alt

সারাদেশ

২ জেলায় হামলা-সংঘর্ষে নিহত দুই, গ্রেপ্তার সাত

প্রতিনিধি, মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী), ফরিদপুর : শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২

মির্জাগঞ্জ

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় নুর ইসলাম (২৩) নামের এক যুবক নিহত হয়েছে এবং এক অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ছয়জন আহত হয়েছে। বুধবার (২৫ মে) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের দক্ষিন আমড়াগাছিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই দিনই রাত সাড়ে ১২টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই যুবকের মৃত্যু হয়। নিহত যুবক ওই গ্রামের আমজেদ হাওলাদারের ছেলে।

অপরদিকে সংঘর্ষে আহত ব্যক্তিরা মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তারা হলেন- নিহতের পিতা আমজেদ হাওলাদার ও স্বজন সুলতান, ইউসুফ, শারমিন, আমফুরতি, আলেয়া। এ ঘটনায় নিহতের বোন মোসা. তানিয়া বাদী হয়ে মির্জাগঞ্জ থানায় ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করে। এরপরই অভিযানে নামে পুলিশ এবং রাতেই সাতজনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মামলার প্রধান আসামি দক্ষিণ আমড়াগাছিয়া গ্রামের হাবিবসহ এজাহারভুক্ত অন্যান্য আসামি একই গ্রামের হাচান, মিজানুর, জসিম, মালেক, কহিনুর, মাহিনুর। নিহতের পরিবার, পুলিশ ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আমজেদ হাওলাদারের সঙ্গে তাঁর ফুঁফাত ভাই ওয়াজেদ হাওলাদারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার শালিস বিচার হওয়ার পরে কিছুদিন আগে জমিতে ইরি ধানের বীজ রোপন করে আমজেদ হাং। পরে প্রতিপক্ষ ওয়াজেদ ও তার ছেলে হাবিব, ভাইয়ের ছেলে তারেকসহ ১৮/২০ জন বুধবার সকালে সেই জমির রোপনকৃত ধানের বীজ তুলে ফেলে ও নষ্ট করে। খবর পেয়ে আমজেদ ও তার ছেলেরা এতে বাধা দিতে গেলে তাদেরকে দা, রামদা, লোহার রড ও জিআই পাইপসহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা করে রক্তাক্ত ও গুরুতরভাবে জখম করে। পরে স্থানীয়রা আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসে। আহত নুর ইসলামের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় এজাহারভুক্ত এক নম্বর আসামিসহ সাতজনকে আটক করা হয়েছে এবং অভিযুক্ত অন্যদের আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ফরিদপুর

ফরিদপুরের সালথায় প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত আসাদ শেখ (৩৮) নামে এক যুবক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকায় পুলিশি অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। দেশীয় অস্ত্রসহ এক জনকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে ফরিদপুর পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান উত্তেজিত খারদিয়া গ্রাম পরিদর্শন করেন। তিনি উভয় নিহতদের বাড়িসহ ভাঙচুর হওয়া বাড়িতে গিয়ে খোজখবর নেন। তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন- ফরিদপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নগরকান্দা-সালথা সার্কেল) মো. সুমিনুর রহমান ও সালথা থানার ওসি মো. শেখ সাদিক। বুধবার রাত ৮টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় আসাদ। সে উপজেলার যদুনন্দি ইউনিয়নের বড় খারদিয়া কাজিপাড়া এলাকার হাসেম শেখের ছেলে। মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন আসাদ শেখের ছেলে রামীম শেখ।

ছবি

১০০ মিনিটের নদীপথ পদ্মা সেতু পার ৬ মিনিটে

ছবি

টাঙ্গাইলে শিশু হত্যা: ময়নাতদন্তে মিললো শ্বাসরোধে হত্যার আলামত

ছবি

উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই

ছবি

পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ

ছবি

অচেনা পাটুরিয়া ঘাট: কোলাহল নেই, যানবাহনের সারিও নেই

ছবি

পদ্মা সেতু জাদুঘর: বৈচিত্র্যময় প্রাণীর এক বিরল সংগ্রহশালা

সংক্রমণ, চতুর্থ ঢেউয়ের পথে

হজ প্রতিনিধি দল সৌদি যাচ্ছেন ৩ জুলাই

ছবি

পদ্মা সেতুর প্রথম লেডি বাইকার রুবায়াত রুবা

ছবি

পদ্মা সেতুতে ৮ ঘন্টায় ১৫ হাজার ২০০ গাড়ি পারাপার

ছবি

শহর পর্যায়ে বিশুদ্ধ ও নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে সেমিনার

ছবি

ছাত্রীদের সাথে অনৈতিক আচরণের অভিযোগ ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের বিরুদ্ধে

ছবি

গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: ১৫ বছর পর ৩ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

আম সংকটে বন্ধ রাজশাহী-ঢাকা ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন

ছবি

তালার সরকারি ৪টি গুরুত্বপূর্ন দপ্তর বিভিন্ন স্থানে: ভোগান্তীতে মানুষ

ছবি

চার মাস পর সিলেটে করোনা শনাক্ত ছাড়াল ৯ শতাংশ

ছবি

৮ ঘণ্টায় পদ্মা সেতুতে টোল আদায় ৮২ লাখ টাকা

ছবি

চরভদ্রাসনে বাঁধ ভাঙ্গন: হুমকিতে বিদ্যালয়সহ ৪০ পরিবার

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু

ঘের মালিকের হামলায় ৩ আহত

ছবি

হাত দিয়ে পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলা যুবক বায়েজিদ আটক

কৃষক পরিবারকে উচ্ছেদের পাঁয়তারা

ছবি

বরিশাল-ঢাকা সাড়ে ৩ ঘণ্টা, ৫ মিনিটে সেতু পার

ছবি

‘সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বে’ কিশোর খুন, গ্রেফতার ২

জমি নিয়ে বিরোধে মসজিদে তালা

সড়কে ঝরল দুই চালক

পাকুন্দিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একযুগ পর অস্ত্রোপচার

বন্যা : আট দিন ধরে বিদ্যুৎ নেই হবিগঞ্জের ২০০ গ্রামে

ছবি

ক্রস বাঁধে ভাঙন : বিলীন দুই শতাধিক ঘরবাড়ি

ছবি

দুই নবজাতকের নাম রাখা হলো পদ্মা-সেতু

ছবি

পাসপোর্ট অফিসে ২০০ দালাল ! অতিষ্ঠ গ্রাহক

বন্যা : হতাশ নবীনগরের পশু খামারিরা

ছবি

কাল থেকে পদ্মা সেতুতে নেমে ছবি তুললেই জরিমানা

ছবি

রংপুরের চাহিদা মিটিয়েও অতিরিক্ত ১ লাখ ৩২ হাজার কোরবানির পশু

ছবি

পদ্মা সেতু: সাক্ষী হতে এসে নিজেরাই ইতিহাসের অংশ হলেন তারা

ছবি

সরকারের নির্দেশনা পেলে সুনামগঞ্জে কোস্টগার্ড জোন হবে : মহাপরিচালক

tab

সারাদেশ

২ জেলায় হামলা-সংঘর্ষে নিহত দুই, গ্রেপ্তার সাত

প্রতিনিধি, মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী), ফরিদপুর

শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২

মির্জাগঞ্জ

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় নুর ইসলাম (২৩) নামের এক যুবক নিহত হয়েছে এবং এক অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ছয়জন আহত হয়েছে। বুধবার (২৫ মে) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের দক্ষিন আমড়াগাছিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই দিনই রাত সাড়ে ১২টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই যুবকের মৃত্যু হয়। নিহত যুবক ওই গ্রামের আমজেদ হাওলাদারের ছেলে।

অপরদিকে সংঘর্ষে আহত ব্যক্তিরা মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তারা হলেন- নিহতের পিতা আমজেদ হাওলাদার ও স্বজন সুলতান, ইউসুফ, শারমিন, আমফুরতি, আলেয়া। এ ঘটনায় নিহতের বোন মোসা. তানিয়া বাদী হয়ে মির্জাগঞ্জ থানায় ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করে। এরপরই অভিযানে নামে পুলিশ এবং রাতেই সাতজনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মামলার প্রধান আসামি দক্ষিণ আমড়াগাছিয়া গ্রামের হাবিবসহ এজাহারভুক্ত অন্যান্য আসামি একই গ্রামের হাচান, মিজানুর, জসিম, মালেক, কহিনুর, মাহিনুর। নিহতের পরিবার, পুলিশ ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আমজেদ হাওলাদারের সঙ্গে তাঁর ফুঁফাত ভাই ওয়াজেদ হাওলাদারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার শালিস বিচার হওয়ার পরে কিছুদিন আগে জমিতে ইরি ধানের বীজ রোপন করে আমজেদ হাং। পরে প্রতিপক্ষ ওয়াজেদ ও তার ছেলে হাবিব, ভাইয়ের ছেলে তারেকসহ ১৮/২০ জন বুধবার সকালে সেই জমির রোপনকৃত ধানের বীজ তুলে ফেলে ও নষ্ট করে। খবর পেয়ে আমজেদ ও তার ছেলেরা এতে বাধা দিতে গেলে তাদেরকে দা, রামদা, লোহার রড ও জিআই পাইপসহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা করে রক্তাক্ত ও গুরুতরভাবে জখম করে। পরে স্থানীয়রা আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসে। আহত নুর ইসলামের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় এজাহারভুক্ত এক নম্বর আসামিসহ সাতজনকে আটক করা হয়েছে এবং অভিযুক্ত অন্যদের আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ফরিদপুর

ফরিদপুরের সালথায় প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত আসাদ শেখ (৩৮) নামে এক যুবক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকায় পুলিশি অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। দেশীয় অস্ত্রসহ এক জনকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে ফরিদপুর পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান উত্তেজিত খারদিয়া গ্রাম পরিদর্শন করেন। তিনি উভয় নিহতদের বাড়িসহ ভাঙচুর হওয়া বাড়িতে গিয়ে খোজখবর নেন। তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন- ফরিদপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নগরকান্দা-সালথা সার্কেল) মো. সুমিনুর রহমান ও সালথা থানার ওসি মো. শেখ সাদিক। বুধবার রাত ৮টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় আসাদ। সে উপজেলার যদুনন্দি ইউনিয়নের বড় খারদিয়া কাজিপাড়া এলাকার হাসেম শেখের ছেলে। মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন আসাদ শেখের ছেলে রামীম শেখ।

back to top