alt

অর্থ-বাণিজ্য

১৫০টি শুল্ক স্টেশন বন্ধ করার কথা ভাবছে এনবিআর

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১

সারাদেশে ১৮০টির বেশি শুল্ক স্টেশন আছে। এর মধ্যে মাত্র ৩০টির কার্যক্রম চালু আছে। আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম নেই, অবকাঠামো দুর্বল এমন প্রায় ১৫০টি ল্যান্ড কাস্টমস স্টেশন (এলসি স্টেশন) বন্ধ করে দিতে চায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

এ বিষয়ে বুধবার (১৩ অক্টোবর) ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই), বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ), বাংলাদেশ নিট পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতিসহ (বিকেএমইএ) আমদানি-রপ্তানিকারক অন্য সংগঠনের সঙ্গে বৈঠক করেছে এনবিআর। বৈঠকে উপস্থিত একাধিক নেতা ও এনবিআর কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, এনবিআর চেয়ারম্যান সভায় উপস্থিত ছিলেন। তবে এখনই স্টেশনগুলো বন্ধ করার কোন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সহ অন্যদের সঙ্গে আলোচনার পর তা চূড়ান্ত করা হবে বলে এনবিআর সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

সভায় অকার্যকর এলসি স্টেশন বন্ধ নিয়ে ব্যবসায়ীদের কোন আপত্তি নেই বলে ব্যবসায়ী নেতারা জানিয়েছেন। যেসব স্টেশন রাখা হবে, সেগুলোর অবকাঠামোসহ অন্য সুযোগ-সুবিধা যাতে আরও বাড়ানো যায় সে অনুরোধ জানানো হয়েছে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে। এ বিষয়ে এনবিআরও ইতিবাচক মতামত দিয়েছে বলে জানা গেছে।

রাজস্ব বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, বাকি বিপুল সংখ্যক স্টেশনে গত কয়েক দশক ধরেই কোন কার্যক্রম নেই। প্রায় ১৫০টি শুল্ক স্টেশন বিলুপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিতে চলতি বছরের শুরুতে কাজ শুরু করেছে এনবিআর। তবে কোন্ কোন্ শুল্ক স্টেশন বিলুপ্ত করা হবে তা নিয়ে বাণিজ্য, নৌ, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর সঙ্গে আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠানিক একাধিক সভাও করেছে এনবিআর। গত তিন বছরে কোন আমদানি-রপ্তানি হয়নি এমন শুল্ক স্টেশন বিলুপ্ত করতে চলতি বছরের ২৫ জানুয়ারি নৌ, বাণিজ্য, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা হয়। এতে কাগজে-কলমে থাকা শতাধিক স্টেশন বন্ধে সবার মতামত নেয়া হয়।

এর আগেও ২০১২ সালে অকার্যকর শুল্ক স্টেশন বন্ধ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল। এজন্য একটি কমিটিও গঠিত হয়েছিল, পরে সেই উদ্যোগ আর আলোর মুখ দেখেনি। ২০০৭ সালের জুলাই মাসে ৫০টি শুল্ক স্টেশনকে অকার্যকর ঘোষণা করে এনবিআর। তবে পূর্বানুমতি নিয়ে এসব শুল্ক স্টেশন ব্যবহার করে পণ্য আমদানি-রপ্তানি করার সুযোগ রাখা হয়। এনবিআর সূত্রে জানা গেছে, গত ১০ বছরে কোন আমদানিকারক ও রপ্তানিকারক এই সুযোগ নেননি।

ছবি

চাকরি প্রার্থীদের অদক্ষতা বেশি ‘ইংরেজি ও যোগাযোগে’

স্টেকহোল্ডারদের ওএমএস দিয়ে কাজ শুরুর তাগিদ দিলেন শিবলী

আইপিডিসি চালু করলো কার্ডবিহীন ইএমআই সুবিধা

ছবি

দেশে অর্গানিক খাদ্যের উদ্যোক্তা বাড়ানোর তাগিদ

ছবি

রানার অটোমোবাইলস ও নগদ এর মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত

স্বাস্থ্যবিধি মানতে কঠোর হচ্ছে বিজিএমইএ, রয়েছে মাস্ক ব্যবহারসহ ১৭ নির্দেশনা

নারীর সক্রিয় অংশগ্রহণে অর্থনৈতিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন সম্ভব

ছবি

১৭০ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া মসলিনের গৌরব ফিরিয়ে আনবো : বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী

ছবি

রপ্তানির পালে লেগেছে বড় হাওয়া লক্ষ্যমাত্রাকেও ছাড়ালো নভেম্বরে

উত্থানের সপ্তাহে পৌনে সাত হাজার কোটি টাকা ফিরলো শেয়ারবাজারে

ভ্যাট না দিয়ে ব্যবসা করছে আমেরিকান বার্গার, গোয়েন্দাদের অভিযান

ছবি

আঙ্কটাডের প্রতিবেদন : বৈশ্বিক বাণিজ্য ২৮ ট্রিলিয়নে পৌঁছবে, রয়েছে শঙ্কাও

ছবি

বাণিজ্য বৃদ্ধিতে বিবিসিসিআইকে অনুরোধ বিজিএমইএর

ওয়ালটন ল্যাপটপ অ্যাক্সেসরিজে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়

ছবি

পাঁচ মাসে পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ২৩ শতাংশ

আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

পুঁজিবাজার নিয়ে অর্থ মন্ত্রণালয় বৈঠক

ঢাকাই মসলিন হাউস প্রতিষ্ঠা করবে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়

এবার ভ্যাট নিবন্ধন নিল নেটফ্লিক্স

কাস্টমসে রাজস্ব কর্মকর্তা পদে ১৬৩ জনের পদোন্নতি

রাশিয়ায় পোশাক রপ্তানি করতে চায় বিজিএমইএ

তেলের মূল্যবৃদ্ধি বাস্তবসম্মত নয় : ক্যাব

ছবি

ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প মেলা শুরু রোববার

শেয়ারবাজারের বড় উত্থান

ছবি

রেমিটেন্স কমতে থাকলে চাপ পড়বে রিজার্ভে

ছবি

১২ কেজি এলপিজির দাম কমলো ৮৫ টাকা

ছবি

ভ্যাট নিবন্ধন নিল নেটফ্লিক্স

ছবি

আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

নানা সূচকে এগিয়েছে বাংলাদেশ, পেছনে ফেলছে ভারত-পাকিস্তানকে

ডিএসইতে দেড়শ, সিএসইতে চারশ পয়েন্টের উত্থান

ছবি

বৈষম্য ও দূর্নীতি বেড়েছে

নভেম্বরে বিও হিসাব বেড়েছে ৯ হাজার

ছবি

স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ডের বিষয়ে একমত বাংলাদেশ ব্যাংক

পঞ্চম বছরেও হতাশ করলো তুং হাই

বন্ধের মেয়াদ ৩০ দফা বাড়ল বেক্সিমকো সিনথেটিকসের

ছবি

বিএফআইইউ’র প্রধান হলেন মাসুদ বিশ্বাস

tab

অর্থ-বাণিজ্য

১৫০টি শুল্ক স্টেশন বন্ধ করার কথা ভাবছে এনবিআর

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১

সারাদেশে ১৮০টির বেশি শুল্ক স্টেশন আছে। এর মধ্যে মাত্র ৩০টির কার্যক্রম চালু আছে। আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম নেই, অবকাঠামো দুর্বল এমন প্রায় ১৫০টি ল্যান্ড কাস্টমস স্টেশন (এলসি স্টেশন) বন্ধ করে দিতে চায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

এ বিষয়ে বুধবার (১৩ অক্টোবর) ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই), বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ), বাংলাদেশ নিট পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতিসহ (বিকেএমইএ) আমদানি-রপ্তানিকারক অন্য সংগঠনের সঙ্গে বৈঠক করেছে এনবিআর। বৈঠকে উপস্থিত একাধিক নেতা ও এনবিআর কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, এনবিআর চেয়ারম্যান সভায় উপস্থিত ছিলেন। তবে এখনই স্টেশনগুলো বন্ধ করার কোন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সহ অন্যদের সঙ্গে আলোচনার পর তা চূড়ান্ত করা হবে বলে এনবিআর সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

সভায় অকার্যকর এলসি স্টেশন বন্ধ নিয়ে ব্যবসায়ীদের কোন আপত্তি নেই বলে ব্যবসায়ী নেতারা জানিয়েছেন। যেসব স্টেশন রাখা হবে, সেগুলোর অবকাঠামোসহ অন্য সুযোগ-সুবিধা যাতে আরও বাড়ানো যায় সে অনুরোধ জানানো হয়েছে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে। এ বিষয়ে এনবিআরও ইতিবাচক মতামত দিয়েছে বলে জানা গেছে।

রাজস্ব বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, বাকি বিপুল সংখ্যক স্টেশনে গত কয়েক দশক ধরেই কোন কার্যক্রম নেই। প্রায় ১৫০টি শুল্ক স্টেশন বিলুপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিতে চলতি বছরের শুরুতে কাজ শুরু করেছে এনবিআর। তবে কোন্ কোন্ শুল্ক স্টেশন বিলুপ্ত করা হবে তা নিয়ে বাণিজ্য, নৌ, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর সঙ্গে আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠানিক একাধিক সভাও করেছে এনবিআর। গত তিন বছরে কোন আমদানি-রপ্তানি হয়নি এমন শুল্ক স্টেশন বিলুপ্ত করতে চলতি বছরের ২৫ জানুয়ারি নৌ, বাণিজ্য, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা হয়। এতে কাগজে-কলমে থাকা শতাধিক স্টেশন বন্ধে সবার মতামত নেয়া হয়।

এর আগেও ২০১২ সালে অকার্যকর শুল্ক স্টেশন বন্ধ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল। এজন্য একটি কমিটিও গঠিত হয়েছিল, পরে সেই উদ্যোগ আর আলোর মুখ দেখেনি। ২০০৭ সালের জুলাই মাসে ৫০টি শুল্ক স্টেশনকে অকার্যকর ঘোষণা করে এনবিআর। তবে পূর্বানুমতি নিয়ে এসব শুল্ক স্টেশন ব্যবহার করে পণ্য আমদানি-রপ্তানি করার সুযোগ রাখা হয়। এনবিআর সূত্রে জানা গেছে, গত ১০ বছরে কোন আমদানিকারক ও রপ্তানিকারক এই সুযোগ নেননি।

back to top