alt

সারাদেশ

ইকবাল কক্সবাজারে গ্রেপ্তার, কুমিল্লায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে

নেপথ্য নায়কদের খুঁজছে পুলিশ

জেলা বার্তা পরিবেশক, কুমিল্লা : শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১

http://sangbad.net.bd/images/2021/October/22Oct21/news/Iqbal.jpg

কক্সবাজারে গ্রেপ্তারের পর ইকবাল

http://sangbad.net.bd/images/2021/October/22Oct21/news/Procession.jpg

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে শুক্রবার শাহবাগের মোড়ে বিভিন্ন সংগঠন সড়ক অবরোধ করে ও সন্ধ্যায় অবরোধ শেষে মশাল মিছিল করে-সংবাদ

অবশেষে সিসিটিভি ফুটেজের সূত্র ধরে শনাক্ত হওয়া দেশব্যাপী আলোচিত কুমিল্লা নগরীর নানুয়াদীঘির উত্তর পাড়ের অস্থায়ী একটি পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রেখে অবমাননা ও এ নিয়ে সৃষ্ট সহিংস ঘটনার মূল হোতা ইকবাল হোসেনকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে কক্সবাজার জেলা সদরের সুগন্ধা বিচ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকত থেকে চশমা পড়া অবস্থায় গ্রেপ্তারের পর কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে শুক্রবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে তাকে কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে আসা হয়। পুলিশ-গোয়েন্দা সংস্থার চৌকস টিম তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছিল। এ ঘটনার নেপথ্যে কারা রয়েছেন এবং ইকবালকে দিয়ে পূজামণ্ডপে কোরআন কারা রেখেছে, তাদের খুজে বের করতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কোরআন রাখাকে কেন্দ্র করে সহিংসতার সময় ইটের আঘাতে আহত দিলীপ কুমার দাস (৫৮) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে রাত ১১টার দিকে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. সোহান সরকারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয় এবং শুক্রবার ভোরে কক্সবাজার পুলিশ থেকে তাকে বুঝে নিয়ে কড়া পাহারার মধ্যদিয়ে শুক্রবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে আসা হয়। এ সময় জেলা পুলিশের একজন পদস্থ কর্মকর্তা কুমিল্লায় পূজামণ্ডপের ঘটনায় সিসিটিভির ফুটেজে ধরাপরা ব্যক্তিই কক্সবাজারে আটক হওয়া ইকবাল হোসেন বলে নিশ্চিত করেন।

কক্সবাজার জেলা পুলিশের একটি সূত্র জানায়, কুমিল্লা থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার দিনভর ইকবাল কক্সবাজারের সুগন্ধা বিচে চোখে সানগ্লাস লাগিয়ে এলোমেলোভাবে ঘুরাফেরা করে। নোয়াখালী থেকে সুগন্ধা বিচে বেড়াতে যাওয়ার সময় তিন যুবকের সঙ্গে কথা বার্তার একপর্যায়ে ইকবালের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ সময় ইকবাল তার পালিয়ে থাকার সমস্যার কথা তাদের জানায়। বিষয়টি জেনে তারা রাতের দিকে কক্সবাজার পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ দ্রুত তাকে গ্রেপ্তার করে। খবর পেয়ে রাতেই কক্সবাজার পৌঁছে কুমিল্লা জেলা পুলিশের একটি দল। কক্সবাজার পুলিশ থেকে ইকবালকে বুঝে নিয়ে মাথায় হেলমেট ও বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পড়িয়ে হাতে হ্যান্ডকাপ লাগিয়ে কালো রংয়ের একটি মাইক্রোবাসে করে সেখান থেকে কড়া পুলিশ পাহারায় শুক্রবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে তাকে কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে আসা হয়।

এ সময় ইকবালকে গ্রেপ্তারের ছবি ও তথ্য সংগ্রহে শুক্রবার সকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের আলেখারচর, পুলিশ অফিস গেইট, পুলিশ লাইন্সের ১ ও ২ নম্বর গেইটসহ বিভিন্ন স্থানে সাংবাদিকদের ছুটাছুটি করতে হয়। এক পর্যায়ে দুপুর সাড়ে বারোটার পরে পুলিশ লাইন্সের ১ নম্বর গেইট এলাকায় কিছু সময়ের জন্য শুধুমাত্র ফটো সেশন করতে ইকবালকে সাংবাদিকদের সামনে হাজির করা হয়। ইকবালকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় কুমিল্লা পুলিশের পক্ষ থেকে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কোন প্রেসব্রিফিং করা হয়নি। পুলিশ জানায়, কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে রেখে ইকবালকে নিবিড় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঢাকা থেকে আসা পুলিশের পদস্থ কর্মকর্তা ও গোয়েন্দা বিভাগের লোকজনসহ চৌকস টিম তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম. তানভীর আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, আমরা ইকবাল হোসেনকে ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের শেষে আপনাদের বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে। তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার ইকবাল সেখানে পবিত্র কোরআন রাখা ও হনুমানের মূর্তি থেকে গদা নেয়ার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

এদিকে কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রেখে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানা ও অবমাননাসহ পরবর্তী সহিংস ঘটনায় কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় র‌্যাব বাদী হয়ে একটিসহ মোট ৫টি মামলা হয়। এর মধ্যে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতহানা মামলায় কোন আসামির নাম উল্লেখ না থাকলেও এ মামলায় ইকবালকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে। তাকে সহিংসতার অন্যান্য মামলায়ও আসামি করা হতে পারে বলে সূত্রটি জানায়।

ইকবালকে গ্রেপ্তারের পর এখন তার পেছনে থাকা নেপথ্য কুশীলবদের খুঁজছে পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলো। ইকবালের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে, ইকবালকে কোন কিছুর লোভ দেখিয়ে, অথবা যে কোন মূল্যে ম্যানেজ করে পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখার মতো ন্যক্কারজনক ঘৃণ্য এ ঘটনার জন্ম দিয়েছে। এর পেছনে নিশ্চয়ই কোন না কোন শক্তির হাত রয়েছে এবং সরকারকে দেশে-বিদেশে বিতর্কিত করতে একটি অশুভ শক্তি এমন ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থা।

কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ জানান, কক্সবাজারে গ্রেপ্তার ইকবাল হোসেনই কুমিল্লার পূজামণ্ডপকাণ্ডে সিসি টিভি ফুটেজে ধরা পড়া সেই ইকবাল। তদন্তের স্বার্থে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার (২৩ অক্টোবর) এ বিষয়ে প্রেস ব্রিফিং করা হবে বলেও তিনি জানান।

পূজামণ্ডপে হামলার সময় আহত এক ব্যক্তির মৃত্যু
কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখাকে কেন্দ্র করে সহিংসতার সময় ইটের আঘাতে আহত দিলীপ কুমার দাস বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। ১৩ অক্টোবর তিনি নগরীর মনোহরপুর এলাকার রাজ রাজেশ্বরী কালীবাড়ি মন্দিরের ফটক বন্ধ করতে গিয়ে ইটের আঘাতে আহত হন। দিলীপের বাসা নগরীর কোতোয়ালি মডেল থানাসংলগ্ন পানপট্টি এলাকায়। তিনি ওই এলাকার বাসিন্দা বিষু লাল দাসের ছেলে। সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি আনওয়ারুল আজিম বলেন, ঢাকায় একজন মারা গেছে বলে শুনেছি। তবে অভিযোগ পাইনি।

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর নগরীর নানুয়াদীঘিরপাড় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখার ঘটনায় কুমিল্লা নগরের কয়েকটি পূজামণ্ডপে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় পাঁচটি, সদর দক্ষিণ মডেল থানায় ২টি, দাউদকান্দি মডেল থানায় একটি, দেবিদ্বার থানায় একটিসহ ৯টি মামলা হয়।

ছবি

সড়কে ফের নিহত সাংবাদিক ও শিক্ষার্থী

নভেম্বরে সড়কে ঝরলো ৪১৩ জনের প্রাণ

ছবি

নারী শ্রমিকদের জন্য পোশাক কারখানায় স্যানিটারি ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন স্থাপন করছে বিকাশ

ছবি

সেন্টমার্টিনে জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা

ছবি

ব্যঙ্গচিত্র নিয়ে রোববার রাস্তায় নামবে শিক্ষার্থীরা

ছবি

ডুমুরিয়ার শুঁটকি যাচ্ছে বিদেশে

তিন যমজ শিশু নিয়ে দিশেহারা হতদরিদ্র বাবা

বাগেরহাটে মাদরাসা থেকে ছাত্র নিখোঁজ : জিডি

ছবি

পাহাড়ে বসতি! মাটি চাপায় শিশুর মৃত্যু

ছবি

গেস্ট হাউসে পর্যটকের মরদেহ, তরুণী আটক

ছবি

সুপেয় পানির তীব্র সঙ্কট, দুর্ভোগে ৬০ হাজার মানুষ

ছবি

কক্সবাজার বিমানবন্দরে দায়িত্ব পালন করছেন বিমানবাহিনী

ছবি

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ এর প্রভাবে ঝালকাঠির আকাশ মেঘাচ্ছন্ন

ছবি

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে উত্তাল সাগর: ৩ নম্বর সংকেত

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জমি বিবাদে নিহত এক

ছবি

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাব দেখা দিতে শুরু করেছে বরগুনায়

ছবি

কাটাখালির মেয়র আব্বাসের দুই ভবন ভেঙে দিয়েছে প্রশাসন

ছবি

হঠাৎ বিচ্ছিন্ন বগির সংযোগ, ১ ঘণ্টা রেল যোগাযোগ বন্ধ

ছবি

‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি থেকে বোমা ও বোমার সরঞ্জাম উদ্ধার

ছবি

চট্টগ্রামে ট্রেনের ধাক্কায় অটোরিকশা চুরমার, ২ জন নিহত

ছবি

হাকিমপুরে ৮ গ্রামে পুরুষ শূন্য, আতঙ্কে শিশু ও মহিলারা

ছবি

লক্ষ্মীপুরে বিদ্রোহী প্রার্থীকে হত্যার হুমকির অভিযোগ থানায়

ছবি

নীলফামারীতে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বাড়ি ঘিরে রেখেছে র‍্যাব

ছবি

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ : পটুয়াখালীতে বৃষ্টি শুরু

ছবি

উন্নয়নে ৪০ প্রকল্পের কাজ শেষ হয়নি ১০ বছরেও

ছবি

সড়কে অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতির কারণে দুর্ঘটনা ঘটছে

ছবি

নারায়ণগঞ্জ সিটিতে আবারও নৌকার মাঝি আইভী

ছবি

পঞ্চাশোর্ধ জরাজীর্ণ ভবনে পাঠদান : দুর্ঘটনার আশঙ্কা

পঞ্চগড়ে প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা ওড়ে : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

ছবি

নোয়াখালীতে দুই শিক্ষককে পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি

ছবি

প্রয়াত স্বামীর মুক্তিযোদ্ধা স্বীকৃতি দেখে যেতে চান সত্তরোর্ধ্ব স্ত্রী

সীতাকুন্ডে ট্রাকের ধাক্কায় অটোযাত্রী নিহত আহত ৪

ছবি

ভাসানচরের ৬৫ রোহিঙ্গা স্বজনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে কক্সবাজারে

ছবি

কক্সবাজারে বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রতিবন্ধী দিবস পালন

চামড়া সংরক্ষণে অত্যাধুনিক কোল্ড স্টোরেজ হচ্ছে বিভিন্ন জেলায়

ভোটের ফল পরিবর্তনের অভিযোগ : পুনঃগণনার দাবি

tab

সারাদেশ

ইকবাল কক্সবাজারে গ্রেপ্তার, কুমিল্লায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে

নেপথ্য নায়কদের খুঁজছে পুলিশ

জেলা বার্তা পরিবেশক, কুমিল্লা

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১

http://sangbad.net.bd/images/2021/October/22Oct21/news/Iqbal.jpg

কক্সবাজারে গ্রেপ্তারের পর ইকবাল

http://sangbad.net.bd/images/2021/October/22Oct21/news/Procession.jpg

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে শুক্রবার শাহবাগের মোড়ে বিভিন্ন সংগঠন সড়ক অবরোধ করে ও সন্ধ্যায় অবরোধ শেষে মশাল মিছিল করে-সংবাদ

অবশেষে সিসিটিভি ফুটেজের সূত্র ধরে শনাক্ত হওয়া দেশব্যাপী আলোচিত কুমিল্লা নগরীর নানুয়াদীঘির উত্তর পাড়ের অস্থায়ী একটি পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রেখে অবমাননা ও এ নিয়ে সৃষ্ট সহিংস ঘটনার মূল হোতা ইকবাল হোসেনকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে কক্সবাজার জেলা সদরের সুগন্ধা বিচ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকত থেকে চশমা পড়া অবস্থায় গ্রেপ্তারের পর কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে শুক্রবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে তাকে কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে আসা হয়। পুলিশ-গোয়েন্দা সংস্থার চৌকস টিম তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছিল। এ ঘটনার নেপথ্যে কারা রয়েছেন এবং ইকবালকে দিয়ে পূজামণ্ডপে কোরআন কারা রেখেছে, তাদের খুজে বের করতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কোরআন রাখাকে কেন্দ্র করে সহিংসতার সময় ইটের আঘাতে আহত দিলীপ কুমার দাস (৫৮) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে রাত ১১টার দিকে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. সোহান সরকারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয় এবং শুক্রবার ভোরে কক্সবাজার পুলিশ থেকে তাকে বুঝে নিয়ে কড়া পাহারার মধ্যদিয়ে শুক্রবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে আসা হয়। এ সময় জেলা পুলিশের একজন পদস্থ কর্মকর্তা কুমিল্লায় পূজামণ্ডপের ঘটনায় সিসিটিভির ফুটেজে ধরাপরা ব্যক্তিই কক্সবাজারে আটক হওয়া ইকবাল হোসেন বলে নিশ্চিত করেন।

কক্সবাজার জেলা পুলিশের একটি সূত্র জানায়, কুমিল্লা থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার দিনভর ইকবাল কক্সবাজারের সুগন্ধা বিচে চোখে সানগ্লাস লাগিয়ে এলোমেলোভাবে ঘুরাফেরা করে। নোয়াখালী থেকে সুগন্ধা বিচে বেড়াতে যাওয়ার সময় তিন যুবকের সঙ্গে কথা বার্তার একপর্যায়ে ইকবালের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ সময় ইকবাল তার পালিয়ে থাকার সমস্যার কথা তাদের জানায়। বিষয়টি জেনে তারা রাতের দিকে কক্সবাজার পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ দ্রুত তাকে গ্রেপ্তার করে। খবর পেয়ে রাতেই কক্সবাজার পৌঁছে কুমিল্লা জেলা পুলিশের একটি দল। কক্সবাজার পুলিশ থেকে ইকবালকে বুঝে নিয়ে মাথায় হেলমেট ও বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পড়িয়ে হাতে হ্যান্ডকাপ লাগিয়ে কালো রংয়ের একটি মাইক্রোবাসে করে সেখান থেকে কড়া পুলিশ পাহারায় শুক্রবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে তাকে কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে আসা হয়।

এ সময় ইকবালকে গ্রেপ্তারের ছবি ও তথ্য সংগ্রহে শুক্রবার সকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের আলেখারচর, পুলিশ অফিস গেইট, পুলিশ লাইন্সের ১ ও ২ নম্বর গেইটসহ বিভিন্ন স্থানে সাংবাদিকদের ছুটাছুটি করতে হয়। এক পর্যায়ে দুপুর সাড়ে বারোটার পরে পুলিশ লাইন্সের ১ নম্বর গেইট এলাকায় কিছু সময়ের জন্য শুধুমাত্র ফটো সেশন করতে ইকবালকে সাংবাদিকদের সামনে হাজির করা হয়। ইকবালকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় কুমিল্লা পুলিশের পক্ষ থেকে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কোন প্রেসব্রিফিং করা হয়নি। পুলিশ জানায়, কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে রেখে ইকবালকে নিবিড় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঢাকা থেকে আসা পুলিশের পদস্থ কর্মকর্তা ও গোয়েন্দা বিভাগের লোকজনসহ চৌকস টিম তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম. তানভীর আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, আমরা ইকবাল হোসেনকে ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের শেষে আপনাদের বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে। তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার ইকবাল সেখানে পবিত্র কোরআন রাখা ও হনুমানের মূর্তি থেকে গদা নেয়ার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

এদিকে কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রেখে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানা ও অবমাননাসহ পরবর্তী সহিংস ঘটনায় কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় র‌্যাব বাদী হয়ে একটিসহ মোট ৫টি মামলা হয়। এর মধ্যে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতহানা মামলায় কোন আসামির নাম উল্লেখ না থাকলেও এ মামলায় ইকবালকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে। তাকে সহিংসতার অন্যান্য মামলায়ও আসামি করা হতে পারে বলে সূত্রটি জানায়।

ইকবালকে গ্রেপ্তারের পর এখন তার পেছনে থাকা নেপথ্য কুশীলবদের খুঁজছে পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলো। ইকবালের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে, ইকবালকে কোন কিছুর লোভ দেখিয়ে, অথবা যে কোন মূল্যে ম্যানেজ করে পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখার মতো ন্যক্কারজনক ঘৃণ্য এ ঘটনার জন্ম দিয়েছে। এর পেছনে নিশ্চয়ই কোন না কোন শক্তির হাত রয়েছে এবং সরকারকে দেশে-বিদেশে বিতর্কিত করতে একটি অশুভ শক্তি এমন ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থা।

কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ জানান, কক্সবাজারে গ্রেপ্তার ইকবাল হোসেনই কুমিল্লার পূজামণ্ডপকাণ্ডে সিসি টিভি ফুটেজে ধরা পড়া সেই ইকবাল। তদন্তের স্বার্থে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার (২৩ অক্টোবর) এ বিষয়ে প্রেস ব্রিফিং করা হবে বলেও তিনি জানান।

পূজামণ্ডপে হামলার সময় আহত এক ব্যক্তির মৃত্যু
কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখাকে কেন্দ্র করে সহিংসতার সময় ইটের আঘাতে আহত দিলীপ কুমার দাস বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। ১৩ অক্টোবর তিনি নগরীর মনোহরপুর এলাকার রাজ রাজেশ্বরী কালীবাড়ি মন্দিরের ফটক বন্ধ করতে গিয়ে ইটের আঘাতে আহত হন। দিলীপের বাসা নগরীর কোতোয়ালি মডেল থানাসংলগ্ন পানপট্টি এলাকায়। তিনি ওই এলাকার বাসিন্দা বিষু লাল দাসের ছেলে। সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি আনওয়ারুল আজিম বলেন, ঢাকায় একজন মারা গেছে বলে শুনেছি। তবে অভিযোগ পাইনি।

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর নগরীর নানুয়াদীঘিরপাড় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখার ঘটনায় কুমিল্লা নগরের কয়েকটি পূজামণ্ডপে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় পাঁচটি, সদর দক্ষিণ মডেল থানায় ২টি, দাউদকান্দি মডেল থানায় একটি, দেবিদ্বার থানায় একটিসহ ৯টি মামলা হয়।

back to top