alt

সারাদেশ

পাগলা মসজিদের দানবাক্সে এবার রেকর্ড ৩ কোটি ৯০ লাখ টাকা

প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ: : শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২

https://sangbad.net.bd/images/2022/October/01Oct22/news/%E0%A7%A7%E0%A7%A7.jpg

কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দানবাক্সগুলো এবার খোলা হয়েছে ২ মাস ২৯ দিন পর। এবার সেগুলোতে পাওয়া গেছে রেকর্ড ৩ কোটি ৮৯ লাখ ৭০ হাজার ৮৮২ টাকা। যা ওই মসজিদের দানবাক্স থেকে পাওয়ার হিসাবে এ যাবতকালের সর্বোচ্চ। টাকা ছাড়াও সিন্দুকে স্বর্ণালংকার ও বৈদেশিক মুদ্রা মধ্যে সৌদি রিয়াল, ভারতীয় রুপি, মালয়েশিয়ান রিংগিত সবচেয়ে বেশি পাওয়া গেছে।

শনিবার (১ অক্টোবর) সকাল ৮টায় দিকে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে আটটি দানবাক্স খোলা হয়। বাক্সগুলো থেকে টাকা বের করে প্রথমে বস্তায় ভরা হয়। এবার ১৫ বস্তার চেয়ে বেশি টাকা পাওয়া যায়। এরপর দিনভর ওই টাকা গণনা শেষে সন্ধ্যায় এই হিসাব পাওয়া যায়। গণনা শেষে টাকাগুলো রূপালী ব্যাংকে জমা করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এটিএম ফরহাদ চৌধুরীর তত্ত্বাবধানে পাগলা মসজিদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: শওকত উদ্দীন ভূঞা, রূপালী ব্যংকের এজিএম মো: রফিকুল ইসলাম, পাগলা মসজিদের ইমাম মুফতি খলিলুর রহমান টাকা গণনার কাজ তদারকি করেন। গণনায় সহযোগিতা করেছে মাদ্রাসার শতাধিক খুদে শিক্ষার্থী।

মসজিদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শওকত উদ্দীন ভূঞা বলেন, এ এযাবৎকালের মধ্যে কম সময়ের ব্যবধানে এবার সবচেয়ে বেশি টাকা জমা পড়েছে। মসজিদ কর্তৃপক্ষ আন্তর্জাতিক মানের একটি ইসলামি কমপ্লেক্স নির্মাণের যে প্রকল্প নিয়েছে, সেটা দ্রুত শুরু করতে পারবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

https://sangbad.net.bd/images/2022/October/01Oct22/news/%E0%A7%A8.jpg

এর আগে সর্বশেষ গত ২ জুলাই দানবাক্স খোলা হয়েছিল। তখন ৩ কোটি ৬০ লাখ ২৭ হাজার ৪১৫ টাকা পাওয়া গিয়েছিল। তিন মাস পর পর পাগলা মসজিদের দানবাক্স খোলা হয়। এবার ২ মাস ২৯ দিন পর মসজিদের দানবাক্সগুলো খুলে এই অর্থ পাওয়া গেল।

মসজিদ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম বলেন, পাগলা মসজিদের দানের টাকায় আন্তর্জাতিক মানের একটি ইসলামি কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হবে। কমপ্লেক্সটিতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রাকৃতিক আলোর ব্যবস্থা থাকবে। এ জন্য আনুমানিক ব্যয় ধরা হয়েছে ১১৫ থেকে ১২০ কোটি টাকা। একসঙ্গে প্রায় ৩৫ হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। এ ছাড়া পাঁচ হাজার নারীর জন্য থাকবে আলাদা ব্যবস্থা।

তিনি আরও বলেন, পাগলা মসজিদ নিয়ে অনেকে প্রতারণার সুযোগ নিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ জন্য তিনি সবাইকে মসজিদের সিন্দুকে সরাসরি দানের আহ্বান জানান। মসজিদের পক্ষ থেকে বিকাশ, নগদ বা ব্যাংক হিসাবে টাকা নেওয়া হয় না। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে মসজিদ প্রাঙ্গণে নোটিশ টাঙানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রতিদিনই অসংখ্য মানুষ এসে পাগলা মসজিদে নগদ টাকা-পয়সা ছাড়াও সোনা রুপার গয়না দান করেন। এছাড়া গবাদিপশু, হাঁস-মুরগিসহ বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্রও মসজিদটিতে দান করা হয়। অন্য ধর্মের মানুষও এখানে দান করেন। মানুষের ধারণা এ মসজিদে দান করলে মনের আশা পূরন হয়।

কিশোরগঞ্জ শহরের ঐতিহাসিক স্থাপনার মধ্যে পাগলা মসজিদ অন্যতম প্রতিষ্ঠান। শহরের পশ্চিমে হারুয়া এলাকায় নরসুন্দা নদীর তীরে মাত্র ১০ শতাংশ ভূমির ওপর এই মসজিদটি গড়ে উঠেছিল। আজ এ মসজিদের পরিধির সাথে সাথে বেড়েছে এর খ্যাতি ও ঐতিহাসিক মূল্যও। বর্তমানে মসজিদকে কেন্দ্র করে একটি অত্যাধুনিক ধর্মীয় কমপ্লেক্স এখানে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রসারিত হয়েছে মূল মসজিদ ভবনও। তবুও মুসল্লির জায়গা সংকুলান হচ্ছে না। হাজার হাজার মানুষ এখানে আসেন নামাজ পড়তে এবং দান অনুদান দিতে।

ছবি

মাদক বহনকারী পিকআপের ধাক্কায় উল্টে গেল র‌্যাবের গাড়ি, নিহত ৩

ছবি

শরীয়তপুরের ডমুড্যা দেশের দ্বিতীয় ডিজিটাল ভিলেজ হচ্ছে

৩০ দিনের মধ্যে খাল দখলদারদের তালিকার নির্দেশ

১২ ঘণ্টার ব্যবধানে ফের খুন বৃদ্ধা

১২ লাখের সড়কে নামমাত্র কাজ

ছবি

ঘোড়াঘাটে আমন ধানের বাম্পার ফলন ও দাম পেয়ে কৃষকরা খুশি

ছবি

৫১ বছরেও বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি বঞ্চিত মানদা

দুই জেলায় ইয়াবা গ্রেপ্তার তিনজন

ছবি

সাভারে কোটি টাকার হেরোইনসহ মাদক কারবারি আটক

মজুরি ১শ’ টাকার পরিবর্তে ৩শ’ দাবি পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের

ছবি

পাখির কিচিরমিচিরে মুখর ডাকবাংলো

পীরগাছা মহিলা কলেজে অবৈধভাবে অধ্যক্ষ নিয়োগের পাঁয়তারা

ছবি

আশ্রয়ণের ১৪ ঘরের ৭টিই বিক্রি প্রশ্নের মুখে তালিকা প্রণয়ন

আর্জেন্টিনা সমর্থকদের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১৫

দোকান বরাদ্দের ইজারা বাতিল দাবিতে সবজি ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট

ছবি

৪৫০ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার, ১১ জনের রিমান্ড আবেদন

ছবি

হাতির আক্রমণে প্রাণ গেল কৃষকের

ছবি

নারায়ণগঞ্জে নেতাকে না পেয়ে ছেলেকে নিয়ে গেছে পুলিশ

ছবি

নিজের গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন, তরুণের মৃত্যু

ছবি

মিরসরাইয়ে ছাত্রদল নেতাকে ‘পিটিয়ে’ পুলিশে দিল ছাত্রলীগ

রংপুরে চালকল মালিকদের খাদ্য বিভাগের সঙ্গে চুক্তি করতে অনীহা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ডাবল মাডার : ৪ বছর পর রহস্য উদ্ঘাটন

ছবি

খাগড়াছড়িতে পরিবহন ধর্মঘট

ছবি

রামুতে পাহাড় ধসে একই পরিবারের ৪ জন নিহত

গাজীপুরে গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো ৫ ইটভাটা, ২৪ লাখ টাকা জরিমানা

ছবি

নানিয়ারচরে ইউপিডিএফ সংগঠককে গুলি করে হত্যা!

ছবি

অনুমোদন ছাড়াই চলছে ইটভাটা

ছবি

বিরামপুরে বাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ, নারীসহ দুজনের মৃত্যু

ছবি

মেসিভক্তের বিয়ের ‘আর্জেন্টিনা গেট’, নির্মাণকারী ব্রাজিল সমর্থক

ছবি

কালীগঞ্জ : মা ও শিশু হাসপাতালে নার্স দিয়েই চলছে চিকিৎসাসেবা

ছবি

বাবা-মার সঙ্গে ঝগড়া করে ঘর পুড়িয়ে দিল ছেলে

ছবি

প্রেমিকার বাবা–ভাইয়ের পিটুনিতে তরুণের মৃত্যু

ফরিদপুরে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত জেলা প্রশাসকের মতবিনিময়

হাসপাতাল-ক্লিনিকের লাইসেন্স দেখে চিকিৎসককে সেবা প্রদানের নির্দেশ

তিতাসে পুলিশের সামনে থেকে তুলে নিয়ে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ছবি

  কক্সবাজারে প্রধানমন্ত্রী সড়ক বিভাগের ৩টি সড়ক উদ্বোধন করবেন 

tab

সারাদেশ

পাগলা মসজিদের দানবাক্সে এবার রেকর্ড ৩ কোটি ৯০ লাখ টাকা

প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ:

শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২

https://sangbad.net.bd/images/2022/October/01Oct22/news/%E0%A7%A7%E0%A7%A7.jpg

কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দানবাক্সগুলো এবার খোলা হয়েছে ২ মাস ২৯ দিন পর। এবার সেগুলোতে পাওয়া গেছে রেকর্ড ৩ কোটি ৮৯ লাখ ৭০ হাজার ৮৮২ টাকা। যা ওই মসজিদের দানবাক্স থেকে পাওয়ার হিসাবে এ যাবতকালের সর্বোচ্চ। টাকা ছাড়াও সিন্দুকে স্বর্ণালংকার ও বৈদেশিক মুদ্রা মধ্যে সৌদি রিয়াল, ভারতীয় রুপি, মালয়েশিয়ান রিংগিত সবচেয়ে বেশি পাওয়া গেছে।

শনিবার (১ অক্টোবর) সকাল ৮টায় দিকে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে আটটি দানবাক্স খোলা হয়। বাক্সগুলো থেকে টাকা বের করে প্রথমে বস্তায় ভরা হয়। এবার ১৫ বস্তার চেয়ে বেশি টাকা পাওয়া যায়। এরপর দিনভর ওই টাকা গণনা শেষে সন্ধ্যায় এই হিসাব পাওয়া যায়। গণনা শেষে টাকাগুলো রূপালী ব্যাংকে জমা করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এটিএম ফরহাদ চৌধুরীর তত্ত্বাবধানে পাগলা মসজিদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: শওকত উদ্দীন ভূঞা, রূপালী ব্যংকের এজিএম মো: রফিকুল ইসলাম, পাগলা মসজিদের ইমাম মুফতি খলিলুর রহমান টাকা গণনার কাজ তদারকি করেন। গণনায় সহযোগিতা করেছে মাদ্রাসার শতাধিক খুদে শিক্ষার্থী।

মসজিদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শওকত উদ্দীন ভূঞা বলেন, এ এযাবৎকালের মধ্যে কম সময়ের ব্যবধানে এবার সবচেয়ে বেশি টাকা জমা পড়েছে। মসজিদ কর্তৃপক্ষ আন্তর্জাতিক মানের একটি ইসলামি কমপ্লেক্স নির্মাণের যে প্রকল্প নিয়েছে, সেটা দ্রুত শুরু করতে পারবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

https://sangbad.net.bd/images/2022/October/01Oct22/news/%E0%A7%A8.jpg

এর আগে সর্বশেষ গত ২ জুলাই দানবাক্স খোলা হয়েছিল। তখন ৩ কোটি ৬০ লাখ ২৭ হাজার ৪১৫ টাকা পাওয়া গিয়েছিল। তিন মাস পর পর পাগলা মসজিদের দানবাক্স খোলা হয়। এবার ২ মাস ২৯ দিন পর মসজিদের দানবাক্সগুলো খুলে এই অর্থ পাওয়া গেল।

মসজিদ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম বলেন, পাগলা মসজিদের দানের টাকায় আন্তর্জাতিক মানের একটি ইসলামি কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হবে। কমপ্লেক্সটিতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রাকৃতিক আলোর ব্যবস্থা থাকবে। এ জন্য আনুমানিক ব্যয় ধরা হয়েছে ১১৫ থেকে ১২০ কোটি টাকা। একসঙ্গে প্রায় ৩৫ হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। এ ছাড়া পাঁচ হাজার নারীর জন্য থাকবে আলাদা ব্যবস্থা।

তিনি আরও বলেন, পাগলা মসজিদ নিয়ে অনেকে প্রতারণার সুযোগ নিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ জন্য তিনি সবাইকে মসজিদের সিন্দুকে সরাসরি দানের আহ্বান জানান। মসজিদের পক্ষ থেকে বিকাশ, নগদ বা ব্যাংক হিসাবে টাকা নেওয়া হয় না। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে মসজিদ প্রাঙ্গণে নোটিশ টাঙানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রতিদিনই অসংখ্য মানুষ এসে পাগলা মসজিদে নগদ টাকা-পয়সা ছাড়াও সোনা রুপার গয়না দান করেন। এছাড়া গবাদিপশু, হাঁস-মুরগিসহ বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্রও মসজিদটিতে দান করা হয়। অন্য ধর্মের মানুষও এখানে দান করেন। মানুষের ধারণা এ মসজিদে দান করলে মনের আশা পূরন হয়।

কিশোরগঞ্জ শহরের ঐতিহাসিক স্থাপনার মধ্যে পাগলা মসজিদ অন্যতম প্রতিষ্ঠান। শহরের পশ্চিমে হারুয়া এলাকায় নরসুন্দা নদীর তীরে মাত্র ১০ শতাংশ ভূমির ওপর এই মসজিদটি গড়ে উঠেছিল। আজ এ মসজিদের পরিধির সাথে সাথে বেড়েছে এর খ্যাতি ও ঐতিহাসিক মূল্যও। বর্তমানে মসজিদকে কেন্দ্র করে একটি অত্যাধুনিক ধর্মীয় কমপ্লেক্স এখানে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রসারিত হয়েছে মূল মসজিদ ভবনও। তবুও মুসল্লির জায়গা সংকুলান হচ্ছে না। হাজার হাজার মানুষ এখানে আসেন নামাজ পড়তে এবং দান অনুদান দিতে।

back to top