alt

সারাদেশ

রংপুরে সাজাপ্রাপ্ত দুই যুবদল নেতাকে কারাগাওে পাঠানোর নির্দেশে বিক্ষোভ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, রংপুর : বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

রংপুর মহানগরীতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতা সৃষ্টি করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আদালত কর্তৃক ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক দুই আসামি রংপুর মহানগর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ জহির আলম নয়ন ও জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি তারেক হাসান সোহাগকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলা সূত্রে জানা গেছে গতকাল দুপুরে দুই যুবদল নেতা রংপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত ১ এর বিচারক কৃষ্ণকান্ত রায়ের আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিজ্ঞ বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে কঠোর পুলিশী পাহারায় তাদের সরাসরি রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। এদিকে দুই যুবদল নেতাকে পুলিশী পাহারায় আদালত থেকে আদালতের হাজত খানায় নেবার সময় দোতলার সিঁড়ি থেকে নীচে পর্যন্ত বিএনপি ও যুবদলের শতাধিক নেতাকর্মী আদালতের ভেতরেই সরকার বিরোধী বিভিন্ন শ্লোগান দেবার ঘটনায় আইনজীবীরা তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে ঘটনাকে আদালত অবমাননা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে। পরে তাদের প্রিজন ভ্যানে করে রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে রংপুর আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবদুল মালেক অ্য্যাাডভোকেট অভিযোগ করেন আদালতের ভেতরেই এভাবে শ্লোগান দেয়া সুপ্রিম কোর্টের আদেশের পরিপন্থি। এ ভাবে আদালতের ভেতরে বিক্ষোভ করার নামে আদালত অবমাননা করা হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

এদিকে পুলিশের একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে আদালতের ভেতরে বিক্ষোভ মিছিলের নামে অরাজকতা সৃষ্টি করার অভিযোগে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে রংপুর মেট্রোপলিটান কোতয়ালী থানার ওসি মোন্তাসির বিল্লাহ জানান একটি জরুরি মিটিং এ আছেন বিষয়টি নিয়ে ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী করনীয় ঠিক করা হবে।

তবে এ ব্যাপারে রংপুর মহানগর বিএনপির কোনো নেতাই মন্তব্য করতে রাজি হননি।

উল্লেখ্য ২০১৩ সালে রংপুর মহানগরীতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতা সৃষ্টি করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গত বছর ২০২৩ সালের ২০ নভেম্বর বিজ্ঞ বিচারক রংপুর মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব ডনসহ ৫ আসামির প্রত্যেককে ১০ বছর করে সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় ৪ আসামি পলাতক ছিল। গতকাল সাজাপ্রাপ্ত দুই যুবদল নেতা আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

সখীপুরে আগুনে পুড়ল ১১ দোকান, তিন কোটি টাকার ক্ষতি

ঘুমধুম সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে আহত ২ একজনের অবস্থা আশংকা জনক

সৌদি আরবে আরেক বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

ছবি

গাজীপুরে আগুন পুড়লো কলোনির ৭০টি ঘর

ছবি

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন, পুড়েছে ৩ শতাধিক বসতি

ছবি

ঝিনাইদহে প্রবাসীর স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা

ছবি

বাঁশখালী ছনুয়া-কুতুবদিয়া জেটিঘাট এখন মরণ ফাঁদ

আখতারুজ্জামান, শিমুল-এরা কারা

ছবি

টানা তাপপ্রাবাহে ফলন তলানিতে, বাজারে চড়া দাম লিচুর

ছবি

ধনবাড়ীতে ডায়াবেটিক ধান চাষে মিলেছে সফলতা

ছবি

খাবারের প্যাকেট নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, নিহত ১

ছবি

কুমারখালীর হাবাসপুর সরকারি বিদ্যালয় ৩ শিক্ষার্থীর বিপরীতে ৪ শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা থাকে অনুপস্থিত

ছবি

বরুড়ায় স্বেচ্ছাশ্রমে দেড় কিমি. রাস্তা তৈরি করছেন দেওড়া গ্রামবাসীরা

মতলবে ঋণের চাপে বিকাশ ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

ছবি

বেগমগঞ্জে আগ্নেয়াস্ত্রসহ ৪ ডাকাত গ্রেপ্তার

ছবি

সেই গৃহবধূর চুল কাটা ঘটনায় মামলা নথিভুক্ত

ছবি

কিরগিজস্তানের মাফিয়ার কবলে ইন্দুরকানীর যুবক

ছবি

সিরাজদিখানে বাইক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ২ স্কুলছাত্র নিহত

ছবি

রাজশাহীতে কলেজছাত্র অপহরণ, গ্রেপ্তার ৩

ছবি

মনোহরদীতে কমিউনিটি ক্লিনিকের সরকারি ওষুধ মিললো বাড়িতে

ছবি

গাইবান্ধায় কোরবানির জন্য প্রস্তুত দেড় লাখ পশু, দাম নিয়ে চিন্তিত খামারিরা

ভাতকুড়া-মুশুদ্দি ভাঙা সড়কটি সংস্কার দাবি

ছবি

বাগাতিপাড়ায় হেরোইনসহ নারী মাদককারবারি আটক

ছবি

১৪ ভরি স্বর্ণালংকার চুরি, বিদেশে পালানোর সময় দোকান কর্মচারী গ্রেপ্তার

ছবি

মোল্লাহাটে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

ছবি

ঠাকুরগাঁওয়ে ছেলের চুরির অপবাদে মাকে নির্যাতন, আদিবাসী গৃহবধূর মৃত্যু

ছবি

তালতলীতে চেয়াম্যান প্রার্থীর কর্মীকে মারধরের অভিযোগ

ছবি

লাখাইয়ে সরকারিভাবে ধান-চাল সংগ্রহ উদ্বোধন

ছবি

৩ জেলায় ভারতীয় নাগরিকসহ তিন মরদেহ উদ্ধার

ছবি

কালিগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু

ছবি

রূপগঞ্জে হাবিবুর রহমান চেয়ারম্যান নির্বাচিত

ছবি

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার

ছবি

নরসিংদীতে আধিপত্য বিস্তারে দুপক্ষের সংঘর্ষ, গুলি-টেঁটাবিদ্ধ ৭

ছবি

আরাকান আর্মির গুলিতে বাংলাদেশি জেলের পা বিচ্ছিন্ন

ছবি

গাজীপুরে তুরাগ কমিউটার ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত

সমুদ্র সৈকতে ভেসে এলো অজ্ঞাত নারীর মরদেহ

tab

সারাদেশ

রংপুরে সাজাপ্রাপ্ত দুই যুবদল নেতাকে কারাগাওে পাঠানোর নির্দেশে বিক্ষোভ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, রংপুর

বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

রংপুর মহানগরীতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতা সৃষ্টি করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আদালত কর্তৃক ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক দুই আসামি রংপুর মহানগর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ জহির আলম নয়ন ও জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি তারেক হাসান সোহাগকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলা সূত্রে জানা গেছে গতকাল দুপুরে দুই যুবদল নেতা রংপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত ১ এর বিচারক কৃষ্ণকান্ত রায়ের আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিজ্ঞ বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে কঠোর পুলিশী পাহারায় তাদের সরাসরি রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। এদিকে দুই যুবদল নেতাকে পুলিশী পাহারায় আদালত থেকে আদালতের হাজত খানায় নেবার সময় দোতলার সিঁড়ি থেকে নীচে পর্যন্ত বিএনপি ও যুবদলের শতাধিক নেতাকর্মী আদালতের ভেতরেই সরকার বিরোধী বিভিন্ন শ্লোগান দেবার ঘটনায় আইনজীবীরা তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে ঘটনাকে আদালত অবমাননা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে। পরে তাদের প্রিজন ভ্যানে করে রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে রংপুর আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবদুল মালেক অ্য্যাাডভোকেট অভিযোগ করেন আদালতের ভেতরেই এভাবে শ্লোগান দেয়া সুপ্রিম কোর্টের আদেশের পরিপন্থি। এ ভাবে আদালতের ভেতরে বিক্ষোভ করার নামে আদালত অবমাননা করা হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

এদিকে পুলিশের একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে আদালতের ভেতরে বিক্ষোভ মিছিলের নামে অরাজকতা সৃষ্টি করার অভিযোগে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে রংপুর মেট্রোপলিটান কোতয়ালী থানার ওসি মোন্তাসির বিল্লাহ জানান একটি জরুরি মিটিং এ আছেন বিষয়টি নিয়ে ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী করনীয় ঠিক করা হবে।

তবে এ ব্যাপারে রংপুর মহানগর বিএনপির কোনো নেতাই মন্তব্য করতে রাজি হননি।

উল্লেখ্য ২০১৩ সালে রংপুর মহানগরীতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতা সৃষ্টি করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গত বছর ২০২৩ সালের ২০ নভেম্বর বিজ্ঞ বিচারক রংপুর মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব ডনসহ ৫ আসামির প্রত্যেককে ১০ বছর করে সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় ৪ আসামি পলাতক ছিল। গতকাল সাজাপ্রাপ্ত দুই যুবদল নেতা আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

back to top