alt

সারাদেশ

রোহিঙ্গাদের জন্ম সনদ, এনআইডি, পাসপোর্ট দেয়া চক্রের ২৩ জন গ্রেপ্তার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মায়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের ভুয়া বাংলাদেশি জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্ম সনদ ও পাসপোর্ট বানিয়ে দেওয়া একটি চক্রের ২৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার ও রবিবার কক্সবাজার, টাঙ্গাইল এবং ঢাকার আগারগাঁও, মোহাম্মদপুর, যাত্রাবাড়ী ও বাড্ডায় ধারাবাহিক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

আজ সোমবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান তিনি।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- তিন রোহিঙ্গা নাগরিক উম্মে ছলিমা ওরফে ছমিরা, মরিজান, রশিদুল; রোহিঙ্গা দালাল আইয়ুব আলী, মোস্তাকিম, মো. রায়হান; বাঙালি দালাল রাজু শেখ, শাওন হোসেন নিলয়, ফিরোজ হোসেন, মো. তুষার মিয়া, মো. শাহজাহান শেখ, মো. শরিফুল আলম, জোবায়ের মোল্লা, শিমুল শেখ, আহমেদ হোসেন, মো. মাসুদ আলম, মো. আব্দুল আলিম, মো. মাসুদ রানা, ফজলে রাব্বি শাওন, রজব কুমার দাস দীপ্ত, আল-আমিন ও মো. সোহাগ এবং আনসার সদস্য জামসেদুল ইসলাম।

হারুন বলেন, শক্তিশালী এই চক্রটি মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শিশু, নারী ও পুরুষদেরকে লক্ষাধিক করে টাকার বিনিময়ে জন্ম সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্ট বানিয়ে দেয়। চক্রটির একটি দল কক্সবাজার, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি থেকে রোহিঙ্গাদেরকে ঢাকায় নিয়ে আসে। আরেকটি দল তাদের জন্য বাংলাদেশের জন্ম সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বানিয়ে দেয়। আরেকটি দল ঢাকাসহ বিভিন্ন আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আনসার সদস্যদের মাধ্যমে ব্যাংকে এক্সপ্রেস, সুপার এক্সপ্রেস পদ্ধতিতে টাকা জমা দেওয়া, বায়োমেট্রিক্স করা ও ছবি তোলার ব্যবস্থা করে দেয়।

অতিরিক্ত কমিশনার হারুন বলেন, ছয় ঘণ্টার মধ্যে জন্ম সনদ তৈরি করে দিতে তারা ৫ হাজার থেকে ১২ হাজার টাকা নিত। তিন দিনের মধ্যে এনআইডি করে নেওয়ার জন্য ২৫ হাজার টাকা এবং পাসপোর্ট তৈরি করার জন্য ১ লাখ ২০ হাজার টাকা নিত বলে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে।

ওই চক্রটি ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, ময়মনসিংহ, রংপুর, শরীয়তপুর, গোপালগঞ্জ ও বরিশাল জেলার ঠিকানা ব্যবহার করে জন্ম সনদ ও এনআইডি বানিয়ে তার ভিত্তিতে পাসপোর্ট বানিয়ে দিত বলে জানান তিনি।

হারুন বলেন, গ্রেপ্তার হওয়া দালালদের মোবাইলে পাসপোর্ট তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় সফট ডকুমেন্টস, ডেলিভারি স্লিপ পাওয়া গেছে। সেসব বিশ্লেষণ করে গত তিন মাসে রোহিঙ্গাদের জন্য করা ১৪৩টি পাসপোর্টের সন্ধান পাওয়া গেছে। আমরা ধারণা করছি, গত কয়েক বছরে হাজার হাজার রোহিঙ্গার ভুয়া পাসপোর্ট করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এই চক্রের আরেকটি কাজ ছিল গ্রামে গ্রামে এমন সব মানুষের নাম ঠিকানা খুঁজে বের করা, যাদের পাসপোর্ট করার সম্ভাবনা কম। সেই সব মানুষদের নাম ঠিকানা দিয়ে তারা রোহিঙ্গা বা দাগি আসামিদের পাসাপোর্ট বানিয়ে দিত এবং ইচ্ছামত বয়স পরিবর্তন করে দিত।

ছবি

হোটেলে বাড়তি ভাড়া আদায়, তবুও তিল ধারণের ঠাঁই নেই সাগরপাড়ে

ছবি

বরিশালে নদীতে গোসলে নেমে তরুণী নিখোঁজ

ছবি

চট্টগ্রামে এক নারীর লাশ উদ্ধার

ছবি

ঈশ্বরগঞ্জে একই স্থানে দুপক্ষের বৈশাখী মেলা, সংঘাতের আশঙ্কা

ছবি

আশ্রয় শিবিরের বাইরে আসা ৭১ রোহিঙ্গা আটক

ছবি

নাটোরে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

নানীর সাথে নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে দুই ভাইয়ের মৃত্যু

ছবি

সাভারে ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যা

ছবি

সিলেটের জাফলংয়ে নারী পর্যটকদের যৌন হয়রানি, যুবককে দুই বছরের কারাদণ্ড

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ধানকাটা নিয়ে সংঘর্ষে একজন নিহত, আহত অর্ধশত

শরীয়তপুরে গাছের ঝুলছিলো যুবকের মরদেহ, পরিবারের দাবী হত্যা

ছবি

মাতারবাড়ি-ধলঘাটা সমুদ্র সৈকতে পর্যটকদের ঢল

ছবি

রুমায় ভ্রমণ নি‌ষেধাজ্ঞা স্থ‌গিত

ছবি

যশোরে বাইকে এসে দুই আ. লীগ নেতাকে গুলি

রংপুরে ঢাকা কোচ ষ্টান্ডে টিকেট বিক্রিতে নৈরাজ্য,ইচ্ছে মতো দামে বিক্রি

ইসলামপুরে উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গা যুবককে পুলিশ পেঁৗছে দিলো ক্যাম্পে

বকশীগঞ্জে স্ত্রীকে মাংস কিনে দিতে না পারায় চিঠি লিখে যবুকের আত্মহত্যা

শিবচরে গ্রাম্য দলাদলিকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ১৫

ছবি

বান্দরবানে যৌথবাহিনীর অভিযান পরিচালিত ভ্রমণ নিষেধ

ছবি

পটিয়ায় বাসের সঙ্গে সংঘর্ষে বাইক আরোহী দুজন নিহত

ছবি

সদরঘাটে নিহত এক পরিবারের ৩ জনের লাশ দাফন পিরোজপুরে

ছবি

হবিগঞ্জে গরুকে ঘাস খাওয়ানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ৩৫

রংপুরে ১০ বছর ধরে পলাতক সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার

এস আলম তেলের কারখানার আগুন ২ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে

বেনাপোলে ভারতগামী মানুষের ভীড়

মীরপুরে ভাসানটেকে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নারী-শিশুসহ দগ্ধ ৬

সখীপুরে এক মায়ের গর্ভে ৬ সন্তান, প্রসবের পরেই মৃত্যু

ছবি

নেত্রকোণায় পাহাড় দেখতে যাওয়ার পথে বাইকের চাকা ফেটে ৩ আরোহীর মৃত্যু

ছবি

সাভারে ঈদের পুড়ল পোশাক কারখানা

ছবি

নাথান বমের স্ত্রীকে বান্দরবান থেকে লালমনিরহাটে বদলি

ছবি

বান্দরবানে যৌথ অভিযান: নিরাপদ স্থানে যেতে মাইকিং

ঈশ্বরগঞ্জে ঈদের জামাতে ছুরিকাঘাতে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

ছবি

শরীয়তপুরে ঈদের দিন সকালে আগুনে পুড়ে ছাই হলো ২৫ টি দোকান

নওগায় বাংলা মদ খেয়ে তিন বন্ধুর মৃত্যু

ছবি

সিরাজগঞ্জে অপহরণের ছয় দিন পর সেপটিক ট্যাংকে মিলল শিশুর লাশ

ছবি

অবহেলায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ, স্বজনরা হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ

tab

সারাদেশ

রোহিঙ্গাদের জন্ম সনদ, এনআইডি, পাসপোর্ট দেয়া চক্রের ২৩ জন গ্রেপ্তার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মায়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের ভুয়া বাংলাদেশি জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্ম সনদ ও পাসপোর্ট বানিয়ে দেওয়া একটি চক্রের ২৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার ও রবিবার কক্সবাজার, টাঙ্গাইল এবং ঢাকার আগারগাঁও, মোহাম্মদপুর, যাত্রাবাড়ী ও বাড্ডায় ধারাবাহিক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

আজ সোমবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান তিনি।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- তিন রোহিঙ্গা নাগরিক উম্মে ছলিমা ওরফে ছমিরা, মরিজান, রশিদুল; রোহিঙ্গা দালাল আইয়ুব আলী, মোস্তাকিম, মো. রায়হান; বাঙালি দালাল রাজু শেখ, শাওন হোসেন নিলয়, ফিরোজ হোসেন, মো. তুষার মিয়া, মো. শাহজাহান শেখ, মো. শরিফুল আলম, জোবায়ের মোল্লা, শিমুল শেখ, আহমেদ হোসেন, মো. মাসুদ আলম, মো. আব্দুল আলিম, মো. মাসুদ রানা, ফজলে রাব্বি শাওন, রজব কুমার দাস দীপ্ত, আল-আমিন ও মো. সোহাগ এবং আনসার সদস্য জামসেদুল ইসলাম।

হারুন বলেন, শক্তিশালী এই চক্রটি মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শিশু, নারী ও পুরুষদেরকে লক্ষাধিক করে টাকার বিনিময়ে জন্ম সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্ট বানিয়ে দেয়। চক্রটির একটি দল কক্সবাজার, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি থেকে রোহিঙ্গাদেরকে ঢাকায় নিয়ে আসে। আরেকটি দল তাদের জন্য বাংলাদেশের জন্ম সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বানিয়ে দেয়। আরেকটি দল ঢাকাসহ বিভিন্ন আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আনসার সদস্যদের মাধ্যমে ব্যাংকে এক্সপ্রেস, সুপার এক্সপ্রেস পদ্ধতিতে টাকা জমা দেওয়া, বায়োমেট্রিক্স করা ও ছবি তোলার ব্যবস্থা করে দেয়।

অতিরিক্ত কমিশনার হারুন বলেন, ছয় ঘণ্টার মধ্যে জন্ম সনদ তৈরি করে দিতে তারা ৫ হাজার থেকে ১২ হাজার টাকা নিত। তিন দিনের মধ্যে এনআইডি করে নেওয়ার জন্য ২৫ হাজার টাকা এবং পাসপোর্ট তৈরি করার জন্য ১ লাখ ২০ হাজার টাকা নিত বলে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে।

ওই চক্রটি ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, ময়মনসিংহ, রংপুর, শরীয়তপুর, গোপালগঞ্জ ও বরিশাল জেলার ঠিকানা ব্যবহার করে জন্ম সনদ ও এনআইডি বানিয়ে তার ভিত্তিতে পাসপোর্ট বানিয়ে দিত বলে জানান তিনি।

হারুন বলেন, গ্রেপ্তার হওয়া দালালদের মোবাইলে পাসপোর্ট তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় সফট ডকুমেন্টস, ডেলিভারি স্লিপ পাওয়া গেছে। সেসব বিশ্লেষণ করে গত তিন মাসে রোহিঙ্গাদের জন্য করা ১৪৩টি পাসপোর্টের সন্ধান পাওয়া গেছে। আমরা ধারণা করছি, গত কয়েক বছরে হাজার হাজার রোহিঙ্গার ভুয়া পাসপোর্ট করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এই চক্রের আরেকটি কাজ ছিল গ্রামে গ্রামে এমন সব মানুষের নাম ঠিকানা খুঁজে বের করা, যাদের পাসপোর্ট করার সম্ভাবনা কম। সেই সব মানুষদের নাম ঠিকানা দিয়ে তারা রোহিঙ্গা বা দাগি আসামিদের পাসাপোর্ট বানিয়ে দিত এবং ইচ্ছামত বয়স পরিবর্তন করে দিত।

back to top