alt

সারাদেশ

কিশোরগঞ্জে বোরো রোপণের ধুম

লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ ৬৪ হাজার ৪৮৫ হেক্টর

মোস্তফা কামাল, কিশোরগঞ্জ : সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২

কিশোরগঞ্জ : বোরো চারা রোপণে ব্যস্ত কৃষক -সংবাদ

বোরো ধানের জন্য উদ্বৃত্ত জেলা হিসেবে বিশেষভাবে খ্যাত কিশোরগঞ্জের ১৩ উপজেলায় এই প্রচন্ড শীত উপেক্ষা করে চলছে বোরো জমিতে চারা রোপনের ধুম। এবার জেলায় হাইব্রিড, উফশী আর স্থানীয় জাতের বোরো বীজতলা তৈরি করা হয়েছিল ৮ হাজার ৪৭৪ হেক্টর জমিতে। আর এই তিন জাতের বোরো ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে এবার এক লাখ ৬৪ হাজার ৪৮৫ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে হাওরাঞ্চলে আবাদ হবে এক লাখ দুই হাজার ৫শ’ হেক্টরে, আর হাওর বহির্ভূত এলাকায় আবাদ হবে ৬১ হাজার ৯৮৫ হেক্টর জমিতে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এবার হাওরাঞ্চলে হাইব্রিড ২২ হাজার ১৪০ হেক্টর, উফশী ৭৯ হাজার ৮৫০ হেক্টর, আর স্থানীয় জাত আবাদের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে ৫১০ হেক্টর জমিতে। অন্যদিকে হাওর বহির্ভূত এলাকায় হাইব্রিড ২০ হাজার ৭২০ হেক্টর, উফশী ৪১ হাজার ১৫০ হেক্টর, আর স্থানীয় জাত আবাদের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে ১১৫ হেক্টর জমিতে। রোববার (১৬ জানুয়ারি) পর্যন্ত হাওরাঞ্চলে মোট ৮৫ হাজার ২৪০ হেক্টর জমিতে আবাদ সম্পন্ন হয়ে গেছে। আর হাওর বহির্ভূত এলাকায় মোট ১১ হাজার ৩৯০ হেক্টর জমিতে আবাদ সম্পন্ন হয়েছে। হাওরাঞ্চলে আগাম বন্যার আশঙ্কা থাকে বিধায় সেখানে আবাদও হয় আগাম। ধান আহরণও শুরু হয় আগাম। যে কারণে সেখানে সিংহভাগ জমি আবাদ হয়ে গেছে। কিন্তু হাওর বহির্ভূত এলাকায় আগাম বন্যার ভয় থাকে না বিধায় সেখানে আবাদ শুরুও হয় বিলম্বে, ধান আহরণও শুরু হয় বিলম্বে। যে কারণে হাওরাঞ্চলে আবাদ প্রায় শেষের দিকে হলেও হাওর বহির্ভূত এলাকায় এখনও আবাদ প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে।

এখন সর্বত্রই কনকনে শীত। আর এই শীতে হিমশীতল পানি আর কাদামটিতে জেলার কৃষকরা কুয়াশাঢাকা সকালেই নেমে পড়ছেন জমিতে। তবে এবার হাওরাঞ্চলে শ্রমিক সঙ্কট তীব্র। এখন মানুষের সামনে বৈচিত্র্যময় পেশার দ্বার উন্মোচিত হওয়ায় বোরো জমির কষ্টসাধ্য কাজে আর আগের মতো শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না।

হাওরের প্রচুর মানুষ এখন পোষাক কারখানায় কাজ করতে যায়। আবার গভীর হাওরাঞ্চল জুড়ে নয়নাভিরাম অলসিজন সড়ক নির্মিত হওয়ার ফলে এখন হাওরের পর্যটন গুরুত্ব বেড়ে গেছে। যে কারণে শত শত মানুষ এখন ওই সড়কে ইজিবাইকসহ ইঞ্জিনচালিত হালকা যানবাহন চালাচ্ছে। শত শত মানুষ এখন ইঞ্জিনচালিত নৌযান চালাচ্ছে। অনেকে বিভিন্ন ছোটখাট ব্যবসায় মনোযোগী হচ্ছে। যে কারণে এখন হাওরের শ্রমিকের দৈনিক মজুরি উঠে গেছে ৭শ’ থেকে ৮শ’ টাকায়। এর পরও শ্রমিক পাওয়া দুঃসাধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবে এখন কৃষি বিভাগ কৃষি যান্ত্রিকীকরণের দিকে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছে। ধানের চারা রোপণ থেকে শুরু করে ধানা কাটা এবং মাড়াই, সকল কাজেই যন্ত্রের ব্যবহার রপ্ত করার জন্য কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। বহু ধনী কৃষক এসব যন্ত্রপাতি ব্যবহার শুরুও করেছেন। যান্ত্রিকীকরণ রপ্ত করতে না পারলে আগামীতে শ্রমিক সঙ্কট আরো তীব্র হবে। ফলে বিশাল হাওরাঞ্চলে, যেখানে জেলার প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ বোরো আবাদ হয়, সেখানে উৎপাদন ব্যাহত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর সরকারও কৃষি রক্ষা এবং কৃষিকে লাভজনক করার লক্ষ্যে হাওরাঞ্চলের জন্য ৭০ ভাগ ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহ করছে।

ছবি

নরসিংদীতে নির্বাচনী সংঘাতে আহত ১৫

ছবি

উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের সাথে ট্রেন চলাচল শুরু

অহিংস অগ্নিযাত্রা : তরুণীকে হেনস্থার প্রতিবাদ

ছবি

ভরা মৌসুমে ধান সরবরাহ কম, বাড়ছে দাম

ছবি

তারেককে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

‘যারা দেশের টাকা পাচার করেছে তাদের নামের তালিকা করা হচ্ছে’

ছবি

শহরের মুদি দোকানগুলো বাকিতে পণ্য বিক্রি বন্ধ করায় দুর্দশায় ক্রেতারা

ছবি

খুলনা-কলকাতা রুটে রোববার থেকে চলবে ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’

ছবি

‘জাতীয়ভাবে এমন উদ্যোগ নিতে হবে যেন আমাদের সন্তানেরা থাকে নিরাপদে’

ছবি

আজ আসছে খিরসাপাত, আমের বাজার চড়া

ছবি

আশ্রয়ণ প্রকল্প নিয়ে দুর্নীতি করলেই ব্যবস্থা: আইনমন্ত্রী

ছবি

ফরিদপুরের নগরকান্দায় রাতের আঁধারে সরকারি পুকুর দখল

ছবি

প্রধান শিক্ষকের ‘স্বেচ্ছাচারিতা’, বিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত

ছবি

প্রশিক্ষণে নেদারল্যান্ডস গিয়ে ‘নিখোঁজ’ ২ পুলিশ

বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ স্মরণে সভা

শটসার্কিটের আগুনে দগ্ধ শিশুসহ দুজন

২ জেলায় হামলা-সংঘর্ষে নিহত দুই, গ্রেপ্তার সাত

ছবি

হাতির ভয় দেখিয়ে মাহুতের চাঁদাবাজি

বগুড়ায় জাল টাকা ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার চারজন

তিন দিন পর উল্টো লুটপাটের মামলা

বান্দরবানে পর্যটকবাহী মাইক্রো খাদে : নিহত ৩

হাতিয়ায় ১৭ জেলেকে অর্থদন্ড

ছবি

পদ্মায় বিলীন কয়েকশ’ একর ফসলি জমি

ছবি

মিরসরাইয়ে র‍্যাবের ওপর হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার ১৩

ছবি

হরিরামপুরে পদ্মায় বিলীন কাঞ্চনপুরের দুই তৃতীয়াংশ

সাভারে অনিবন্ধিত দুই হাসপাতাল সিলগালা

কুমিল্লায় রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে

কুমিল্লায় ট্রেন লাইনচ্যুত, সিলেট-চট্টগ্রামের ট্রেন বন্ধ

রংপুরে শিশু ধর্ষণ মামলায় ইমামের যাবজ্জীবন

ছবি

করোনা চিকিৎসায় বিবাহিত স্বাস্থ্যকর্মীরা বেশী মানসিক রোগে আক্রান্ত

ছবি

তেজগাঁও ট্রাকে পিষ্ট হয়ে শিশু নিহত

ছবি

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, খোয়ালেন টাকা-মোবাইল

ছবি

বিদ্যুৎপৃষ্টে প্রাণ গেল ছাত্রলীগ নেতার, আহত ২

বাঁশকালীতে জমি বিবাদে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের শঙ্কা

পাকুন্দিয়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ

ছবি

অবৈধ অটোরিকশার চোখ ধাঁধাঁনো এলইডির আলোতে বাড়ছে দুর্ঘটনা

tab

সারাদেশ

কিশোরগঞ্জে বোরো রোপণের ধুম

লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ ৬৪ হাজার ৪৮৫ হেক্টর

মোস্তফা কামাল, কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জ : বোরো চারা রোপণে ব্যস্ত কৃষক -সংবাদ

সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২

বোরো ধানের জন্য উদ্বৃত্ত জেলা হিসেবে বিশেষভাবে খ্যাত কিশোরগঞ্জের ১৩ উপজেলায় এই প্রচন্ড শীত উপেক্ষা করে চলছে বোরো জমিতে চারা রোপনের ধুম। এবার জেলায় হাইব্রিড, উফশী আর স্থানীয় জাতের বোরো বীজতলা তৈরি করা হয়েছিল ৮ হাজার ৪৭৪ হেক্টর জমিতে। আর এই তিন জাতের বোরো ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে এবার এক লাখ ৬৪ হাজার ৪৮৫ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে হাওরাঞ্চলে আবাদ হবে এক লাখ দুই হাজার ৫শ’ হেক্টরে, আর হাওর বহির্ভূত এলাকায় আবাদ হবে ৬১ হাজার ৯৮৫ হেক্টর জমিতে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এবার হাওরাঞ্চলে হাইব্রিড ২২ হাজার ১৪০ হেক্টর, উফশী ৭৯ হাজার ৮৫০ হেক্টর, আর স্থানীয় জাত আবাদের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে ৫১০ হেক্টর জমিতে। অন্যদিকে হাওর বহির্ভূত এলাকায় হাইব্রিড ২০ হাজার ৭২০ হেক্টর, উফশী ৪১ হাজার ১৫০ হেক্টর, আর স্থানীয় জাত আবাদের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে ১১৫ হেক্টর জমিতে। রোববার (১৬ জানুয়ারি) পর্যন্ত হাওরাঞ্চলে মোট ৮৫ হাজার ২৪০ হেক্টর জমিতে আবাদ সম্পন্ন হয়ে গেছে। আর হাওর বহির্ভূত এলাকায় মোট ১১ হাজার ৩৯০ হেক্টর জমিতে আবাদ সম্পন্ন হয়েছে। হাওরাঞ্চলে আগাম বন্যার আশঙ্কা থাকে বিধায় সেখানে আবাদও হয় আগাম। ধান আহরণও শুরু হয় আগাম। যে কারণে সেখানে সিংহভাগ জমি আবাদ হয়ে গেছে। কিন্তু হাওর বহির্ভূত এলাকায় আগাম বন্যার ভয় থাকে না বিধায় সেখানে আবাদ শুরুও হয় বিলম্বে, ধান আহরণও শুরু হয় বিলম্বে। যে কারণে হাওরাঞ্চলে আবাদ প্রায় শেষের দিকে হলেও হাওর বহির্ভূত এলাকায় এখনও আবাদ প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে।

এখন সর্বত্রই কনকনে শীত। আর এই শীতে হিমশীতল পানি আর কাদামটিতে জেলার কৃষকরা কুয়াশাঢাকা সকালেই নেমে পড়ছেন জমিতে। তবে এবার হাওরাঞ্চলে শ্রমিক সঙ্কট তীব্র। এখন মানুষের সামনে বৈচিত্র্যময় পেশার দ্বার উন্মোচিত হওয়ায় বোরো জমির কষ্টসাধ্য কাজে আর আগের মতো শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না।

হাওরের প্রচুর মানুষ এখন পোষাক কারখানায় কাজ করতে যায়। আবার গভীর হাওরাঞ্চল জুড়ে নয়নাভিরাম অলসিজন সড়ক নির্মিত হওয়ার ফলে এখন হাওরের পর্যটন গুরুত্ব বেড়ে গেছে। যে কারণে শত শত মানুষ এখন ওই সড়কে ইজিবাইকসহ ইঞ্জিনচালিত হালকা যানবাহন চালাচ্ছে। শত শত মানুষ এখন ইঞ্জিনচালিত নৌযান চালাচ্ছে। অনেকে বিভিন্ন ছোটখাট ব্যবসায় মনোযোগী হচ্ছে। যে কারণে এখন হাওরের শ্রমিকের দৈনিক মজুরি উঠে গেছে ৭শ’ থেকে ৮শ’ টাকায়। এর পরও শ্রমিক পাওয়া দুঃসাধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবে এখন কৃষি বিভাগ কৃষি যান্ত্রিকীকরণের দিকে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছে। ধানের চারা রোপণ থেকে শুরু করে ধানা কাটা এবং মাড়াই, সকল কাজেই যন্ত্রের ব্যবহার রপ্ত করার জন্য কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। বহু ধনী কৃষক এসব যন্ত্রপাতি ব্যবহার শুরুও করেছেন। যান্ত্রিকীকরণ রপ্ত করতে না পারলে আগামীতে শ্রমিক সঙ্কট আরো তীব্র হবে। ফলে বিশাল হাওরাঞ্চলে, যেখানে জেলার প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ বোরো আবাদ হয়, সেখানে উৎপাদন ব্যাহত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর সরকারও কৃষি রক্ষা এবং কৃষিকে লাভজনক করার লক্ষ্যে হাওরাঞ্চলের জন্য ৭০ ভাগ ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহ করছে।

back to top