alt

বাংলাদেশ

অনাবৃষ্টিতে সেচ সংকট বীজতলা ফেটে চৌচির

মো. আ. রহিম সজল, মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) : রোববার, ০৯ মে ২০২১
image

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে তীব্র দাবদাহের কারনে ও পর্যাপ্ত বৃষ্টির অভাবে বীজতলা ফেটে চৌচির হয়ে যাচ্ছে। বৃষ্টি নেই, নদী-খালে লোনা পানি, সেচ সংকটে বীজতলা রক্ষা করা নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় পড়েছেন কৃষকরা।

কৃষকদের লড়াই এখন তৈরি করা বীজতলা (ধান-চারা যা অন্যত্র তৈরি করে চাষের মূল জমিতে পোঁতা হয়) বাঁচানোর। দীর্ঘ সাতমাস ধরে বৃষ্টির দেখা না মেলায় এ অবস্থায় আউশ ধানের বীজতলা তৈরি করতে বা বাঁচাতে সমস্যায় পড়ছেন কৃষকরা। সেই সাথে ফসলের মাঠ, খাল-বিল ও ডোবা-নালার পানি শুকিয়ে শূন্য জলধার। নদী-খালে আসছে লবণ পানি! দীর্ঘদিন ধরে অনাবৃষ্টি ও জোয়ারের পানিতে লবণাক্ততা বৃদ্ধি পাওয়ায় আশানুরূপ সেচ দিতে না পারায় ইরি-বোরো ও আউশ মৌশুমের বীজতলা ফেটে চৌচির হয়ে গেছে।

কৃষকরা জানিয়েছেন, বীজতলায় এখনই পানির বেশি প্রয়োজন ও আদর্শ সময়। তাই বৃষ্টির জন্য আরও অপেক্ষা করতে হলে আউশ মৌসুমে ফসলের ক্ষতির সম্ভাবনা থাকবে। একদিন মাত্র ৩০ মিনিট বৃষ্টি হয়েছিল তাতে বীজতলার কিছুই হয়নি।

পশ্চিম সুবিদখালী গ্রামের কৃষক মো. সাহেব আলী বলেন, কয়েক দশক ধরে চাষাবাদ করে আসছি কিন্তু এমন অবস্থা কখনও দেখিনি। এভাবে চলতে থাকলে চাষাবাদে দেরি হবে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে-সর্বত্রই কমবেশি ভুগছেন চাষিরা। বিভিন্ন এলাকায় জমি ফেটে চৌচির হয়ে উঠেছে। এতে কৃষকরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে।

বৃষ্টি ও জোয়ারের পানি প্রাকৃতিক ভাবে মাঠে প্রবেশের পর কৃষকরা সাধারনত ধান আবাদের জন্য জমি প্রস্তুত করে বীজ বপন করে। তবে অনেকেই এবার পানির অভাবে ধান রোপণ করতে পারছেন না। এ উপজেলায় কৃষকরা পানি সেচ দিয়ে বীজতলা তৈরি করলেও বীজ বপন করা নির্ভর করে বৃষ্টি ও জোয়ারের পানির উপর। এ বছর বৃষ্টিপাত না হওয়ার মাঠ ফেটে চৌচির হয়ে আছে, তাই এখনও আউশ ফসলের মাঠ অনাবাদি রয়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আরাফাত হোসেন বলেন, পানির অভাবে কৃষকদের বীজতলা বাঁচাতে এখন খুবই সমস্যা হচ্ছে। সময়মতো চাষাবাদ করে বীজ বপন করতে না পারলে অনেক জমি অনাবাদী থাকার উপক্রম এবং এ মৌসুমে ফলন কম হবার আশঙ্কা রয়েছে।

ছবি

আম বাগানের সাথী বোরো ত্রি-ফসলের উজ্জ্বল সম্ভাবনা

ছবি

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অশালীন পোস্ট, নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

সীমান্ত জেলায় কঠোর লকডাউন বাড়ছে মৃত্যু-সংক্রমণ

কুমিল্লায় অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার

গোয়ালন্দে দুটি বসতঘর ছাই

চাটখিলে বাল্যবিয়ে বন্ধ করল ইউএনও

ছবি

৬ বছর শিকলবন্দী আবির অর্থাভাবে চিকিৎসা বঞ্চিত

কুয়াকাটায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

কিশোরগঞ্জে লেবুর কেজি ৩০ টাকা

নান্দাইলে ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্বার

দশমিনায় আদালত চালুর দাবিতে আইনজীবীদের মানববন্ধন

ছবি

নারায়ণপাড়া উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কার্যক্রম চলছে পরিত্যক্ত ভবনে

ছবি

এবার পাগলা মসজিদের দান সিন্দুকে ১২ বস্তা টাকা

ছবি

শিবগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের নিহত ৩

ছবি

জবির বিতর্কিত শিক্ষককে ফের অর্থ পরিচালক করার পাঁয়তারা

ছবি

ঢাকা-গাজীপুর মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট, বিপর্যস্ত জনজীবন

ছবি

খুলনায় করোনায় মৃত্যুর মিছিল থামছেই না

ছবি

কুষ্টিয়া পৌর এলাকায় আরো ৭ দিন বাড়লো কঠোর বিধিবিনিষেধ

ছবি

সামাজিক উন্নয়নে ২৫ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে এডিবি

ছবি

শিশু তৃষা ধর্ষণ ও হত্যা : স্বীকারোক্তি, আলামত, প্রমাণ, তারপরও খালাস

শাজাহান খান সেনা সমর্থিত সরকারের সাথে আতাত করেছিল: মাদারীপুর আ’লীগ নেতা

ছবি

উত্তর-দক্ষিণাঞ্চলে রোগীর ভিড়, হাসপাতালে শয্যা সংকট

ঢাকায় বেড়েছে শনাক্তের হার, মৃত্যু কমেছে

ছবি

ধর্ষণ-নিপীড়নের বিচার ও পৃথক স্বাধীন ভূমি কমিশন চায় আদিবাসীরা

ছবি

সাড়ে ৮ শ’ ভুমিহীন ও গৃহহীন পরিবার জমিসহ বাড়ি পাচ্ছেন

ছবি

মুজিববর্ষের ঘর উদ্বোধনের আগেই ভাঙ্গন তালিকা নিয়ে বির্তক

ছবি

ডিজিটালাইজেশনের আওতায় আনা হলে বিচারিক তথ্য ঘরে বসেই সংগ্রহ করা যাবে: সিলেট মহানগর দায়রা জজ

ছবি

ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক শ্যামলসহ পাঁচশ’ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে দুটি মামলা

ছবি

সিলেটে তিন শিশু নিখোঁজ

ছবি

গাইবান্ধায় আত্মগোপনে ছিলেন আবু ত্ব-হা : পুলিশ

বেতনের দাবিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের মানববন্ধন

জনগণকে পুলিশি সহায়তায় মোবাইল নম্বর বিতরণ

ছবি

শেরপুর পৌর শহরের প্রধান রাস্তা বেহাল জনদুর্ভোগ চরমে

মির্জাগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু

শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের ঘটনায় শিক্ষক গ্রেপ্তার

ছবি

চার জেলায় করোনায় মৃত্যু ৪, শনাক্ত ২৪৮

tab

বাংলাদেশ

অনাবৃষ্টিতে সেচ সংকট বীজতলা ফেটে চৌচির

মো. আ. রহিম সজল, মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী)
image

রোববার, ০৯ মে ২০২১

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে তীব্র দাবদাহের কারনে ও পর্যাপ্ত বৃষ্টির অভাবে বীজতলা ফেটে চৌচির হয়ে যাচ্ছে। বৃষ্টি নেই, নদী-খালে লোনা পানি, সেচ সংকটে বীজতলা রক্ষা করা নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় পড়েছেন কৃষকরা।

কৃষকদের লড়াই এখন তৈরি করা বীজতলা (ধান-চারা যা অন্যত্র তৈরি করে চাষের মূল জমিতে পোঁতা হয়) বাঁচানোর। দীর্ঘ সাতমাস ধরে বৃষ্টির দেখা না মেলায় এ অবস্থায় আউশ ধানের বীজতলা তৈরি করতে বা বাঁচাতে সমস্যায় পড়ছেন কৃষকরা। সেই সাথে ফসলের মাঠ, খাল-বিল ও ডোবা-নালার পানি শুকিয়ে শূন্য জলধার। নদী-খালে আসছে লবণ পানি! দীর্ঘদিন ধরে অনাবৃষ্টি ও জোয়ারের পানিতে লবণাক্ততা বৃদ্ধি পাওয়ায় আশানুরূপ সেচ দিতে না পারায় ইরি-বোরো ও আউশ মৌশুমের বীজতলা ফেটে চৌচির হয়ে গেছে।

কৃষকরা জানিয়েছেন, বীজতলায় এখনই পানির বেশি প্রয়োজন ও আদর্শ সময়। তাই বৃষ্টির জন্য আরও অপেক্ষা করতে হলে আউশ মৌসুমে ফসলের ক্ষতির সম্ভাবনা থাকবে। একদিন মাত্র ৩০ মিনিট বৃষ্টি হয়েছিল তাতে বীজতলার কিছুই হয়নি।

পশ্চিম সুবিদখালী গ্রামের কৃষক মো. সাহেব আলী বলেন, কয়েক দশক ধরে চাষাবাদ করে আসছি কিন্তু এমন অবস্থা কখনও দেখিনি। এভাবে চলতে থাকলে চাষাবাদে দেরি হবে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে-সর্বত্রই কমবেশি ভুগছেন চাষিরা। বিভিন্ন এলাকায় জমি ফেটে চৌচির হয়ে উঠেছে। এতে কৃষকরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে।

বৃষ্টি ও জোয়ারের পানি প্রাকৃতিক ভাবে মাঠে প্রবেশের পর কৃষকরা সাধারনত ধান আবাদের জন্য জমি প্রস্তুত করে বীজ বপন করে। তবে অনেকেই এবার পানির অভাবে ধান রোপণ করতে পারছেন না। এ উপজেলায় কৃষকরা পানি সেচ দিয়ে বীজতলা তৈরি করলেও বীজ বপন করা নির্ভর করে বৃষ্টি ও জোয়ারের পানির উপর। এ বছর বৃষ্টিপাত না হওয়ার মাঠ ফেটে চৌচির হয়ে আছে, তাই এখনও আউশ ফসলের মাঠ অনাবাদি রয়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আরাফাত হোসেন বলেন, পানির অভাবে কৃষকদের বীজতলা বাঁচাতে এখন খুবই সমস্যা হচ্ছে। সময়মতো চাষাবাদ করে বীজ বপন করতে না পারলে অনেক জমি অনাবাদী থাকার উপক্রম এবং এ মৌসুমে ফলন কম হবার আশঙ্কা রয়েছে।

back to top