alt

সারাদেশ

নির্বাচন কমিশন: প্রস্তাবকদের নাম প্রকাশে শুনানি

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : সোমবার, ২৩ মে ২০২২

https://sangbad.net.bd/images/2022/May/23May22/news/%E0%A7%A8%E0%A7%AA.jpg

নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে অনুসন্ধান কমিটির কাছে কোন ব্যক্তির নাম কে প্রস্তাব করেছেন, তা জানতে তথ্য অধিকার আইনে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ বরাবর আবেদন করেছিলেন সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার। তবে তাকে কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি।

গতকাল তার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে শুনানির আয়োজন করে তথ্য কমিশন। এতে দুই পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে এক সপ্তাহের মধ্যে তাদের লিখিত বক্তব্য দিতে বলা হয়েছে।

শুনানিতে প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ ও দুই তথ্য কমিশনার, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আইন ও বিধি অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব শফিউল আজিম, তথ্য অধিকার অধিশাখার উপসচিব মুহাম্মদ আসাদুল হক এবং আবেদনকারী বদিউল আলম মজুমদার উপস্থিত ছিলেন। তথ্য কমিশন দুই পক্ষের বক্তব্য পেলে এ বিষয়ে ৬–৭ জুনের মধ্যে রায় দিতে পারে।

উল্লেখ্য, প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও নির্বাচন কমিশনার হিসেবে সার্চ কমিটিতে জমা পড়া ৩২২ জনের নামের তালিকা গত ১৪ ফেব্রুয়ারি প্রকাশ করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। ১৬ ফেব্রুয়ারি কোন ব্যক্তির নাম কে প্রস্তাব করেছেন, তা জানতে চেয়ে ওই বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর তথ্য অধিকার আইনে আবেদন করেন বদিউল আলম মজুমদার। কিন্তু মন্ত্রিপরিষদের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ আসাদুল হক গত ২ মার্চ সেই তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করে তাঁকে ই–মেইল করেন। সেই সিদ্ধান্তে সংক্ষুব্ধ হয়ে বদিউল আলম মজুমদার মন্ত্রিপরিষদের নির্ধারিত আপিল কর্মকর্তার কাছে ৭ মার্চ আবেদন করেন। কিন্তু আপিল কর্মকর্তা সেই আবেদনের জবাব দেননি। এরপর গত ১১ এপ্রিল তথ্য কমিশনে অভিযোগ করেন তিনি।

এবিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আইন ও বিধি অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব শফিউল আজিম বলেন, আমরা একজনের অধিকার দিতে গিয়ে আরেকজনের অধিকার ক্ষুণ্ন করতে পারব না। তাঁর নাম যিনি প্রস্তাব করেছেন, তাঁর পরিচয় যদি প্রকাশ করি, তাহলে ওই ব্যক্তি তো বিপদে পড়ে যাবেন। এটি তো করতে পারি না। আমরা আইনগত বিষয়গুলো বলেছি। কমিশন শুনেছে। সিদ্ধান্ত কমিশনই নেবে।

https://sangbad.net.bd/images/2022/May/23May22/news/aW1hZ2UtMzAyNTktMTUxNDYzOTI3Mi5qcGc%3D.jpg

সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার

জানতে চাইলে বদিউল আলম মজুমদার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ আমাকে যে লিখিত উত্তর দিয়েছে, তাতে এটি গোপন তথ্য বলে উল্লেখ নেই। তা ছাড়া গোপন তথ্য হলে, যার তথ্য তার কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ যে ৩২২ জনের নাম প্রকাশ করেছে, তাদের কাছ থেকে তো অনুমতি নেয়নি। অতএব এটি তো গোপন তথ্য নয়। ফলে কে কার নাম প্রস্তাব করেছে, সেটিও গোপন হওয়ার যৌক্তিকতা নেই।

জানা গেছে, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করে দুটি কারণ দেখিয়েছেন। তা হচ্ছে, তিনি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব অনুসন্ধান কমিটির সদস্য নন এবং চাহিদার তথ্য সরবরাহ করার এখতিয়ার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নেই।

বদিউল আলম মজুমদার মনে করেন, মন্ত্রিপরিষদের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দুটি যুক্তিই অপ্রসাঙ্গিক ও অগ্রহণযোগ্য। শুনানিতে তিনি বলেন, তথ্য আইনের ধারা ৪-এ সুস্পষ্টভাবে বলা আছে, এই আইনের বিধানাবলি সাপেক্ষে, কর্তৃপক্ষের নিকট হইতে প্রত্যেক নাগরিকের তথ্য লাভের অধিকার থাকিবে এবং কোনো নাগরিকের অনুরোধের প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাহাকে তথ্য সরবরাহ করিতে বাধ্য থাকিবে। অর্থাৎ যে কর্তৃপক্ষের কাছে তথ্য আছে, তাকেই তথ্য দিতে হবে—আইনের এ বিধানে কোনো অস্পষ্টতা নেই।

সুজন সম্পাদক বলেন, ২০১৩ সালে নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া রাজনৈতিক দলের আয়-ব্যয়ের হিসাব চেয়ে তথ্য অধিকার আইনে তিনি আবেদন করেন। সংশ্লিষ্ট তথ্য তৃতীয় পক্ষের এই যুক্তি দেখিয়ে নির্বাচন কমিশন তাদের অনুমতি ছাড়া তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানায়। পরে আদালত তথ্য অধিকার আইনের অধীনে ‘কর্তৃপক্ষ’ হিসেবে নির্বাচন কমিশনকে তথ্য দেওয়ার নির্দেশ দেন। আদালতের এই রায়ের আলোকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগও তাঁকে চাহিদামতো তথ্য দিতে বাধ্য।

ছবি

আম খেয়ে চাপাবাজির জন্য প্রস্তুত ‘চাঁপাই সম্রাট’

সখীপুরে মেয়রের বিরুদ্ধে টেন্ডার ছাড়াই সড়কের গাছ কাটার অভিযোগ

ঘুমন্ত ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা, ২ জনের পা বিচ্ছিন্ন

ছবি

সুনামগঞ্জের সুরমার পানি ফের বাড়ছে

ছবি

বন্ধুর আশ্রয়ে ছিল শিক্ষক হত্যার অভিযুক্ত ছাত্র

কিশোরগঞ্জে নতুন ১৬ জনের করোনা শনাক্ত

ছবি

তিস্তার পানি ফের বিপদসীমার ওপরে, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

ছবি

গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা

ছবি

শিক্ষিকাকে ধর্ষণচেষ্টায় আটক ১

ছবি

বাবার কোলে শিশুকে গুলি করে হত্যা: আরেক আসামি গ্রেপ্তার

বেতন বৈষম্য নিরসন দাবি প্রাথমিকের দপ্তরিদের

ঘোড়াঘাটে করতোয়া নদীতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

ছবি

রোহিঙ্গা শিবিরে ঘরে ঘরে বাড়ছে চর্মরোগ

ছবি

শিশু শিক্ষার্থী শিহাব হত্যা: আসামীদের গ্রেফতার-শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

ছবি

লালমনিরহাট পৌরসভার ৫৩ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

ছবি

নিঃস্ব পরিবার চিকিৎসা চালাতে না পারায় গৃহবধূর আত্মহত্যা

ছবি

পদ্মা সেতুর ৬ দিনের সাংস্কৃতিক উৎসবে হরেক আয়োজন, কাল সমাপনী

ছবি

প্রেমিকার বোনকে হত্যার দায়ে প্রেমিকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ছবি

ধর্ষণ মামলা তুলে নিতে ভিক্টিমকে হুমকী দিচ্ছে ধর্ষক ও তার পরিবার

ছবি

ফের বন্যাতঙ্কে সিলেটবাসী, বিদ্যুতের মিটার উচুঁস্থানে স্থানান্তরের অনুরোধ

ছবি

বন্যার ক্ষত শুকাতে না শুকাতে ফের বন্যার শঙ্কা, জনমনে চরম আতংক

ছবি

১৮শ’পিস ইয়াবাসহ এক রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ছবি

পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে প্রস্তুত ফরিদপুরের ৩৮ মন ওজনের সম্রাট

ছবি

কক্সবাজারে ইয়াবা পাচার মামলায় ২ ভাইকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড

ছবি

সিলেটে বন্যায় পুলিশের মানবিক সহায়তা

ছবি

সাভারে শিক্ষককে পিটিয়ে হত্যা: প্রধান আসামি জিতু গ্রেপ্তার

‘এপিএ সরকারি কাজে স্বচ্ছতা ও গতি এনেছে’

ছবি

‘নিজের শরীরে’ আগুন দেওয়া চিকিৎসক অদিতির মৃত্যু

ছবি

সারাদেশে বসছে ৪৪০৭ পশুর হাট, মাস্ক বাধ্যতামূলক

ছবি

রংপুরে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ সমাবেশ

ছবি

বন্যার্তদের পুনর্বাসন দাবিতে গাইবান্ধায় বামজোটের বিক্ষোভ

ছবি

শতবর্ষী খাল ভরাট করে আশ্রয়ণ প্রকল্প : ৫শ’ বিঘায় চাষাবাদ ব্যাহতের আশঙ্কা

তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালী করার দাবি

দক্ষিণবঙ্গে বিলাসবহুল বাস অস্তিত্ব রক্ষায় কমছে লঞ্চ ভাড়া

ন্যূনতম ২০ হাজার টাকা মজুরি চায় নৌ শ্রমিকরা

ছবি

স্টাম্প দিয়ে পিটিয়ে শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত সেই ছাত্রের বাবা গ্রেপ্তার

tab

সারাদেশ

নির্বাচন কমিশন: প্রস্তাবকদের নাম প্রকাশে শুনানি

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

সোমবার, ২৩ মে ২০২২

https://sangbad.net.bd/images/2022/May/23May22/news/%E0%A7%A8%E0%A7%AA.jpg

নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে অনুসন্ধান কমিটির কাছে কোন ব্যক্তির নাম কে প্রস্তাব করেছেন, তা জানতে তথ্য অধিকার আইনে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ বরাবর আবেদন করেছিলেন সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার। তবে তাকে কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি।

গতকাল তার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে শুনানির আয়োজন করে তথ্য কমিশন। এতে দুই পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে এক সপ্তাহের মধ্যে তাদের লিখিত বক্তব্য দিতে বলা হয়েছে।

শুনানিতে প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ ও দুই তথ্য কমিশনার, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আইন ও বিধি অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব শফিউল আজিম, তথ্য অধিকার অধিশাখার উপসচিব মুহাম্মদ আসাদুল হক এবং আবেদনকারী বদিউল আলম মজুমদার উপস্থিত ছিলেন। তথ্য কমিশন দুই পক্ষের বক্তব্য পেলে এ বিষয়ে ৬–৭ জুনের মধ্যে রায় দিতে পারে।

উল্লেখ্য, প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও নির্বাচন কমিশনার হিসেবে সার্চ কমিটিতে জমা পড়া ৩২২ জনের নামের তালিকা গত ১৪ ফেব্রুয়ারি প্রকাশ করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। ১৬ ফেব্রুয়ারি কোন ব্যক্তির নাম কে প্রস্তাব করেছেন, তা জানতে চেয়ে ওই বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর তথ্য অধিকার আইনে আবেদন করেন বদিউল আলম মজুমদার। কিন্তু মন্ত্রিপরিষদের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ আসাদুল হক গত ২ মার্চ সেই তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করে তাঁকে ই–মেইল করেন। সেই সিদ্ধান্তে সংক্ষুব্ধ হয়ে বদিউল আলম মজুমদার মন্ত্রিপরিষদের নির্ধারিত আপিল কর্মকর্তার কাছে ৭ মার্চ আবেদন করেন। কিন্তু আপিল কর্মকর্তা সেই আবেদনের জবাব দেননি। এরপর গত ১১ এপ্রিল তথ্য কমিশনে অভিযোগ করেন তিনি।

এবিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আইন ও বিধি অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব শফিউল আজিম বলেন, আমরা একজনের অধিকার দিতে গিয়ে আরেকজনের অধিকার ক্ষুণ্ন করতে পারব না। তাঁর নাম যিনি প্রস্তাব করেছেন, তাঁর পরিচয় যদি প্রকাশ করি, তাহলে ওই ব্যক্তি তো বিপদে পড়ে যাবেন। এটি তো করতে পারি না। আমরা আইনগত বিষয়গুলো বলেছি। কমিশন শুনেছে। সিদ্ধান্ত কমিশনই নেবে।

https://sangbad.net.bd/images/2022/May/23May22/news/aW1hZ2UtMzAyNTktMTUxNDYzOTI3Mi5qcGc%3D.jpg

সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার

জানতে চাইলে বদিউল আলম মজুমদার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ আমাকে যে লিখিত উত্তর দিয়েছে, তাতে এটি গোপন তথ্য বলে উল্লেখ নেই। তা ছাড়া গোপন তথ্য হলে, যার তথ্য তার কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ যে ৩২২ জনের নাম প্রকাশ করেছে, তাদের কাছ থেকে তো অনুমতি নেয়নি। অতএব এটি তো গোপন তথ্য নয়। ফলে কে কার নাম প্রস্তাব করেছে, সেটিও গোপন হওয়ার যৌক্তিকতা নেই।

জানা গেছে, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করে দুটি কারণ দেখিয়েছেন। তা হচ্ছে, তিনি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব অনুসন্ধান কমিটির সদস্য নন এবং চাহিদার তথ্য সরবরাহ করার এখতিয়ার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নেই।

বদিউল আলম মজুমদার মনে করেন, মন্ত্রিপরিষদের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দুটি যুক্তিই অপ্রসাঙ্গিক ও অগ্রহণযোগ্য। শুনানিতে তিনি বলেন, তথ্য আইনের ধারা ৪-এ সুস্পষ্টভাবে বলা আছে, এই আইনের বিধানাবলি সাপেক্ষে, কর্তৃপক্ষের নিকট হইতে প্রত্যেক নাগরিকের তথ্য লাভের অধিকার থাকিবে এবং কোনো নাগরিকের অনুরোধের প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাহাকে তথ্য সরবরাহ করিতে বাধ্য থাকিবে। অর্থাৎ যে কর্তৃপক্ষের কাছে তথ্য আছে, তাকেই তথ্য দিতে হবে—আইনের এ বিধানে কোনো অস্পষ্টতা নেই।

সুজন সম্পাদক বলেন, ২০১৩ সালে নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া রাজনৈতিক দলের আয়-ব্যয়ের হিসাব চেয়ে তথ্য অধিকার আইনে তিনি আবেদন করেন। সংশ্লিষ্ট তথ্য তৃতীয় পক্ষের এই যুক্তি দেখিয়ে নির্বাচন কমিশন তাদের অনুমতি ছাড়া তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানায়। পরে আদালত তথ্য অধিকার আইনের অধীনে ‘কর্তৃপক্ষ’ হিসেবে নির্বাচন কমিশনকে তথ্য দেওয়ার নির্দেশ দেন। আদালতের এই রায়ের আলোকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগও তাঁকে চাহিদামতো তথ্য দিতে বাধ্য।

back to top