alt

অর্থ-বাণিজ্য

আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানতের চেয়ে ঋণ বেশি

আমানতের তুলনায় ঋণের পরিমাণ বেশি ২৭ হাজার ৭৫৬ কোটি টাকা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

দেশের নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে আমানতের চেয়ে ঋণের পরিমাণ অনেক বেশি। জুন শেষে এই খাতে আমানত দাঁড়িয়েছে ৪৪ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা। একই সময়ে ঋণ বিতরণের পরিমাণ ৭২ হাজার ৪৩৯ কোটি টাকা। অর্থাৎ আমানতের তুলনায় ঋণের পরিমাণ বেশি ২৭ হাজার ৭৫৬ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন এই ছয় মাসে আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানত বেড়েছে ৯৩০ কোটি টাকার বেশি। ২০২২ সালের ডিসেম্বর শেষে এই খাতে আমানত ছিল ৪৩ হাজার ৭৫৩ কোটি টাকা। এ বছরের জুন শেষে যার পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা।

এদিকে ডিসেম্বর শেষে এ খাতে ঋণের স্থিতি ছিল ৭০ হাজার ৩২২ কোটি টাকা। জুন শেষে যার পরিমাণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭২ হাজার ৪৩৯ কোটি টাকায়। অর্থাৎ ছয় মাসের ব্যবধানে আর্থিক খাতে ঋণের পরিমাণ বেড়েছে ২ হাজার ১১৭ কোটি টাকা। এর আগে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে আমানত বেড়ে ৪৫ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছিল। অনিয়ম ও ঋণ জালিয়াতির ঘটনার পর গ্রাহকদের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় এ খাতে আমানত প্রবাহ কমতে থাকে। ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে আমানতের পরিমাণ কমে ৪১ হাজার ৫৮৫ কোটি টাকায় নেমে এসেছিল। এরপর একই বছরের ডিসেম্বরে শেষে তা আবার বেড়ে দাঁড়ায় ৪৩ হাজার ৭৫২ কোটি টাকার বেশি। কিন্তু এ বছরের শুরুতে আমানত আবার কমেছিল। গত মার্চ শেষে আমানত কমে ৪৩ হাজার ৭০০ কোটি টাকায় নেমেছিল। জুন শেষে যা আবার বেড়ে ৪৪ হাজার ৪৮৩ কোটি টাকায় ঠেকেছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, অতীতে আর্থিক প্রতিষ্ঠানে বড় ধরনের ঋণ জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে। এর ফলে আর্থিক দিক দিয়ে কয়েকটি প্রতিষ্ঠান বেশ দুর্বল হয়ে পড়ে। অনেকে গ্রাহকের আমানতের টাকা ফেরত দিতে ব্যর্থ হয়। একই সঙ্গে বেশ কিছু আর্থিক প্রতিষ্ঠান ঋণ আদায়ে সফল হতে পারেনি। তাই এসব প্রতিষ্ঠানে খেলাপি ঋণের পরিমাণ বাড়ছে হু হু করে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, সারাদেশে বর্তমানে ৩৫ আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ৩০৮টি শাখা রয়েছে। এর মধ্যে শহরে ২৮৬ ও গ্রামীণ এলাকায় ২৬টি শাখা রয়েছে। এছাড়া ৩৫ আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানত ও ঋণের হিসাব আছে ৬ লাখ ৯০ হাজার ২৬৭টি।

বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়- ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, রংপুর এবং ময়মনসিংহ বিভাগে আর্থিক খাতের আমানত বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে চট্টগ্রামে ৯ শতাংশ, রাজশাহীতে দশমিক ১৯ শতাংশ এবং সিলেটে ৩ দশমিক ১১ শতাংশ আমানত কমেছে।

সব বিভাগেই ঋণের পরিমাণ বেড়েছে। জুন শেষে আর্থিক খাত থেকে সবচেয়ে বেশি ঋণ দাঁড়িয়েছে ঢাকা বিভাগে। এই বিভাগে ঋণ বিতরণ করা হয়েছে ৮৩ দশমিক ২৮ শতাংশ। চট্টগ্রামে বিতরণ করা হয়েছে মোট ঋণের ৯ দশমিক ৭৮ শতাংশ, রাজশাহী বিভাগে ২ দশমিক ০৮ শতাংশ, খুলনা বিভাগে ১ দশমিক ৯৮ শতাংশ, বরিশালে দশমিক ৪৩ শতাংশ, সিলেটে দশমিক ৮৮ শতাংশ, রংপুরে দশমিক ৭৩ শতাংশ এবং ময়মনসিংহে দশমিক ৮৪ শতাংশ।

এছাড়া আর্থিক খাতের বিতরণকৃত ঋণের মধ্যে ১২৮ কোটি টাকা সরকারি খাতে এবং বেসরকারি খাতে ৭২ হাজার ৩১১ কোটি টাকা বিতরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৯ দশমিক ৬৪ শতাংশই গেছে শিল্পে, ২৩ দশমিক ১৬ শতাংশ বাণিজ্যে, ১৩ দশমিক ৯৭ শতাংশ কনস্ট্রাকশন খাতে, ১৩ দশমিক ৬৯ শতাংশ ভোক্তা খাতে বিতরণ করা হয়।

নতুন মুদ্রানীতি: নীতি সুদহার অপরিবর্তিত রেখেছে বাংলাদেশ ব্যাংক

ছবি

মতিঝিলে পুলিশ-শিক্ষার্থী সংঘর্ষ চলছে

ছবি

সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সে ‘অচলাবস্থা’, ব্যবসা ‘কমেছে ৫০ শতাংশ’, সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

ছবি

বাজারে আসছে নতুন স্মার্টফোন এআই পোট্রেইট মাস্টার অনার ২০০ এবং ২০০ প্রো

ছবি

মোবাইল গেমিংয়ে ৩০ লাখ টাকা জিতলেন গেমাররা

ছবি

৪০০ কোটি টাকার’ পিয়ন জাহাঙ্গীরের ব্যাংক হিসাব জব্দ

ছবি

টানা দশমবার “জাতীয় রপ্তানি ট্রফি”অর্জন করল সার্ভিস ইঞ্জিন লিমিটেড

ছবি

শুরুতেই শেয়ারবাজারে বড় দরপতন

ছবি

তথ্যের অভাব, সংস্কারে গড়িমসি, বড় বিপদে পড়বে অর্থনীতি : আহসান মনসুর

ছবি

বাজার মূলধন কমলো সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা

ছবি

বাংলালিংকে আনলিমিটেড ইন্টারনেট ও ফ্রি ওটিটি সাবস্ক্রিপশন

ছবি

ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো ফোনের দাম কমলো

ছবি

দেশের ৬৪টি জেলায় ই-কমার্স ডেলিভারি দিচ্ছে পাঠাও কুরিয়ার

ছবি

বাংলাদেশের বাজারে এআই ফিচার সমৃদ্ধ অপোর রেনো১২ সিরিজ

ছবি

ঢাকা-নেপাল রুটে বাস চালুর পরিকল্পনা বিআরটিসির

ছবি

‘আকাশ গো’ কম্প্যানিয়ন অ্যাপ নিয়ে এলো আকাশ ডিজিটাল টিভি

ছবি

মাদানী হসপিটালে বৃহৎপরিসরে ইনডোর সেবা উদ্বোধন

ছবি

মেহেরপুরে অবৈধ সিগারেট জব্দ, ৫ জনকে জরিমানা

ছবি

১৬ জুলাইয়ের মধ্যে ভিভো ওয়াই২৮ কিনলে সাথে ফ্রি উপহার

ছবি

মাসে দুই কোটি সক্রিয় গ্রাহকের মাইলফলক অর্জন করলো মাইজিপি

ছবি

ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির ৪০ শিক্ষার্থীর হাতে অভিভাবক মৃত্যু বীমার চেক হস্তান্তর

ছবি

হুয়াওয়ের সঙ্গে নগদের চুক্তি

ছবি

ফোর্বস এর প্রচ্ছদে রিয়েলমি’র সিইও স্কাই লি

ছবি

শীঘ্রই বাংলাদেশের বাস্তায় নামছে বিওয়াইডি সিল

ছবি

এফবিসিসিআইআই আইআরসি এর আয়োজনে এক্সটেন্ডেড প্রসিডিউর রেসপনসিবিলিটি বিষয়ক সেমিনার

ছবি

মিউজ ডিজাইন অ্যাওয়ার্ডে প্লাটিনাম জিতলো টেকনো ক্যামন ৩০ সিরিজ

ছবি

বাজারে ভিভো’র ওয়াই সিরিজের নতুন স্মার্টফোন ওয়াই২৮

ছবি

নতুন অর্থবছরে ঢাকা উত্তরের সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকার বাজেট

ছবি

এক সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম কেজিতে বাড়ল ৩০ টাকা

প্লাস্টিক রিসাইক্লিং খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে

ছবি

রপ্তানিতে প্রণোদনা কমানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার চায় বিটিএমএ

ছবি

কাঁচা মরিচের ঝালের সঙ্গে বাড়ছে পেঁয়াজের ঝাঁঝও

ছবি

একটি ফলই ঘুরিয়ে দিয়েছে রাজশাহী অঞ্চলের অর্থনীতির মোড়

ছবি

আগামী সপ্তাহে দেশের বাজারে আসছে ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই৪ লাইট ফাইভজি

ছবি

দেশের বাজারে মনস্টার ‘এম’ সিরিজের নতুন স্মার্টফোন স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১৪ এলটিই

ছবি

মানাবে ওয়াটার পার্কে যাতায়াতে উবার যাত্রীদের জন্য বিশেষ ছাড়

tab

অর্থ-বাণিজ্য

আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানতের চেয়ে ঋণ বেশি

আমানতের তুলনায় ঋণের পরিমাণ বেশি ২৭ হাজার ৭৫৬ কোটি টাকা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

দেশের নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে আমানতের চেয়ে ঋণের পরিমাণ অনেক বেশি। জুন শেষে এই খাতে আমানত দাঁড়িয়েছে ৪৪ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা। একই সময়ে ঋণ বিতরণের পরিমাণ ৭২ হাজার ৪৩৯ কোটি টাকা। অর্থাৎ আমানতের তুলনায় ঋণের পরিমাণ বেশি ২৭ হাজার ৭৫৬ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন এই ছয় মাসে আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানত বেড়েছে ৯৩০ কোটি টাকার বেশি। ২০২২ সালের ডিসেম্বর শেষে এই খাতে আমানত ছিল ৪৩ হাজার ৭৫৩ কোটি টাকা। এ বছরের জুন শেষে যার পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা।

এদিকে ডিসেম্বর শেষে এ খাতে ঋণের স্থিতি ছিল ৭০ হাজার ৩২২ কোটি টাকা। জুন শেষে যার পরিমাণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭২ হাজার ৪৩৯ কোটি টাকায়। অর্থাৎ ছয় মাসের ব্যবধানে আর্থিক খাতে ঋণের পরিমাণ বেড়েছে ২ হাজার ১১৭ কোটি টাকা। এর আগে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে আমানত বেড়ে ৪৫ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছিল। অনিয়ম ও ঋণ জালিয়াতির ঘটনার পর গ্রাহকদের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় এ খাতে আমানত প্রবাহ কমতে থাকে। ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে আমানতের পরিমাণ কমে ৪১ হাজার ৫৮৫ কোটি টাকায় নেমে এসেছিল। এরপর একই বছরের ডিসেম্বরে শেষে তা আবার বেড়ে দাঁড়ায় ৪৩ হাজার ৭৫২ কোটি টাকার বেশি। কিন্তু এ বছরের শুরুতে আমানত আবার কমেছিল। গত মার্চ শেষে আমানত কমে ৪৩ হাজার ৭০০ কোটি টাকায় নেমেছিল। জুন শেষে যা আবার বেড়ে ৪৪ হাজার ৪৮৩ কোটি টাকায় ঠেকেছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, অতীতে আর্থিক প্রতিষ্ঠানে বড় ধরনের ঋণ জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে। এর ফলে আর্থিক দিক দিয়ে কয়েকটি প্রতিষ্ঠান বেশ দুর্বল হয়ে পড়ে। অনেকে গ্রাহকের আমানতের টাকা ফেরত দিতে ব্যর্থ হয়। একই সঙ্গে বেশ কিছু আর্থিক প্রতিষ্ঠান ঋণ আদায়ে সফল হতে পারেনি। তাই এসব প্রতিষ্ঠানে খেলাপি ঋণের পরিমাণ বাড়ছে হু হু করে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, সারাদেশে বর্তমানে ৩৫ আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ৩০৮টি শাখা রয়েছে। এর মধ্যে শহরে ২৮৬ ও গ্রামীণ এলাকায় ২৬টি শাখা রয়েছে। এছাড়া ৩৫ আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানত ও ঋণের হিসাব আছে ৬ লাখ ৯০ হাজার ২৬৭টি।

বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়- ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, রংপুর এবং ময়মনসিংহ বিভাগে আর্থিক খাতের আমানত বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে চট্টগ্রামে ৯ শতাংশ, রাজশাহীতে দশমিক ১৯ শতাংশ এবং সিলেটে ৩ দশমিক ১১ শতাংশ আমানত কমেছে।

সব বিভাগেই ঋণের পরিমাণ বেড়েছে। জুন শেষে আর্থিক খাত থেকে সবচেয়ে বেশি ঋণ দাঁড়িয়েছে ঢাকা বিভাগে। এই বিভাগে ঋণ বিতরণ করা হয়েছে ৮৩ দশমিক ২৮ শতাংশ। চট্টগ্রামে বিতরণ করা হয়েছে মোট ঋণের ৯ দশমিক ৭৮ শতাংশ, রাজশাহী বিভাগে ২ দশমিক ০৮ শতাংশ, খুলনা বিভাগে ১ দশমিক ৯৮ শতাংশ, বরিশালে দশমিক ৪৩ শতাংশ, সিলেটে দশমিক ৮৮ শতাংশ, রংপুরে দশমিক ৭৩ শতাংশ এবং ময়মনসিংহে দশমিক ৮৪ শতাংশ।

এছাড়া আর্থিক খাতের বিতরণকৃত ঋণের মধ্যে ১২৮ কোটি টাকা সরকারি খাতে এবং বেসরকারি খাতে ৭২ হাজার ৩১১ কোটি টাকা বিতরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৯ দশমিক ৬৪ শতাংশই গেছে শিল্পে, ২৩ দশমিক ১৬ শতাংশ বাণিজ্যে, ১৩ দশমিক ৯৭ শতাংশ কনস্ট্রাকশন খাতে, ১৩ দশমিক ৬৯ শতাংশ ভোক্তা খাতে বিতরণ করা হয়।

back to top