার্টিন, টেকনাফসহ বিভিন্ন স্পটে বেড়াতে পারবেন। আর পর্যটকদের নিরাপত্তায় এখন সমুদ্র সৈকতের বিভিন্ন স্পট গুলোতে ট্যুরিস্ট পুলিশ নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছেন।

উল্লেখ্য রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন বিভাগ ও জেলা শহর থেকে ছুটির দিনে ঈদ কিংবা পূর্জাসহ বিভিন্ন ছুটির সময় নানা পেশার হাজার হাজার পর্যটক পর্যকবাজারে ছুটে যান। আসছে পর্যটন মৌসুমে নতুন আকর্ষণ কক্সবাজারে রেল চালু করা হরবে। চলতি বছর তা আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হবে। এই জন্য অত্যাধুনিক রেল স্টেশন তৈরী করা হয়েছে। আর কক্সবাজার বিমানবন্দরকে আরও উন্নত করা হয়েছে। ফলে এই বছর কক্সবাজারে পর্যটকদের সমাগম অনেক বেশী হবে বলে আশা করা হচ্ছে। যার কারনে এখন কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এখন দেশী বিদেশীদের কাছে আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।

ট্যুরিষ্ট পুলিশের কন্ট্রোল থেকে বলা হয়েছে, আসছে পর্যটন মৌসুমে কক্সবাজারে দেশী বিদেশী পর্যটকদের সুবিধার্থে ট্যুরিস্ট পুলিশ ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেণ্টার চালু করেছেন। ওই সার্ভিস সেণ্টারে যোগাযোগ করলে দেশের যে কোন এলাকা থেকে পর্যটকরা কক্সবাজারে গেলে ভ্রমণ সংক্রান্ত সকল সহযোগীতা পাবেন।

পর্যটক সেবা সহজীকরণ করতে কক্সবাজার টুরিষ্ট পুলিশের প্রধান কার্যালয়ের সামনে এখন কন্ট্রোর রুম চালু করা হয়েছে। সমুদ্র সৈকতের লাবনী বীচ সংলগ্ন ট্যুরিষ্ট পুলিশের কার্যালয়ের সামনে কন্ট্রোল রুম থেকে সেবা দেয়া হচ্ছে। কান পর্যটক কক্সবাজার গিয়ে যদি হোটেল রুম বুকিং করতে সহায়তা চায়। তাও করে দেয়া যাবে। জেলার বিভিন্ন পর্যটন স্পটে ঘুরতে যেতে কেউ মাইক্রোবাস, পিকআপ, অটোরিকশা (টম) ভাড়া করতে সহযোগীতা চাইলে ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে সহযোগীতা করা হবে।

back to top