alt

সারাদেশ

পাগলা মস‌জি‌দের দানবাক্সে ১৫ বস্তা টাকা, চলছে গণনা

প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ: : শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২

পাগলা মস‌জি‌দের দানবাক্সে ১৫ বস্তা টাকা, চলছে গণনা । ছবি: সংগৃহীত

কি‌শোরগঞ্জ পাগলা মস‌জি‌দের দানবাক্স এবার খু‌লে পাওয়া গে‌ল ১৫ বস্তা টাকা। সাথে মিলেছে স্বর্ণালঙ্কার ও বিদেশী মুদ্রাও।

শনিবার (১ অক্টোবর) সকা‌লে পাগলা মসজিদের আটটি লোহার দানবাক্স ‌খোলা হয়। প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে টাকা গণনার কাজ চলছে।

সিন্দুক থেকে টাকা বের করার পর বস্তায় ভরা শুরু হয়; একে একে ১৫টি বস্তায় টাকা গোছানো শেষে শুরু হয় গণনা। কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফার তত্ত্বাবধানে প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে টাকা গণনার কাজ চলছে।

সকালে জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় স্থানীয় এক‌টি ব্যাংকের ৫০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী, মস‌জিদ ক‌মি‌টির ৩৪ জন, মসজিদ ক্যাম্পাস মাদরাসার ১১২ ‌শিক্ষার্থী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ১০ জন টাকা গণনার কা‌জে অংশ নেয়। দানসিন্দুকে টাকা ছাড়াও ডলার, পাউন্ড, রিয়াল, দিনার, রিঙ্গিত ও দিনারসহ বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা ও স্বর্ণালংকারও পাওয়া গেছে।

‌কি‌শোরগ‌ঞ্জের অতি‌রিক্ত জেলা ম্যা‌জি‌স্ট্রেট এটিএম ফরহাদ চৌধুরী জানান, সারা দিন ধ‌রে টাকাগু‌লো গণনার কাজ চল‌বে। সন্ধ্যা নাগাদ জানা যা‌বে দা‌নের টাকার প‌রিমাণ।

এর আগে সর্বশেষ ২ জুলাই দানবাক্সগুলো খোলা হয়েছিল। তখন তিন কোটি ৬০ লাখ ২৮ হাজার ৪১৫ টাকা এবং বৈদেশিক মুদ্রা ও স্বর্ণালঙ্কার পাওয়া গিয়েছিল। এবার তিন মাস এক দিন পর দান সিন্দুকগুলো খোলা হলো।

মসজিদের খতিব, এলাকাবাসী ও দূর-দূরান্ত থেকে আসা লোকজন সূত্রে জানা যায়, এই মসজিদে মানত করলে মনের আশা পূর্ণ হয়। এমন ধারণা থেকে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাই এখানে দান করে থাকেন।

জানা যায়, ঈশা খাঁর আমলে দেওয়ান জিলকদর খান ওরফে জিল কদর পাগলা নামক একজন ব্যক্তি নদীর তীরে নামাজ পড়তেন। পরবর্তীতে ওই স্থানটিতে মসজিদটি নির্মিত হয়। জিল কদর পাগলার নামানুসারেই মসজিদটি ‘পাগলা মসজিদ’ হিসেবে পরিচিতি পায়।

দা‌নের টাকা থে‌কে নিজস্ব খরচ মি‌টি‌য়েও জেলার বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসা এতিমখানাসহ গরিব ছাত্রদের মাঝে ব্যয় করা হয়। টাকা দেয়া হয় নানা সামা‌জিক কা‌জে। বা‌কি টাকা রুপালী ব্যাংকে জমা রাখা হয়।

পাগলা মস‌জিদ প‌রিচালনা ক‌মি‌টির সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মাহমুদ পার‌ভেজ জানান, মস‌জি‌দের দানের টাকা দি‌য়ে শত কো‌টি টাকা ব্য‌য়ে নতুন মস‌জিদ কম‌প্লেক্স নির্মা‌ণের উদ্যোগ নেয়া হ‌য়ে‌ছে।

ছবি

মাদক বহনকারী পিকআপের ধাক্কায় উল্টে গেল র‌্যাবের গাড়ি, নিহত ৩

ছবি

শরীয়তপুরের ডমুড্যা দেশের দ্বিতীয় ডিজিটাল ভিলেজ হচ্ছে

৩০ দিনের মধ্যে খাল দখলদারদের তালিকার নির্দেশ

১২ ঘণ্টার ব্যবধানে ফের খুন বৃদ্ধা

১২ লাখের সড়কে নামমাত্র কাজ

ছবি

ঘোড়াঘাটে আমন ধানের বাম্পার ফলন ও দাম পেয়ে কৃষকরা খুশি

ছবি

৫১ বছরেও বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি বঞ্চিত মানদা

দুই জেলায় ইয়াবা গ্রেপ্তার তিনজন

ছবি

সাভারে কোটি টাকার হেরোইনসহ মাদক কারবারি আটক

মজুরি ১শ’ টাকার পরিবর্তে ৩শ’ দাবি পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের

ছবি

পাখির কিচিরমিচিরে মুখর ডাকবাংলো

পীরগাছা মহিলা কলেজে অবৈধভাবে অধ্যক্ষ নিয়োগের পাঁয়তারা

ছবি

আশ্রয়ণের ১৪ ঘরের ৭টিই বিক্রি প্রশ্নের মুখে তালিকা প্রণয়ন

আর্জেন্টিনা সমর্থকদের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১৫

দোকান বরাদ্দের ইজারা বাতিল দাবিতে সবজি ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট

ছবি

৪৫০ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার, ১১ জনের রিমান্ড আবেদন

ছবি

হাতির আক্রমণে প্রাণ গেল কৃষকের

ছবি

নারায়ণগঞ্জে নেতাকে না পেয়ে ছেলেকে নিয়ে গেছে পুলিশ

ছবি

নিজের গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন, তরুণের মৃত্যু

ছবি

মিরসরাইয়ে ছাত্রদল নেতাকে ‘পিটিয়ে’ পুলিশে দিল ছাত্রলীগ

রংপুরে চালকল মালিকদের খাদ্য বিভাগের সঙ্গে চুক্তি করতে অনীহা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ডাবল মাডার : ৪ বছর পর রহস্য উদ্ঘাটন

ছবি

খাগড়াছড়িতে পরিবহন ধর্মঘট

ছবি

রামুতে পাহাড় ধসে একই পরিবারের ৪ জন নিহত

গাজীপুরে গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো ৫ ইটভাটা, ২৪ লাখ টাকা জরিমানা

ছবি

নানিয়ারচরে ইউপিডিএফ সংগঠককে গুলি করে হত্যা!

ছবি

অনুমোদন ছাড়াই চলছে ইটভাটা

ছবি

বিরামপুরে বাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ, নারীসহ দুজনের মৃত্যু

ছবি

মেসিভক্তের বিয়ের ‘আর্জেন্টিনা গেট’, নির্মাণকারী ব্রাজিল সমর্থক

ছবি

কালীগঞ্জ : মা ও শিশু হাসপাতালে নার্স দিয়েই চলছে চিকিৎসাসেবা

ছবি

বাবা-মার সঙ্গে ঝগড়া করে ঘর পুড়িয়ে দিল ছেলে

ছবি

প্রেমিকার বাবা–ভাইয়ের পিটুনিতে তরুণের মৃত্যু

ফরিদপুরে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত জেলা প্রশাসকের মতবিনিময়

হাসপাতাল-ক্লিনিকের লাইসেন্স দেখে চিকিৎসককে সেবা প্রদানের নির্দেশ

তিতাসে পুলিশের সামনে থেকে তুলে নিয়ে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ছবি

  কক্সবাজারে প্রধানমন্ত্রী সড়ক বিভাগের ৩টি সড়ক উদ্বোধন করবেন 

tab

সারাদেশ

পাগলা মস‌জি‌দের দানবাক্সে ১৫ বস্তা টাকা, চলছে গণনা

প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ:

পাগলা মস‌জি‌দের দানবাক্সে ১৫ বস্তা টাকা, চলছে গণনা । ছবি: সংগৃহীত

শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২

কি‌শোরগঞ্জ পাগলা মস‌জি‌দের দানবাক্স এবার খু‌লে পাওয়া গে‌ল ১৫ বস্তা টাকা। সাথে মিলেছে স্বর্ণালঙ্কার ও বিদেশী মুদ্রাও।

শনিবার (১ অক্টোবর) সকা‌লে পাগলা মসজিদের আটটি লোহার দানবাক্স ‌খোলা হয়। প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে টাকা গণনার কাজ চলছে।

সিন্দুক থেকে টাকা বের করার পর বস্তায় ভরা শুরু হয়; একে একে ১৫টি বস্তায় টাকা গোছানো শেষে শুরু হয় গণনা। কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফার তত্ত্বাবধানে প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে টাকা গণনার কাজ চলছে।

সকালে জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় স্থানীয় এক‌টি ব্যাংকের ৫০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী, মস‌জিদ ক‌মি‌টির ৩৪ জন, মসজিদ ক্যাম্পাস মাদরাসার ১১২ ‌শিক্ষার্থী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ১০ জন টাকা গণনার কা‌জে অংশ নেয়। দানসিন্দুকে টাকা ছাড়াও ডলার, পাউন্ড, রিয়াল, দিনার, রিঙ্গিত ও দিনারসহ বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা ও স্বর্ণালংকারও পাওয়া গেছে।

‌কি‌শোরগ‌ঞ্জের অতি‌রিক্ত জেলা ম্যা‌জি‌স্ট্রেট এটিএম ফরহাদ চৌধুরী জানান, সারা দিন ধ‌রে টাকাগু‌লো গণনার কাজ চল‌বে। সন্ধ্যা নাগাদ জানা যা‌বে দা‌নের টাকার প‌রিমাণ।

এর আগে সর্বশেষ ২ জুলাই দানবাক্সগুলো খোলা হয়েছিল। তখন তিন কোটি ৬০ লাখ ২৮ হাজার ৪১৫ টাকা এবং বৈদেশিক মুদ্রা ও স্বর্ণালঙ্কার পাওয়া গিয়েছিল। এবার তিন মাস এক দিন পর দান সিন্দুকগুলো খোলা হলো।

মসজিদের খতিব, এলাকাবাসী ও দূর-দূরান্ত থেকে আসা লোকজন সূত্রে জানা যায়, এই মসজিদে মানত করলে মনের আশা পূর্ণ হয়। এমন ধারণা থেকে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাই এখানে দান করে থাকেন।

জানা যায়, ঈশা খাঁর আমলে দেওয়ান জিলকদর খান ওরফে জিল কদর পাগলা নামক একজন ব্যক্তি নদীর তীরে নামাজ পড়তেন। পরবর্তীতে ওই স্থানটিতে মসজিদটি নির্মিত হয়। জিল কদর পাগলার নামানুসারেই মসজিদটি ‘পাগলা মসজিদ’ হিসেবে পরিচিতি পায়।

দা‌নের টাকা থে‌কে নিজস্ব খরচ মি‌টি‌য়েও জেলার বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসা এতিমখানাসহ গরিব ছাত্রদের মাঝে ব্যয় করা হয়। টাকা দেয়া হয় নানা সামা‌জিক কা‌জে। বা‌কি টাকা রুপালী ব্যাংকে জমা রাখা হয়।

পাগলা মস‌জিদ প‌রিচালনা ক‌মি‌টির সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মাহমুদ পার‌ভেজ জানান, মস‌জি‌দের দানের টাকা দি‌য়ে শত কো‌টি টাকা ব্য‌য়ে নতুন মস‌জিদ কম‌প্লেক্স নির্মা‌ণের উদ্যোগ নেয়া হ‌য়ে‌ছে।

back to top