alt

সারাদেশ

সেই নিলয় বলছে, ভুল করেছি, আমার মতো ভুল যেন কেউ না করে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২

কুমিল্লায় নিখোঁজ ৮ যুবকের একজন ছিল শারতাজ ইসলাম নিলয়। যে বাড়ি ছাড়ার ১ মাস পর গত ১ সেপ্টেম্বর পটুয়াখালীর একটি মাদ্রাসা থেকে ফিরে এসেছিল বলে র‌্যাবের ভাষ্য। নিরুদ্দেশ ৪ যুবকসহ ৭ জনকে গ্রেপ্তারের পর বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে হাজির করা হয় নিলয়কেও। কারণ নিলয়ের দেয়া তথ্যেই নিরুদ্দেশ ৪ যুবকসহ ৭ জনকে আটক করেছিল র‌্যাব। এখন নিলয় বলছে, আর যেন এমন ভুল অন্য কেউ না করে।

সংবাদ সম্মেলনে হাজির থাকা নিলয় জানিয়েছে, খালাতো ভাইয়ের মাধ্যমে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হয়ে অন্য তরুণদের সঙ্গে ঘর ছেড়েছিল সে। তাকে প্রচলিত ধ্যান-ধারণার বাইরে উদ্বুদ্ধ করা হয়। তবে পটুয়াখালীতে যাওয়ার পর তিনি বুঝতে পারেন জঙ্গিবাদ ভুল পথ।

‘পরিবার ছেড়ে হিজরতের কথাটা যখন আসে তখন থেকে এটা সে মেনে নিতে পারিনি। অনেকটা বাধ্য হয়ে সে সেখান থেকে (পটুয়াখালী) বের হওয়ার চেষ্টা করে। এরপর “সুযোগ বুঝে” বাসায় ফিরে আসে।

ফিরে আসার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে র?্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। তার দেয়া তথ্যে র?্যাব বৃহস্পতিবার সাতজনকে গ্রেপ্তারের তথ্য জানায়। নিলয় বলেন, পরিবার ছেড়ে চলে যেতে হবে তা কোনভাবে মানতে পারিনি। যাওয়ার পরই তা বুঝতে পারি। মানুষকে কতল করতে হবে, কথিত তাগুতকে উৎখাত বা সশস্ত্র হামলা জঙ্গিদের এসব কার্যক্রম বিষয়ে তিনি বলেন, সশস্ত্র প্রস্তুতির কথা বারবার শুনেছি। কিন্তু আমি সেই স্টেজ (পর্যায়) পর্যন্ত যেতে পারিনি। তার আগেই ভুল বুঝতে পেরে ফিরে আসি।

যারা এখনও নিখোঁজ কিংবা উদ্বুদ্ধ হয়ে হিজরতের পথে রয়েছেন, তাদের উদ্দেশ্যে কিছু বলার আছে কি না জানতে চাইলে নিলয় বলেন, আমি চার-পাঁচ দিন ছিলাম। এর মধ্যেই বুঝতে পারি এটি ভুল পথ। আসলেই এটি ভুল পথ। এই ভুল পথে পা বাড়ানোর আগে বুঝে-শুনে যাওয়া উচিত। না বুঝে যাওয়া উচিত নয়। এই পথে আর যেন কেউ পা না বাড়ায়। জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে কুমিল্লা ও দেশের অন্য অঞ্চল থেকে বাড়ি ছেড়ে যাওয়া চারজনসহ সাতজনকে মুন্সীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও ময়মনসিংহের বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। মূলত নিলয়ের জিজ্ঞাসাবাদে দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাদের গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় র‌্যাব। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন হোসাইন আহম্মদ, মো. নেসার উদ্দিন ওরফে উমায়ের, বনি আমিন, ইমতিয়াজ আহমেদ রিফাত, মো. হাসিবুল ইসলাম, রোমান শিকদার ও মো. সাবিদ।

র‌্যাবের ভাষ্য, গত ২৩ আগস্ট সকাল ১০টায় নিলয়সহ পাঁচ তরুণ নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে কুমিল্লা টাউন হল এলাকায় আসেন। পরে সোহেল নামে একজনের নির্দেশনায় তারা দুই ভাগ হয়ে লাকসাম রেলক্রসিংয়ের কাছে হাউজিং স্টেট এলাকার উদ্দেশে যাত্রা করেন। নিলয়, সামি ও নিহাল একত্রে যাত্রা করেন। তবে তারা ভুলবশত চাঁদপুর শহর এলাকায় চলে যান। তারা ভুল বুঝতে পেরে রাত্রিযাপনের উদ্দেশে চাঁদপুরের একটি মসজিদে অবস্থান করলে কর্তব্যরত পুলিশ সন্দেহজনক আচরণের কারণে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে পুলিশ তাদের পাশের একটি হোটেলে রেখে যায় এবং পরদিন বাসায় চলে যেতে নির্দেশ দেয়। তারা রাতে হোটেল থেকে কৌশলে পালিয়ে তাদের পূর্বনির্ধারিত স্থানে গেলে সোহেল ও অজ্ঞাত এক ব্যক্তি তাদের লাকসামের একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। ওই বাড়িতে আগে থেকেই অবশিষ্ট তিনজন অবস্থান করছিল। পরে নিলয়, নিহাল, সামি ও শিথিলকে কুমিল্লা শহরের একটি মাদ্রাসার মালিক নিয়ামত উল্লাহর কাছে পৌঁছে দেন সোহেল। নিয়ামত উল্লাহর তত্ত্বাবধানে একদিন থাকার পর সোহেল চারজনকে নিয়ে ঢাকায় আসেন এবং নিহাল, সামি ও শিথিলকে অজ্ঞাত ব্যক্তির কাছে বুঝিয়ে দিয়ে নিলয়কে লঞ্চের টিকেট কেটে দিয়ে পটুয়াখালীতে পাঠান। গ্রেপ্তার হওয়া বনি আমিন পটুয়াখালীতে নিলয়কে স্থানীয় এক মাদ্রাসায় নিয়ে যান এবং হুসাইন ও নেছার ওরফে উমায়েরের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। বণি আমিন নিলয়কে তিন দিন তার বাসায় রাখেন। তার বাসায় অতিথি আসায় পর নিলয়কে হোসাইনের মাদ্রাসায় রেখে আসেন। নিলয় মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে গত ১ সেপ্টেম্বর রাজধানীর কল্যাণপুরে নিজ বাড়িতে ফিরে আসেন।

ছবি

টাঙ্গাই‌লে বিকল ট্রাকের পেছ‌নে আরেক ট্রা‌কের ধাক্কা, নিহত ২

ছবি

বিষ মেশানো গম খেয়ে ৩৫ কবুতরের মৃত্যু

কুয়েতে প্রতারণার শিকার শতাধিক বাংলাদেশি

ছবি

গাইবান্ধা-৫ আসনে ভোটের তারিখ ঘোষণা

ছবি

ট্রেন চাপায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত

ছবি

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে তৎপর যুক্তরাষ্ট্র: মার্কিন সহকারী সচিব

ছবি

এনামুল বাছিরের জামিন আপিলেও বহাল

ছবি

গুজরাটে ভোট প্রচারে বাংলাদেশি, রোহিঙ্গা প্রসঙ্গঃ বিতর্কিত মন্তব্য করে ক্ষমা চাইলেন অভিনেতা পরেশ রাওয়াল

ছবি

টাঙ্গাইলের ১৪৮ অবৈধ ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধ হয়নি

ছবি

চাঁদপুরে লেগুনা থেকে ছিটকে পড়ে এক ছাত্রী নিহত

ছবি

মানিকগঞ্জ-রাজবাড়ী নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত

ছবি

হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ৫৯তম মৃত্যুবার্ষিকী

ছবি

শিবচরে হত্যা করে পা বিচ্ছিন্ন, দুই প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

ছবি

রুমা, রোয়াংছড়ি ও থানচি উপজেলায় ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা বাড়ল

ছবি

শেরপুরে স্ত্রী হত্যা মামলার অভিযুক্ত স্বামী গাজীপুরে গ্রেপ্তার

ছবি

মাদকের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে : মোমেন

ময়মনসিংহের ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

ছবি

নড়াইলের কবি সাহিত্যিকদের সম্মাননা

ছবি

রেলশূন্য হচ্ছে রেলের শহর!

গৌরীপুরে জাতীয় বস্ত্র দিবস পালিত

হাতির ভয়ে কাঁচা ধান কাটছেন কৃষক, পাহারা

রূপগঞ্জে বিএনপি ও ছাত্রদলের আরও ৫ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

জেলেদের জালে আটকা পড়েছে শত শত জেলিফিস

মঠবাড়িয়ায় চুরি-ডাকাতির হিড়িক : আতঙ্কে মানুষ

কিশোরীকে অপহরণ করে ধর্ষণ আসামি গ্রেপ্তার

ছবি

হাসপাতালের পাশে, ভাগাড় জনস্বাস্থ্য-পরিবেশ হুমকিতে

চুরির অপবাদে শিশু নির্যাতনে মেম্বার গ্রেপ্তার

দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সমন জারি

ঋণের কিস্তির চাপে গৃহবধূর আত্মহত্যা

ছবি

লালমনিরহাটে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর জনসভার উদ্দেশে সাগর পাড়ি দিয়ে এলেন নেতাকর্মীরা

ছবি

খালেদা জিয়ার বাসার সামনে পুলিশের তল্লাশিচৌকি

প্রতিপক্ষের গুলিতে নরসিংদীতে ইউপি চেয়ারম্যান নিহত

ছবি

জেলেদের জালে আটকা পড়েছে শত শত জেলিফিস

দুর্নীতির খবর সংগ্রহে গিয়ে মেম্বারের হামলার শিকার সাংবাদিকরা

ছবি

বিবাদে অর্ধশতাধিক ফলন্ত গাছ কর্তন

tab

সারাদেশ

সেই নিলয় বলছে, ভুল করেছি, আমার মতো ভুল যেন কেউ না করে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২

কুমিল্লায় নিখোঁজ ৮ যুবকের একজন ছিল শারতাজ ইসলাম নিলয়। যে বাড়ি ছাড়ার ১ মাস পর গত ১ সেপ্টেম্বর পটুয়াখালীর একটি মাদ্রাসা থেকে ফিরে এসেছিল বলে র‌্যাবের ভাষ্য। নিরুদ্দেশ ৪ যুবকসহ ৭ জনকে গ্রেপ্তারের পর বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে হাজির করা হয় নিলয়কেও। কারণ নিলয়ের দেয়া তথ্যেই নিরুদ্দেশ ৪ যুবকসহ ৭ জনকে আটক করেছিল র‌্যাব। এখন নিলয় বলছে, আর যেন এমন ভুল অন্য কেউ না করে।

সংবাদ সম্মেলনে হাজির থাকা নিলয় জানিয়েছে, খালাতো ভাইয়ের মাধ্যমে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হয়ে অন্য তরুণদের সঙ্গে ঘর ছেড়েছিল সে। তাকে প্রচলিত ধ্যান-ধারণার বাইরে উদ্বুদ্ধ করা হয়। তবে পটুয়াখালীতে যাওয়ার পর তিনি বুঝতে পারেন জঙ্গিবাদ ভুল পথ।

‘পরিবার ছেড়ে হিজরতের কথাটা যখন আসে তখন থেকে এটা সে মেনে নিতে পারিনি। অনেকটা বাধ্য হয়ে সে সেখান থেকে (পটুয়াখালী) বের হওয়ার চেষ্টা করে। এরপর “সুযোগ বুঝে” বাসায় ফিরে আসে।

ফিরে আসার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে র?্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। তার দেয়া তথ্যে র?্যাব বৃহস্পতিবার সাতজনকে গ্রেপ্তারের তথ্য জানায়। নিলয় বলেন, পরিবার ছেড়ে চলে যেতে হবে তা কোনভাবে মানতে পারিনি। যাওয়ার পরই তা বুঝতে পারি। মানুষকে কতল করতে হবে, কথিত তাগুতকে উৎখাত বা সশস্ত্র হামলা জঙ্গিদের এসব কার্যক্রম বিষয়ে তিনি বলেন, সশস্ত্র প্রস্তুতির কথা বারবার শুনেছি। কিন্তু আমি সেই স্টেজ (পর্যায়) পর্যন্ত যেতে পারিনি। তার আগেই ভুল বুঝতে পেরে ফিরে আসি।

যারা এখনও নিখোঁজ কিংবা উদ্বুদ্ধ হয়ে হিজরতের পথে রয়েছেন, তাদের উদ্দেশ্যে কিছু বলার আছে কি না জানতে চাইলে নিলয় বলেন, আমি চার-পাঁচ দিন ছিলাম। এর মধ্যেই বুঝতে পারি এটি ভুল পথ। আসলেই এটি ভুল পথ। এই ভুল পথে পা বাড়ানোর আগে বুঝে-শুনে যাওয়া উচিত। না বুঝে যাওয়া উচিত নয়। এই পথে আর যেন কেউ পা না বাড়ায়। জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে কুমিল্লা ও দেশের অন্য অঞ্চল থেকে বাড়ি ছেড়ে যাওয়া চারজনসহ সাতজনকে মুন্সীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও ময়মনসিংহের বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। মূলত নিলয়ের জিজ্ঞাসাবাদে দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাদের গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় র‌্যাব। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন হোসাইন আহম্মদ, মো. নেসার উদ্দিন ওরফে উমায়ের, বনি আমিন, ইমতিয়াজ আহমেদ রিফাত, মো. হাসিবুল ইসলাম, রোমান শিকদার ও মো. সাবিদ।

র‌্যাবের ভাষ্য, গত ২৩ আগস্ট সকাল ১০টায় নিলয়সহ পাঁচ তরুণ নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে কুমিল্লা টাউন হল এলাকায় আসেন। পরে সোহেল নামে একজনের নির্দেশনায় তারা দুই ভাগ হয়ে লাকসাম রেলক্রসিংয়ের কাছে হাউজিং স্টেট এলাকার উদ্দেশে যাত্রা করেন। নিলয়, সামি ও নিহাল একত্রে যাত্রা করেন। তবে তারা ভুলবশত চাঁদপুর শহর এলাকায় চলে যান। তারা ভুল বুঝতে পেরে রাত্রিযাপনের উদ্দেশে চাঁদপুরের একটি মসজিদে অবস্থান করলে কর্তব্যরত পুলিশ সন্দেহজনক আচরণের কারণে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে পুলিশ তাদের পাশের একটি হোটেলে রেখে যায় এবং পরদিন বাসায় চলে যেতে নির্দেশ দেয়। তারা রাতে হোটেল থেকে কৌশলে পালিয়ে তাদের পূর্বনির্ধারিত স্থানে গেলে সোহেল ও অজ্ঞাত এক ব্যক্তি তাদের লাকসামের একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। ওই বাড়িতে আগে থেকেই অবশিষ্ট তিনজন অবস্থান করছিল। পরে নিলয়, নিহাল, সামি ও শিথিলকে কুমিল্লা শহরের একটি মাদ্রাসার মালিক নিয়ামত উল্লাহর কাছে পৌঁছে দেন সোহেল। নিয়ামত উল্লাহর তত্ত্বাবধানে একদিন থাকার পর সোহেল চারজনকে নিয়ে ঢাকায় আসেন এবং নিহাল, সামি ও শিথিলকে অজ্ঞাত ব্যক্তির কাছে বুঝিয়ে দিয়ে নিলয়কে লঞ্চের টিকেট কেটে দিয়ে পটুয়াখালীতে পাঠান। গ্রেপ্তার হওয়া বনি আমিন পটুয়াখালীতে নিলয়কে স্থানীয় এক মাদ্রাসায় নিয়ে যান এবং হুসাইন ও নেছার ওরফে উমায়েরের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। বণি আমিন নিলয়কে তিন দিন তার বাসায় রাখেন। তার বাসায় অতিথি আসায় পর নিলয়কে হোসাইনের মাদ্রাসায় রেখে আসেন। নিলয় মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে গত ১ সেপ্টেম্বর রাজধানীর কল্যাণপুরে নিজ বাড়িতে ফিরে আসেন।

back to top