alt

অর্থ-বাণিজ্য

বেশি দামে ডলার বেচায় ১০ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নির্ধারিত দরের চেয়ে বেশি দামে ১০ ব্যাংকের ডলার কেনাবেচার প্রমাণ পেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। যে কারণে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা অমান্য করায় এগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে ‘কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না’ তা জানতে চেয়ে ব্যাংকগুলোকে গত মঙ্গলবার চিঠি দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মেজবাউল হক।

তিনি বলেছেন, ‘তদন্ত শেষে তাদের বিরুদ্ধে ব্যাংক কোম্পানি আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার পদক্ষেপ গ্রহণ শুরু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।’ তবে তিনি ব্যাংকগুলোর নাম প্রকাশ করেননি।

এ তালিকায় দেশি-বিদেশি ও রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংক রয়েছে। এর আগে গত জুলাইতে ১৩টি ব্যাংকের বিরুদ্ধে ডলার দর নিয়ে কারসাজির অভিযোগ পেয়ে অধিকতর তদন্তে নেমেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সেগুলোর মধ্যে ১০টির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।

ওই সময় ডলারের দর বেশি রাখা হচ্ছে এমন অভিযোগের পর তা ঠেকাতে শক্ত অবস্থান নেয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার। এরপর তদন্তে নামেন একাধিক কর্মকর্তা।

একই অভিযোগে ২০২২ সালের অগাস্টে অতিরিক্ত দরে ডলার কেনাবেচায় দেশি বিদেশি ছয় ব্যাংকের ট্রেজারি বিভাগের প্রধানকে অপসরাণ করেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ওই সময়ে ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক, সাউথ ইস্ট ব্যাংক ও স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাংকের নাম এসেছিল সংবাদ মাধ্যমে।

সেই সময় ব্যাংকগুলোর কাছ থেকে কৈফিয়ত চেয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে আইনি সীমাবদ্ধতার কারণে সেগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে এক মাস পরে ট্রেজারি প্রধানদের পুনর্বহালের সুযোগ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।

তখন ব্যাংকগুলোকে অতিরিক্ত দরে ডলার বিক্রি থেকে প্রাপ্ত মুনাফার অর্ধেক সিএসআর তহবিলে স্থানান্তরের নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। কারণ ছাড়া ডলারের দর না বাড়াতে লিখিতও নেয়া হয়।

আন্তর্জাতিক ?মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) এর পরামর্শে একাধিক দরের বদলে প্রধান বৈদেশিক মুদ্রা ডলারের বিনিময় হার একক দরে নামিয়ে আনতে কাজ করছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এজন্য গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে পরামর্শ করে ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলারস অ্যাসোসিয়েশন (বাফেদা) এবং ব্যাংক নির্বাহীদের সংগঠন (এবিবি) ডলারের দর নির্ধারণ করে ব্যাংকগুলোকে জানিয়ে দিচ্ছে। সদস্য ব্যাংকগুলোকে প্রতিদিন সকালে এ দর জানিয়ে দেয়া হচ্ছে। এ দরেই কেনাবেচার সিদ্ধান্ত দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নীতিমালা অনুযায়ী, কোন ব্যাংক কী পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সংরক্ষণ করতে পারবে, তার একটি সীমাও (এনওপি-নেট ওপেন পজিশন) নির্ধারণ করে দেয়া আছে। আগে ব্যাংকের রেগুলেটরি ক্যাপিটালের ২০ শতাংশ পর্যন্ত বৈদেশিক মুদ্রা সংরক্ষণ করার সুযোগ ছিল। ডলার বাজারের অস্থিরতা কমাতে ২০২২ সালের ১৫ জুলাই তা কমিয়ে ১৫ শতাংশে নামিয়ে আনে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এ সীমার বেশি ডলার হাতে থাকলে তা কেন্দ্রীয় ব্যাংক বা অন্য কোন ব্যাংকের কাছে বিক্রি করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে ব্যাংকগুলোর। তবে তদন্তে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা দেখেছেন, ডলারের সরবরাহ সংকট শুরু হলে অনেক ব্যাংক ব্যাংক সীমার অতিরিক্ত মুদ্রা জমিয়ে তা বেশি দামে বিক্রি করে অতিরিক্ত মুনাফা শুরু করে। সুযোগ থাকলেও তা বাজারে না ছেড়ে কৃত্রিমভাবে দর বাড়ানো হয়। আবার কয়েকটি ব্যাংক ডলার সংরক্ষণের তথ্যও গোপন করেছিল আগেরবার। আর এই ১০ ব্যাংক বাফেদা ও এবিবির র্নিধারণ করে দেয়া দরের চেয়ে বেশি দামে ডলার কেনাবেচা করেছে।

নতুন মুদ্রানীতি: নীতি সুদহার অপরিবর্তিত রেখেছে বাংলাদেশ ব্যাংক

ছবি

মতিঝিলে পুলিশ-শিক্ষার্থী সংঘর্ষ চলছে

ছবি

সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সে ‘অচলাবস্থা’, ব্যবসা ‘কমেছে ৫০ শতাংশ’, সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

ছবি

বাজারে আসছে নতুন স্মার্টফোন এআই পোট্রেইট মাস্টার অনার ২০০ এবং ২০০ প্রো

ছবি

মোবাইল গেমিংয়ে ৩০ লাখ টাকা জিতলেন গেমাররা

ছবি

৪০০ কোটি টাকার’ পিয়ন জাহাঙ্গীরের ব্যাংক হিসাব জব্দ

ছবি

টানা দশমবার “জাতীয় রপ্তানি ট্রফি”অর্জন করল সার্ভিস ইঞ্জিন লিমিটেড

ছবি

শুরুতেই শেয়ারবাজারে বড় দরপতন

ছবি

তথ্যের অভাব, সংস্কারে গড়িমসি, বড় বিপদে পড়বে অর্থনীতি : আহসান মনসুর

ছবি

বাজার মূলধন কমলো সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা

ছবি

বাংলালিংকে আনলিমিটেড ইন্টারনেট ও ফ্রি ওটিটি সাবস্ক্রিপশন

ছবি

ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো ফোনের দাম কমলো

ছবি

দেশের ৬৪টি জেলায় ই-কমার্স ডেলিভারি দিচ্ছে পাঠাও কুরিয়ার

ছবি

বাংলাদেশের বাজারে এআই ফিচার সমৃদ্ধ অপোর রেনো১২ সিরিজ

ছবি

ঢাকা-নেপাল রুটে বাস চালুর পরিকল্পনা বিআরটিসির

ছবি

‘আকাশ গো’ কম্প্যানিয়ন অ্যাপ নিয়ে এলো আকাশ ডিজিটাল টিভি

ছবি

মাদানী হসপিটালে বৃহৎপরিসরে ইনডোর সেবা উদ্বোধন

ছবি

মেহেরপুরে অবৈধ সিগারেট জব্দ, ৫ জনকে জরিমানা

ছবি

১৬ জুলাইয়ের মধ্যে ভিভো ওয়াই২৮ কিনলে সাথে ফ্রি উপহার

ছবি

মাসে দুই কোটি সক্রিয় গ্রাহকের মাইলফলক অর্জন করলো মাইজিপি

ছবি

ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির ৪০ শিক্ষার্থীর হাতে অভিভাবক মৃত্যু বীমার চেক হস্তান্তর

ছবি

হুয়াওয়ের সঙ্গে নগদের চুক্তি

ছবি

ফোর্বস এর প্রচ্ছদে রিয়েলমি’র সিইও স্কাই লি

ছবি

শীঘ্রই বাংলাদেশের বাস্তায় নামছে বিওয়াইডি সিল

ছবি

এফবিসিসিআইআই আইআরসি এর আয়োজনে এক্সটেন্ডেড প্রসিডিউর রেসপনসিবিলিটি বিষয়ক সেমিনার

ছবি

মিউজ ডিজাইন অ্যাওয়ার্ডে প্লাটিনাম জিতলো টেকনো ক্যামন ৩০ সিরিজ

ছবি

বাজারে ভিভো’র ওয়াই সিরিজের নতুন স্মার্টফোন ওয়াই২৮

ছবি

নতুন অর্থবছরে ঢাকা উত্তরের সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকার বাজেট

ছবি

এক সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম কেজিতে বাড়ল ৩০ টাকা

প্লাস্টিক রিসাইক্লিং খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে

ছবি

রপ্তানিতে প্রণোদনা কমানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার চায় বিটিএমএ

ছবি

কাঁচা মরিচের ঝালের সঙ্গে বাড়ছে পেঁয়াজের ঝাঁঝও

ছবি

একটি ফলই ঘুরিয়ে দিয়েছে রাজশাহী অঞ্চলের অর্থনীতির মোড়

ছবি

আগামী সপ্তাহে দেশের বাজারে আসছে ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই৪ লাইট ফাইভজি

ছবি

দেশের বাজারে মনস্টার ‘এম’ সিরিজের নতুন স্মার্টফোন স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৪ এলটিই

ছবি

মানাবে ওয়াটার পার্কে যাতায়াতে উবার যাত্রীদের জন্য বিশেষ ছাড়

tab

অর্থ-বাণিজ্য

বেশি দামে ডলার বেচায় ১০ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নির্ধারিত দরের চেয়ে বেশি দামে ১০ ব্যাংকের ডলার কেনাবেচার প্রমাণ পেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। যে কারণে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা অমান্য করায় এগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে ‘কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না’ তা জানতে চেয়ে ব্যাংকগুলোকে গত মঙ্গলবার চিঠি দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মেজবাউল হক।

তিনি বলেছেন, ‘তদন্ত শেষে তাদের বিরুদ্ধে ব্যাংক কোম্পানি আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার পদক্ষেপ গ্রহণ শুরু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।’ তবে তিনি ব্যাংকগুলোর নাম প্রকাশ করেননি।

এ তালিকায় দেশি-বিদেশি ও রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংক রয়েছে। এর আগে গত জুলাইতে ১৩টি ব্যাংকের বিরুদ্ধে ডলার দর নিয়ে কারসাজির অভিযোগ পেয়ে অধিকতর তদন্তে নেমেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সেগুলোর মধ্যে ১০টির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।

ওই সময় ডলারের দর বেশি রাখা হচ্ছে এমন অভিযোগের পর তা ঠেকাতে শক্ত অবস্থান নেয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার। এরপর তদন্তে নামেন একাধিক কর্মকর্তা।

একই অভিযোগে ২০২২ সালের অগাস্টে অতিরিক্ত দরে ডলার কেনাবেচায় দেশি বিদেশি ছয় ব্যাংকের ট্রেজারি বিভাগের প্রধানকে অপসরাণ করেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ওই সময়ে ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক, সাউথ ইস্ট ব্যাংক ও স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাংকের নাম এসেছিল সংবাদ মাধ্যমে।

সেই সময় ব্যাংকগুলোর কাছ থেকে কৈফিয়ত চেয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে আইনি সীমাবদ্ধতার কারণে সেগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে এক মাস পরে ট্রেজারি প্রধানদের পুনর্বহালের সুযোগ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।

তখন ব্যাংকগুলোকে অতিরিক্ত দরে ডলার বিক্রি থেকে প্রাপ্ত মুনাফার অর্ধেক সিএসআর তহবিলে স্থানান্তরের নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। কারণ ছাড়া ডলারের দর না বাড়াতে লিখিতও নেয়া হয়।

আন্তর্জাতিক ?মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) এর পরামর্শে একাধিক দরের বদলে প্রধান বৈদেশিক মুদ্রা ডলারের বিনিময় হার একক দরে নামিয়ে আনতে কাজ করছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এজন্য গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে পরামর্শ করে ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলারস অ্যাসোসিয়েশন (বাফেদা) এবং ব্যাংক নির্বাহীদের সংগঠন (এবিবি) ডলারের দর নির্ধারণ করে ব্যাংকগুলোকে জানিয়ে দিচ্ছে। সদস্য ব্যাংকগুলোকে প্রতিদিন সকালে এ দর জানিয়ে দেয়া হচ্ছে। এ দরেই কেনাবেচার সিদ্ধান্ত দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নীতিমালা অনুযায়ী, কোন ব্যাংক কী পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সংরক্ষণ করতে পারবে, তার একটি সীমাও (এনওপি-নেট ওপেন পজিশন) নির্ধারণ করে দেয়া আছে। আগে ব্যাংকের রেগুলেটরি ক্যাপিটালের ২০ শতাংশ পর্যন্ত বৈদেশিক মুদ্রা সংরক্ষণ করার সুযোগ ছিল। ডলার বাজারের অস্থিরতা কমাতে ২০২২ সালের ১৫ জুলাই তা কমিয়ে ১৫ শতাংশে নামিয়ে আনে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এ সীমার বেশি ডলার হাতে থাকলে তা কেন্দ্রীয় ব্যাংক বা অন্য কোন ব্যাংকের কাছে বিক্রি করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে ব্যাংকগুলোর। তবে তদন্তে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা দেখেছেন, ডলারের সরবরাহ সংকট শুরু হলে অনেক ব্যাংক ব্যাংক সীমার অতিরিক্ত মুদ্রা জমিয়ে তা বেশি দামে বিক্রি করে অতিরিক্ত মুনাফা শুরু করে। সুযোগ থাকলেও তা বাজারে না ছেড়ে কৃত্রিমভাবে দর বাড়ানো হয়। আবার কয়েকটি ব্যাংক ডলার সংরক্ষণের তথ্যও গোপন করেছিল আগেরবার। আর এই ১০ ব্যাংক বাফেদা ও এবিবির র্নিধারণ করে দেয়া দরের চেয়ে বেশি দামে ডলার কেনাবেচা করেছে।

back to top