alt

সারাদেশ

চাঁদপুরে নৌপথে ডাকাতি, পুলিশ সুপারের রহস্য উদঘাটনের আশ্বাস!

অমরেশ দত্ত জয়ঃ : সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২

পদ্মা, মেঘনা, ডাকাতিয়া ও ধনাগোদা ঘেরা চাঁদপুরে অনিরাপদ হয়ে উঠছে নৌপথের যোগাযোগ ব্যবস্থা। স্পীডবোটে একের পর এক ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। শীতকালে সহজলভ্য নৌপথ ব্যবহারকালে গতিসম্পন্ন স্পীডবোট ব্যবহার করে এই ডাকাতি ঘটানো হচ্ছে।

২৩ জানুয়ারি রোববার দুপুরেও মেঘনার সফরমালী লঞ্চঘাট এলাকায় ২টি স্পীডবোটযোগে ডাকাতদল ব্যবসায়ীদের অর্ধলক্ষ টাকা ডাকাতি করে নিয়ে গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন চাঁদপুর নৌ পুলিশের এসপি মোঃ কামরুজ্জামান।

এ সময় ডাকাতদের মারধরে আহত হওয়া আক্কাস শেখ(৩৫), উজ্জল মাঝি (২৫) ও হাকিম গাজী(৪৮) জানান, শীতকাল আসলেই ঘনকুয়াশায় চাঁদপুর নৌ পথে ডাকাতি বেড়ে যায়। এরজন্য আমরা মনে করছি প্রশাসনের তদারকির অভাব। কেননা এই রুটে কয়টি স্পীডবোট চলে?

কারা এই স্পীড বোটের মালিক, কারা স্পীড বোট চালক এর তেমন কোন তথ্যই নেই সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে। তার ওপর ২’শ হর্স পাওয়ারের ডবল ইঞ্জিনের অবৈধ হাই স্পীড বোটগুলো কারা চালায় এই তথ্য পর্যন্ত কারো কাছে সংগ্রহে নেই। অথচ প্রশাসনের কাছেও এতো গতি সম্পন্ন স্পীড বোট নেই। আর এই সুযোগটি কাজে লাগিয়ে আমাদের সাধারণ ব্যবসায়ীদের এই ক্ষতি করে গেলো ডাকাত দল। আমরা প্রশাসনের কাছে দ্রুত ডাকাতদের খুঁজে বের করে আটক করতে অনুরোধ জানাচ্ছি।

খোঁজ-খবর নিয়ে জানা যায়, আহতদের মধ্যে আক্কাস শেখ(৩৫) ও উজ্জল মাঝি(২৫)কে গুরুতর আহত অবস্থায় চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই ব্যবসায়ীরা সকলে মতলব উত্তর উপজেলার আমিরাবাদ ও গৌরাঙ্গ বাজারের ব্যবসায়ী।

ঘটনা প্রসঙ্গে ট্রলারে থাকা আহত ব্যবসায়ী হাকিম আলী গাজী জানায়, মেঘনা নদীর সফরমালী লঞ্চঘাটের কাছে আসলে হাই স্পীডবোট নিয়ে ৮/৯জনের মুখোশধারী ডাকাতদল কাটা-রাইফেল, শটগান, রামদা ও রড নিয়ে আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং আমাদের কাছে থাকা টাকা-পয়সা লুটে নেয়। এর সাথে আমাদের মোবাইলগুলোও তারা নিয়ে যায়। পরে ডাকাতরা মেঘনা নদীর উত্তর দিকে চলে যায়। ওদের গায়ে লাইফ জ্যাকেট ছিল।

ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী ট্রলারের মাঝি উজ্জল শেখ(২৫) জানায়, আমার ট্রলারে ডাকাতরা দ্রুত গতি সম্পন্ন স্পীডবেট দিয়ে উঠেই সবাইকে মারধর শুরু করে। কয়েকজন ব্যবসায়ী ট্রলারে সাথে আসেনাই। তারা আমার কাছে চাঁদপুরের পার্টিদেরকে পৌঁছে দেয়ার জন্য টাকা দেয়। সেই টাকার পরিমান ১৪ লক্ষ ২০হাজার টাকা। সব টাকাই ডাকাতরা নিয়ে গেছে।

আহত পাইকারী মুদি ব্যবসায়ী আক্কাস শেখ জানায়, আমার কাছে ৯ লক্ষ টাকা ছিলো। টাকা দিতে দেরী করায় রড দিয়ে আমার হাত ভেঙ্গে ফেলে এবং টাকা ছিনিয়ে নেয়।

এ ছাড়াও তেলের ডিলার ব্যাপারী ট্রেডার্সের মালিক আতাউর রহমান সবুজ জানায়, তার টাকা ছিল ৩ লক্ষ ৫০ হাজার, তেলের ডিলার নাইমা ট্রেডার্সের মালিক মোহাম্মদ হোসেনের টাকা ছিল ৩ লক্ষ ১১ হাজার, মরিচের পাইকার খোকন মেম্বারের ৩ লক্ষ ১০ হাজার, গৌরাঙ্গ বাজারের মুদি ব্যবসায়ী কামাল মল্লিকের ৩ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা, রহমআলী গাজীর কাছে থাকা ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা ডাকাতরা নিয়ে গেছে।

এ বিষয়ে চাঁদপুর নৌ-পুলিশের এসপি কামরুজ্জামান জানায়, পুরো ঘটনাটি আমরা খতিয়ে দেখছি। ব্যবসায়ী এবং ট্রলার চালকের কাছে এতো টাকা ছিলো তা লিক আউট হলো কিভাবে? কারা এই নৌ পথে হাই স্পীডবোট চালাচ্ছে। সকল তথ্যই উদঘাটন করা হচ্ছে। এছাড়াও আমি খবর পেয়ে সাথে সাথে চাঁদপুর সদর ও মোহনপুর নৌ-পুলিশের ওসিকে ঘটনাস্থলে নদীতে টিমসহ পাঠিয়ে দিয়েছি। এরপর নৌ-পুলিশের এডিশনাল এসপিকেও বিষয়টি অধিকতর যাচাইয়ের জন্য পাঠিয়েছি। ব্যবসায়ীদের থেকে ছিনিয়ে নেয়া মোবাইলের নম্বর আমাদের হাতে চলে আসছে। আমরা সেগুলি নিয়ে ডাকাতদের ধরার বিষয়ে যা যা করনীয় সবই করছি। আশা করি দ্রুত ঘটনায় জড়িত ডাকাতদের ধরতে সক্ষম হবো।

এদিকে ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে আসা চাঁদপুর নৌ-পুলিশের এডিশনাল এসপি বেলায়েত হোসেন জানান, ডাকাতদের ধরার জন্য প্রয়োজনীয় সকল তথ্য উপাত্ত সংগ্রহের কাজ আমরা শুরু করে দিয়েছি। তবে এই ডাকাতির ঘটনায় ব্যবসায়ী কিংবা স্থানীয়দের যোগসাযোস থাকতে পারে বলে আমরা ধারনা করছি। ভবিষ্যতে এতো টাকা নিয়ে নৌ-পথে মোকামে গেলে অবশ্যই আমাদের সহযোগিতা নিতে সকল ব্যবসায়ীকে অনুরোধ করছি।

ছবি

ফেনীতে ৬ মাসে শিক্ষার্থীসহ ৩৮ জনের আত্মহনন

ছবি

সাভারে বকেয়া পরিশোধের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

নগরকান্দায় পেরাক ডুকিয়ে ব্যবসায়ীকে হত্যা

শাহজীবাজার বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আগুন, আতংকে এলাকাবাসী

রাস্তা পার হতে গিয়ে গাড়ি চাপায় যুবকের মৃত্যু

লালমনিরহাটে দুই ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত

বেগমগঞ্জের ছাত্র হোষ্টেলে সন্ত্রাসীদের হামলা। আহত ৬

ছবি

প্লাস্টিক বর্জ্য মুক্ত হচ্ছে মাধবকুণ্ড

ছবি

মেঘনা থেকে বালু তুলতে পারবেন না সেলিম খান

কক্সবাজার হাসপাতালের মর্গের ফ্রিজ নষ্ট

ছবি

সুপ্রিম কোর্টে নিরাপত্তা জোরদার, অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন

ছবি

বরিশালে গাছের সঙ্গে বাসের ধাক্কা, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০

ছবি

শাহজিবাজার বিদ্যুৎ প্লান্টে ভয়াবহ আগুন

নোয়াখালীতে ৯টি অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা

ছবি

কিশোরী সংঘের ছোঁয়ায় রোধ হচ্ছে বাল্যবিবাহ, স্কুল থেকে ঝরে পড়া

রংপুরে ২৪ ঘণ্টায় দুই হত্যাকান্ড

ছবি

নতুন বিষয় ও গবেষণার কাজে আরও মনোযোগী হতে হবে: উপাচার্য

ছবি

বাঁশ দিয়ে ঘিরে দখল সরকারি পুকুর

আসামিদের হুমকিতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে পরিবার

সেতু সংস্কারের অভাবে বাড়ছে ভোগান্তি

কৃষি আবহাওয়ার পূর্বাভাস বঞ্চিত শেরপুরে প্রায় ৬০ হাজার কৃষক

ধর্ষণের শিকার শিশু মামলার পরও গ্রেপ্তার হয়নি অভিযুক্ত

ছাত্রীর পর এবার এমসি কলেজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

ছবি

২২ বছর ধরে পারাপারের ভরসা নড়বড়ে সাঁকো

ছবি

চুয়াডাঙ্গায় ৩ ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা

ছবি

নরসিংদীতে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত ২

ছবি

নরসিংদীতে নির্বাচনী সংঘাতে আহত ১৫

ছবি

উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের সাথে ট্রেন চলাচল শুরু

অহিংস অগ্নিযাত্রা : তরুণীকে হেনস্থার প্রতিবাদ

ছবি

ভরা মৌসুমে ধান সরবরাহ কম, বাড়ছে দাম

ছবি

তারেককে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

‘যারা দেশের টাকা পাচার করেছে তাদের নামের তালিকা করা হচ্ছে’

ছবি

শহরের মুদি দোকানগুলো বাকিতে পণ্য বিক্রি বন্ধ করায় দুর্দশায় ক্রেতারা

ছবি

খুলনা-কলকাতা রুটে রোববার থেকে চলবে ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’

ছবি

‘জাতীয়ভাবে এমন উদ্যোগ নিতে হবে যেন আমাদের সন্তানেরা থাকে নিরাপদে’

ছবি

আজ আসছে খিরসাপাত, আমের বাজার চড়া

tab

সারাদেশ

চাঁদপুরে নৌপথে ডাকাতি, পুলিশ সুপারের রহস্য উদঘাটনের আশ্বাস!

অমরেশ দত্ত জয়ঃ

সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২

পদ্মা, মেঘনা, ডাকাতিয়া ও ধনাগোদা ঘেরা চাঁদপুরে অনিরাপদ হয়ে উঠছে নৌপথের যোগাযোগ ব্যবস্থা। স্পীডবোটে একের পর এক ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। শীতকালে সহজলভ্য নৌপথ ব্যবহারকালে গতিসম্পন্ন স্পীডবোট ব্যবহার করে এই ডাকাতি ঘটানো হচ্ছে।

২৩ জানুয়ারি রোববার দুপুরেও মেঘনার সফরমালী লঞ্চঘাট এলাকায় ২টি স্পীডবোটযোগে ডাকাতদল ব্যবসায়ীদের অর্ধলক্ষ টাকা ডাকাতি করে নিয়ে গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন চাঁদপুর নৌ পুলিশের এসপি মোঃ কামরুজ্জামান।

এ সময় ডাকাতদের মারধরে আহত হওয়া আক্কাস শেখ(৩৫), উজ্জল মাঝি (২৫) ও হাকিম গাজী(৪৮) জানান, শীতকাল আসলেই ঘনকুয়াশায় চাঁদপুর নৌ পথে ডাকাতি বেড়ে যায়। এরজন্য আমরা মনে করছি প্রশাসনের তদারকির অভাব। কেননা এই রুটে কয়টি স্পীডবোট চলে?

কারা এই স্পীড বোটের মালিক, কারা স্পীড বোট চালক এর তেমন কোন তথ্যই নেই সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে। তার ওপর ২’শ হর্স পাওয়ারের ডবল ইঞ্জিনের অবৈধ হাই স্পীড বোটগুলো কারা চালায় এই তথ্য পর্যন্ত কারো কাছে সংগ্রহে নেই। অথচ প্রশাসনের কাছেও এতো গতি সম্পন্ন স্পীড বোট নেই। আর এই সুযোগটি কাজে লাগিয়ে আমাদের সাধারণ ব্যবসায়ীদের এই ক্ষতি করে গেলো ডাকাত দল। আমরা প্রশাসনের কাছে দ্রুত ডাকাতদের খুঁজে বের করে আটক করতে অনুরোধ জানাচ্ছি।

খোঁজ-খবর নিয়ে জানা যায়, আহতদের মধ্যে আক্কাস শেখ(৩৫) ও উজ্জল মাঝি(২৫)কে গুরুতর আহত অবস্থায় চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই ব্যবসায়ীরা সকলে মতলব উত্তর উপজেলার আমিরাবাদ ও গৌরাঙ্গ বাজারের ব্যবসায়ী।

ঘটনা প্রসঙ্গে ট্রলারে থাকা আহত ব্যবসায়ী হাকিম আলী গাজী জানায়, মেঘনা নদীর সফরমালী লঞ্চঘাটের কাছে আসলে হাই স্পীডবোট নিয়ে ৮/৯জনের মুখোশধারী ডাকাতদল কাটা-রাইফেল, শটগান, রামদা ও রড নিয়ে আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং আমাদের কাছে থাকা টাকা-পয়সা লুটে নেয়। এর সাথে আমাদের মোবাইলগুলোও তারা নিয়ে যায়। পরে ডাকাতরা মেঘনা নদীর উত্তর দিকে চলে যায়। ওদের গায়ে লাইফ জ্যাকেট ছিল।

ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী ট্রলারের মাঝি উজ্জল শেখ(২৫) জানায়, আমার ট্রলারে ডাকাতরা দ্রুত গতি সম্পন্ন স্পীডবেট দিয়ে উঠেই সবাইকে মারধর শুরু করে। কয়েকজন ব্যবসায়ী ট্রলারে সাথে আসেনাই। তারা আমার কাছে চাঁদপুরের পার্টিদেরকে পৌঁছে দেয়ার জন্য টাকা দেয়। সেই টাকার পরিমান ১৪ লক্ষ ২০হাজার টাকা। সব টাকাই ডাকাতরা নিয়ে গেছে।

আহত পাইকারী মুদি ব্যবসায়ী আক্কাস শেখ জানায়, আমার কাছে ৯ লক্ষ টাকা ছিলো। টাকা দিতে দেরী করায় রড দিয়ে আমার হাত ভেঙ্গে ফেলে এবং টাকা ছিনিয়ে নেয়।

এ ছাড়াও তেলের ডিলার ব্যাপারী ট্রেডার্সের মালিক আতাউর রহমান সবুজ জানায়, তার টাকা ছিল ৩ লক্ষ ৫০ হাজার, তেলের ডিলার নাইমা ট্রেডার্সের মালিক মোহাম্মদ হোসেনের টাকা ছিল ৩ লক্ষ ১১ হাজার, মরিচের পাইকার খোকন মেম্বারের ৩ লক্ষ ১০ হাজার, গৌরাঙ্গ বাজারের মুদি ব্যবসায়ী কামাল মল্লিকের ৩ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা, রহমআলী গাজীর কাছে থাকা ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা ডাকাতরা নিয়ে গেছে।

এ বিষয়ে চাঁদপুর নৌ-পুলিশের এসপি কামরুজ্জামান জানায়, পুরো ঘটনাটি আমরা খতিয়ে দেখছি। ব্যবসায়ী এবং ট্রলার চালকের কাছে এতো টাকা ছিলো তা লিক আউট হলো কিভাবে? কারা এই নৌ পথে হাই স্পীডবোট চালাচ্ছে। সকল তথ্যই উদঘাটন করা হচ্ছে। এছাড়াও আমি খবর পেয়ে সাথে সাথে চাঁদপুর সদর ও মোহনপুর নৌ-পুলিশের ওসিকে ঘটনাস্থলে নদীতে টিমসহ পাঠিয়ে দিয়েছি। এরপর নৌ-পুলিশের এডিশনাল এসপিকেও বিষয়টি অধিকতর যাচাইয়ের জন্য পাঠিয়েছি। ব্যবসায়ীদের থেকে ছিনিয়ে নেয়া মোবাইলের নম্বর আমাদের হাতে চলে আসছে। আমরা সেগুলি নিয়ে ডাকাতদের ধরার বিষয়ে যা যা করনীয় সবই করছি। আশা করি দ্রুত ঘটনায় জড়িত ডাকাতদের ধরতে সক্ষম হবো।

এদিকে ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে আসা চাঁদপুর নৌ-পুলিশের এডিশনাল এসপি বেলায়েত হোসেন জানান, ডাকাতদের ধরার জন্য প্রয়োজনীয় সকল তথ্য উপাত্ত সংগ্রহের কাজ আমরা শুরু করে দিয়েছি। তবে এই ডাকাতির ঘটনায় ব্যবসায়ী কিংবা স্থানীয়দের যোগসাযোস থাকতে পারে বলে আমরা ধারনা করছি। ভবিষ্যতে এতো টাকা নিয়ে নৌ-পথে মোকামে গেলে অবশ্যই আমাদের সহযোগিতা নিতে সকল ব্যবসায়ীকে অনুরোধ করছি।

back to top