alt

সারাদেশ

সিলেটে স্বাস্থ্য বিপর্যয়ের আশঙ্কা বাড়ছে পানিবাহিত রোগ

প্রতিনিধি, সিলেট : মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২

সিলেট জুড়ে বন্যা বিপর্যয়ের এবার স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক নানাব্যাধি রোগের আশঙ্কা রয়েছে। পানিবাহিত বিভিন্ন সংক্রামক রোগসহ নানা কারণে বন্যাপীড়িত এলাকায় স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ার উপক্রম। বিশেষ করে শিশু ও বয়স্করা রয়েছেন চরম ঝুঁকিতে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সিলেটের তথ্যমতে, গেল ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ৬০৬ জন। এরমধ্যে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬২ জন। বাকিরা চর্মরোগসহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮ জন। এরমধ্যে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ জন, বাকিরা অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এই সময়ে সুনামগঞ্জে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬৬ জন। এরমধ্যে ৯২ জন ডায়রিয়া বাকিরা অন্যান্য রোগে। হবিগঞ্জ জেলায় পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ২০৩ জন। এরমধ্যে ৯৯ জন ডায়রিয়া ও বাকিরা অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। মৌলভীবাজার জেলায় পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬৯ জন। এরমধ্যে ৭৪ জন ডায়রিয়া বাকিরা অন্যান্য রোগে আক্রান্ত।

এদিকে গত সপ্তাহ থেকে সিলেটের বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি শুরু হয়। এই এক সপ্তাহে সিলেট বিভাগে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৮৮৫ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৪৬৫ জন, সুনামগঞ্জে ৫৪৫ জন, হবিগঞ্জে ৪৮৭ জন ও মৌলভীবাজারের ৩৮৮ জন রয়েছেন। এই সময়ে ডায়রিয়া ছাড়াও অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন সহস্রাধিক বন্যাকবলিত মানুষ। স্বাস্থ্য বিভাগের হিসাবের বাইরে বিপুলসংখ্যক মানুষ পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন বলে মনে করছেন অনেকে। নগর থেকে শুরু করে জেলা, উপজেলা, বিভিন্ন বাজার, এমনকি পাড়া মহল্লার ওষুধের দোকানগুলোতে ডায়রিয়া, চর্মরোগসহ পানিবাহিত রোগের ওষুধ বিক্রি বেড়েছে কয়েকগুণ। কয়েকটি ফার্মেসির সঙ্গে আলাপকালেও এর সত্যতা পাওয়া গেছে।

সিলেটের বন্যাকবলিত প্রতিটি এলাকায় ভয়াবহ স্বাস্থ্য বিপর্যয় ঘটতে পারে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানান, বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রোগব্যাধি বাড়বে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সুযোগ না থাকায় বাড়তে পারে করোনা। এ সময় মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া ও চিকুনগুনিয়ার প্রকোপ মারাত্মক রূপ নিতে পারে। বিশেষ করে যেসব এলাকার সুষ্ঠু পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নেই সেখানে জলাবদ্ধতার কারণে স্বাস্থ্য সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করবে।

স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্টরা জানান, বন্যার কারণে বাথরুম ও সেনিটারি টয়লেট ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় অনেকেই নদীর আশপাশে খোলা জায়গায় মলমূত্র ত্যাগ করছে। মানুষের এ পয়োবর্জ্য এবং ওই এলাকার বিভিন্ন ময়লা-আবর্জনা মিলে জলাশয়ের পানি দূষিত হয়ে পড়ছে। লোকজন তখন যদি এসব জলাশয়ের পানি বিশুদ্ধ না করে পান করে, খাবারের কাজে ব্যবহার কিংবা থালাবাসন ধোয়া, কাপড় কাচা ইত্যাদি কাজে ব্যবহার করে, তখন ডায়রিয়া বা পানিবাহিত রোগবালাই হতে পারে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সাম্প্রতিক বন্যায় সিলেট বিভাগে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৫৪১ জন। তারা ডায়রিয়া, চর্মরোগসহ বিভিন্ন ধরনের পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এরমধ্যে সিলেটের ২ হাজার ২৫৭ জন, সুনামগঞ্জের ৫৪৭ জন, হবিগঞ্জের ১ হাজার ৭ জন ও মৌলভীবাজারের ৭৩০ জন রয়েছেন।

ছবি

পদ্মা সেতু থেকে ঝাঁপ দিয়ে যুবক নিখোঁজ

ছবি

গার্ডার পড়ে ৫ জনের প্রাণহানি: তদন্ত কমিটি গঠন

বঙ্গবন্ধু নিপীড়িত মানুষের আশার আলো-প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

ছবি

অবিনশ্বর-চিরঅম্লান বঙ্গবন্ধু

ছবি

সাগরে আটকা পড়া ১৩ জেলেসহ ট্রলার উদ্ধার

ছবি

আখাউড়ায় ১০০ দুঃস্থ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলো বিজিবি

ছবি

ডেসকোর উদ্যোগে শোক দিবস পালিত

ছবি

কক্সবাজার সৈকতে গোসল নেমে পর্যটক নিখোঁজ, উদ্ধার ২

ছবি

উত্তরায় গার্ডার ধস: বেঁচে রইলেন শুধু নবদম্পতি

ছবি

জলবায়ু ও পরিবেশবান্ধব বিনিয়োগে উৎসাহিত করতে জিআইজেড এর প্রশিক্ষণ

ছবি

সেনাবাহিনীর ‘লেডিস ক্লাব ও বাফওয়ার” জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরন

ছবি

ডিফেন্স ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন

ছবি

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে কক্সবাজারে আসছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান

ছবি

কারযোগে ইয়াবা কারবার: ৬ পাচারকারী আটক করলো ডিবি

ছবি

আগামী বছরে সপ্তাহে ৫ দিন ক্লাস: শিক্ষামন্ত্রী

সোনারগাঁয়ে গোসলে নেমে দুই যুবক নিখোঁজ, একজন মৃত উদ্ধার

নওগাঁয় হাসপাতাল থেকে অজ্ঞাত নবজাতক উদ্ধার

ছবি

এমপির সামনেই সংঘর্ষে জড়াল ছাত্রলীগ, পুলিশের লাঠিচার্জ

ছবি

প্রবাসীর স্ত্রীকে অচেতন করে নগ্ন ভিডিও ধারণ, গ্রেপ্তার ২

ছবি

জয়পুরহাটে ইজিবাইক চার্জার তৈরির কারখানায় অগ্নিকাণ্ড

ছবি

গাজীপুরের পথে ১১ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু

ছবি

জাতীয় পতাকা টাঙাতে গিয়ে প্রাণ গেল দুই ভাইয়ের

ছবি

মামুনকে আদালতে তোলা হবে আজ

ছবি

সুন্দরবনের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক ও এমআরডিআইয়ের যৌথ উদ্যোগ

রোগীর পেট কাটার পর ডাক্তার বললেন অস্ত্রোপচার অসম্ভব

ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত : স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

খালে দুই জনের সলিল সমাধি

দাউদকান্দিতে বিনামূল্যে চিকিৎসা পেল পাঁচ শতাধিক রোগী

তরুণদের উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগ ঝুঁঁকি বাড়ছে

ছবি

দেশের প্রথম ব্লাস্টলেস রেললাইন সর্বাধুনিক হবে ভাঙ্গা রেল জংশন

শীতলক্ষ্যায় সেতুর দাবিতে কাপাসিয়ায় মানববন্ধন

ছবি

বিএসএমএমইউতে স্থূলতা ক্লিনিক চালু করা হবে: উপাচার্য

ছবি

ঢামেক ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার

ছবি

নাফনদী থেকে ক্রিস্টাল মেথ আইস ও ইয়াবা উদ্ধার

ছবি

গোসল করতে নেমে ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী নিহত

ডেঙ্গুজ্বরে আরও ৯২ হাসপাতালে ভর্তি মোট মৃত্যু ১৬

tab

সারাদেশ

সিলেটে স্বাস্থ্য বিপর্যয়ের আশঙ্কা বাড়ছে পানিবাহিত রোগ

প্রতিনিধি, সিলেট

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২

সিলেট জুড়ে বন্যা বিপর্যয়ের এবার স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক নানাব্যাধি রোগের আশঙ্কা রয়েছে। পানিবাহিত বিভিন্ন সংক্রামক রোগসহ নানা কারণে বন্যাপীড়িত এলাকায় স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ার উপক্রম। বিশেষ করে শিশু ও বয়স্করা রয়েছেন চরম ঝুঁকিতে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সিলেটের তথ্যমতে, গেল ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ৬০৬ জন। এরমধ্যে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬২ জন। বাকিরা চর্মরোগসহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮ জন। এরমধ্যে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ জন, বাকিরা অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এই সময়ে সুনামগঞ্জে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬৬ জন। এরমধ্যে ৯২ জন ডায়রিয়া বাকিরা অন্যান্য রোগে। হবিগঞ্জ জেলায় পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ২০৩ জন। এরমধ্যে ৯৯ জন ডায়রিয়া ও বাকিরা অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। মৌলভীবাজার জেলায় পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬৯ জন। এরমধ্যে ৭৪ জন ডায়রিয়া বাকিরা অন্যান্য রোগে আক্রান্ত।

এদিকে গত সপ্তাহ থেকে সিলেটের বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি শুরু হয়। এই এক সপ্তাহে সিলেট বিভাগে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৮৮৫ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৪৬৫ জন, সুনামগঞ্জে ৫৪৫ জন, হবিগঞ্জে ৪৮৭ জন ও মৌলভীবাজারের ৩৮৮ জন রয়েছেন। এই সময়ে ডায়রিয়া ছাড়াও অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন সহস্রাধিক বন্যাকবলিত মানুষ। স্বাস্থ্য বিভাগের হিসাবের বাইরে বিপুলসংখ্যক মানুষ পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন বলে মনে করছেন অনেকে। নগর থেকে শুরু করে জেলা, উপজেলা, বিভিন্ন বাজার, এমনকি পাড়া মহল্লার ওষুধের দোকানগুলোতে ডায়রিয়া, চর্মরোগসহ পানিবাহিত রোগের ওষুধ বিক্রি বেড়েছে কয়েকগুণ। কয়েকটি ফার্মেসির সঙ্গে আলাপকালেও এর সত্যতা পাওয়া গেছে।

সিলেটের বন্যাকবলিত প্রতিটি এলাকায় ভয়াবহ স্বাস্থ্য বিপর্যয় ঘটতে পারে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানান, বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রোগব্যাধি বাড়বে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সুযোগ না থাকায় বাড়তে পারে করোনা। এ সময় মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া ও চিকুনগুনিয়ার প্রকোপ মারাত্মক রূপ নিতে পারে। বিশেষ করে যেসব এলাকার সুষ্ঠু পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নেই সেখানে জলাবদ্ধতার কারণে স্বাস্থ্য সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করবে।

স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্টরা জানান, বন্যার কারণে বাথরুম ও সেনিটারি টয়লেট ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় অনেকেই নদীর আশপাশে খোলা জায়গায় মলমূত্র ত্যাগ করছে। মানুষের এ পয়োবর্জ্য এবং ওই এলাকার বিভিন্ন ময়লা-আবর্জনা মিলে জলাশয়ের পানি দূষিত হয়ে পড়ছে। লোকজন তখন যদি এসব জলাশয়ের পানি বিশুদ্ধ না করে পান করে, খাবারের কাজে ব্যবহার কিংবা থালাবাসন ধোয়া, কাপড় কাচা ইত্যাদি কাজে ব্যবহার করে, তখন ডায়রিয়া বা পানিবাহিত রোগবালাই হতে পারে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সাম্প্রতিক বন্যায় সিলেট বিভাগে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৫৪১ জন। তারা ডায়রিয়া, চর্মরোগসহ বিভিন্ন ধরনের পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এরমধ্যে সিলেটের ২ হাজার ২৫৭ জন, সুনামগঞ্জের ৫৪৭ জন, হবিগঞ্জের ১ হাজার ৭ জন ও মৌলভীবাজারের ৭৩০ জন রয়েছেন।

back to top