alt

সারাদেশ

রাজশাহীতে হঠাৎ বাড়ছে ‘চোখ ওঠা’ রোগের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি

জেলা বার্তা পরিবেশক, রাজশাহী : শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২

রাজশাহীতে হঠাৎ ‘চোখ ওঠা’ রোগের প্রাদুর্ভাব বেড়েছে। চোখের কনজাংটিভা নামক পর্দার প্রদাহে এই রোগটি ভাইরাসজনিত এবং ছোঁয়াচে হওয়ার ভীতি ছড়িয়েছে সর্বত্র। গত সপ্তাহ থেকে নগরীসহ গ্রামাঞ্চলেও এ রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা যাচ্ছে। তবে বিশেষজ্ঞরা আশ্বস্ত করে বলছেন, ভয়ের কিছু নেই, এটি ভাইরাসজনিত হলেও করোনা বা মহামারীর মতো ভয়ংকর নয়। কিছু বিষয়ে সচেতনতা অবলম্বন করলেই সপ্তাহখানেকের মধ্যেই রোগী সুস্থ হয়ে উঠবেন।

রাজশাহী মহানগরীর সেখের চক এলাকার একটি পরিবারে শিশুসহ ৯ জনের চোখ ওঠে, পরিবারটি পূজা উপলক্ষে ঢাকা থেকে রাজশাহীতে আসে, বর্তমানে প্রায় সব সদস্যের চোখ ভালো হয়ে গেছে। পবা উপজেলার মুরারীপুর এলাকার বাসিন্দা জমেলা বেগম জানান, তার মেয়ের পাঁচ দিন আগে চোখ ওঠে। সামান্য ব্যথা ছিল। ডাক্তারের কাছ থেকে ওষুধ নিয়ে এসেছেন। তবে দু’দিন আগে তার ছেলের মেয়ে সন্তানেরও একই সমস্যা দেখা দিয়েছে। এটা নিয়ে দুশ্চিন্তার মধ্যে আছেন।

তিনি আরও জানান, সপ্তাহখানেকের মধ্যে তার এলাকার চার জন শিশু চোখ ওঠা রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। চোখ ওঠা রোগে আক্রান্ত নগরীর রানীনগরের বাসিন্দা মাসুদুর রহমান বলেন, তিনি নিজের চোখ ওঠা রোগের লক্ষণ দেখার পর ক্লোরাফিল নামক একটি ড্রপ ডাক্তারের পরামর্শে ফার্মেসিগুলোতে পাননি। মার্কেট আউট হয়ে গেছে। পরে এর বিকল্প একটা ওষুধ ফার্মেসি থেকে দিয়েছে।

চক্ষু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সাধারণত ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়ার কারণে চোখ ওঠা রোগ হয়। আবার কখনো কখনো অ্যালার্জির কারণেও এ রোগ হয়ে থাকে। যে মৌসুমে বাতাসে আদ্রতা বেশি থাকে, সে সময় এ রোগটা বেশি হয়। সাধারণত কন্টাক্টের মাধ্যমে এ রোগ ছড়ায়। যেমন : রোগীর ব্যবহৃত জিনিস (গামছা, তোয়ালে, রুমাল) অন্যরা ব্যবহার করলে এ রোগ ছড়ায়। আবার হ্যান্ড টু আই কন্টাক্টের (হাত না ধুয়ে চোখ ছুঁলে) মাধ্যমেও ছড়ায়। অর্থাৎ আক্রান্ত রোগীর ব্যবহৃত জিনিস কেউ ধরার পর যদি না ধুয়ে হাত চোখে দেয়। এ কারণে দৈনন্দিন জীবনযাপনে পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে হবে।

এ বিষয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডা. নাইমুল হক বলেন, এটা মৌসুমি রোগ। সাধারণত ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই এ রোগ ভালো হয়ে যায়। তবে জটিলতা দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

তিনি বলেন, এই রোগে চোখ লাল হয়ে যায়। সাধারণত প্রথমে এক চোখ লাল হয়, পরে দুই চোখই হয়। চোখ দিয়ে পানি পড়ে। চোখে অস্বস্থিবোধ হয়, চোখের পাতা ফুলে যাওয়া, চোখে ব্যথা, আলো সহ্য না হওয়া, চোখে হালকা জ্বালাপোড়া হওয়া এসব লক্ষণ দেখা যায়।

সাধারণত এমনিতেই এ রোগ ভালো হয়ে যায়। তবে প্রয়োজনে কিছু ড্রপ রোগীকে দেয়া হয়। আর রোগীর হাত দিয়ে চোখ চুলকানো যাবে না। বাইরে বের হলে রোগীকে কালো চশমা পরতে হবে।

এ বিষয়ে রাজশাহী সিভিল সার্জন ডা. আবু সাঈদ মোহাম্মদ ফারুক বলেন, শুধু রাজশাহী না, সারাদেশেই চোখ ওঠা রোগের পাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। সাধারণত এ রোগ স্বাভাবিকভাবেই ভালো হয়ে যায়। তবে জটিলতা দেখা দিলে চিকিৎসকের কাছ থেকেই পরামর্শ নেয়া উত্তম।

তিনি আরও বলেন, তারা এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে, আক্রান্ত হওয়ার আগে প্রতিরোধের জন্য প্রতিটি উপজেলায় প্রচারণা চালাচ্ছি। এছাড়া রোগীর প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেয়ার নির্দেশনা দেয়া রয়েছে।

ছবি

নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি, স্থবির নৌ-চলাচল

ছবি

পারমাণবিক শক্তিতে বিশ্বে সবচেয়ে ক্ষমতাবান হতে চাই : কিম

ছবি

ঋণ খেলাপির মামলায় ৩৭ কৃষকের জামিন

ছবি

এসএসসির ফল প্রকাশ সোমবার

ছবি

ভ্যানে মিলল কোটি টাকার স্বর্ণ

ছবি

১ ডিসেম্বর থেকে রাজশাহীর ৮ জেলায় পরিবহন ধর্মঘট

ছবি

কক্সবাজারে মশার কামড়ে পর্যটকরা অতিষ্ঠ

ছবি

বাসচাপায় একই পরিবারের ৩ জন নিহত

ছবি

ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে হত্যায় তরুণ গ্রেফতার

ছবি

বরিশালে নৌ শ্রমিকদের কর্মবিরতি

‘পানির দুই সমস্যা’ যশোরের চাঁচড়ার আশ্রয়ণ প্রকল্পবাসীর গলার কাঁটা

রাজশাহী বিভাগে ১১ দফা দাবিতে ১ ডিসেম্বর থেকে পরিবহন ধর্মঘট

ছবি

সিলেটের কুমারগাঁও-বাধাঘাট-বিমানবন্দর সড়কের চার লেন কাজের উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

‘যায় রস আহরণে দাঁড়াবার সময় যে নাই’

বিদ্যালয়ের সঙ্গে শত্রুতা

সোয়াই নদী পুনর্খনন দাবি

খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি থেকে নাম বাদ : বিক্ষোভ শত শত উপকারভোগীর

নদী থেকে ভিক্ষুকের মরদেহ উদ্ধার

মিষ্টির দামেও ময়দা চিনি-তেলের উত্তাপ

ছবি

২১৫ টন চাল আত্মসাৎ, খাদ্য কর্মকর্তা লাপাত্তা

বিয়ে বাড়ির চা পানে অসুস্থ ১২ হাসপাতালে ভর্তি

মোটরসাইকেল চালক নিহত

সাভারে মাদকসহ আটক একজন

ছবি

আগামী মাস থেকে ব্যাংকে আর ডলার সংকট থাকবে না : সালমান এফ রহমান

ছবি

মহেশখালীতে বাঁশ দিয়ে মুজিববর্ষের ঘর নির্মাণ

ছবি

বরিশালে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতির ঘোষণা

ছবি

মিরসরাইয়ে দাঁড়িয়ে থাকা পিকআপে বাসের ধাক্কা, ৩ জাহাজ শ্রমিক নিহত

ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ২

ছবি

কুমিল্লায় বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে মোবাইল ইন্টারনেট সেবা বিঘ্নিত

ছবি

সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার

ছবি

নিখোঁজ শিশুর গলাকাটা লাশ মিললো প্রতিবেশীর বাড়ি

ঋণের মামলায় জেলে ঈশ্বরদীর ১২ কৃষক

ছবি

সারাদেশে ৩০ নভেম্বর বিক্ষোভ করবে বিএনপি

বিজিবি-বিজিপি সীমান্ত সম্মেলন

ছবি

রাতে গোয়ালঘরে অগ্নিসংযোগ

ছবি

জলকপাট আ’লীগ নেতাদের নিয়ন্ত্রণে! আমনের পর তরমুজ নিয়েও শঙ্কা

tab

সারাদেশ

রাজশাহীতে হঠাৎ বাড়ছে ‘চোখ ওঠা’ রোগের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি

জেলা বার্তা পরিবেশক, রাজশাহী

শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২

রাজশাহীতে হঠাৎ ‘চোখ ওঠা’ রোগের প্রাদুর্ভাব বেড়েছে। চোখের কনজাংটিভা নামক পর্দার প্রদাহে এই রোগটি ভাইরাসজনিত এবং ছোঁয়াচে হওয়ার ভীতি ছড়িয়েছে সর্বত্র। গত সপ্তাহ থেকে নগরীসহ গ্রামাঞ্চলেও এ রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা যাচ্ছে। তবে বিশেষজ্ঞরা আশ্বস্ত করে বলছেন, ভয়ের কিছু নেই, এটি ভাইরাসজনিত হলেও করোনা বা মহামারীর মতো ভয়ংকর নয়। কিছু বিষয়ে সচেতনতা অবলম্বন করলেই সপ্তাহখানেকের মধ্যেই রোগী সুস্থ হয়ে উঠবেন।

রাজশাহী মহানগরীর সেখের চক এলাকার একটি পরিবারে শিশুসহ ৯ জনের চোখ ওঠে, পরিবারটি পূজা উপলক্ষে ঢাকা থেকে রাজশাহীতে আসে, বর্তমানে প্রায় সব সদস্যের চোখ ভালো হয়ে গেছে। পবা উপজেলার মুরারীপুর এলাকার বাসিন্দা জমেলা বেগম জানান, তার মেয়ের পাঁচ দিন আগে চোখ ওঠে। সামান্য ব্যথা ছিল। ডাক্তারের কাছ থেকে ওষুধ নিয়ে এসেছেন। তবে দু’দিন আগে তার ছেলের মেয়ে সন্তানেরও একই সমস্যা দেখা দিয়েছে। এটা নিয়ে দুশ্চিন্তার মধ্যে আছেন।

তিনি আরও জানান, সপ্তাহখানেকের মধ্যে তার এলাকার চার জন শিশু চোখ ওঠা রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। চোখ ওঠা রোগে আক্রান্ত নগরীর রানীনগরের বাসিন্দা মাসুদুর রহমান বলেন, তিনি নিজের চোখ ওঠা রোগের লক্ষণ দেখার পর ক্লোরাফিল নামক একটি ড্রপ ডাক্তারের পরামর্শে ফার্মেসিগুলোতে পাননি। মার্কেট আউট হয়ে গেছে। পরে এর বিকল্প একটা ওষুধ ফার্মেসি থেকে দিয়েছে।

চক্ষু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সাধারণত ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়ার কারণে চোখ ওঠা রোগ হয়। আবার কখনো কখনো অ্যালার্জির কারণেও এ রোগ হয়ে থাকে। যে মৌসুমে বাতাসে আদ্রতা বেশি থাকে, সে সময় এ রোগটা বেশি হয়। সাধারণত কন্টাক্টের মাধ্যমে এ রোগ ছড়ায়। যেমন : রোগীর ব্যবহৃত জিনিস (গামছা, তোয়ালে, রুমাল) অন্যরা ব্যবহার করলে এ রোগ ছড়ায়। আবার হ্যান্ড টু আই কন্টাক্টের (হাত না ধুয়ে চোখ ছুঁলে) মাধ্যমেও ছড়ায়। অর্থাৎ আক্রান্ত রোগীর ব্যবহৃত জিনিস কেউ ধরার পর যদি না ধুয়ে হাত চোখে দেয়। এ কারণে দৈনন্দিন জীবনযাপনে পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে হবে।

এ বিষয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডা. নাইমুল হক বলেন, এটা মৌসুমি রোগ। সাধারণত ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই এ রোগ ভালো হয়ে যায়। তবে জটিলতা দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

তিনি বলেন, এই রোগে চোখ লাল হয়ে যায়। সাধারণত প্রথমে এক চোখ লাল হয়, পরে দুই চোখই হয়। চোখ দিয়ে পানি পড়ে। চোখে অস্বস্থিবোধ হয়, চোখের পাতা ফুলে যাওয়া, চোখে ব্যথা, আলো সহ্য না হওয়া, চোখে হালকা জ্বালাপোড়া হওয়া এসব লক্ষণ দেখা যায়।

সাধারণত এমনিতেই এ রোগ ভালো হয়ে যায়। তবে প্রয়োজনে কিছু ড্রপ রোগীকে দেয়া হয়। আর রোগীর হাত দিয়ে চোখ চুলকানো যাবে না। বাইরে বের হলে রোগীকে কালো চশমা পরতে হবে।

এ বিষয়ে রাজশাহী সিভিল সার্জন ডা. আবু সাঈদ মোহাম্মদ ফারুক বলেন, শুধু রাজশাহী না, সারাদেশেই চোখ ওঠা রোগের পাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। সাধারণত এ রোগ স্বাভাবিকভাবেই ভালো হয়ে যায়। তবে জটিলতা দেখা দিলে চিকিৎসকের কাছ থেকেই পরামর্শ নেয়া উত্তম।

তিনি আরও বলেন, তারা এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে, আক্রান্ত হওয়ার আগে প্রতিরোধের জন্য প্রতিটি উপজেলায় প্রচারণা চালাচ্ছি। এছাড়া রোগীর প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেয়ার নির্দেশনা দেয়া রয়েছে।

back to top