alt

বাংলাদেশ

আম বাগানের সাথী বোরো ত্রি-ফসলের উজ্জ্বল সম্ভাবনা

জেলা বার্তা পরিবেশক, রাজশাহী : শনিবার, ১৯ জুন ২০২১
image

দুর্গাপুর, (রাজশাহী) আমবাগানের নিচে বোরো ধানের আবাদ হচ্ছে -সংবাদ

রাজশাহীতে চলতি মৌসুমে বোরো ধান কাটা মাড়াই এখন শেষ পর্যায়ে। তবে জেলার দুর্গাপুর উপজেলার রৈপাড়া গ্রামের বিলে আমগাছের মধ্যে উঁকি দিচ্ছে বোরো ধানের সবুজে সমারোহ। দুই ভাই মিলে প্রায় পোনে তিনবিঘা জমির আমবাগানে রোপণ করেছেন বোরো ধান। জমিতে মসুর থাকায় দেরিতে বোরো ধান রোপণ করা হলেও সেই ধানে এখন শীষ গজাতে শুরু করছে। একই জমিতে মিশ্র ফসল করে লাভবান হচ্ছেন তারা। ফলে কৃষিতে এক নতুন সম্ভাবনার দেখা পেয়েছে দুর্গাপুর এলাকার প্রান্তিক কৃষকরা।

রৈপাড়া এলাকার কৃষক দুই ভাই রিপন ও খোকন জানান, পারিবারিকভাবে ওয়ারিশ সূত্রে জমি বণ্টন হওয়ায় কৃষি জমির পরিমাণ কমে যাচ্ছে। কীভাবে অল্প খরচে, অল্প জমিতে, অল্প সময়ে অধিক ফসল পাওয়া যাবে এ চিন্তা থেকে আমবাগানে বছরে তিনটি ফসল করছি। বাগানে বোরো ধানের আগে চাষ করা হয়ে ছিল মসূর। তাতে বাম্পার ফলন হয়েছে। মসুর দেরিতে উঠায় বোরোধান রোপণ করতে দেরি হয়ে যায়। তারা বলেন, আম এ অঞ্চলের লাভজনক ফসল।

এ কারণে ফসলি জমিতে আম গাছ লাগানো হয়েছে। জমিতে আমগাছ লাগানোর ১০ বছর পর্যন্ত জমিতে অন্য মিশ্র আবাদ করা যায়। পাশাপাশি বাগান থেকে আমও পাওয়া যায়। ফলে একই জমিতে মিশ্র ফসল করে বেশি লাভবান হওয়া যায়। তবে গত বছর এসব চারা আমগাছে পর্যাপ্ত পরিমাণ আম এসে ছিল। অন্যদিকে মসূর ও ধানের ভাল ফলন হয়েছে।

দুর্গাপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, এ অঞ্চলের মাটি খুবই ঊর্বর। একটি জমিতে থেকে বছরে এখন তিনটি থেকে চারটি পর্যন্ত ফসল ফলে থাকে। এরপরও কিছু কৌশলী কৃষক রয়েছেন তারা এক ফসলের ভেতর দুই থেকে তিন রকম ফসল চাষ করে থাকেন। এতে তারা অধিক লাভবান হোন। উপজেলার নওপাড়া, শ্যামপুর, শিবপুর, উজানখলসী, কানপাড়া, রসুলপুর, দাওকান্দি, মোহাম্মাদপুর, কিসমত বগুড়া, আড়ইল, পানানগর, হরিরামপুর, শালঘরিয়া, দেবীপুর, চুনিয়াপাড়া, বাজুখলসী সহ বিভিন্ন গ্রামে একই জমিতে মিশ্র পদ্ধতিতে ফসল চাষ করতে দেখা যায়। দুর্গাপুর এলাকার মাটি কলা, পেঁপে, পেঁয়ারা, লেবু, ধান, আদা, কচু, হলুদসহ নানা কৃষি ফসল চাষের জন্য বিশেষ উপযোগী। আম, পেঁয়ারা, লেবু ও সবজি চাষের সঙ্গে সাথী ফসল চাষের পদ্ধতি বেশি প্রয়োগ করা হচ্ছে।

উপজেলার দেলুয়াবাড়ী ইউনিয়নের নারায়ণ পুর গ্রামের মনিরুল ইসলাম জানান, তার মূল ফসল পেঁয়ারা। সঙ্গে এক বছরের ফসল পেঁপে লাগান। এরপরও জমির ধার দিয়ে আদা ও কঁচু লাগিয়েছেন। তিনি বলেন, একই জমি থেকে আমি বানিজ্যকভাবে পেঁয়ারা বিক্রি করতে পারব। বাড়িতে খাওয়ার জন্য আদা ও কচু পাবো। ফলে এক জমিতে মিশ্র ফসল করে অধিক লাভবান হওয়া যাচ্ছে। ঝালুকা গ্রামের শাহিনুল বলেন, এক বিঘা জমিতে সাজিয়েছেন ৫ ফসলের বাগান। এক সঙ্গে লাগিয়েছেন দেড়শো পেঁপে মরিচ আদা ও লেবু। অপর কৃষক শরিফুল তার জমিতে একইভাবে লাগিয়েছেন কলা, পেঁপে, আদা, কচু, ডাটা ও পুঁইশাক। এভাবে উপজেলায় একই পদ্ধতিতে অনেক কৃষক ফসল চাষে ঝুঁকেছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মসিউর রহমান বলেন, কৃষকরা এখন পেঁয়ারা বাগানে এক সঙ্গে আদা, পেঁপে, কচু, হলুদ, লেবু, মরিচসহ নানা কৃষি ফসল চাষ করছে। এটা একটা ইতিবাচক মিশ্র ফসল চাষ পদ্ধতি। এ পদ্ধতির চাষের ফলে কৃষকরা লাভবান হচ্ছে।

ছবি

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা নেতা গুলিবিদ্ধ

ছবি

প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপ পাচ্ছেন ৫৫ জন

ঢাকামুখী মানুষের ঢল

টেকনাফে রোহিঙ্গা নেতাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার

রাজশাহীতে করোনায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহে করোনায় আরও ১৬ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২০৭

ছবি

রোগীর চাপ, শয্যা ফাঁকা নেই

আশ্রয়ণ প্রকল্পের অনিয়ম ঢাকতেই নৌকা ভ্রমণের আয়োজন করেন চেয়ারম্যান

ছবি

রংপুরে করোনায় মৃত তথ্য নিয়ে পায়তারা, সাংবাদিকদের নিষেধাজ্ঞা

ছবি

ফতুল্লায় গ্যাস রাইজার বিস্ফোরণে পুড়ল ঘর

করোনায় কক্সবাজারে আরও ৪ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২০২

ছবি

কক্সবাজারে নেমে যাচ্ছে বন্যার পানি

ছবি

সমুদ্রগর্ভে হারিয়ে যাচ্ছে কক্সবাজার সৈকতের ঝাউবাগান

নেশার টাকা না পেয়েই খালাকে খুন

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন ৪ সেপ্টেম্বর

সখীপুরে তুচ্ছ ঘটনায় দোকানে হামলা-লুটপাট

ছবি

রামেক করোনা ইউনিটে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু

লকডাউন ঢিলেঢালা, গণপরিবহন ছাড়া সব চলছে

ছবি

এডিস মশার দাপট বাড়ছে ছড়িয়ে পড়েছে ডেঙ্গু

ছবি

সংক্রমণ ঢাকা-চট্টগ্রামের পর কুমিল্লায় বেশি, মৃত্যুতেও তৃতীয়

ছবি

ডি-৩০ ডিজঅ্যাবিলিটি লিস্ট-২০২১ সম্মাননায় ভূষিত হলেন এটুআই-এর ভাস্কর ভট্টাচার্য

ছবি

নির্বিচারে পাহাড় নিধন চলছেই: কক্সবাজারে এক যুগে পাহাড় ধসে নিহত ৩০০

ছবি

বিধিনিষেধ না মেনে নেতাকর্মী নিয়ে হাওর বিলাসে এমপি, মুখে নেই মাস্ক

ছবি

তিন ঘণ্টা পর শিমুলিয়া-বাঙলাবাজার ফেরি চলাচল শুরু

বগুড়ায় লীগ নেতা রকি হত্যাকাণ্ডে ১০ জনের নামে মামলা

আখাউড়ায় পানি সরবরাহ প্রকল্পে জমি দিচ্ছেন আইনমন্ত্রী

ছবি

রোগী সেজে অ্যাম্বুলেন্সে করে কোটি টাকার মাদক পাচার

ছবি

নিজ দেশের টিকা নিলেন রংপুরে অবস্থানরত ২২৬ চীনা নাগরিক

ছবি

রংপুরে আইসিইউ খালি নেই, বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছে রোগী

ছবি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ

ছবি

কালকিনিতে ঘরে ঢুকে বাবা-ছেলেকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

ছবি

নওগাঁয় মাদক উদ্ধারের ঘরটি কমিশনার মজনুর নয়

ছবি

পত্নীতলায় সওজের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা সেতুর নাম পরিবর্তনের অভিযোগ

ছবি

বরিশালে মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে হত্যা

কক্সবাজারে করোনায় আরও ৩২৪ জন আক্রান্ত

কুষ্টিয়ায় একদিন পর আবারও মৃত্যু বাড়লো২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ১১, আক্রান্ত ১৪৯ জন

tab

বাংলাদেশ

আম বাগানের সাথী বোরো ত্রি-ফসলের উজ্জ্বল সম্ভাবনা

জেলা বার্তা পরিবেশক, রাজশাহী
image

দুর্গাপুর, (রাজশাহী) আমবাগানের নিচে বোরো ধানের আবাদ হচ্ছে -সংবাদ

শনিবার, ১৯ জুন ২০২১

রাজশাহীতে চলতি মৌসুমে বোরো ধান কাটা মাড়াই এখন শেষ পর্যায়ে। তবে জেলার দুর্গাপুর উপজেলার রৈপাড়া গ্রামের বিলে আমগাছের মধ্যে উঁকি দিচ্ছে বোরো ধানের সবুজে সমারোহ। দুই ভাই মিলে প্রায় পোনে তিনবিঘা জমির আমবাগানে রোপণ করেছেন বোরো ধান। জমিতে মসুর থাকায় দেরিতে বোরো ধান রোপণ করা হলেও সেই ধানে এখন শীষ গজাতে শুরু করছে। একই জমিতে মিশ্র ফসল করে লাভবান হচ্ছেন তারা। ফলে কৃষিতে এক নতুন সম্ভাবনার দেখা পেয়েছে দুর্গাপুর এলাকার প্রান্তিক কৃষকরা।

রৈপাড়া এলাকার কৃষক দুই ভাই রিপন ও খোকন জানান, পারিবারিকভাবে ওয়ারিশ সূত্রে জমি বণ্টন হওয়ায় কৃষি জমির পরিমাণ কমে যাচ্ছে। কীভাবে অল্প খরচে, অল্প জমিতে, অল্প সময়ে অধিক ফসল পাওয়া যাবে এ চিন্তা থেকে আমবাগানে বছরে তিনটি ফসল করছি। বাগানে বোরো ধানের আগে চাষ করা হয়ে ছিল মসূর। তাতে বাম্পার ফলন হয়েছে। মসুর দেরিতে উঠায় বোরোধান রোপণ করতে দেরি হয়ে যায়। তারা বলেন, আম এ অঞ্চলের লাভজনক ফসল।

এ কারণে ফসলি জমিতে আম গাছ লাগানো হয়েছে। জমিতে আমগাছ লাগানোর ১০ বছর পর্যন্ত জমিতে অন্য মিশ্র আবাদ করা যায়। পাশাপাশি বাগান থেকে আমও পাওয়া যায়। ফলে একই জমিতে মিশ্র ফসল করে বেশি লাভবান হওয়া যায়। তবে গত বছর এসব চারা আমগাছে পর্যাপ্ত পরিমাণ আম এসে ছিল। অন্যদিকে মসূর ও ধানের ভাল ফলন হয়েছে।

দুর্গাপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, এ অঞ্চলের মাটি খুবই ঊর্বর। একটি জমিতে থেকে বছরে এখন তিনটি থেকে চারটি পর্যন্ত ফসল ফলে থাকে। এরপরও কিছু কৌশলী কৃষক রয়েছেন তারা এক ফসলের ভেতর দুই থেকে তিন রকম ফসল চাষ করে থাকেন। এতে তারা অধিক লাভবান হোন। উপজেলার নওপাড়া, শ্যামপুর, শিবপুর, উজানখলসী, কানপাড়া, রসুলপুর, দাওকান্দি, মোহাম্মাদপুর, কিসমত বগুড়া, আড়ইল, পানানগর, হরিরামপুর, শালঘরিয়া, দেবীপুর, চুনিয়াপাড়া, বাজুখলসী সহ বিভিন্ন গ্রামে একই জমিতে মিশ্র পদ্ধতিতে ফসল চাষ করতে দেখা যায়। দুর্গাপুর এলাকার মাটি কলা, পেঁপে, পেঁয়ারা, লেবু, ধান, আদা, কচু, হলুদসহ নানা কৃষি ফসল চাষের জন্য বিশেষ উপযোগী। আম, পেঁয়ারা, লেবু ও সবজি চাষের সঙ্গে সাথী ফসল চাষের পদ্ধতি বেশি প্রয়োগ করা হচ্ছে।

উপজেলার দেলুয়াবাড়ী ইউনিয়নের নারায়ণ পুর গ্রামের মনিরুল ইসলাম জানান, তার মূল ফসল পেঁয়ারা। সঙ্গে এক বছরের ফসল পেঁপে লাগান। এরপরও জমির ধার দিয়ে আদা ও কঁচু লাগিয়েছেন। তিনি বলেন, একই জমি থেকে আমি বানিজ্যকভাবে পেঁয়ারা বিক্রি করতে পারব। বাড়িতে খাওয়ার জন্য আদা ও কচু পাবো। ফলে এক জমিতে মিশ্র ফসল করে অধিক লাভবান হওয়া যাচ্ছে। ঝালুকা গ্রামের শাহিনুল বলেন, এক বিঘা জমিতে সাজিয়েছেন ৫ ফসলের বাগান। এক সঙ্গে লাগিয়েছেন দেড়শো পেঁপে মরিচ আদা ও লেবু। অপর কৃষক শরিফুল তার জমিতে একইভাবে লাগিয়েছেন কলা, পেঁপে, আদা, কচু, ডাটা ও পুঁইশাক। এভাবে উপজেলায় একই পদ্ধতিতে অনেক কৃষক ফসল চাষে ঝুঁকেছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মসিউর রহমান বলেন, কৃষকরা এখন পেঁয়ারা বাগানে এক সঙ্গে আদা, পেঁপে, কচু, হলুদ, লেবু, মরিচসহ নানা কৃষি ফসল চাষ করছে। এটা একটা ইতিবাচক মিশ্র ফসল চাষ পদ্ধতি। এ পদ্ধতির চাষের ফলে কৃষকরা লাভবান হচ্ছে।

back to top