alt

সারাদেশ

ব্রহ্মপুত্র নদের দেড়শ গজ ভেতরে সড়ক বন্ধে স্মারকলিপি

জেলা বার্তা পরিবেশক, ময়মনসিংহ : মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২

ময়মনসিংহ নগরীর পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের শহররক্ষা বাঁধ থেকে প্রায় এক দেড়শ গজ নদীর ভেতরে পাঁকা সড়ক নির্মাণ অনতিবিলম্বে বন্ধের দাবি জানিয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে জনউদ্যোগ নামে ময়মনসিংহের একটি সংগঠন। রোববার (২২ মে) বিকেলে সংগঠনের নেতাকর্মীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হকের কাছে এই স্মারকলিপি হস্তান্তর করেন। অবিলম্বে নদীর ভিতরের পাকা সড়ক নির্মাণ কাজ বন্ধ করে যেটুকু কাজ হয়েছে তাও অপসারণের দাবি জানানো হয়েছে স্মারকলিপিতে ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রধান গেইটের বিপরীতে ও আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের পিছনে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের তীর রক্ষা বাঁধ থেকে আনুমানিক এক দেড়শ গজ নদীর ভিতরে ১৬ ফিট প্রশস্ত ও ১০ ফিট গভীর করে সড়ক নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তরের কাজ চলছে। পরবর্তীতে এটি কংক্রিটের ঢালাই দিয়ে স্থায়ীভাবে পাঁকা সড়ক নির্মাণ করা হবে।

জানা গেছে এই কাজটি সনাতন ধর্মাবলম্বীদেও দূর্গা পূজার প্রতিমা বিসর্জনের সুবিধার্থে এক কোটি ৭১ লাখ টাকা ব্যায়ে রাস্তা তৈরী জন্যে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের একটি প্রকল্প। এ ব্যাপাওে কথা বলতে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলীকে না পেয়ে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্থার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এ ব্যাপাওে তিনি কিছুই জানেন না। কারন তিনি গত তিন মাসে এখানে যোগদান করেছেন।

জনউদ্যোগ সংগঠনের আহ্বায়ক এডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু বলেন, যে কাজটি করা হচ্ছে তা সম্পূর্ণ অবৈধ। কারন বাংলাদেশ সৃপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের একটি ডিভিশন বেঞ্চ ২০১৯ সালের ৩ ফেব্রোয়ারী এক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকার তুরাগ নদীসহ দেশের সকল নদ-নদীকে ব্যাক্তি আইনি সত্তা বা জীবন্ত সত্তা হিসেবে ঘোষণা দিয়ে রায় প্রদান করেন। তিনি বলেন, আমরা মনেকরি নদের জায়গায় কোন রকম স্থাপনা নির্মাণ করা মানেই নদ দখল এবং নদের জীবন্ত সত্তাকে হত্যা করা।

এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আখলাকুজ জামিলের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না। তবে নদীর ভিতরের জায়গায় এ ধরনের সড়ক নির্মাণের কোন সুযোগ নেই। এ ব্যাপারে আমার কোন মতামতও নেয়া হয়নি। কিভাবে এখানে সড়ক নির্মান হচ্ছে তা আমি বুঝতে পারছি না।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হকবলেন, এ ব্যাপারে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার দেয়ার জন্য সদরের ভূমি কর্মকর্তাকে (এসিল্যান্ড) কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ছবি

সখীপুরে দুর্ঘটনা রোধে স্বেচ্ছাশ্রমে ঝোপঝাড় পরিস্কার

ছবি

নারায়ণগঞ্জে ৩৬ কেজি গাঁজাসহ গ্রেপ্তার ২

ছবি

দেশব্যাপী শিক্ষক নির্যাতনের প্রতিবাদে শাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

ছবি

স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে শুঁটকি মাছ উৎপাদনের বিকল্প নেই

ছবি

৬ জুলাই দেশব্যাপী প্রতিবাদ ও সম্প্রীতি সমাবেশ

ছবি

বগুড়ায় মায়ের কাছ থেকে শিশু সন্তানকে কেড়ে নেয়ার চেষ্টা

নড়াইলে পিকআপের ধাক্কায় ইজিবাইক যাত্রী নিহত

বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় গরু ব্যবসায়ীর মৃত্যু

ছবি

মান্দায় যুবলীগ নেতার ওপর হামলা, গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

ছবি

সাঁওতাল বিদ্রোহ দিবস পালিত

ছবি

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু শুক্রবার

চিকিৎসায় নিঃস্ব পরিবার : গৃহবধূর আত্মহত্যা

ছবি

বন্যাদুর্গত অসহায়দের পাশে ‘স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশন’

ছবি

পুলিশের এন্টি টেররিজম ইউনিটের সঙ্গে পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির মতবিনিময়

মেঘনার ক্রমাগত ভাঙনে আতংকে আশুগঞ্জের চর-সোনারামপুরবাসী

ফেয়ার গ্রুপ লিমিটেড ও এমআইএসটি’র মধ্যে সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষরিত

ছবি

পিটিসি নোয়াখালীতে সমাপনী কুচকাওয়াজ ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

প্রধান শিক্ষকের আত্মহত্যা

ছবি

নতুন প্রজন্মকে ধর্মান্ধতা থেকে বের করতে হবে

কর্মসম্পাদনে দেশ সেরা সিলেট সিটি কর্পোরেশন

মির্জাগঞ্জে মিনিট্রাক উল্টে চালক নিহত

ছবি

থেমে থেমে বৃষ্টি সিলেটে, বেড়েছে সুরমার পানি

ঘোড়াঘাটে এক আদিবাসী যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ছবি

আম খেয়ে গরুর বাজার মাতাতে প্রস্তুত ৪২ মণের ‘চাঁপাই সম্রাট’

সখীপুরে মেয়রের বিরুদ্ধে টেন্ডার ছাড়াই সড়কের গাছ কাটার অভিযোগ

ঘুমন্ত ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা, ২ জনের পা বিচ্ছিন্ন

ছবি

সুনামগঞ্জের সুরমার পানি ফের বাড়ছে

ছবি

বন্ধুর আশ্রয়ে ছিল শিক্ষক হত্যার অভিযুক্ত ছাত্র

কিশোরগঞ্জে নতুন ১৬ জনের করোনা শনাক্ত

ছবি

তিস্তার পানি ফের বিপদসীমার ওপরে, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

ছবি

গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা

ছবি

শিক্ষিকাকে ধর্ষণচেষ্টায় আটক ১

ছবি

বাবার কোলে শিশুকে গুলি করে হত্যা: আরেক আসামি গ্রেপ্তার

বেতন বৈষম্য নিরসন দাবি প্রাথমিকের দপ্তরিদের

ঘোড়াঘাটে করতোয়া নদীতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

ছবি

রোহিঙ্গা শিবিরে ঘরে ঘরে বাড়ছে চর্মরোগ

tab

সারাদেশ

ব্রহ্মপুত্র নদের দেড়শ গজ ভেতরে সড়ক বন্ধে স্মারকলিপি

জেলা বার্তা পরিবেশক, ময়মনসিংহ

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২

ময়মনসিংহ নগরীর পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের শহররক্ষা বাঁধ থেকে প্রায় এক দেড়শ গজ নদীর ভেতরে পাঁকা সড়ক নির্মাণ অনতিবিলম্বে বন্ধের দাবি জানিয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে জনউদ্যোগ নামে ময়মনসিংহের একটি সংগঠন। রোববার (২২ মে) বিকেলে সংগঠনের নেতাকর্মীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হকের কাছে এই স্মারকলিপি হস্তান্তর করেন। অবিলম্বে নদীর ভিতরের পাকা সড়ক নির্মাণ কাজ বন্ধ করে যেটুকু কাজ হয়েছে তাও অপসারণের দাবি জানানো হয়েছে স্মারকলিপিতে ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রধান গেইটের বিপরীতে ও আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের পিছনে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের তীর রক্ষা বাঁধ থেকে আনুমানিক এক দেড়শ গজ নদীর ভিতরে ১৬ ফিট প্রশস্ত ও ১০ ফিট গভীর করে সড়ক নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তরের কাজ চলছে। পরবর্তীতে এটি কংক্রিটের ঢালাই দিয়ে স্থায়ীভাবে পাঁকা সড়ক নির্মাণ করা হবে।

জানা গেছে এই কাজটি সনাতন ধর্মাবলম্বীদেও দূর্গা পূজার প্রতিমা বিসর্জনের সুবিধার্থে এক কোটি ৭১ লাখ টাকা ব্যায়ে রাস্তা তৈরী জন্যে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের একটি প্রকল্প। এ ব্যাপাওে কথা বলতে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলীকে না পেয়ে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্থার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এ ব্যাপাওে তিনি কিছুই জানেন না। কারন তিনি গত তিন মাসে এখানে যোগদান করেছেন।

জনউদ্যোগ সংগঠনের আহ্বায়ক এডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু বলেন, যে কাজটি করা হচ্ছে তা সম্পূর্ণ অবৈধ। কারন বাংলাদেশ সৃপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের একটি ডিভিশন বেঞ্চ ২০১৯ সালের ৩ ফেব্রোয়ারী এক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকার তুরাগ নদীসহ দেশের সকল নদ-নদীকে ব্যাক্তি আইনি সত্তা বা জীবন্ত সত্তা হিসেবে ঘোষণা দিয়ে রায় প্রদান করেন। তিনি বলেন, আমরা মনেকরি নদের জায়গায় কোন রকম স্থাপনা নির্মাণ করা মানেই নদ দখল এবং নদের জীবন্ত সত্তাকে হত্যা করা।

এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আখলাকুজ জামিলের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না। তবে নদীর ভিতরের জায়গায় এ ধরনের সড়ক নির্মাণের কোন সুযোগ নেই। এ ব্যাপারে আমার কোন মতামতও নেয়া হয়নি। কিভাবে এখানে সড়ক নির্মান হচ্ছে তা আমি বুঝতে পারছি না।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হকবলেন, এ ব্যাপারে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার দেয়ার জন্য সদরের ভূমি কর্মকর্তাকে (এসিল্যান্ড) কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

back to top