alt

সারাদেশ

কিশোরী সংঘের ছোঁয়ায় রোধ হচ্ছে বাল্যবিবাহ, স্কুল থেকে ঝরে পড়া

সাবজাল হোসেন, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) : শনিবার, ২৮ মে ২০২২

ঝিনাইদহ : কালীগঞ্জের কোলাবাবাজার ইউনাইটেড হাইস্কুলের কিশোরী সংঘের সদস্যরা -সংবাদ

শিক্ষাজীবন হতেই শিক্ষার্থীদের মধ্যে সঞ্চয়ী মনোভাব গড়ে তোলা, স্কুলজীবন থেকে ঝরেপড়া রোধ, নেতৃত্বের বিকাশ, বাল্যবিবাহ ও ইভটিজিং প্রতিরোধসহ কিশোরীদের বয়োঃসন্ধিকাল সম্পর্কে সচেতন করতে বিশেষ প্রকল্প চালু করেছে সরকার। সারাদেশের মোট ৫৯ উপজেলায় মাধ্যমিক স্কুল পর্যায়ে এ প্রকল্প চালু করা হয়েছে। প্রতি উপজেলায় দুটি করে মোট ১১৮ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শুধু ছাত্রীদের নিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে এই কিশোরী সংঘ। কিশোরী সংঘের স্কুলগুলোতে চলছে আনন্দপূর্ণ শিক্ষা।

কালীগঞ্জ পল্লী উন্নয়ন অফিস সূত্রে জানা গেছে, নারীদের শিক্ষিত করে গড়ে তোলা এছাড়া স্বাবলম্বী ও আত্মনির্ভরশীল করে উন্নয়নে মূল ধারায় যুক্ত করাই এ প্রকল্পের মূল উদ্দেশ। এটি প্রাথমিকভাবে চলছে পাইলটিং হিসেবে। এ সংঘের প্রতিটিতে ১০০ জন করে কিশোরী সদস্য হয়েছে। এরমধ্যে ঝিনাইদহ জেলার অন্য উপজেলার মতো কালীগঞ্জ উপজেলারও কোলাবাজার ইউনাইটেড হাইস্কুল ও বালিয়াডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গঠন করা হয়েছে কিশোরী সংঘ। প্রধান উদ্দেশ শিক্ষার্থীরা সঞ্চয় করে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী এবং লেখাপড়া শিখে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখবে।

বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি) দরিদ্র মহিলাদের জন্য সমন্বিত পল্লী কর্মসংস্থানের সহায়তা প্রকল্প-২য় পর্যায় এ প্রকল্পের বাস্তবায়ন করছে। প্রকল্প পরিচালকেরা বলছেন, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কিশোরীদের বয়োঃসন্ধিকাল সম্পর্কে সচেতন করা হচ্ছে। বাল্যবিবাহ রোধকল্পে ১৮ বছরের নিচে বিয়ে না করতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। ফলে যৌতুক, নারী নির্যাতন ও ইভটিজিং প্রতিরোধে ভূমিকা রাখবে এ সংঘের সদস্যরা।

এছাড়া শিক্ষাজীবনেই সঞ্চয়ী মনোভাব গড়ে তুলতে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের মাধ্যমে মাসিক ৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত সঞ্চয় করতে পারবে। কিশোরীদের এই জমাকৃত সঞ্চয়ের ওপর প্রতি বছর সরকার ২০০% হারে প্রণোদনার বোনাস প্রদান করবে।

কিশোরীদের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হলে জমাকৃত টাকার দুইগুণ ফেরত পাবে। তবে ১৮ বছরের আগে এ সঞ্চয় উত্তোলন করতে পারবে না। যদি করে তাহলে তার জমাকৃত ছাড়া সরকারের দেয়া প্রণোদনার কোন টাকা পাবে না।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পাইলটিংয়ে সফলতা পেলে প্রকল্পের পরিধি বাড়ানো হবে। দেশের সব উপজেলায় বিদ্যালয়ে পড়ুয়া কিশোরীদের নিয়ে এ সংঘ গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে।

কালীগঞ্জ উপজেলার কোলাবাজার ইউনাইটেড হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক তরুন কান্তি বিশ^াস জানান, কিশোরীদের নিয়ে গঠিত এ প্রকল্পের লক্ষ্য উদ্দেশ সফল হবে বলে বিশ^াস করি। কারণ হিসাবে উল্লেখ করেন, কিশোরী বয়সে সঞ্চয় করছে। ১৮ বছরের নিচে সঞ্চয় তুলতে না পারার ফলে শিক্ষা থেকে ঝরেপড়া ও বাল্যবিয়ে অনেকাংশে কমে আসবে। বিশেষ করে আমাদের মেয়েরা প্রতি মাসে একটি করে প্রশিক্ষণ পাবে। যেখানে তাদের পুষ্টি স্বাস্থ্যসহ নানা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। ইতোমধ্যে একটি ট্রেনিং হয়েছে। আমি সেখানে উপস্থিত থেকে দেখেছি, আমাদের মেয়েদের মাধ্যমিক পর্যায়ের এ বয়সে বিশেষ যত্ন ও সচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে কিন্তু নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে তা হয়ে উঠে না। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তারা তাদের সমস্যাগুলো নির্দ্বিধায় চিকিৎসককে বলছে এবং সমাধান পাচ্ছে ও সচেতন হচ্ছে।

উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কিশোরী সংঘের সভাপতি ও ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আফসানা আক্তার হিরা জানান, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে তিন মাস টাকা জমা দিয়েছি। আমার ৬০০ টাকা জমা হয়েছে। টাকা জমাতে পারছি এজন্য আমি খুশি, আমার খুব আনন্দ লাগছে। এরই মধ্যে আমরা একটি প্রশিক্ষণ পেয়েছি। কিছুই জানতাম না, অনেক জেনেছি। বিশেষ করে পুষ্টি ও স্বাস্থ্য বিষয়ে জেনেছি, যা জানা সব কিশোরীদের খুব প্রয়োজন। ১৮ বছরের আগে লেখাপড়া ছাড়বো না।

ঝিনাইদহ বিআরডিবি’র উপ-পরিচালক মো. আরিফুল ইসলাম জানান, পাইলটিং প্রোগাম হিসেবে সারাদেশে ৫৯ উপজেলার ১১৮টি বিদ্যালয়ে এ সংঘ গড়ে তোলার কাজ চলছে। ৬ষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা এ সংঘের সদস্য হতে পারবে।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া জেরিন জানান, কিশোরী সংঘ সরকারের একটি চমৎকার প্রকল্প। কিশোরী বয়সে একটি মেয়ে সঞ্চয় করার ফলে আত্মবিশ^াস গড়ে উঠবে। প্রকল্পের বাধ্যবাধকতা থাকার কারণে ১৮ বছরে আগে বিয়ে না করা বা টাকা উত্তোলন করতে না পারায় শিক্ষাজীবন থেকে ঝরেপড়া এবং বাল্যবিবাহ রোধ করা সম্ভব হবে। এছাড়া নেতৃত্বের বিকাশ, নারী নির্যাতন, যৌতুক ও ইভটিজিং প্রতিরোধসহ কিশোরীদের বয়োঃসন্ধিকাল সম্পর্কে সচেতন করা।

আমাদের মেয়েরা বিশেষ একটি সময়ে পারিবারিক বা সামাজিক কিছু দৃষ্টিভঙ্গির কারণে দারুণ হিনমন্যতায় ভোগে। কিন্তু এ সংঘের মেয়েরা সে সমস্য কাটিয়ে উঠতে পারবে বলে আমি বিশ^াস করি। এ সংঘের সদস্যরা প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ২০০ টাকা সঞ্চয় করতে পারবে। বছর শেষে তাদের সঞ্চয়ে ২০০% প্রণোদনা হিসাবে সরকার দিচ্ছে। এভাবে ১৮ বছর বয়স পূর্ণ হলে তার টাকা উত্তোলন করতে পারবে। ইতোমধ্যে আমি দুটি স্কুলে এই কিশোরী সংঘ গঠন করেছি। আমরা মেয়েদের জন্য এ ধরনের একটি সুযোগ পেয়ে খুশি হয়েছি। মেয়েরাও খুব খুশি।

ছবি

আম খেয়ে গরুর বাজার মাতাতে প্রস্তুত ৪২ মণের ‘চাঁপাই সম্রাট’

সখীপুরে মেয়রের বিরুদ্ধে টেন্ডার ছাড়াই সড়কের গাছ কাটার অভিযোগ

ঘুমন্ত ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা, ২ জনের পা বিচ্ছিন্ন

ছবি

সুনামগঞ্জের সুরমার পানি ফের বাড়ছে

ছবি

বন্ধুর আশ্রয়ে ছিল শিক্ষক হত্যার অভিযুক্ত ছাত্র

কিশোরগঞ্জে নতুন ১৬ জনের করোনা শনাক্ত

ছবি

তিস্তার পানি ফের বিপদসীমার ওপরে, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

ছবি

গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা

ছবি

শিক্ষিকাকে ধর্ষণচেষ্টায় আটক ১

ছবি

বাবার কোলে শিশুকে গুলি করে হত্যা: আরেক আসামি গ্রেপ্তার

বেতন বৈষম্য নিরসন দাবি প্রাথমিকের দপ্তরিদের

ঘোড়াঘাটে করতোয়া নদীতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

ছবি

রোহিঙ্গা শিবিরে ঘরে ঘরে বাড়ছে চর্মরোগ

ছবি

শিশু শিক্ষার্থী শিহাব হত্যা: আসামীদের গ্রেফতার-শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

ছবি

লালমনিরহাট পৌরসভার ৫৩ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

ছবি

নিঃস্ব পরিবার চিকিৎসা চালাতে না পারায় গৃহবধূর আত্মহত্যা

ছবি

পদ্মা সেতুর ৬ দিনের সাংস্কৃতিক উৎসবে হরেক আয়োজন, কাল সমাপনী

ছবি

প্রেমিকার বোনকে হত্যার দায়ে প্রেমিকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ছবি

ধর্ষণ মামলা তুলে নিতে ভিক্টিমকে হুমকী দিচ্ছে ধর্ষক ও তার পরিবার

ছবি

ফের বন্যাতঙ্কে সিলেটবাসী, বিদ্যুতের মিটার উচুঁস্থানে স্থানান্তরের অনুরোধ

ছবি

বন্যার ক্ষত শুকাতে না শুকাতে ফের বন্যার শঙ্কা, জনমনে চরম আতংক

ছবি

১৮শ’পিস ইয়াবাসহ এক রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ছবি

পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে প্রস্তুত ফরিদপুরের ৩৮ মন ওজনের সম্রাট

ছবি

কক্সবাজারে ইয়াবা পাচার মামলায় ২ ভাইকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড

ছবি

সিলেটে বন্যায় পুলিশের মানবিক সহায়তা

ছবি

সাভারে শিক্ষককে পিটিয়ে হত্যা: প্রধান আসামি জিতু গ্রেপ্তার

‘এপিএ সরকারি কাজে স্বচ্ছতা ও গতি এনেছে’

ছবি

‘নিজের শরীরে’ আগুন দেওয়া চিকিৎসক অদিতির মৃত্যু

ছবি

সারাদেশে বসছে ৪৪০৭ পশুর হাট, মাস্ক বাধ্যতামূলক

ছবি

রংপুরে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ সমাবেশ

ছবি

বন্যার্তদের পুনর্বাসন দাবিতে গাইবান্ধায় বামজোটের বিক্ষোভ

ছবি

শতবর্ষী খাল ভরাট করে আশ্রয়ণ প্রকল্প : ৫শ’ বিঘায় চাষাবাদ ব্যাহতের আশঙ্কা

তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালী করার দাবি

দক্ষিণবঙ্গে বিলাসবহুল বাস অস্তিত্ব রক্ষায় কমছে লঞ্চ ভাড়া

ন্যূনতম ২০ হাজার টাকা মজুরি চায় নৌ শ্রমিকরা

ছবি

স্টাম্প দিয়ে পিটিয়ে শিক্ষক হত্যায় অভিযুক্ত সেই ছাত্রের বাবা গ্রেপ্তার

tab

সারাদেশ

কিশোরী সংঘের ছোঁয়ায় রোধ হচ্ছে বাল্যবিবাহ, স্কুল থেকে ঝরে পড়া

সাবজাল হোসেন, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)

ঝিনাইদহ : কালীগঞ্জের কোলাবাবাজার ইউনাইটেড হাইস্কুলের কিশোরী সংঘের সদস্যরা -সংবাদ

শনিবার, ২৮ মে ২০২২

শিক্ষাজীবন হতেই শিক্ষার্থীদের মধ্যে সঞ্চয়ী মনোভাব গড়ে তোলা, স্কুলজীবন থেকে ঝরেপড়া রোধ, নেতৃত্বের বিকাশ, বাল্যবিবাহ ও ইভটিজিং প্রতিরোধসহ কিশোরীদের বয়োঃসন্ধিকাল সম্পর্কে সচেতন করতে বিশেষ প্রকল্প চালু করেছে সরকার। সারাদেশের মোট ৫৯ উপজেলায় মাধ্যমিক স্কুল পর্যায়ে এ প্রকল্প চালু করা হয়েছে। প্রতি উপজেলায় দুটি করে মোট ১১৮ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শুধু ছাত্রীদের নিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে এই কিশোরী সংঘ। কিশোরী সংঘের স্কুলগুলোতে চলছে আনন্দপূর্ণ শিক্ষা।

কালীগঞ্জ পল্লী উন্নয়ন অফিস সূত্রে জানা গেছে, নারীদের শিক্ষিত করে গড়ে তোলা এছাড়া স্বাবলম্বী ও আত্মনির্ভরশীল করে উন্নয়নে মূল ধারায় যুক্ত করাই এ প্রকল্পের মূল উদ্দেশ। এটি প্রাথমিকভাবে চলছে পাইলটিং হিসেবে। এ সংঘের প্রতিটিতে ১০০ জন করে কিশোরী সদস্য হয়েছে। এরমধ্যে ঝিনাইদহ জেলার অন্য উপজেলার মতো কালীগঞ্জ উপজেলারও কোলাবাজার ইউনাইটেড হাইস্কুল ও বালিয়াডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গঠন করা হয়েছে কিশোরী সংঘ। প্রধান উদ্দেশ শিক্ষার্থীরা সঞ্চয় করে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী এবং লেখাপড়া শিখে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখবে।

বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি) দরিদ্র মহিলাদের জন্য সমন্বিত পল্লী কর্মসংস্থানের সহায়তা প্রকল্প-২য় পর্যায় এ প্রকল্পের বাস্তবায়ন করছে। প্রকল্প পরিচালকেরা বলছেন, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কিশোরীদের বয়োঃসন্ধিকাল সম্পর্কে সচেতন করা হচ্ছে। বাল্যবিবাহ রোধকল্পে ১৮ বছরের নিচে বিয়ে না করতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। ফলে যৌতুক, নারী নির্যাতন ও ইভটিজিং প্রতিরোধে ভূমিকা রাখবে এ সংঘের সদস্যরা।

এছাড়া শিক্ষাজীবনেই সঞ্চয়ী মনোভাব গড়ে তুলতে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের মাধ্যমে মাসিক ৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত সঞ্চয় করতে পারবে। কিশোরীদের এই জমাকৃত সঞ্চয়ের ওপর প্রতি বছর সরকার ২০০% হারে প্রণোদনার বোনাস প্রদান করবে।

কিশোরীদের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হলে জমাকৃত টাকার দুইগুণ ফেরত পাবে। তবে ১৮ বছরের আগে এ সঞ্চয় উত্তোলন করতে পারবে না। যদি করে তাহলে তার জমাকৃত ছাড়া সরকারের দেয়া প্রণোদনার কোন টাকা পাবে না।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পাইলটিংয়ে সফলতা পেলে প্রকল্পের পরিধি বাড়ানো হবে। দেশের সব উপজেলায় বিদ্যালয়ে পড়ুয়া কিশোরীদের নিয়ে এ সংঘ গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে।

কালীগঞ্জ উপজেলার কোলাবাজার ইউনাইটেড হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক তরুন কান্তি বিশ^াস জানান, কিশোরীদের নিয়ে গঠিত এ প্রকল্পের লক্ষ্য উদ্দেশ সফল হবে বলে বিশ^াস করি। কারণ হিসাবে উল্লেখ করেন, কিশোরী বয়সে সঞ্চয় করছে। ১৮ বছরের নিচে সঞ্চয় তুলতে না পারার ফলে শিক্ষা থেকে ঝরেপড়া ও বাল্যবিয়ে অনেকাংশে কমে আসবে। বিশেষ করে আমাদের মেয়েরা প্রতি মাসে একটি করে প্রশিক্ষণ পাবে। যেখানে তাদের পুষ্টি স্বাস্থ্যসহ নানা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। ইতোমধ্যে একটি ট্রেনিং হয়েছে। আমি সেখানে উপস্থিত থেকে দেখেছি, আমাদের মেয়েদের মাধ্যমিক পর্যায়ের এ বয়সে বিশেষ যত্ন ও সচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে কিন্তু নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে তা হয়ে উঠে না। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তারা তাদের সমস্যাগুলো নির্দ্বিধায় চিকিৎসককে বলছে এবং সমাধান পাচ্ছে ও সচেতন হচ্ছে।

উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কিশোরী সংঘের সভাপতি ও ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আফসানা আক্তার হিরা জানান, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে তিন মাস টাকা জমা দিয়েছি। আমার ৬০০ টাকা জমা হয়েছে। টাকা জমাতে পারছি এজন্য আমি খুশি, আমার খুব আনন্দ লাগছে। এরই মধ্যে আমরা একটি প্রশিক্ষণ পেয়েছি। কিছুই জানতাম না, অনেক জেনেছি। বিশেষ করে পুষ্টি ও স্বাস্থ্য বিষয়ে জেনেছি, যা জানা সব কিশোরীদের খুব প্রয়োজন। ১৮ বছরের আগে লেখাপড়া ছাড়বো না।

ঝিনাইদহ বিআরডিবি’র উপ-পরিচালক মো. আরিফুল ইসলাম জানান, পাইলটিং প্রোগাম হিসেবে সারাদেশে ৫৯ উপজেলার ১১৮টি বিদ্যালয়ে এ সংঘ গড়ে তোলার কাজ চলছে। ৬ষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা এ সংঘের সদস্য হতে পারবে।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া জেরিন জানান, কিশোরী সংঘ সরকারের একটি চমৎকার প্রকল্প। কিশোরী বয়সে একটি মেয়ে সঞ্চয় করার ফলে আত্মবিশ^াস গড়ে উঠবে। প্রকল্পের বাধ্যবাধকতা থাকার কারণে ১৮ বছরে আগে বিয়ে না করা বা টাকা উত্তোলন করতে না পারায় শিক্ষাজীবন থেকে ঝরেপড়া এবং বাল্যবিবাহ রোধ করা সম্ভব হবে। এছাড়া নেতৃত্বের বিকাশ, নারী নির্যাতন, যৌতুক ও ইভটিজিং প্রতিরোধসহ কিশোরীদের বয়োঃসন্ধিকাল সম্পর্কে সচেতন করা।

আমাদের মেয়েরা বিশেষ একটি সময়ে পারিবারিক বা সামাজিক কিছু দৃষ্টিভঙ্গির কারণে দারুণ হিনমন্যতায় ভোগে। কিন্তু এ সংঘের মেয়েরা সে সমস্য কাটিয়ে উঠতে পারবে বলে আমি বিশ^াস করি। এ সংঘের সদস্যরা প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ২০০ টাকা সঞ্চয় করতে পারবে। বছর শেষে তাদের সঞ্চয়ে ২০০% প্রণোদনা হিসাবে সরকার দিচ্ছে। এভাবে ১৮ বছর বয়স পূর্ণ হলে তার টাকা উত্তোলন করতে পারবে। ইতোমধ্যে আমি দুটি স্কুলে এই কিশোরী সংঘ গঠন করেছি। আমরা মেয়েদের জন্য এ ধরনের একটি সুযোগ পেয়ে খুশি হয়েছি। মেয়েরাও খুব খুশি।

back to top