alt

অর্থ-বাণিজ্য

সব ব্যবসায়ীকে ১৩ সংখ্যার বিআইএন নিতে হবে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : শনিবার, ০৮ মে ২০২১

মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২-এর অধীন ব্যবসায়ীদের মূসক নিবন্ধন সনদ বা ব্যবসায় শনাক্তকরণ নম্বর (বিআইএন) ১৩ সংখ্যা সম্পন্ন, যা অনলাইনে ব্যবহার উপযোগী। কিন্তু এখনও অনেক ব্যবসায়ী আগের ৯ সংখ্যা বা ১১ সংখ্যার বিআইনএন নম্বর ব্যবহার করছেন, যা গ্রহণযোগ্য নয়। তাই সব ধরনের ব্যবসায়ীকে ১৩ সংখ্যার বিআইএন নম্বর নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

শনিবার (৮ মে) এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার নির্দেশসংক্রান্ত একটি চিঠি দেশের সব কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট এবং বৃহৎ করদাতা ইউনিটে পাঠিয়েছে এনবিআর। চিঠিতে বলা হয়, মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২-এর অধীন ব্যবসায়ীদের মূসক নিবন্ধন সনদ বা ব্যবসায় শনাক্তকরণ নম্বর (বিআইএন) ১৩ সংখ্যা সম্পন্ন। ইতোপূর্বে ৯ কিংবা ১১ সংখ্যা বিআইএন গ্রহণকারী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের ১৩ সংখ্যার বিআইএন গ্রহণ বাধ্যতামূলক। তাই বর্তমানে ১৩ সংখ্যা ব্যতীত ৯ সংখ্যা কিংবা ১১ সংখ্যার বিআইএন ব্যবহার করে আমদানি-রপ্তানি বা ব্যবসায় কার্যক্রম পরিচালনা করা বৈধ নয়।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড বিভিন্ন মাধ্যমে জানতে পেরেছে যে, অনেক প্রতিষ্ঠান এখনও ১৩ সংখ্যার বিআইএন সংগ্রহ না করে ৯ সংখ্যার কিংবা ১১ সংখ্যার বিআইএন ব্যবহার করে ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এক্ষেত্রে ৯ সংখ্যা কিংবা ১১ সংখ্যার বিআইএন ব্যবহার করে ম্যানুয়ালি পদ্ধতিতে দাখিলপত্র দাখিল করা হচ্ছে। মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা যা গ্রহণ করছেন বলে জানা গেছে।

এ পরিস্থিতিতে যেসব প্রতিষ্ঠান ৯ কিংবা ১১ সংখ্যার বিআইএন ব্যবহার করে ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করছে, তাদের ১৩ সংখ্যার বিআইএন প্রদানসহ কী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, তা সংশ্লিষ্ট কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট এবং বৃহৎ করদাতা ইউনিটকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে জানাতে বলা হয়েছে।

প্রতি বছরই বাড়ছে জীবনযাত্রার ব্যয়

ডেল্টা লাইফের বিরুদ্ধে করা আবেদন খারিজ

এডিপি বাস্তবায়ন মাত্র ৫৮.৩৬ শতাংশ

ছবি

টাকা পাচার রোধে ১৪টি আইন আসছে : অর্থমন্ত্রী

সূচকের সঙ্গে লেনদেনও বেড়েছে শেয়ারবাজারে

বিএসআরএম’র মুনাফা বেড়েছে ৪০০ শতাংশ

ছবি

মহামারীতেও দেশে শিল্পায়নের ধারা চলমান : শিল্পমন্ত্রী

চার দফা দাবিতে সিলেটে বিড়ি ভোক্তাদের সমাবেশ

এডিপি বাস্তবায়ন মাত্র ৫৮.৩৬ শতাংশ

সামান্য উত্থানেই লেনদেন দুই হাজার কোটির ঘরে

১১ কোম্পানির শেয়ার বিক্রি করতে চায় না কোন বিনিয়োগকারী

ছবি

অর্ধেক আসন খালি রেখে কনভেনশন হল খোলার দাবি

‘উপায়’ এর মাধ্যমে কর্মীদের বেতন দেবে ফ্যালকন গ্রুপ

তামাকের ন্যায্যমূল্যসহ ৬ দফা দাবি তামাক চাষি ও ব্যবসায়ীদের

বানকো সিকিউরিটিজের বিরুদ্ধে মামলার সিদ্ধান্ত ডিএসই’র

ওয়ান স্টপ সার্ভিস দিতে বেপজা ও পরিবেশ অধিদপ্তরের মধ্যে সমঝোতা

ছবি

সূচকের মিশ্র প্রবণতায় লেনদেন চলছে

ছবি

বীজ বিভাগকে রক্ষা করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

ছবি

কৃষিকে আধুনিক ও লাভজনক করতে নিরলস কাজ করছে সরকার: কৃষিমন্ত্রী

ছবি

অর্ধেক আসন খালি রেখে কমিউনিটি সেন্টার খোলার দাবি

সূচক ও লেনদেন দুটোই কমেছে শেয়ারবাজারে

বাংলাদেশে ভ্যাট নিবন্ধন নিল ফেইসবুক

ছবি

রূপালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদে কাজী ছানাউল হকের যোগদান

চূড়ান্ত উৎপাদন শুরু করেছে রিং সাইন টেক্সটাইল

বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চলের শিল্প প্লট বরাদ্দ শুরু

খাবারের মান নিয়ন্ত্রণে দেড় কোটি টাকার বেশি জরিমানা

করোনায় অসচ্ছল মানুষের পাশে প্রাণ ইউএইচটি মিল্ক

বাজেট প্রতিক্রিয়ায় তামাক চাষি-ব্যবসায়ীদের সংবাদ সম্মেলন

ওয়ালটন ওয়াশিং মেশিনের নতুন প্রোডাকশন লাইন উদ্বোধন

ছবি

লেনদেনের ধীরগতিতে নিম্নমুখী সূচক

ছবি

বাংলাদেশের মোট বৈদেশিক দেনা ৬ লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে

ছবি

সিনজেনটা বাংলাদেশ লিমিটেডের ২০% লভ্যাংশ ঘোষণা

ছবি

আমরা সংসদে আছি শুধু ‘হ্যাঁ’ বা ‘না’ বলার জন্য: সাবের হোসেন

শেয়ারবাজারে ১২ হাজার ৭০০ কোটি টাকার লেনদেন

ছবি

ব্যাংক হিসাবে চার্জমুক্ত থাকবে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত

ছবি

বাজেটের সুফল বাস্তবায়নের ওপর নির্ভরশীল

tab

অর্থ-বাণিজ্য

সব ব্যবসায়ীকে ১৩ সংখ্যার বিআইএন নিতে হবে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

শনিবার, ০৮ মে ২০২১

মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২-এর অধীন ব্যবসায়ীদের মূসক নিবন্ধন সনদ বা ব্যবসায় শনাক্তকরণ নম্বর (বিআইএন) ১৩ সংখ্যা সম্পন্ন, যা অনলাইনে ব্যবহার উপযোগী। কিন্তু এখনও অনেক ব্যবসায়ী আগের ৯ সংখ্যা বা ১১ সংখ্যার বিআইনএন নম্বর ব্যবহার করছেন, যা গ্রহণযোগ্য নয়। তাই সব ধরনের ব্যবসায়ীকে ১৩ সংখ্যার বিআইএন নম্বর নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

শনিবার (৮ মে) এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার নির্দেশসংক্রান্ত একটি চিঠি দেশের সব কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট এবং বৃহৎ করদাতা ইউনিটে পাঠিয়েছে এনবিআর। চিঠিতে বলা হয়, মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২-এর অধীন ব্যবসায়ীদের মূসক নিবন্ধন সনদ বা ব্যবসায় শনাক্তকরণ নম্বর (বিআইএন) ১৩ সংখ্যা সম্পন্ন। ইতোপূর্বে ৯ কিংবা ১১ সংখ্যা বিআইএন গ্রহণকারী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের ১৩ সংখ্যার বিআইএন গ্রহণ বাধ্যতামূলক। তাই বর্তমানে ১৩ সংখ্যা ব্যতীত ৯ সংখ্যা কিংবা ১১ সংখ্যার বিআইএন ব্যবহার করে আমদানি-রপ্তানি বা ব্যবসায় কার্যক্রম পরিচালনা করা বৈধ নয়।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড বিভিন্ন মাধ্যমে জানতে পেরেছে যে, অনেক প্রতিষ্ঠান এখনও ১৩ সংখ্যার বিআইএন সংগ্রহ না করে ৯ সংখ্যার কিংবা ১১ সংখ্যার বিআইএন ব্যবহার করে ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এক্ষেত্রে ৯ সংখ্যা কিংবা ১১ সংখ্যার বিআইএন ব্যবহার করে ম্যানুয়ালি পদ্ধতিতে দাখিলপত্র দাখিল করা হচ্ছে। মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা যা গ্রহণ করছেন বলে জানা গেছে।

এ পরিস্থিতিতে যেসব প্রতিষ্ঠান ৯ কিংবা ১১ সংখ্যার বিআইএন ব্যবহার করে ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করছে, তাদের ১৩ সংখ্যার বিআইএন প্রদানসহ কী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, তা সংশ্লিষ্ট কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট এবং বৃহৎ করদাতা ইউনিটকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে জানাতে বলা হয়েছে।

back to top