alt

সারাদেশ

তীব্র তাপপ্রবাহে পুড়ছে দেশের উত্তরাঞ্চল, ৬৫ বছর পর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা

বগুড়া প্রতিনিধি : বুধবার, ০৭ জুন ২০২৩

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে পাল্টে যাচ্ছে উত্তরাঞ্চলের আবহাওয়া। তীব্র তাপ প্রবাহে পুড়ছে এ জনপদ। নাভিশ্বাস উঠেছে সাধারণ মানুষের। দীর্ঘ ৬৫ বছর পর এবার বর্ষা মৌসুমে তাপমাত্রার রেকর্ড ভেঙ্গে ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস পার হয়েছে। তবে এমন আবহাওয়া আরো এক সপ্তাহ চলতে পারে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

তীব্র গরমে অসহনীয় অবস্থা চলছে গত কয়েকদিন ধরে। দিনে গরম, রাতেও অসহ্য গরম। জুন থেকে বর্ষা মৌসুম শুরু হলেও এখনো বৃষ্টির ফোঁটা পড়েনি। দিনে যেন আগুনের হলকা বইছে। আর রাতের তাপমাত্রা ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গরমে নাজেহাল সব বয়সী মানুষ। অস্থির হয়ে উঠেছে জনজীবন। ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা প্রাণিকুলেরও। কোথাও স্বস্থি নেই। বগুড়া আবহাওয়া অফিস সহকারি আবহাওয়াবিদ মোঃ আব্দুল হান্নান জানান, তাপমাত্রা আরো কয়েকদিন বাড়তে পারে।

১৯৫৮ সালের জুনে দেশের উত্তরাঞ্চলের দিনাজপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রবিবার সেখানকার তাপমাত্রা ছিল ৪১ দশমিক ১ডিগ্রী সেলসিযাস। চলতি বছরের এপ্রিলে ঈশ্বরদীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠেছে ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তীব্র দাবদাহে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে জনজীবন। দিনের মধ্যভাগে তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যাচ্ছে। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। বাতাসে আর্দ্রতা বেশি থাকার কারণে গরম হয়ে উঠেছে অসহনীয়। সেই সঙ্গে বিদ্যুতের ঘনঘন লোডিশেডিংয়ে ভোগান্তির মাত্রা আরো বেড়ে গেছে। এপ্রিল মাস থেকেই বগুড়াসহ উত্তরাঞ্চলের আবহাওয়া বেশ উত্তপ্ত। তীব্র দাবদাহে কর্মজীবী মানুষের নাভিশ^াস উঠেছে। জুুনের প্রথম সপ্তাহে তাপপ্রবাহ যেমন বেড়েছে তেমনি বেড়েছে বাতাসের আদ্রতা। গরমের কারণে কেউ কেউ পুকুর ও নদীর পানিতে নেমে বাঁচার চেষ্টা করছেন। আবার কেউ কেউ ছায়াযুক্ত গাছের নীচে আশ্রয় নিচ্ছেন। তীব্র গরম ও ঘনঘন লোডশেডিংএ ব্যাহত হচ্ছে লেখাপড়া, ব্যবসা, চিকিৎসাসহ স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। একদিকে তীব্র গরম আর অন্যদিকে বিদ্যুতের ঘনঘন লোডশেডিংয়ের কারণে শহরের বাসিন্দা, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী ও হাসপাতালে চিকিৎসারত রোগীদের জীবন দূর্বিসহ হয়ে পড়েছে।

সোনাতলা উপজেলা থেকে বগুড়া শহরে এসেছেন আজিজ নামের এক মধ্য বয়সী রিক্সা চালক। তার সঙ্গে আলাপচারিতায় তিনি জানান, রিক্সা চালানো যাচ্ছে না। দুই এক টিপ মারলেই বিশ্রাম নিতে হচ্ছে। এতে সারাদিন রিক্সা চালিয়ে জমার টাকা দিয়ে হাতে তেমন কিছুই থাকছে না। এতে সংসার চালানো কষ্ট হচ্ছে। হকার্স মার্কেটের দোকানদার মিনহাজ¦ জানালেন, আগে ৮/১০ হাজার টাকা বেচা-কেনা হত। এখন দুই হাজার টাকা বেচা কষ্ট হচ্ছে। তীব্র্র গরমে ও প্রখর রোদের কারণে মার্কেটে লোকজন কম আসছে। বগুড়া নিউজ মার্কেটের বোরকা হাউজের মালিক সাজেদুর রহমান সিজু জানালেন, আগে ভালই বেচা-কেনা হচ্ছিল। এখন বেচা কেনা নাই বললে চলে। সারাদিন ২/৩ গ্রাহক আসছে। এতে দোকান খরচই হচ্ছে না। এ অবস্থা থাকলে দোকান বন্ধ করে দেয়া ছাড়া উপায় থাকবে না।

ফল ব্যবসী হাসান জানালেন, আগে ভারে আম বিক্রি করে ভালই চলতো। এখন এখন সারাদিন ১০/১৫ কেজি আম বিক্রি করা যাচ্ছে না। এঅবস্থা থাকলে আমাদের তো না খেয়ে মরতে হবে। প্রচন্ড রোদ ও দাবদাহে ব্যবসায়ীরা এমনিতেই নাজেহালের মধ্যে রয়েছেন এর উপরের বিদ্যুতের ঘন ঘন লোডশেডিং তা আরো বাড়িয়ে তুলেছেন। এ অবস্থায় ব্যবসা টিকিয়ে রাখা কঠিন হয়ে পড়েছে।

ছবি

টাঙ্গাইলে কোটা সংস্কার আন্দোলনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

ছবি

কোটা সংস্কার আন্দোলনে কুমিল্লায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, আহত ২০

ছবি

আবারও বেপরোয়া সার্ভেয়ার বাকের ও হাসান সিন্ডিকেট ঘুষ ছাড়া ফাইল নড়ে না কক্সবাজার এলএ শাখায়

ছবি

রামু থেকে অস্ত্র ও গুলি নিয়ে সন্ত্রাসী আটক

ছবি

কক্সবাজারে ক্ষমতাসীনদের হামলায় ৫ সংবাদকর্মী আহত

ছবি

নিখোঁজের দুই দিন পর পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার

ছবি

টেকনাফ সমুদ্র উপকূলে পালিয়ে এলো ৫ রোহিঙ্গা

ছবি

টেকনাফগামী ট্রলারে মায়ানমারের গুলি

ছবি

কোটা আন্দোলন: রংপুরে সংঘর্ষ ও মৃত্যুর তদন্তে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন

ছবি

শেখ হাসিনা ও মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্বে কুরুচিপূর্ন বক্তব্য দেওয়ায় গজারিয়ায় মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিবাদ সভা

ছবি

নারীর প্রতি সকল প্রকার সহিংসতার প্রতিবাদে ও বিচারের দাবিতে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের না’গঞ্জে মানববন্ধন

ছবি

কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের দাফন সম্পন্ন

ছবি

রামুতে মাদকসেবী ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

সারাদেশে স্কুল, কলেজ অনিদিষ্টকাল বন্ধ ঘোষণা

ছবি

কোটা সংস্কার আন্দোলন : কক্সবাজারে সংঘর্ষ, পাল্টাপাল্টি ধাওয়া

ছবি

চীন বা ভারত নয়, নিজস্ব অর্থায়নে তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের দাবী

ছবি

মায়ানমারে চলছে বোমা হামলা সীমান্তে এতো কড়াকড়িতেও রোহিঙ্গার অনুপ্রবেশ

ছবি

"গাইবান্ধায় বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে ধাক্কা লেগে ২ বাইক আরোহী নিহত"

ছবি

বরিশালে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

ছবি

গুলি আর মর্টারশেলের শব্দে ফের কেঁপে উঠল টেকনাফ সীমান্ত

ছবি

কক্সবাজার পৌরসভার উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করলেন জাইকার প্রতিনিধি দল

ছবি

রাখাইনে সংঘর্ষের তীব্রতা বেড়েছে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ২ ট্রলার

ছবি

রাত হলেই বাঁশখালীর ৫ স্পট থেকে পাচার হয় কোটি টাকার মাছ

সিলেট সীমান্তে খাসিয়াদের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত

ছবি

লাফার্জ হোলসিমের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা পরিদর্শণ করেছে নারায়নগঞ্জ সিটি করপোরেশন কর্মকর্তারা

ছবি

হামলার শিকার কোন কোন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও প্রেসিডেন্ট প্রার্থী

ছবি

জামালপুরে ডোবায় ডুবে চার নারীর মৃত্যু

ছবি

সাটুরিয়া ৫০ শয্যা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবন আছে, চিকিৎসক নেই সরঞ্জাম আছে টেকনিশিয়ান নেই

ছবি

মাদকের আগ্রাসন রোধে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে

ছবি

চট্টগ্রামে ৭ টন মাছ জব্দ, গ্রেপ্তার ১৫

ছবি

টেকনাফে ৮০ হাজার ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারি আটক

ছবি

মুন্সীগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ২৫ ঘরবাড়ি ভাঙচুর

ছবি

লালমনিরহাটে বিসিএস প্রশ্নফাঁসে জড়িত আ’লীগ নেতা বহিষ্কার

ছবি

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গোলাগুলি, পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ

ছবি

মায়ানমার থেকে যুদ্ধফেরত আরসা সদস্য গ্রেপ্তার, দুটি রাইফেল ও ৫০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার

ছবি

বরিশালে কাঁচা মরিচ ৪০০ টাকা কেজি

tab

সারাদেশ

তীব্র তাপপ্রবাহে পুড়ছে দেশের উত্তরাঞ্চল, ৬৫ বছর পর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা

বগুড়া প্রতিনিধি

বুধবার, ০৭ জুন ২০২৩

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে পাল্টে যাচ্ছে উত্তরাঞ্চলের আবহাওয়া। তীব্র তাপ প্রবাহে পুড়ছে এ জনপদ। নাভিশ্বাস উঠেছে সাধারণ মানুষের। দীর্ঘ ৬৫ বছর পর এবার বর্ষা মৌসুমে তাপমাত্রার রেকর্ড ভেঙ্গে ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস পার হয়েছে। তবে এমন আবহাওয়া আরো এক সপ্তাহ চলতে পারে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

তীব্র গরমে অসহনীয় অবস্থা চলছে গত কয়েকদিন ধরে। দিনে গরম, রাতেও অসহ্য গরম। জুন থেকে বর্ষা মৌসুম শুরু হলেও এখনো বৃষ্টির ফোঁটা পড়েনি। দিনে যেন আগুনের হলকা বইছে। আর রাতের তাপমাত্রা ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গরমে নাজেহাল সব বয়সী মানুষ। অস্থির হয়ে উঠেছে জনজীবন। ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা প্রাণিকুলেরও। কোথাও স্বস্থি নেই। বগুড়া আবহাওয়া অফিস সহকারি আবহাওয়াবিদ মোঃ আব্দুল হান্নান জানান, তাপমাত্রা আরো কয়েকদিন বাড়তে পারে।

১৯৫৮ সালের জুনে দেশের উত্তরাঞ্চলের দিনাজপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রবিবার সেখানকার তাপমাত্রা ছিল ৪১ দশমিক ১ডিগ্রী সেলসিযাস। চলতি বছরের এপ্রিলে ঈশ্বরদীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠেছে ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তীব্র দাবদাহে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে জনজীবন। দিনের মধ্যভাগে তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যাচ্ছে। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। বাতাসে আর্দ্রতা বেশি থাকার কারণে গরম হয়ে উঠেছে অসহনীয়। সেই সঙ্গে বিদ্যুতের ঘনঘন লোডিশেডিংয়ে ভোগান্তির মাত্রা আরো বেড়ে গেছে। এপ্রিল মাস থেকেই বগুড়াসহ উত্তরাঞ্চলের আবহাওয়া বেশ উত্তপ্ত। তীব্র দাবদাহে কর্মজীবী মানুষের নাভিশ^াস উঠেছে। জুুনের প্রথম সপ্তাহে তাপপ্রবাহ যেমন বেড়েছে তেমনি বেড়েছে বাতাসের আদ্রতা। গরমের কারণে কেউ কেউ পুকুর ও নদীর পানিতে নেমে বাঁচার চেষ্টা করছেন। আবার কেউ কেউ ছায়াযুক্ত গাছের নীচে আশ্রয় নিচ্ছেন। তীব্র গরম ও ঘনঘন লোডশেডিংএ ব্যাহত হচ্ছে লেখাপড়া, ব্যবসা, চিকিৎসাসহ স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। একদিকে তীব্র গরম আর অন্যদিকে বিদ্যুতের ঘনঘন লোডশেডিংয়ের কারণে শহরের বাসিন্দা, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী ও হাসপাতালে চিকিৎসারত রোগীদের জীবন দূর্বিসহ হয়ে পড়েছে।

সোনাতলা উপজেলা থেকে বগুড়া শহরে এসেছেন আজিজ নামের এক মধ্য বয়সী রিক্সা চালক। তার সঙ্গে আলাপচারিতায় তিনি জানান, রিক্সা চালানো যাচ্ছে না। দুই এক টিপ মারলেই বিশ্রাম নিতে হচ্ছে। এতে সারাদিন রিক্সা চালিয়ে জমার টাকা দিয়ে হাতে তেমন কিছুই থাকছে না। এতে সংসার চালানো কষ্ট হচ্ছে। হকার্স মার্কেটের দোকানদার মিনহাজ¦ জানালেন, আগে ৮/১০ হাজার টাকা বেচা-কেনা হত। এখন দুই হাজার টাকা বেচা কষ্ট হচ্ছে। তীব্র্র গরমে ও প্রখর রোদের কারণে মার্কেটে লোকজন কম আসছে। বগুড়া নিউজ মার্কেটের বোরকা হাউজের মালিক সাজেদুর রহমান সিজু জানালেন, আগে ভালই বেচা-কেনা হচ্ছিল। এখন বেচা কেনা নাই বললে চলে। সারাদিন ২/৩ গ্রাহক আসছে। এতে দোকান খরচই হচ্ছে না। এ অবস্থা থাকলে দোকান বন্ধ করে দেয়া ছাড়া উপায় থাকবে না।

ফল ব্যবসী হাসান জানালেন, আগে ভারে আম বিক্রি করে ভালই চলতো। এখন এখন সারাদিন ১০/১৫ কেজি আম বিক্রি করা যাচ্ছে না। এঅবস্থা থাকলে আমাদের তো না খেয়ে মরতে হবে। প্রচন্ড রোদ ও দাবদাহে ব্যবসায়ীরা এমনিতেই নাজেহালের মধ্যে রয়েছেন এর উপরের বিদ্যুতের ঘন ঘন লোডশেডিং তা আরো বাড়িয়ে তুলেছেন। এ অবস্থায় ব্যবসা টিকিয়ে রাখা কঠিন হয়ে পড়েছে।

back to top