alt

অর্থ-বাণিজ্য

ভোজ্যতেলের দাম খোলাবাজারে আরও এক দফা বাড়লো

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : সোমবার, ১১ অক্টোবর ২০২১

ভোজ্যতেলের দাম খোলা বাজারে আরও এক দফা বাড়ল। লিটারপ্রতি বোতলজাত তেলের দাম বেড়েছে ২ থেকে ৫ টাকা। সবজি, চাল, ডালের পরে ভোক্তাদের জন্য নতুন করে দুঃসংবাদ তেলের দাম আরও বেড়েছে। তাতে বড় বিপাকে পড়েছেন নিম্ন ও মধ্যআয়ের মানুষ। ঊর্ধ্বমুখী বাজারে এখন সংসার চালানোই দায় উল্লেখ করে দাম কমানোর দাবি জানিয়েছেন ক্রেতারা।

সোমবার (১১ অক্টোবর) রাজধানীর বাজারগুলোতে লিটারপ্রতি সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৫৪-১৫৫ টাকায়। দুই লিটারের বোতল বিক্রি হচ্ছে ৩০৮ টাকায়। আর ৫ লিটারের বোতল বিক্রি হচ্ছে ৭২৮ টাকা লিটার। অথচ ব্যবসায়ীরা লিটারপ্রতি সয়াবিন তেলের দাম নির্ধারণ করেছিলেন ১৫৩ টাকা। বাজারে লিটারপ্রতি খোলা তেল বিক্রি হচ্ছে ১৪৪-১৫০ টাকা দরে। পামওয়েল তেল বিক্রি হচ্ছে ১৪০-১৫৪ লিটার। খোলা পামওয়েল তেল বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকা দরে, যা নির্ধারিত দামের চেয়ে লিটারপ্রতি ২ থেকে ৫ টাকা বাড়তি।

সরকারি প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পরিসংখ্যানে দেখা যায়, বর্তমানে প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৪৫-১৫৫ টাকায়, যা এক মাস আগেও ছিল ১৪০-১৫৫ টাকা। অর্থাৎ এক মাসের ব্যবধানে লিটার প্রতি বেড়েছে ৫ টাকা, এক বছরের ব্যবধানে বেড়েছে ৪০ টাকা। ২০২০ সালের একই সময়ে দাম ছিল ১০০-১১০ টাকা লিটার।

এক সপ্তাহ আগেও খোলা বাজারে সয়াবিন তেল প্রতি লিটার বিক্রি হয়েছে ১৩০ টাকা থেকে ১৩৬ টাকা দরে। সোমবার বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা দরে। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে লিটারপ্রতি দাম ৪-৫ টাকা বেড়েছে। গত বছর একই সময়ে এ তেল বিক্রি হয়েছিল ৮৮-৯৩ টাকা লিটার। এক বছরের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৪৫-৫০ টাকা।

টিসিবির পরিসংখ্যানে আরও দেখা যায়, রাজধানীতে বোতলজাত পামওয়েল তেল বিক্রি হচ্ছে লিটারপ্রতি ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকায়। এক সপ্তাহ আগেও দাম ছিল লিটারপ্রতি ১২৮-১৩০ টাকা। ২০২০ সালের ১০ অক্টোবর বোতলজাত পামওয়েল তেল বিক্রি হয়েছিল লিটারপ্রতি ৮৪ টাকা থেকে ৯০ টাকায়। সেই হিসেবে এক বছরের ব্যবধানে বোতলজাত পামওয়েল তেলের দাম বেড়েছে ৪০-৪৫ টাকা।

প্রতিষ্ঠানটির মতে, খোলাবাজারে পামওয়েল তেল লিটারপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ১২৫-১৩০ টাকায়। যা এ সপ্তাহেও বিক্রি হয়েছে ১২৫-১২৮ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ২ টাকা। এক মাস আগে খোলাবাজারে পামওয়েল তেল বিক্রি হয়েছিল ১১৬ থেকে ১২০ টাকায়। এক বছর আগে অর্থাৎ ২০২০ সালের একই দিন বিক্রি হয়েছিল ৮২-৮৪ টাকা লিটারে। সেই হিসাবে এক মাসের ব্যবধানে খোলা পামওয়েল তেলের দাম বেড়েছে ১০-১৫ টাকা, বছরের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৪০-৪৬ টাকা।

চাল, ডালের পর আরেক দফা তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ায় বড় বিপাকে পড়েছেন নিম্নবিত্ত থেকে মধ্যআয়ের পরিবারগুলো। সবার যেন হাত পুড়ছে বাজারে গিয়ে। তারা আকুতি জানাচ্ছেন এ অবস্থা থেকে উত্তরণে।

ছবি

চাকরি প্রার্থীদের অদক্ষতা বেশি ‘ইংরেজি ও যোগাযোগে’

স্টেকহোল্ডারদের ওএমএস দিয়ে কাজ শুরুর তাগিদ দিলেন শিবলী

আইপিডিসি চালু করলো কার্ডবিহীন ইএমআই সুবিধা

ছবি

দেশে অর্গানিক খাদ্যের উদ্যোক্তা বাড়ানোর তাগিদ

ছবি

রানার অটোমোবাইলস ও নগদ এর মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত

স্বাস্থ্যবিধি মানতে কঠোর হচ্ছে বিজিএমইএ, রয়েছে মাস্ক ব্যবহারসহ ১৭ নির্দেশনা

নারীর সক্রিয় অংশগ্রহণে অর্থনৈতিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন সম্ভব

ছবি

১৭০ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া মসলিনের গৌরব ফিরিয়ে আনবো : বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী

ছবি

রপ্তানির পালে লেগেছে বড় হাওয়া লক্ষ্যমাত্রাকেও ছাড়ালো নভেম্বরে

উত্থানের সপ্তাহে পৌনে সাত হাজার কোটি টাকা ফিরলো শেয়ারবাজারে

ভ্যাট না দিয়ে ব্যবসা করছে আমেরিকান বার্গার, গোয়েন্দাদের অভিযান

ছবি

আঙ্কটাডের প্রতিবেদন : বৈশ্বিক বাণিজ্য ২৮ ট্রিলিয়নে পৌঁছবে, রয়েছে শঙ্কাও

ছবি

বাণিজ্য বৃদ্ধিতে বিবিসিসিআইকে অনুরোধ বিজিএমইএর

ওয়ালটন ল্যাপটপ অ্যাক্সেসরিজে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়

ছবি

পাঁচ মাসে পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ২৩ শতাংশ

আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

পুঁজিবাজার নিয়ে অর্থ মন্ত্রণালয় বৈঠক

ঢাকাই মসলিন হাউস প্রতিষ্ঠা করবে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়

এবার ভ্যাট নিবন্ধন নিল নেটফ্লিক্স

কাস্টমসে রাজস্ব কর্মকর্তা পদে ১৬৩ জনের পদোন্নতি

রাশিয়ায় পোশাক রপ্তানি করতে চায় বিজিএমইএ

তেলের মূল্যবৃদ্ধি বাস্তবসম্মত নয় : ক্যাব

ছবি

ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প মেলা শুরু রোববার

শেয়ারবাজারের বড় উত্থান

ছবি

রেমিটেন্স কমতে থাকলে চাপ পড়বে রিজার্ভে

ছবি

১২ কেজি এলপিজির দাম কমলো ৮৫ টাকা

ছবি

ভ্যাট নিবন্ধন নিল নেটফ্লিক্স

ছবি

আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

নানা সূচকে এগিয়েছে বাংলাদেশ, পেছনে ফেলছে ভারত-পাকিস্তানকে

ডিএসইতে দেড়শ, সিএসইতে চারশ পয়েন্টের উত্থান

ছবি

বৈষম্য ও দূর্নীতি বেড়েছে

নভেম্বরে বিও হিসাব বেড়েছে ৯ হাজার

ছবি

স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ডের বিষয়ে একমত বাংলাদেশ ব্যাংক

পঞ্চম বছরেও হতাশ করলো তুং হাই

বন্ধের মেয়াদ ৩০ দফা বাড়ল বেক্সিমকো সিনথেটিকসের

ছবি

বিএফআইইউ’র প্রধান হলেন মাসুদ বিশ্বাস

tab

অর্থ-বাণিজ্য

ভোজ্যতেলের দাম খোলাবাজারে আরও এক দফা বাড়লো

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

সোমবার, ১১ অক্টোবর ২০২১

ভোজ্যতেলের দাম খোলা বাজারে আরও এক দফা বাড়ল। লিটারপ্রতি বোতলজাত তেলের দাম বেড়েছে ২ থেকে ৫ টাকা। সবজি, চাল, ডালের পরে ভোক্তাদের জন্য নতুন করে দুঃসংবাদ তেলের দাম আরও বেড়েছে। তাতে বড় বিপাকে পড়েছেন নিম্ন ও মধ্যআয়ের মানুষ। ঊর্ধ্বমুখী বাজারে এখন সংসার চালানোই দায় উল্লেখ করে দাম কমানোর দাবি জানিয়েছেন ক্রেতারা।

সোমবার (১১ অক্টোবর) রাজধানীর বাজারগুলোতে লিটারপ্রতি সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৫৪-১৫৫ টাকায়। দুই লিটারের বোতল বিক্রি হচ্ছে ৩০৮ টাকায়। আর ৫ লিটারের বোতল বিক্রি হচ্ছে ৭২৮ টাকা লিটার। অথচ ব্যবসায়ীরা লিটারপ্রতি সয়াবিন তেলের দাম নির্ধারণ করেছিলেন ১৫৩ টাকা। বাজারে লিটারপ্রতি খোলা তেল বিক্রি হচ্ছে ১৪৪-১৫০ টাকা দরে। পামওয়েল তেল বিক্রি হচ্ছে ১৪০-১৫৪ লিটার। খোলা পামওয়েল তেল বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকা দরে, যা নির্ধারিত দামের চেয়ে লিটারপ্রতি ২ থেকে ৫ টাকা বাড়তি।

সরকারি প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পরিসংখ্যানে দেখা যায়, বর্তমানে প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৪৫-১৫৫ টাকায়, যা এক মাস আগেও ছিল ১৪০-১৫৫ টাকা। অর্থাৎ এক মাসের ব্যবধানে লিটার প্রতি বেড়েছে ৫ টাকা, এক বছরের ব্যবধানে বেড়েছে ৪০ টাকা। ২০২০ সালের একই সময়ে দাম ছিল ১০০-১১০ টাকা লিটার।

এক সপ্তাহ আগেও খোলা বাজারে সয়াবিন তেল প্রতি লিটার বিক্রি হয়েছে ১৩০ টাকা থেকে ১৩৬ টাকা দরে। সোমবার বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা দরে। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে লিটারপ্রতি দাম ৪-৫ টাকা বেড়েছে। গত বছর একই সময়ে এ তেল বিক্রি হয়েছিল ৮৮-৯৩ টাকা লিটার। এক বছরের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৪৫-৫০ টাকা।

টিসিবির পরিসংখ্যানে আরও দেখা যায়, রাজধানীতে বোতলজাত পামওয়েল তেল বিক্রি হচ্ছে লিটারপ্রতি ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকায়। এক সপ্তাহ আগেও দাম ছিল লিটারপ্রতি ১২৮-১৩০ টাকা। ২০২০ সালের ১০ অক্টোবর বোতলজাত পামওয়েল তেল বিক্রি হয়েছিল লিটারপ্রতি ৮৪ টাকা থেকে ৯০ টাকায়। সেই হিসেবে এক বছরের ব্যবধানে বোতলজাত পামওয়েল তেলের দাম বেড়েছে ৪০-৪৫ টাকা।

প্রতিষ্ঠানটির মতে, খোলাবাজারে পামওয়েল তেল লিটারপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ১২৫-১৩০ টাকায়। যা এ সপ্তাহেও বিক্রি হয়েছে ১২৫-১২৮ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ২ টাকা। এক মাস আগে খোলাবাজারে পামওয়েল তেল বিক্রি হয়েছিল ১১৬ থেকে ১২০ টাকায়। এক বছর আগে অর্থাৎ ২০২০ সালের একই দিন বিক্রি হয়েছিল ৮২-৮৪ টাকা লিটারে। সেই হিসাবে এক মাসের ব্যবধানে খোলা পামওয়েল তেলের দাম বেড়েছে ১০-১৫ টাকা, বছরের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৪০-৪৬ টাকা।

চাল, ডালের পর আরেক দফা তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ায় বড় বিপাকে পড়েছেন নিম্নবিত্ত থেকে মধ্যআয়ের পরিবারগুলো। সবার যেন হাত পুড়ছে বাজারে গিয়ে। তারা আকুতি জানাচ্ছেন এ অবস্থা থেকে উত্তরণে।

back to top