alt

সারাদেশ

বরেন্দ্র অঞ্চলের শিবনদী এখন আবাদি মাঠ

জেলা বার্তা পরিবেশক, রাজশাহী : রোববার, ১৯ মার্চ ২০২৩

রাজশাহীর তানোর-মোহনপুর উপজেলার সীমান্ত ঘেঁসে বয়ে চলেছে শিবনদী। নদীটি রাজশাহীর উত্তর-দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের জেলা নওগাঁ ও রাজশাহী জেলার একটি চিরচেনা নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য ৭১ কিলোমিটার। এর গড়প্রস্থ ৩৭ মিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক শিবনদীর প্রদত্ত পরিচিতি নম্বর ১০৬। নদীটির উৎস আত্রাই নদী আর মোহনা বারনই নদী হতে। বিলুপ্তপ্রায় এই নদীর নৌপথ দিয়ে একসময় তানোর, মোহনপুর, মান্দা ও নিয়ামতপুরসহ বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষের শহর-বন্দরে বাণিজ্যিক কাজে যাতায়াত করার একমাত্র অবলম্বন ছিল এই বারনই-শিব নদীর নৌপথ। কালের প্ররিক্রমায় আজ সেই নদীর ছল ছল যৌবনে পড়েছে ভাটা। বেশিভাগ অংশ ভরাট এবং দখল করে সেখানে চাষাবাদ হচ্ছে। ফলে নদী হারিয়েছে তার নিজস্ব রূপ।

শিবনদীর ওপর দিয়ে সারি সারি পাল তোলা নৌকা ও লঞ্চসহ বিভিন্ন নৌযান চলাচল করত। সেই সময়ের প্রাণচাঞ্চল্যে ভরা নৌঘাটগুলো এখন বিপন্ন। পানিশূন্যতায় সবগুলো নৌঘাট বন্ধ ও নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। সে দিনের যৌবন ভরা শিবনদীর বুকে দেখা মেলে না আর সারি সারি পালতোলা বড় বড় নৌকা ও লঞ্চ। সময়ের বিবর্তনে শিবনদী হারিয়েছে তার যৌবন। ভরাট হওয়া শিবনদীর বুকে কৃষকরা বোরো ধান চাষ করছে। ফলে বর্তমানে নদীর বুকে সবুজের সমাহার দেখা মিলছে।

মোহনপুর উপজেলার মেলান্দি গ্রামের মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি শুকুমার হালদার জানান, বর্তমান প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা শিবনদীর বর্তমান চেহারা দেখে ভাবতেই পারবে না যে, একসময় এই শিবনদীর ওপর দিয়ে পাল তোলা নৌকা ও লঞ্চসহ বিভিন্ন নৌযান চলাচল ছিল। ধীরে ধীরে নদী ভরাট হওয়ার কারণে নৌঘাটগুলো বন্ধ ও নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। তাই নেই আগের মত নদী পথে মানুষের বিচরণ। তিনি আরো বলেন, নদী ভরাটের ফলে স্থায়ী মৎস্যজীবীরা এখন তাদের নৌকা ভাসিয়ে আগের মতো মাছ ধরতে পারে না। যার জন্য মৎস্যজীবীদের বাপ-দাদার আদি পেশা ছেড়ে বাধ্য হয়ে জীবিকার সন্ধানে এ পেশা পরিবর্তন করছে অনেকে।

তানোর শিবনদী রক্ষা কমিটির সভাপতি কৃষক জাইদুর ইসলাম বলেন, শিবনদী একসময় খরস্রোতে নদী ছিল। আমরা নৌকায় যাতায়াত করতাম। শালুক, পদ্মসহ নানা প্রজাতির জলজ উদ্ভিদ যেমন ছিল তেমন ছিল বিভিন্ন প্রজাতের দেশিয় মাছ। বর্তমানে নদের নাব্য নেই। ফলে পানিও থাকে না। জেগে ওঠা নদের বুকে হচ্ছে বোরো ধানের চাষ। আর আগের দিনের সেই বাটক্যা, নয়না, দাঁড়ি, কাঁটাপাতাশি, গজাড় মাছও এখন দেখা যায় না। শিবনদীটি খনন খুবই প্রয়াজন।

এদিকে ‘পদ্মা নদী বাঁচলে, রাজশাহী বাঁচবে যদি নদী হয় শেষ, তবে মরুভূমি হবে বাংলাদেশ’ এ স্লোগানে অনুষ্ঠিত আন্তজর্তিক নদী কৃত্য দিবস উপলক্ষে গত মঙ্গলবার সকালে রাজশাহী নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন অনুষ্টিত হয়।

মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে বক্তারা বলেন, রাজশাহীতে গত কয়েক বছরের ব্যবধানে পদ্মা নদীতে ১৮ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে অবৈধভাবে বাঁধ দিয়ে নদীর প্রবাহ ধ্বংস করা হয়েছে। নদী দখল করে অসংখ্য অবৈধ স্থাপনাও গড়ে উঠেছে। এ কারণে পদ্মা নদী তার নিজস্ব অস্তিত্ব হারিয়েছে।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন রাজশাহী শাখার সভাপতি জামাত খান বলেন, পদ্মা নদীর অস্তিত্ব সংকটের কারণে এখন মরে গেছে এ অঞ্চলের অসংখ্য খাল-বিল, পুকুর-জলাশয়। এসব খাল-বিল দখল করে প্রভাবশালীরা রাতারাতি স্থাপনা তৈরি করে ক্রমের নদী ও খালবিলের অস্তিত্ব ধ্বংস করছে। অবিলম্বে নদী রক্ষাসহ এ অঞ্চলের খাল-বিল জলাশয় রক্ষা করতে হবে। একই সঙ্গে ভূ-উপরিস্থ পানির ব্যবহার নিশ্চিতে অবিলম্বে প্রস্তাবিত উত্তর রাজশাহী সেচ প্রকল্প বাস্তবায়নেরও দাবি জানান তিনি।

জামাত খান আরও বলেন, শুধু রাজশাহীর পদ্মা নয়, প্রভাবশালীদের লোভের থাবায় এখন নিষ্পেশিত উত্তরাঞ্চলের অসংখ্য নদ-নদী ও খাল বিল। পদ্মাসহ এসব খাল-বিল সংস্কার করে অবিলম্বে স্বাভাবিক পানি প্রবাহ নিশ্চিতের দাবি জানান তিনি। একই সঙ্গে পদ্মা নদী ক্যাপিটাল ডেজিং করে নৌবন্দর চালুর দাবি জানান জামাত খান।

জামাত খানের সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন বাপার রাজশাহী শাখার উপদেষ্টা লিয়াকত আলী, সিনিয়র সাংবাদিক আকবারুল হাসান মিলাত, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবদুল মান্নান, বাপার রাজশাহী জেলা কমিটির সহসভাপতি দেবাশিষ প্রামাণিক দেবু, মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ড. হেমায়েতুল ইসলাম আরিফ, এনামুল হক, নারী নেত্রী সেলিনা খাতুন, রাজশাহী ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের সহসভাপতি সফিকুর রহমান রিপন, আসক ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আইয়ূব আলী প্রমুখ।

তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পঙ্কজ চন্দ্র দেবনাথ জানান, শিবনদী খননের ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দুষণ ও দখলমুক্ত করে রাজশাহীর পদ্মা নদীতে ক্যাপিটাল ডেজিং করে নদী রক্ষা ও নৌবন্দর চালুর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপা’র রাজশাহী কমিটির নেতৃবৃন্দ।

ছবি

টাঙ্গাইলে প্রাইভেটকার-মাহিন্দ্রার সংঘর্ষে নিহত ২

ছবি

সিলেটে কমছে বন্যার পানি

ছবি

কক্সবাজারে পাহাড় ধসে প্রাণ গেল স্বামী ও অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর

ছবি

বন্যা সিলেটে কমেছে, বাড়ছে রংপুরে

কক্সবাজারে ‘আশানুরূপ’ পর্যটক সমাগম

ছবি

সুনামগঞ্জে বন্যার পানি কমলেও কমেনি দূর্ভোগ।

ছবি

হাইমচরে মেঘনার ভাঙনে দিশেহারা জালিয়ারচরবাসী

জামালপুরে সড়ক ভবনে দরপত্র ছিনতাই, কর্মকর্তা লাঞ্চিত

ছবি

বৃষ্টিপাত ও পাহাড় ধসে ৩৩টি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১২০০ বসতঘর ক্ষতিগ্রস্ত

ছবি

টেকনাফে বন‍্যার পানি নামতে শুরু করেছে, ফুটে উঠছে ক্ষতের চিহ্ন

ছবি

কক্সবাজারে ঈদের শেষভাগে পর্যটকের উপস্থিতি : ব্যবসায় চাঙ্গাভাব

ছবি

নেত্রকোণায় ২০০ বস্তা চিনিসহ ভারতীয় ট্রাক জব্দ

ছবি

যাদুকাটায় নির্মাণাধীন সেতু, ড্রেজার-ট্রলারের ধাক্কায় কাজ ক্ষতিগ্রস্ত

ছবি

সিলেটে বন্যার পানি দেখতে গিয়ে নৌকাডুবে যুবকের মৃত্যু

ছবি

মৃত হজযাত্রীর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৯০০, নিখোঁজ অনেকে

ছবি

পদ্মার চরাঞ্চলে রাসেলস ভাইপারের আতঙ্ক

ছবি

উত্তর-পূর্বাঞ্চলের পাঁচ জেলা প্লাবিত

ছবি

বন্যায় ভাসছে সিলেট

ছবি

সুনামগঞ্জে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত , ত্রানের জন্য হাহাকার

নরসিংদীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ২০

ছবি

সুনামগঞ্জের বন্যা কবলিত মানুষের বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট

বাগেরহাটে বজ্রপাতে ২ জন ও বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে ১ জন নিহত

সরিষাবাড়ীতে সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে নারী নিহত

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে হেডফোনে কথা বলার সময় ট্রেনের ধাক্কায় নারীর মৃত্যু

ছবি

সমুদ্র সৈকত থেকে ৬০ রোহিঙ্গা আটক, বাস চালকদের জরিমানা

ছবি

জনপ্রতিনিধিদের দুষলেন ওবায়দুল কাদের

ছবি

মোটরসাইকেলে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো দুজনের

ছবি

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড় ধসে ১০জনের মৃত্যু

ছবি

সিলেটে পানিবন্দি ৪ লাখের ৪ হাজার গেছেন আশ্রয়কেন্দ্রে

ঢাকা-মহাসড়কে প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহী তরুণ ও কিশোরীর

ডুবছে সুনামগঞ্জ, মানুষের দূর্ভোগ বাড়ছে

ছবি

বন্যার কারণে সিলেটের সব পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা

ছবি

সেন্টমার্টিনে আবারও খাদ্য সঙ্কট

ছবি

সুনামগঞ্জে ঈদের আনন্দ মলিন হয়ে গেছে আকস্মিক বন্যায়

ঈশ্বরগঞ্জে ঈদ আনন্দ উপভোগ করা হলনা চাচা ভাতিজার

সখীপুরে গৃহবধূ নিখোঁজের পর পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার

tab

সারাদেশ

বরেন্দ্র অঞ্চলের শিবনদী এখন আবাদি মাঠ

জেলা বার্তা পরিবেশক, রাজশাহী

রোববার, ১৯ মার্চ ২০২৩

রাজশাহীর তানোর-মোহনপুর উপজেলার সীমান্ত ঘেঁসে বয়ে চলেছে শিবনদী। নদীটি রাজশাহীর উত্তর-দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের জেলা নওগাঁ ও রাজশাহী জেলার একটি চিরচেনা নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য ৭১ কিলোমিটার। এর গড়প্রস্থ ৩৭ মিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক শিবনদীর প্রদত্ত পরিচিতি নম্বর ১০৬। নদীটির উৎস আত্রাই নদী আর মোহনা বারনই নদী হতে। বিলুপ্তপ্রায় এই নদীর নৌপথ দিয়ে একসময় তানোর, মোহনপুর, মান্দা ও নিয়ামতপুরসহ বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষের শহর-বন্দরে বাণিজ্যিক কাজে যাতায়াত করার একমাত্র অবলম্বন ছিল এই বারনই-শিব নদীর নৌপথ। কালের প্ররিক্রমায় আজ সেই নদীর ছল ছল যৌবনে পড়েছে ভাটা। বেশিভাগ অংশ ভরাট এবং দখল করে সেখানে চাষাবাদ হচ্ছে। ফলে নদী হারিয়েছে তার নিজস্ব রূপ।

শিবনদীর ওপর দিয়ে সারি সারি পাল তোলা নৌকা ও লঞ্চসহ বিভিন্ন নৌযান চলাচল করত। সেই সময়ের প্রাণচাঞ্চল্যে ভরা নৌঘাটগুলো এখন বিপন্ন। পানিশূন্যতায় সবগুলো নৌঘাট বন্ধ ও নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। সে দিনের যৌবন ভরা শিবনদীর বুকে দেখা মেলে না আর সারি সারি পালতোলা বড় বড় নৌকা ও লঞ্চ। সময়ের বিবর্তনে শিবনদী হারিয়েছে তার যৌবন। ভরাট হওয়া শিবনদীর বুকে কৃষকরা বোরো ধান চাষ করছে। ফলে বর্তমানে নদীর বুকে সবুজের সমাহার দেখা মিলছে।

মোহনপুর উপজেলার মেলান্দি গ্রামের মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি শুকুমার হালদার জানান, বর্তমান প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা শিবনদীর বর্তমান চেহারা দেখে ভাবতেই পারবে না যে, একসময় এই শিবনদীর ওপর দিয়ে পাল তোলা নৌকা ও লঞ্চসহ বিভিন্ন নৌযান চলাচল ছিল। ধীরে ধীরে নদী ভরাট হওয়ার কারণে নৌঘাটগুলো বন্ধ ও নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। তাই নেই আগের মত নদী পথে মানুষের বিচরণ। তিনি আরো বলেন, নদী ভরাটের ফলে স্থায়ী মৎস্যজীবীরা এখন তাদের নৌকা ভাসিয়ে আগের মতো মাছ ধরতে পারে না। যার জন্য মৎস্যজীবীদের বাপ-দাদার আদি পেশা ছেড়ে বাধ্য হয়ে জীবিকার সন্ধানে এ পেশা পরিবর্তন করছে অনেকে।

তানোর শিবনদী রক্ষা কমিটির সভাপতি কৃষক জাইদুর ইসলাম বলেন, শিবনদী একসময় খরস্রোতে নদী ছিল। আমরা নৌকায় যাতায়াত করতাম। শালুক, পদ্মসহ নানা প্রজাতির জলজ উদ্ভিদ যেমন ছিল তেমন ছিল বিভিন্ন প্রজাতের দেশিয় মাছ। বর্তমানে নদের নাব্য নেই। ফলে পানিও থাকে না। জেগে ওঠা নদের বুকে হচ্ছে বোরো ধানের চাষ। আর আগের দিনের সেই বাটক্যা, নয়না, দাঁড়ি, কাঁটাপাতাশি, গজাড় মাছও এখন দেখা যায় না। শিবনদীটি খনন খুবই প্রয়াজন।

এদিকে ‘পদ্মা নদী বাঁচলে, রাজশাহী বাঁচবে যদি নদী হয় শেষ, তবে মরুভূমি হবে বাংলাদেশ’ এ স্লোগানে অনুষ্ঠিত আন্তজর্তিক নদী কৃত্য দিবস উপলক্ষে গত মঙ্গলবার সকালে রাজশাহী নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন অনুষ্টিত হয়।

মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে বক্তারা বলেন, রাজশাহীতে গত কয়েক বছরের ব্যবধানে পদ্মা নদীতে ১৮ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে অবৈধভাবে বাঁধ দিয়ে নদীর প্রবাহ ধ্বংস করা হয়েছে। নদী দখল করে অসংখ্য অবৈধ স্থাপনাও গড়ে উঠেছে। এ কারণে পদ্মা নদী তার নিজস্ব অস্তিত্ব হারিয়েছে।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন রাজশাহী শাখার সভাপতি জামাত খান বলেন, পদ্মা নদীর অস্তিত্ব সংকটের কারণে এখন মরে গেছে এ অঞ্চলের অসংখ্য খাল-বিল, পুকুর-জলাশয়। এসব খাল-বিল দখল করে প্রভাবশালীরা রাতারাতি স্থাপনা তৈরি করে ক্রমের নদী ও খালবিলের অস্তিত্ব ধ্বংস করছে। অবিলম্বে নদী রক্ষাসহ এ অঞ্চলের খাল-বিল জলাশয় রক্ষা করতে হবে। একই সঙ্গে ভূ-উপরিস্থ পানির ব্যবহার নিশ্চিতে অবিলম্বে প্রস্তাবিত উত্তর রাজশাহী সেচ প্রকল্প বাস্তবায়নেরও দাবি জানান তিনি।

জামাত খান আরও বলেন, শুধু রাজশাহীর পদ্মা নয়, প্রভাবশালীদের লোভের থাবায় এখন নিষ্পেশিত উত্তরাঞ্চলের অসংখ্য নদ-নদী ও খাল বিল। পদ্মাসহ এসব খাল-বিল সংস্কার করে অবিলম্বে স্বাভাবিক পানি প্রবাহ নিশ্চিতের দাবি জানান তিনি। একই সঙ্গে পদ্মা নদী ক্যাপিটাল ডেজিং করে নৌবন্দর চালুর দাবি জানান জামাত খান।

জামাত খানের সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন বাপার রাজশাহী শাখার উপদেষ্টা লিয়াকত আলী, সিনিয়র সাংবাদিক আকবারুল হাসান মিলাত, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবদুল মান্নান, বাপার রাজশাহী জেলা কমিটির সহসভাপতি দেবাশিষ প্রামাণিক দেবু, মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ড. হেমায়েতুল ইসলাম আরিফ, এনামুল হক, নারী নেত্রী সেলিনা খাতুন, রাজশাহী ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের সহসভাপতি সফিকুর রহমান রিপন, আসক ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আইয়ূব আলী প্রমুখ।

তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পঙ্কজ চন্দ্র দেবনাথ জানান, শিবনদী খননের ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দুষণ ও দখলমুক্ত করে রাজশাহীর পদ্মা নদীতে ক্যাপিটাল ডেজিং করে নদী রক্ষা ও নৌবন্দর চালুর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপা’র রাজশাহী কমিটির নেতৃবৃন্দ।

back to top