alt

অর্থ-বাণিজ্য

রেকর্ড মজুদ চালের, তবুও কমছে না দাম

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : শনিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২২

বর্তমান সময়ে চালের মজুদ আগের যেকোন বছরের তুলনায় সর্বোচ্চ থাকলেও গত এক মাস ধরেই রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়তি অবস্থায় আছে। এই বছর আমনের ভাল ফলন আর বোর মৌসুমে ধানের সর্বোচ্চ উৎপাদন হলেও শুক্রবার রাজধানীর কয়েকটি বাজারে দেখা গেছে পুরনো চালের দাম কেজিতে অন্তত দুই টাকা করে বাড়ানো হয়েছে। যদিও সরকারের কাছ থেকে চালের শুল্ক সুবিধা কমানোসহ সংগ্রহকালীন সুবিধা নিয়েছেন মিলার ও ব্যবসায়ীরা।

ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ- টিসিবির হিসাবে গত একমাসে সব ধরনের চালের দাম গড়ে ৩ শতাংশ করে বাড়ানো হয়েছে। এক বছরে চালের দাম আগের তুলনায় বেড়েছে ৮ শতাংশ।

রাজধানীর কাজীপাড়ার এক মুদি দোকানে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ভালো মানের চাল বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ৬৮ টাকায় যা গত একমাস আগেও ছিল ৬৫ টাকা।

কাওরান বাজারের মা রাইস এজেন্সির সলিমুল্লাহ শেখ জানান, গত এক মাস ধরে মিনিকেট ও নাজির শাইলের বাজার বেশি বাড়তি। এ দুই ধরনের চালের ৫০ কেজির বস্তা ৫০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

টিসিবির তথ্য মতে, ধানের সর্বোচ্চ উৎপাদন ও সরকারের থেকে সকল সুযোগ সুবিধা পাওয়ার পরেও বাজারে চালের দাম আগের থেকে বাড়তি।

মিরপুর-১ নম্বার পাইকারি বাজার শাহ আলী মার্কেটের আক্তার এজেন্সির মোঃ শহিদ বলেন, পুরাতন মিনিকেট, পোলাও চাল ও নাজির চালের দাম বেড়েছে। নতুন মৌসুমের নাজিরশাইল চাল প্রতিকেজি ৫৮ টাকা এবং পুরান মৌসুমের চাল ৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কেজিতে চালের দাম বেড়েছে ২ টাকা করে।

বাজারে মিনিকেট চালের বস্তা এখন তিন হাজার টাকার নিচে নেই। যদিও দোকানের মূল্য তালিকায় দেখা যায়, মিনিকেট চাল প্রতিকেজি ৫৮ থেকে ৬০ টাকা, নাজিরশাইল ৬০ থেকে ৬৫ টাকা, বিআর ৪৫ থেকে ৫০ টাকা, পাইজাম ৪৫ টাকা, চিনিগুড়া ৭৬ থেকে ৮৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ধানমন্ডির চাল ব্যবসায়ী করিম মোল্লা বলেন, একমাসে চালের দাম বৃদ্ধি আছে, মিলের মালিকরা দাম কমালে আমারাও কমাতে পারবো।

চালের সর্বোচ্চ মজুদ, সরকারের মজুদ বৃদ্ধির পরিকল্পনা এবং সরবরাহ বাড়াতে শুল্ক কমানোসহ নানা উদ্যোগ নিয়েও বাজারে চালের দাম নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না। দেশের বড় ৫০টি অটো রাইস মিলের হাতেই থাকে বেশির ভাগ ধান-চালের মজুদ। প্রচলিত আইনের মধ্যেই চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে বড় প্রভাবক হিসেবে কাজ করছে তারা।

সপ্রতি ঢাকায় ডি-৮ সম্মেলন কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক বলেছিলেন, চালের উৎপাদন প্রতিবছর বাড়ছে। বাজারে চালও আছে পর্যাপ্ত। সরকারি হিসাবে দেশে খাদ্যের মজুদও সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে।

খাদ্য মন্ত্রণালয়ের গত ১১ জানুয়ারির তথ্য অনুযায়ী, খাদ্যশস্যের মোট মজুদ এখন ১৯ লাখ ৬৩ হাজার টন। এর মধ্যে চাল ১৫ লাখ ৯২ হাজার মেট্রিক টন, ধান ৩৬ হাজার মেট্রিক টন আর গমের মজুদ ৩ লাখ ৪৮ হাজার টন।

খাদ্য মন্ত্রনালয়ে সচিব ড. নাজমানারা খানুম বলেন, চালের দাম সহনীয় করতে সরকার বিভিন্নভাবে উদ্যোগ নিয়েছে খুব দ্রুত রাজধানীর বাজারগুলোতে চালের দাম কমবে বলে আশা করা হচ্ছে।

চলতি আমন মৌসুমে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে ৩ লাখ মেট্রিক টন আমন ধান এবং ৫ লাখ মেট্রিক টন সিদ্ধ আমন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে সরকার। এর মধ্যে গত ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত ৪ লাখ ৩৪ হাজার টন চাল সংগ্রহ করা হয়েছে। গত বোরো মৌসুমে (২০২০-২১ অর্থবছর) ২ কোটি ৮ লাখ টন বোরো ধান উৎপাদিত হয়েছিল যা দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। একই সময়ে সব ধরনের খাদ্যের উৎপাদনও বেড়েছে। মোটা চাল উৎপাদন হয়েছে ৩ কোটি ৮৬ লাখ টন,গম ১২ লাখ টন, ভুট্টা ১৭ লাখ টন, আলু এক কোটি ৬ লাখ টন এবং পেঁয়াজের উৎপাদন এক লাখ টন বেড়ে ৩৩ লাখ টন হয়েছে।

ছবি

সময় না বাড়ালে ৫০ শতাংশ ব্যবসায়ীই খেলাপি হবেন

ছবি

ক্রমেই জনপ্রিয় হচ্ছে মোবাইল ব্যাংকিং, নভেম্বরে লেনদেন ৯০ হাজার কোটি টাকা

ছবি

ডিজিটাল কমার্স খাতে স্থিতিশীলতা আনতে চালু হচ্ছে ইউবিআইডি: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

শর্ত পূরণে ব্যর্থ সাকিব, পিপলস ব্যাংকের আবেদন বা‌তিল

ছবি

ব্যাংকারদের সর্বনিম্ন বেতন বেঁধে দিলো বাংলাদেশ ব্যাংক

সূচকের উত্থান হলেও কমেছে লেনদেন

বিজিএমইএকে কৌশলগত সহায়তা দেবে ডেলমরগান

রপ্তানিতে সিআইপি কার্ড পেলেন ১৭৬ ব্যবসায়ী

ইরাক বাড়াতে চায় বাণিজ্য, বিনিয়োগে আগ্রহী

দেশে চা উৎপাদনে সর্বোচ্চ রেকর্ড

বিনিয়োগকারী সংকটে অবমূল্যায়িত শেয়ার দর

ব্যাংকারদের সর্বনিম্ন বেতন বেঁধে দিলো বাংলাদেশ ব্যাংক

২২২ কোম্পানির দর বেড়ে লেনদেন চলছে পুঁজিবাজারে

ছবি

চা উৎপাদনে ইতিহাসের সর্বোচ্চ রেকর্ড

ছবি

নিত্যপণ্যের দাম : ব্যবসায়ীদের কাছে ১৫ দিন সময় চাইলো সরকার

সূচকের সঙ্গে লেনদেনও বেড়েছে শেয়ারবাজারে

ছবি

মাতারবাড়ী সমুদ্র বন্দরে এক লাখ টনের জাহাজ ভিড়তে পারবে : নৌ-প্রতিমন্ত্রী

গবেষণা ও উদ্ভাবনে একসঙ্গে কাজ করবে বুয়েট-ওয়ালটন

ছবি

গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীরা

সূচক বাড়লেও লেনদেন মন্দা পুঁজিবাজারে

বস্ত্র খাতের শেয়ারের তেজিভাব, সূচক-লেনদেন ঊর্ধ্বমুখী

ভ্রমণ ও পর্যটনকে হাতের মুঠোয় নিয়ে এসেছে অনলাইন ট্রাভেল এজেন্সি (ওটিএ)

ছবি

বড় ঋণে কঠোর হলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক, এক গ্রুপকে ২৫ শতাংশের বেশি নয়

বাংলাদেশে ‘কিচেন মার্কেট’ করবে ভারত

বাংলাদেশ-দ.কোরিয়ার মধ্যে বাণিজ্য সম্প্রসারণের সম্ভাবনা রয়েছে : ফারুক

সূচকের সঙ্গে লেনদেনও বেড়েছে শেয়ারবাজারে

আইনি জটিলতায় শিল্পনীতির সুবিধা নিতে পারছেন না উদ্যোক্তারা : এফবিসিসিআই

সূচক উর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন চলছে

ছবি

নির্মাণখাত রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এফবিসিসিআই’র চিঠি

সূচক ও লেনদেনের সামান্য উত্থান

বাংলাদেশকে ‘সার্কুলার ইকোনমি’ মডেল অনুসরণ করতে হবে : শিল্পমন্ত্রী

ইভ্যালি বোর্ডকে ২ কোটি ৩৫ লাখ টাকা তোলার অনুমতি

ছবি

স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের স্বতন্ত্র পরিচালক হলেন হাফিজ আহমেদ

সূচক বেড়ে লেনদেন চলছে পুঁজিবাজারে

ছবি

তৈরি পোশাক সর্বোচ্চ রপ্তানি যুক্তরাষ্ট্রে, প্রবৃদ্ধি ৪৬ শতাংশ

ছবি

ছুটির দিনে বাণিজ্য মেলায় ক্রেতাদের ভিড়

tab

অর্থ-বাণিজ্য

রেকর্ড মজুদ চালের, তবুও কমছে না দাম

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

শনিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২২

বর্তমান সময়ে চালের মজুদ আগের যেকোন বছরের তুলনায় সর্বোচ্চ থাকলেও গত এক মাস ধরেই রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়তি অবস্থায় আছে। এই বছর আমনের ভাল ফলন আর বোর মৌসুমে ধানের সর্বোচ্চ উৎপাদন হলেও শুক্রবার রাজধানীর কয়েকটি বাজারে দেখা গেছে পুরনো চালের দাম কেজিতে অন্তত দুই টাকা করে বাড়ানো হয়েছে। যদিও সরকারের কাছ থেকে চালের শুল্ক সুবিধা কমানোসহ সংগ্রহকালীন সুবিধা নিয়েছেন মিলার ও ব্যবসায়ীরা।

ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ- টিসিবির হিসাবে গত একমাসে সব ধরনের চালের দাম গড়ে ৩ শতাংশ করে বাড়ানো হয়েছে। এক বছরে চালের দাম আগের তুলনায় বেড়েছে ৮ শতাংশ।

রাজধানীর কাজীপাড়ার এক মুদি দোকানে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ভালো মানের চাল বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ৬৮ টাকায় যা গত একমাস আগেও ছিল ৬৫ টাকা।

কাওরান বাজারের মা রাইস এজেন্সির সলিমুল্লাহ শেখ জানান, গত এক মাস ধরে মিনিকেট ও নাজির শাইলের বাজার বেশি বাড়তি। এ দুই ধরনের চালের ৫০ কেজির বস্তা ৫০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

টিসিবির তথ্য মতে, ধানের সর্বোচ্চ উৎপাদন ও সরকারের থেকে সকল সুযোগ সুবিধা পাওয়ার পরেও বাজারে চালের দাম আগের থেকে বাড়তি।

মিরপুর-১ নম্বার পাইকারি বাজার শাহ আলী মার্কেটের আক্তার এজেন্সির মোঃ শহিদ বলেন, পুরাতন মিনিকেট, পোলাও চাল ও নাজির চালের দাম বেড়েছে। নতুন মৌসুমের নাজিরশাইল চাল প্রতিকেজি ৫৮ টাকা এবং পুরান মৌসুমের চাল ৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কেজিতে চালের দাম বেড়েছে ২ টাকা করে।

বাজারে মিনিকেট চালের বস্তা এখন তিন হাজার টাকার নিচে নেই। যদিও দোকানের মূল্য তালিকায় দেখা যায়, মিনিকেট চাল প্রতিকেজি ৫৮ থেকে ৬০ টাকা, নাজিরশাইল ৬০ থেকে ৬৫ টাকা, বিআর ৪৫ থেকে ৫০ টাকা, পাইজাম ৪৫ টাকা, চিনিগুড়া ৭৬ থেকে ৮৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ধানমন্ডির চাল ব্যবসায়ী করিম মোল্লা বলেন, একমাসে চালের দাম বৃদ্ধি আছে, মিলের মালিকরা দাম কমালে আমারাও কমাতে পারবো।

চালের সর্বোচ্চ মজুদ, সরকারের মজুদ বৃদ্ধির পরিকল্পনা এবং সরবরাহ বাড়াতে শুল্ক কমানোসহ নানা উদ্যোগ নিয়েও বাজারে চালের দাম নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না। দেশের বড় ৫০টি অটো রাইস মিলের হাতেই থাকে বেশির ভাগ ধান-চালের মজুদ। প্রচলিত আইনের মধ্যেই চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে বড় প্রভাবক হিসেবে কাজ করছে তারা।

সপ্রতি ঢাকায় ডি-৮ সম্মেলন কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক বলেছিলেন, চালের উৎপাদন প্রতিবছর বাড়ছে। বাজারে চালও আছে পর্যাপ্ত। সরকারি হিসাবে দেশে খাদ্যের মজুদও সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে।

খাদ্য মন্ত্রণালয়ের গত ১১ জানুয়ারির তথ্য অনুযায়ী, খাদ্যশস্যের মোট মজুদ এখন ১৯ লাখ ৬৩ হাজার টন। এর মধ্যে চাল ১৫ লাখ ৯২ হাজার মেট্রিক টন, ধান ৩৬ হাজার মেট্রিক টন আর গমের মজুদ ৩ লাখ ৪৮ হাজার টন।

খাদ্য মন্ত্রনালয়ে সচিব ড. নাজমানারা খানুম বলেন, চালের দাম সহনীয় করতে সরকার বিভিন্নভাবে উদ্যোগ নিয়েছে খুব দ্রুত রাজধানীর বাজারগুলোতে চালের দাম কমবে বলে আশা করা হচ্ছে।

চলতি আমন মৌসুমে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে ৩ লাখ মেট্রিক টন আমন ধান এবং ৫ লাখ মেট্রিক টন সিদ্ধ আমন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে সরকার। এর মধ্যে গত ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত ৪ লাখ ৩৪ হাজার টন চাল সংগ্রহ করা হয়েছে। গত বোরো মৌসুমে (২০২০-২১ অর্থবছর) ২ কোটি ৮ লাখ টন বোরো ধান উৎপাদিত হয়েছিল যা দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। একই সময়ে সব ধরনের খাদ্যের উৎপাদনও বেড়েছে। মোটা চাল উৎপাদন হয়েছে ৩ কোটি ৮৬ লাখ টন,গম ১২ লাখ টন, ভুট্টা ১৭ লাখ টন, আলু এক কোটি ৬ লাখ টন এবং পেঁয়াজের উৎপাদন এক লাখ টন বেড়ে ৩৩ লাখ টন হয়েছে।

back to top