alt

সারাদেশ

বান্দরবানের রুমায় ‘কেএনএফ সদস্যের’ গুলিবিদ্ধ লাশ, আতঙ্কে স্থানীয়রা

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩

বান্দরবানের রুমা উপজেলা থেকে কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) একজন সদস্যের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ রোববার সকালে উপজেলার পাইন্দু ইউনিয়নের আর্থাপাড়া এলাকা থেকে কেএনএফের পোশাক পরা ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে তার নাম–পরিচয় জানা যায়নি।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্র জানায়, গত ৯ অক্টোবর থেকে জঙ্গি ও কেএনএফের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচালিত অভিযানে কয়েক দফা বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। সর্বশেষ গতকাল শনিবার পাইন্দু ইউনিয়নে বন্দুকযুদ্ধ হয়। এসব বন্দুকযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো কেএনএফ সদস্যের লাশ উদ্ধারের ঘটনা ঘটল।

এদিকে এসব ঘটনার কারণে আতঙ্কে ওই এলাকার বম ও মারমাদের পাঁচটি পাড়া থেকে লোকজন অন্যত্র চলে গেছে বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানিয়েছেন। এ পাড়াগুলো হলো পাইন্দু ইউনিয়নের হ্যাপিহিলপাড়া, বাসত্লাংপাড়া, আর্থাপাড়া, মুননুয়ামপাড়া ও মুয়ালপিপাড়া।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসাইন বলেন, আর্থাপাড়া ও বাসত্লাংপাড়া এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর টহল দলের ওপর গতকাল দুপুরে হামলা চালান কেএনএফ সদস্যরা। নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা গুলি ছুড়লে কেএনএফের সদস্যরা পালিয়ে যান। আজ সকাল থেকে সেখানে তল্লাশির একপর্যায়ে আর্থাপাড়া এলাকা থেকে কেএনএফের পোশাক পরা এক সদস্যের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশের পাশে একটি দোনলা কার্তুজ বন্দুক ও ৭০টি গুলি পাওয়া গেছে।

আর্থাপাড়া রুমা উপজেলা সদর থেকে ১২ কিলোমিটার দূরে পাইন্দু ইউনিয়নে অবস্থিত। পাইন্দু ইউনিয়ন পরিষদের একাধিক জনপ্রতিনিধি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, চার-পাঁচ দিন ধরে হ্যাপিহিলপাড়া, বাসত্লাংপাড়া, আর্থাপাড়া, মুননুয়ামপাড়া এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে কেএনএফের গোলাগুলি চলছিল। গতকাল দুপুরে বাসত্লাংপাড়া ও আর্থাপাড়া এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর একদল কেএনএফ সদস্য হামলা করেন। নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা গুলি ছুড়লে কেএনএফ সদস্যরা পালিয়ে যান। এ সময় গুলিতে একজন কেএনএফ সদস্য নিহত হন। গোলাগুলির ঘটনায় আতঙ্কে পাড়ার লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন।

নিরাপত্তা বাহিনীর বান্দরবান রিজিয়ন ও ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের সদর দপ্তর থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কেএনএফের অত্যাচার ও নির্যাতনে পাড়াগুলো থেকে বম ও মারমা বাসিন্দারা বাসস্থান ত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন। তাঁরা রুমা উপজেলা সদরের মারমা ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের ভবনে অবস্থান করছেন। আশ্রিত পরিবারগুলোকে সেনাবাহিনী খাবার, শীতবস্ত্র, চিকিৎসাসেবা ও প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র প্রদান করছে।

রুমা উপজেলা সদরের আট কিলোমিটার দূরের মুয়ালপিপাড়া থেকে মারমা ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনে আশ্রয় নেওয়া হ্লাথোয়াইচিং মারমা বলেন, তাঁরা মুয়ালপিপাড়ায় ৭১টি বম ও ৫১টি মারমা পরিবার একসঙ্গে বাস করেন। গতকাল থেকে পাড়ায় কেউ নেই। মারমারা উপজেলা সদরে এসেছে। বমরা কোথায় আশ্রয় নিয়েছে তা তাঁর জানা নেই।

মুয়ালপিপাড়ার একাধিক ব্যক্তি জানিয়েছেন, মুয়ালপিপাড়ায় এক মাস ধরে কেএনএফের একটি দল অবস্থান করছিল। এতে তাঁরাসহ আশপাশের পাড়াগুলোর বাসিন্দারাও আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। ভয়ে ও নানামুখী চাপে কোনো কাজও করতে পারেননি। এখন জুমচাষের জন্য জঙ্গল পরিষ্কার করতে না পারলে জুমচাষও করা সম্ভব হবে না। আর জুমচাষ করতে না পারলে আগামী কয়েক মাস পর অনাহারে থাকা ছাড়া উপায় থাকবে না।

রুমা ও রোয়াংছড়ি উপজেলার বম জনগোষ্ঠী–অধ্যুষিত দুর্গম এলাকাগুলোতে সশস্ত্র সংগঠন কেএনএফ ২০২০ সাল থেকে তৎপরতা শুরু করে। তাদের দাবি, তারা বম, ম্রো, পাংখুয়া, লুসাই, খেয়াং ও খুমিদের অধিকারের জন্য আন্দোলন করছে।

র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক খন্দকার আল মঈন ১২ জানুয়ারি এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কেএনএফ তাদের সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য ২০২১ সালে জঙ্গিগোষ্ঠী জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্কীয়ার সঙ্গে চুক্তি করে। তখন থেকে জঙ্গিগোষ্ঠীর অর্থায়নে কেএনএফ শক্তি বাড়াতে থাকে। বর্তমানে তাদের ১৫০ জনের মতো সদস্য রয়েছে। গত বছরের ৯ অক্টোবর থেকে জঙ্গি ও কেএনএফের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে। এ পর্যন্ত ১২ ও ১৪ জন কেএনএফ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ছবি

পেটে গজ রেখেই সেলাই, রোগী আইসিইউতে

রামেকে দুদকের আকস্মিক অভিযান মিলেছে বহু অভিযোগের সত্যতা

রংপুরে জঙ্গি তৎপরতার দায়ে তিন জনের ৪ বছরের দণ্ড

ছবি

দোহারে ব্রি ধান-৮৯ এর ওপর মাঠ দিবস ও কারিগরি সেশন

ছবি

হাওরের প্রায় শতভাগ বোরো ধান কাটা শেষ

ছবি

সুন্দরগঞ্জে ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, ভাটা বন্ধের নির্দেশ

ছবি

রায়গঞ্জে ভাঙা ব্রিজে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল, ঘটছে দুর্ঘটনা

ছবি

পোরশায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিশু নিহত

ছবি

চট্টগ্রামে প্রবাসীর স্বর্ণ ছিনতাইকালে এসআই গ্রেপ্তার

ছবি

ডিমলায় সংস্কারের দুদিন পরই উঠে যাচ্ছে কোটি টাকার কার্পেটিং

ছবি

সিরাজগঞ্জে শিশু ধর্ষণ মামলায় বৃদ্ধের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

পেটে গজ রেখেই সেলাই, সংকটাপূর্ণ রোগী আইসিইউতে

ছবি

বাগাতিপাড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকের বাড়িতে হামলা

জমি বিবাদে গৃহবধূকে হত্যা, গ্রেপ্তার ৪

ছবি

ইন্দুরকানীতে সংস্কারের অভাবে সড়ক বেহাল

সংবাদ-এর ৭৪ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে আলোচনা

ছবি

কুড়িগ্রামে এক টাকায় ১০টি হাতপাখা বিক্রি

ছবি

করলা চাষে দ্বিগুণ লাভে খুশি কৃষক

ছবি

দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও কাউখালীর ঐতিহ্যবাহী শীতলপাটির কদর

ছবি

সাড়ে ৮ বিঘা জমির ফসল কাটল দুর্বৃত্তরা

ছবি

বগুড়ায় আলুর হিমাগার থেকে এক লাখ ডিম উদ্ধার

ছবি

মৌলভীবাজার সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন স্থগিত

ছবি

সাটুরিয়া উপজেলা নির্বাচন এমপি এক প্রার্থীকে সমর্থন উদ্বেগ উৎকণ্ঠায় ভোটাররা

ছবি

সিরাজগঞ্জে হেরোইন রাখার দায়ে দুই যুবকের যাবজ্জীবন

সংবাদ প্রতিনিধি হারাধন পেলেন মাদার তেরেসা অ্যাওয়ার্ড

ছবি

আনোয়ারায় অধ্যক্ষের রুমে দুই শিক্ষকের মারামারি, শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ছবি

মুন্সীগঞ্জ আব্দুল আজহার উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে দশগুণ বেশি মূল্যে মনোনয়নপত্র বিক্রি

ছবি

মুকসুদপুরে অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধার

ছবি

ডাকাতি করতে গিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৪

ছবি

লক্ষ্মীছড়ির স্থগিত দুই কেন্দ্রের ভোট ২৯ মে

ছবি

অটোরিকশা চালকদের তাণ্ডবের ঘটনায় ৪ মামলা, আসামি প্রায় ২৫০০

ছবি

র‍্যাব হেফাজতে নারী মৃত্যুর ঘটনায় ক্যাম্প কমান্ডার প্রত্যাহার

ছবি

লিচু : তাপপ্রবাহে লোকসানের আশঙ্কায় বাগানি ও ব্যবসায়ীরা

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম ‘নিখোঁজ’ দাবি পরিবারের

ছবি

বান্দরবানে ৩ ‘কেএনএফ সদস্যের’ মরদেহ উদ্ধার

গাজীপুরে কারখানার ১০ তলার ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নারী শ্রমিকের মৃত্যু

tab

সারাদেশ

বান্দরবানের রুমায় ‘কেএনএফ সদস্যের’ গুলিবিদ্ধ লাশ, আতঙ্কে স্থানীয়রা

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩

বান্দরবানের রুমা উপজেলা থেকে কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) একজন সদস্যের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ রোববার সকালে উপজেলার পাইন্দু ইউনিয়নের আর্থাপাড়া এলাকা থেকে কেএনএফের পোশাক পরা ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে তার নাম–পরিচয় জানা যায়নি।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্র জানায়, গত ৯ অক্টোবর থেকে জঙ্গি ও কেএনএফের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচালিত অভিযানে কয়েক দফা বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। সর্বশেষ গতকাল শনিবার পাইন্দু ইউনিয়নে বন্দুকযুদ্ধ হয়। এসব বন্দুকযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো কেএনএফ সদস্যের লাশ উদ্ধারের ঘটনা ঘটল।

এদিকে এসব ঘটনার কারণে আতঙ্কে ওই এলাকার বম ও মারমাদের পাঁচটি পাড়া থেকে লোকজন অন্যত্র চলে গেছে বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানিয়েছেন। এ পাড়াগুলো হলো পাইন্দু ইউনিয়নের হ্যাপিহিলপাড়া, বাসত্লাংপাড়া, আর্থাপাড়া, মুননুয়ামপাড়া ও মুয়ালপিপাড়া।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসাইন বলেন, আর্থাপাড়া ও বাসত্লাংপাড়া এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর টহল দলের ওপর গতকাল দুপুরে হামলা চালান কেএনএফ সদস্যরা। নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা গুলি ছুড়লে কেএনএফের সদস্যরা পালিয়ে যান। আজ সকাল থেকে সেখানে তল্লাশির একপর্যায়ে আর্থাপাড়া এলাকা থেকে কেএনএফের পোশাক পরা এক সদস্যের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশের পাশে একটি দোনলা কার্তুজ বন্দুক ও ৭০টি গুলি পাওয়া গেছে।

আর্থাপাড়া রুমা উপজেলা সদর থেকে ১২ কিলোমিটার দূরে পাইন্দু ইউনিয়নে অবস্থিত। পাইন্দু ইউনিয়ন পরিষদের একাধিক জনপ্রতিনিধি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, চার-পাঁচ দিন ধরে হ্যাপিহিলপাড়া, বাসত্লাংপাড়া, আর্থাপাড়া, মুননুয়ামপাড়া এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে কেএনএফের গোলাগুলি চলছিল। গতকাল দুপুরে বাসত্লাংপাড়া ও আর্থাপাড়া এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর একদল কেএনএফ সদস্য হামলা করেন। নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা গুলি ছুড়লে কেএনএফ সদস্যরা পালিয়ে যান। এ সময় গুলিতে একজন কেএনএফ সদস্য নিহত হন। গোলাগুলির ঘটনায় আতঙ্কে পাড়ার লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন।

নিরাপত্তা বাহিনীর বান্দরবান রিজিয়ন ও ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের সদর দপ্তর থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কেএনএফের অত্যাচার ও নির্যাতনে পাড়াগুলো থেকে বম ও মারমা বাসিন্দারা বাসস্থান ত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন। তাঁরা রুমা উপজেলা সদরের মারমা ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের ভবনে অবস্থান করছেন। আশ্রিত পরিবারগুলোকে সেনাবাহিনী খাবার, শীতবস্ত্র, চিকিৎসাসেবা ও প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র প্রদান করছে।

রুমা উপজেলা সদরের আট কিলোমিটার দূরের মুয়ালপিপাড়া থেকে মারমা ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনে আশ্রয় নেওয়া হ্লাথোয়াইচিং মারমা বলেন, তাঁরা মুয়ালপিপাড়ায় ৭১টি বম ও ৫১টি মারমা পরিবার একসঙ্গে বাস করেন। গতকাল থেকে পাড়ায় কেউ নেই। মারমারা উপজেলা সদরে এসেছে। বমরা কোথায় আশ্রয় নিয়েছে তা তাঁর জানা নেই।

মুয়ালপিপাড়ার একাধিক ব্যক্তি জানিয়েছেন, মুয়ালপিপাড়ায় এক মাস ধরে কেএনএফের একটি দল অবস্থান করছিল। এতে তাঁরাসহ আশপাশের পাড়াগুলোর বাসিন্দারাও আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। ভয়ে ও নানামুখী চাপে কোনো কাজও করতে পারেননি। এখন জুমচাষের জন্য জঙ্গল পরিষ্কার করতে না পারলে জুমচাষও করা সম্ভব হবে না। আর জুমচাষ করতে না পারলে আগামী কয়েক মাস পর অনাহারে থাকা ছাড়া উপায় থাকবে না।

রুমা ও রোয়াংছড়ি উপজেলার বম জনগোষ্ঠী–অধ্যুষিত দুর্গম এলাকাগুলোতে সশস্ত্র সংগঠন কেএনএফ ২০২০ সাল থেকে তৎপরতা শুরু করে। তাদের দাবি, তারা বম, ম্রো, পাংখুয়া, লুসাই, খেয়াং ও খুমিদের অধিকারের জন্য আন্দোলন করছে।

র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক খন্দকার আল মঈন ১২ জানুয়ারি এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কেএনএফ তাদের সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য ২০২১ সালে জঙ্গিগোষ্ঠী জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্কীয়ার সঙ্গে চুক্তি করে। তখন থেকে জঙ্গিগোষ্ঠীর অর্থায়নে কেএনএফ শক্তি বাড়াতে থাকে। বর্তমানে তাদের ১৫০ জনের মতো সদস্য রয়েছে। গত বছরের ৯ অক্টোবর থেকে জঙ্গি ও কেএনএফের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে। এ পর্যন্ত ১২ ও ১৪ জন কেএনএফ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

back to top