alt

অর্থ-বাণিজ্য

স্বাস্থ্যবিধি মানতে কঠোর হচ্ছে বিজিএমইএ, রয়েছে মাস্ক ব্যবহারসহ ১৭ নির্দেশনা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১

মহামারি করোনার নতুন ধরন অমিক্রন বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। ধরনটি দ্রুত ছাড়তে পারে এ আশঙ্কায় রপ্তানিমুখী পোশাক কারখানাগুলোর প্রতি ১৭টি নির্দেশনা দিয়ে তা মানতে বলেছে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ।

নিজেদের সদস্য কারখানার প্রতি গত সপ্তাহে দেয়া এ নির্দেশনায় বিজিএমইএ বলেছে, পোশাক কারখানায় উৎপাদন শুরু ও ছুটির সময় শ্রমিকদের ভিড় এড়ানোর জন্য ভিন্ন ভিন্ন সময় নির্ধারণে জোর দিতে হবে। তা ছাড়া শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচলের ব্যবস্থা করা দরকার। সম্ভব হলে বিভিন্ন বিভাগের কর্মঘণ্টার জন্য আলাদা শিফটের ব্যবস্থা করা যেতে পারে। কারখানায় প্রবেশের সময় শ্রমিকদের দেহের তাপমাত্রা পরিমাপ এবং প্রয়োজনে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাঠাতে হবে।

কারখানায় প্রবেশের সময় প্রধান ফটকসংলগ্ন এলাকায় শ্রমিকদের হাত ধোয়ার জন্য পর্যাপ্ত সাবান-পানির ব্যবস্থা করার নির্দেশনা দিয়েছে বিজিএমইএ। এ ছাড়া কাজের জায়গায় শ্রমিকদের ভিড় এড়িয়ে চলার জন্য শ্রমিকদের উৎসাহিত করতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া দুপুরের খাবারের বিরতিসহ অন্যান্য বিরতির সময় বিভিন্ন বিভাগের শ্রমিকদের আলাদা আলাদা সময় নির্ধারণ করতে হবে। কর্মক্ষেত্রে সার্বক্ষণিকভাবে শ্রমিক-কর্মচারীদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে সদস্য কারখানাগুলোর প্রতি এ নির্দেশনা দিয়েছে বিজিএমইএ। এছাড়া সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় ও অন্যান্য লোকসমাগম এড়িয়ে চলতে শ্রমিকদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বিজিএমইএর নির্দেশনায় বলা হয়েছে, করোনা সংক্রমণের লক্ষণ থাকলে সংশ্লিষ্ট কর্মীকে আইসোলেশনে রাখতে হবে। তার নমুনা পরীক্ষার জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে সহায়তা দেয়ার ব্যবস্থা নিতে হবে। পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ হলে রোগীকে আইসোলেশনের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট রোগীর সংস্পর্শে আসা অন্যদের কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করতে হবে কারখানা কর্তৃপক্ষকে।

বিজিএমইএর সচিব মো. ফয়জুর রহমান স্বাক্ষরিত এ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সম্মিলিত প্রচেষ্টায় তৈরি পোশাকশিল্পে করোনার সংক্রমণের মাত্রা ছিল খুবই সামান্য। সরকারের স্বাস্থ্য সুরক্ষা গাইডলাইন ও হেলথ প্রটোকল যথাযথভাবে অনুসরণ করে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হয়েছিল। অতীতের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিলে করোনার নতুন ধরন অমিক্রনও নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হবে।

নতুন বেতন কাঠামো বাস্তবায়নে এক বছর সময় চায় ব্যাংক মালিকরা

ছবি

প্রত্যাশা অনুযায়ী ক্রেতা আসছে না, বাণিজ্য মেলায় টিকিট বিক্রি কম

প্রাক-বাজেট আলোচনা শুরু ৬ ফেব্রুয়ারি

আগামী বছরই উৎপাদনে যাচ্ছে জাপানি অর্থনৈতিক অঞ্চল

ব্যাংকে সব নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

তিন সপ্তাহ পর শেয়ারবাজারে পতন, মূলধন কমলো ২ হাজার ৩শ’ কোটি টাকা

ছবি

ঘুরে দাঁড়িয়েছে শিল্প-অবকাঠামো খাত, বৈশ্বিক ইস্পাত উৎপাদনে বড় উত্থান

ছবি

জেএমআই হসপিটালের আইপিওর আবেদন শুরু ২৭ ফেব্রুয়ারি

ছবি

শ্রীলঙ্কায় বেক্সিমকো ফার্মার বিনিয়োগের পথ সহজ হলো

ছবি

সাশ্রয়ী দামের ফাস্ট চার্জিং স্মার্টফোন ভিশন ৩

আরও ১২৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা গ্রামীণফোনের

ব্লক মার্কেটে ৩০ কোটি টাকার লেনদেন

খারাপ পরিস্থিতিতেও চলবে ব্যাংকে লেনদেন

ছবি

বিদেশে বিনিয়োগের সুযোগ দিয়ে বিধিমালা জারি

সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

বাজেট প্রস্তাব চেয়েছে এনবিআর

ছবি

অর্থবছর শেষে মাথাপিছু আয় হবে দুই হাজার ৭৮৫ ডলার

ডিএসইতে সূচক বাড়লেও সিএসইতে পতন

কঠোর আইনের মাধ্যমে অর্থপাচার রোধ করেছে দ.কোরিয়া, বাংলাদেশেও দরকার

কিউকমে আটকে থাকা টাকা ফেরত পেতে শুরু করেছে গ্রাহকরা

ছবি

ব্যাংকারদের বেতন কাঠামো বাস্তবায়নে সময় চায় মালিকপক্ষ

এটিএম বুথ ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ে নগদ টাকা বাড়ানোর নির্দেশ

বাস্তবায়ন হচ্ছে না বেসরকারি ব্যাংকের নতুন বেতন

পেপারবিহীন যুগে ডিএসই

পাঁচ ব্যাংকের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

ডিএসইতে সূচক বাড়লেও সিএসইতে পতন

ছবি

এবার বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর উদ্যোগ

আদালত মনোনীত ফার্ম দিয়ে ইভ্যালির অডিট করানো যাবে

অদক্ষতার অজুহাতে পদত্যাগে বাধ্য করা যাবে না, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশ

ফ্রিজ, এসি আমদানিতে স্ট্যান্ডার্ড এনার্জি রেটিং আরোপের দাবি

ইউনিয়ন ব্যাংকের শেয়ার লেনদেন শুরু

বাণিজ্য মেলা বন্ধের সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি

ছবি

অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত ব্যাংককর্মীকে পদত্যাগে বাধ্য করা যাবে না

ছবি

করোনা মোকাবিলায় সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ

মূল্য সংশোধন শেষে ঘুরে দাঁড়িয়েছে পুঁজিবাজার

কিউকম গ্রাহকদের আটকে থাকা অর্থ ফেরত দেয়া শুরু

tab

অর্থ-বাণিজ্য

স্বাস্থ্যবিধি মানতে কঠোর হচ্ছে বিজিএমইএ, রয়েছে মাস্ক ব্যবহারসহ ১৭ নির্দেশনা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১

মহামারি করোনার নতুন ধরন অমিক্রন বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। ধরনটি দ্রুত ছাড়তে পারে এ আশঙ্কায় রপ্তানিমুখী পোশাক কারখানাগুলোর প্রতি ১৭টি নির্দেশনা দিয়ে তা মানতে বলেছে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ।

নিজেদের সদস্য কারখানার প্রতি গত সপ্তাহে দেয়া এ নির্দেশনায় বিজিএমইএ বলেছে, পোশাক কারখানায় উৎপাদন শুরু ও ছুটির সময় শ্রমিকদের ভিড় এড়ানোর জন্য ভিন্ন ভিন্ন সময় নির্ধারণে জোর দিতে হবে। তা ছাড়া শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচলের ব্যবস্থা করা দরকার। সম্ভব হলে বিভিন্ন বিভাগের কর্মঘণ্টার জন্য আলাদা শিফটের ব্যবস্থা করা যেতে পারে। কারখানায় প্রবেশের সময় শ্রমিকদের দেহের তাপমাত্রা পরিমাপ এবং প্রয়োজনে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাঠাতে হবে।

কারখানায় প্রবেশের সময় প্রধান ফটকসংলগ্ন এলাকায় শ্রমিকদের হাত ধোয়ার জন্য পর্যাপ্ত সাবান-পানির ব্যবস্থা করার নির্দেশনা দিয়েছে বিজিএমইএ। এ ছাড়া কাজের জায়গায় শ্রমিকদের ভিড় এড়িয়ে চলার জন্য শ্রমিকদের উৎসাহিত করতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া দুপুরের খাবারের বিরতিসহ অন্যান্য বিরতির সময় বিভিন্ন বিভাগের শ্রমিকদের আলাদা আলাদা সময় নির্ধারণ করতে হবে। কর্মক্ষেত্রে সার্বক্ষণিকভাবে শ্রমিক-কর্মচারীদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে সদস্য কারখানাগুলোর প্রতি এ নির্দেশনা দিয়েছে বিজিএমইএ। এছাড়া সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় ও অন্যান্য লোকসমাগম এড়িয়ে চলতে শ্রমিকদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বিজিএমইএর নির্দেশনায় বলা হয়েছে, করোনা সংক্রমণের লক্ষণ থাকলে সংশ্লিষ্ট কর্মীকে আইসোলেশনে রাখতে হবে। তার নমুনা পরীক্ষার জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে সহায়তা দেয়ার ব্যবস্থা নিতে হবে। পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ হলে রোগীকে আইসোলেশনের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট রোগীর সংস্পর্শে আসা অন্যদের কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করতে হবে কারখানা কর্তৃপক্ষকে।

বিজিএমইএর সচিব মো. ফয়জুর রহমান স্বাক্ষরিত এ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সম্মিলিত প্রচেষ্টায় তৈরি পোশাকশিল্পে করোনার সংক্রমণের মাত্রা ছিল খুবই সামান্য। সরকারের স্বাস্থ্য সুরক্ষা গাইডলাইন ও হেলথ প্রটোকল যথাযথভাবে অনুসরণ করে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হয়েছিল। অতীতের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিলে করোনার নতুন ধরন অমিক্রনও নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হবে।

back to top