alt

অর্থ-বাণিজ্য

মহেশপুরে সবার দৃষ্টি কাড়ছে রশিদের আঙুর বাগান

প্রতিনিধি, মহেশপুর (ঝিনাইদহ) : সোমবার, ২০ মে ২০২৪

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার যুগীহুদা গ্রামের চাষি মো. আব্দুর রশিদ আঙুর চাষে ব্যাপক সফলতা পেয়েছেন। তার বাগান জুড়ে গাছে গাছে থোকা থোকা লাল, কালো ও সবুজ রঙের আঙুর ঝুলছে। দৃষ্টিনন্দন এই আঙুরের বাগান দেখতে বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ আসছে। তারা অনুপ্রাণিতও হচ্ছে।

চাষি আব্দুর রশিদ জানান, গত বছর ৫০ শতক জমিতে আঙুর চাষ শুরু করেন। ২০০ গাছ লাগান। গাছ বড় হলে মাচায় তুলে দেওয়া হয়। লাইন করে গাছ লাগাতে হয়। গাছ মাচায় ছড়িয়ে পড়ে। বড় হলে ফুল-ফল ধরতে শুরু করে। আমাদের মধ্যে একটা ধারণা আছে, দেশে উৎপাদিত আঙুর টক হয়। কিন্তু এই ধারণা সত্য নয়। তার বাগানে তিন জাতের আঙুর হয়। কোনোটি লাল, কোনোটি কালো, আবার কোনোটি সবুজ। সবগুলোই সুমিষ্ট।

এবার প্রচুর আঙুর ধরেছে। ভারে গাছ ঝুলে পড়ছে। প্রতিটি গাছে ১৫ কেজি থেকে ২৫ কেজি পর্যন্ত আঙুর ধরেছে। বিভিন্ন স্থান থেকে পাইকারেরা এসে কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। পাইকারি প্রতি কেজি ৩৫০ টাকা দরে বিক্রি করছেন। আর প্রতিদিন ১৪-১৫ কেজি করে আঙুর বাগান দেখতে আসা লোকদের খাওয়ান। এবার ৫-৭ লাখ টাকার আঙুর বিক্রি হবে বলে আশা করছেন।

তিনি দেশের ভেতর ও বাইরের দেশ থেকে চারা সংগ্রহ করেছেন। গাছে গোবরের সার প্রয়োগ করে ধাকেন। আবার মাঝে মাঝে পটাশ সার প্রয়োগ করে থাকেন। কীটনাশক ব্যবহার করেন না। বাগানের আয়তন বাড়িয়েছেন। নতুন করে দেড় বিঘা জমিতে চারা লাগিয়েছেন।

তিনি জানান, দেশে আঙুর চাষের প্রসার ঘটালে বিদেশ থেকে আমদানির প্রয়োজন হবে না। ঝিনাইদহ থেকে যেসব মিডিয়াকর্মী মো. আব্দুর রশিদের আঙুর খেয়েছেন, তার প্রশংসা করেছেন। তার বাগানের আঙুর সুমিষ্ট বলে জানান।

মহেশপুর উপজেলা কৃষি অফিসার ইয়াসমিন সুলতানা বলেন, তিনি মো. আব্দুর রশিদের আঙুরের বাগান দেখেছেন। বাজারের আঙুরের চেয়ে ভালো মিষ্টি।

ছবি

ধারাবাহিক পতনে সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকা মূলধন কমল ডিএসইতে

ছবি

ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের অফিসিয়াল পার্টনার ভিভো

ছবি

উত্তরাঞ্চলে এগ্রিটেক স্টার্টআপ ‘ফসল’ ও ‘সেফ’ এর ফারমার্স সেন্টার চালু

ছবি

বাংলাদেশে হুয়াওয়ের ওয়াই-ফাই ৭ ব্যবহার উপযোগী অ্যাকসেস পয়েন্ট পণ্য উন্মোচন

ছবি

এক সপ্তাহে রিজার্ভ বেড়েছে ৫৪ কোটি ডলার

বাজেটের অর্থায়ন নিয়ে সংশয় অর্থনীতিবিদদের

বুড়িমারী স্থলবন্দরে ৮ দিন আমদানি-রফতানি বন্ধ

ছবি

ইনফিনিক্স স্মার্টফোন কিনে বাইক জিতলেন গাজীপুরের রাসেল

ছবি

ইউসিবি এখন এসএমই খাতে বেশি জোর দিচ্ছে : এমডি আরিফ কাদরী

ছবি

চট্টগ্রাম ও সিলেটের সেরা পাঠাও হিরোরা পুরস্কৃত

ব্যাংকারদের বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা ‘শিথিল’

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের এডিপি বাস্তবায়ন হার প্রায় শতভাগ

ছবি

নারীদের অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত করা না গেলে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছানো যাবে না: প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

নাটোরের সিংড়ার পশুরহাটে ক্যাশলেস লেনদেনে নগদ

হজযাত্রীদের বিনামূল্যে ২৪ ঘণ্টা জরুরি ডাক্তারের পরামর্শ সেবা প্রদান করবে মেটলাইফ

ছবি

বাজেটে রপ্তানি খাতে প্রস্তাবনার প্রতিফলন ঘটেনি : ইএবি

ছবি

শেয়ারবাজারে ধারাবাহিক পতন, ৪২ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন সূচক

ছবি

বিক্রয় বিরাট হাট ২০২৪ ক্যাম্পেইন শুরু

ছবি

টেকসই উন্নয়নের জন্য টেকসই আর্থিক নীতির তাগিদ দিয়েছে ফিকি

ছবি

দেশ ‘অনৈতিক’ অর্থনৈতিক ব্যবস্থার দিকে ‘যাচ্ছে’

ছবি

প্রস্তাবিত বাজেট বে-নজির বাজেট : দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য

ছবি

খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে ভূমিকা রাখছে ‘কুমিল্লা-চাঁদপুর-ব্রাহ্মণবাড়িয়া সেচ উন্নয়ন প্রকল্প’

ছবি

বাজেটের পর প্রথমদিনেই শেয়ারবাজারে বড় পতন

ছবি

‘লোকসানে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে’ সিএনজি ফিলিং স্টেশন

ছবি

‘কালো টাকা সাদা’ : ১৫% কর বেশি লাগছে এমপি সোহরাবের

ছবি

বাজেটের পর শেয়ারবাজারে বড় পতন

ছবি

ফ্ল্যাটের রেজিস্ট্রেশন ফি কমানোর আহ্বান রিহ্যাবের

ছবি

ঋণখেলাপিদের ৪ বার পুনঃতফসিলের সুযোগ দেয়া ঠিক নয় : বিআইডিএস

ছবি

রাজধানীতে নতুন ফ্যাশন ডিজাইনারদের পণ্য প্রদর্শনী

ছবি

প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির প্রতিক্রিয়া

ছবি

বছরের শেষের দিকে মূল্যস্ফীতি কমে আসবে, বললেন অর্থমন্ত্রী

ছবি

টোকিওতে বাংলাদেশের ‘বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং মানবসম্পদ’ বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

তিন মাসে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ৩৬ হাজার ৩৬৭ কোটি টাকা

বাজেট ইতিবাচক, চাপ বাড়বে ব্যবসায়ীদের ওপর : রংপুর চেম্বার

ছবি

বিটিসিএল এর সম্পদের লাভজনক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে: জুনাইদ আহমেদ পলক

ছবি

প্রাইম ব্যাংক এবং ওপাস টেকনোলজি লিমিটেড এর মধ্যে চুক্তি

tab

অর্থ-বাণিজ্য

মহেশপুরে সবার দৃষ্টি কাড়ছে রশিদের আঙুর বাগান

প্রতিনিধি, মহেশপুর (ঝিনাইদহ)

সোমবার, ২০ মে ২০২৪

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার যুগীহুদা গ্রামের চাষি মো. আব্দুর রশিদ আঙুর চাষে ব্যাপক সফলতা পেয়েছেন। তার বাগান জুড়ে গাছে গাছে থোকা থোকা লাল, কালো ও সবুজ রঙের আঙুর ঝুলছে। দৃষ্টিনন্দন এই আঙুরের বাগান দেখতে বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ আসছে। তারা অনুপ্রাণিতও হচ্ছে।

চাষি আব্দুর রশিদ জানান, গত বছর ৫০ শতক জমিতে আঙুর চাষ শুরু করেন। ২০০ গাছ লাগান। গাছ বড় হলে মাচায় তুলে দেওয়া হয়। লাইন করে গাছ লাগাতে হয়। গাছ মাচায় ছড়িয়ে পড়ে। বড় হলে ফুল-ফল ধরতে শুরু করে। আমাদের মধ্যে একটা ধারণা আছে, দেশে উৎপাদিত আঙুর টক হয়। কিন্তু এই ধারণা সত্য নয়। তার বাগানে তিন জাতের আঙুর হয়। কোনোটি লাল, কোনোটি কালো, আবার কোনোটি সবুজ। সবগুলোই সুমিষ্ট।

এবার প্রচুর আঙুর ধরেছে। ভারে গাছ ঝুলে পড়ছে। প্রতিটি গাছে ১৫ কেজি থেকে ২৫ কেজি পর্যন্ত আঙুর ধরেছে। বিভিন্ন স্থান থেকে পাইকারেরা এসে কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। পাইকারি প্রতি কেজি ৩৫০ টাকা দরে বিক্রি করছেন। আর প্রতিদিন ১৪-১৫ কেজি করে আঙুর বাগান দেখতে আসা লোকদের খাওয়ান। এবার ৫-৭ লাখ টাকার আঙুর বিক্রি হবে বলে আশা করছেন।

তিনি দেশের ভেতর ও বাইরের দেশ থেকে চারা সংগ্রহ করেছেন। গাছে গোবরের সার প্রয়োগ করে ধাকেন। আবার মাঝে মাঝে পটাশ সার প্রয়োগ করে থাকেন। কীটনাশক ব্যবহার করেন না। বাগানের আয়তন বাড়িয়েছেন। নতুন করে দেড় বিঘা জমিতে চারা লাগিয়েছেন।

তিনি জানান, দেশে আঙুর চাষের প্রসার ঘটালে বিদেশ থেকে আমদানির প্রয়োজন হবে না। ঝিনাইদহ থেকে যেসব মিডিয়াকর্মী মো. আব্দুর রশিদের আঙুর খেয়েছেন, তার প্রশংসা করেছেন। তার বাগানের আঙুর সুমিষ্ট বলে জানান।

মহেশপুর উপজেলা কৃষি অফিসার ইয়াসমিন সুলতানা বলেন, তিনি মো. আব্দুর রশিদের আঙুরের বাগান দেখেছেন। বাজারের আঙুরের চেয়ে ভালো মিষ্টি।

back to top