alt

অর্থ-বাণিজ্য

বিকাশ-রকেটে সরাসরি আসবে রেমিট্যান্স

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২

বিকাশ, রকেট, উপায়ের মতো মোবাইলে আর্থিক সেবাদানকারী (এমএফএস) প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সরাসরি প্রবাসী আয় বা রেমিট্যান্স আনার সুযোগ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের লাইসেন্স প্রাপ্ত এমএফএস প্রতিষ্ঠানে এ সেবা পাবেন প্রবাসীরা। এতে করে তাৎক্ষণিকভাবে রেমিট্যান্স পাঠাতে পারবেন। এতোদিন বিদেশি কোনো ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিট্যান্স এনে ওই অর্থ গ্রাহকের মনোনীত ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দিতে। এখন এমএফএস প্রতিষ্ঠানগুলো সরাসরি রেমিট্যান্স আনতে পারবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এখন থেকে লাইসেন্স প্রাপ্ত মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারেরা প্রবাসী আয় প্রত্যাবাসনের জন্য বিদেশস্থ অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ে সার্ভিস প্রোভাইডার, ব্যাংক, ডিজিটাল ওয়ালেট, কার্ড স্কিম ও এগ্রিগেটর পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হতে পারবে।

আগ্রহী মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস প্রোভাইডারদের আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে আয় প্রত্যাবাসন সংক্রান্ত কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে অনুমোদন চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে আবেদন করতে হবে। সার্কুলারের ভাষ্য অনুযায়ী, বিদেশি প্রতিযোগীদের সঙ্গে স্থানীয় মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস প্রোভাভাইডারদের চুক্তিবদ্ধ হতে হবে। সহযোগী প্রতিষ্ঠানের হিসেবে বৈদেশিক মুদ্রা জমা হবে, যা প্রবাসীর মোবাইল ফাইনান্সিয়াল হিসেবে টাকায় জমা হবে। বিদেশে কর্মরত প্রবাসীরা যথাযথা ই-কেওয়াইসি পরিপালন করে মোবাইল ব্যাংকিং অর্থাৎ এমএফএসে হিসাব খুলতে পারবেন।

এ দেশীয় ব্যাংক মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারদের সেটেলমন্টে অ্যাকাউন্ট সুবিধা দেবে। ব্যাংকের বিদেশি নস্ট্রো হিসাবে অর্থ জমার পর ওই অর্থের সমপরিমাণ টাকা সেটেলমেন্ট হিসাবে জমা হবে।

সংশ্লিষ্টদের মতে, বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নীতিমালার আওতায় স্থানীয় বিকাশ, রকেটের মতো মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারেরা বিদেশ থেকে প্রবাসী আয় প্রত্যাবাসনের সুযোগ পাবে, যা অনানুষ্ঠানিকভাবে প্রবাসী আয় প্রত্যাবাসন বন্ধ করতে সহায়তা করবে।

নস্ট্রো অ্যাকাউন্ট হচ্ছে বৈদেশিক মুদ্রায় বিদেশের দায়-দেনা পরিশোধের জন্য বিদেশের ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশি ব্যাংকগুলোর অ্যাকাউন্ট। এই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে গ্রাহকের পক্ষে বিদেশি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে সংশ্লিষ্ট পণ্য বিক্রেতার এলসি মূল্য পরিশোধ করা হয়। আবার রপ্তানি বিল ও রেমিট্যান্সের অর্থ ওই নস্ট্রো অ্যাকাউন্টে যোগ হয়।

ছবি

আমিরাতেই প্রাণের পণ্য তৈরি করবে ইমার্জিং ওয়ার্ল্ড

ছবি

বাড়তি দরে রেমিট্যান্স সংগ্রহে ব্যাংকগুলোকে বাফেদার সতর্কতা

ছবি

কাস্টমস দিবসে ‘সার্টিফিকেট অব মেরিট’ পেলেন ১৭ কর্মকর্তা

ছবি

গুগলের শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আসছে জনপ্রিয় চ্যাটজিপিটি

ছবি

শুরু হলো ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা ২০২৩

সূচক বেড়েছে, তবে কমেছে লেনদেন

২৮ জানুয়ারি পিপিবির পোল্ট্রি কনভেনশন ও মেলা

ছবি

বাংলাদেশ ও কোরিয়ার মধ্যে বাণিজ্য ৩ দশমিক ৩৫ বিলিয়ন ডলার

ছবি

শেয়ারদর বৃদ্ধির শীর্ষে ইস্টার্ন হাউজিং

ছবি

বাড়ল চিনির দাম, ১ ফেব্রুয়ারি থেকেই কার্যকর

ছবি

সিএসইর ৭ স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ

ছবি

জনশক্তি রপ্তানি দ্বিগুণ, তবু কমল রেমিট্যান্স

ছবি

৯ মাসে ঋণ আদায়ের চেয়ে অবলোপন দ্বিগুণ

ছবি

‘দ্রব্যমূল্য কমাতে শুল্ক ছাড়’ দৃষ্টিভঙ্গির বদল চায় এনবিআর

ছবি

লক্ষ্যের ধারে-কাছেও যেতে পারছে না বিদেশি বিনিয়োগ

ছবি

সাত মাসেই ৮৫০ কোটি ডলার বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক

এলসি খোলার জটিলতায় বিপাকে খুলনার ব্যবসায়ীরা

রোজায় নিত্যপণ্যের দাম বাড়ালে ব্যবস্থা নিতে ডিসিদের নির্দেশ

তৈরি পোশাক কেনা বাড়ানো ও উপযুক্ত দাম নিশ্চিতের আহ্বান

বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চলে ভাইয়া অ্যাপারেলসের বিনিয়োগ

গ্রিন ফ্যাক্টরির প্লাটিনাম সনদ পেল আমানত শাহ

টানা ৩ দিন উত্থান শেয়ারবাজারে

ছবি

ঢাকা ত্যাগ করেছেন বিশ্বব্যাংক এমডি

ছবি

টানা ২৬ দিন ডলারের বিপরীতে পাকিস্তানি রুপির দরপতন

ছবি

মেট্রোরেলঃ চালু হলো পল্লবী স্টেশন, ৭ মিনিটে আগারগাঁও

ছবি

ডলার বিক্রিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন রেকর্ড

বিপিজিএমইএর ১৫তম প্লাস্টিক মেলা ২২ ফেব্রুয়ারি

শেয়ারবাজারে উত্থান

ছবি

ফেয়ার গ্রুপের তৈরি হুন্দাই এসইউভি মিলবে ৯ লাখ টাকা কমে

রমজানে পণ্য সরবরাহ নিরবচ্ছিন্ন রাখতে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহায়তা চায় ডিসিসিআই

এআই খাতে বিনিয়োগ ক্রমেই বাড়ছে, বাড়ছে কর্মী ছাঁটাই

ছবি

উদ্যোক্তাদের প্রযুক্তি সেবা দিচ্ছে সিস্টেমআই

১০ কোটি টাকার ওপরে ঋণ দিতে পারবে না ন্যাশনাল ব্যাংক : কেন্দ্রীয় ব্যাংক

ছবি

ফেব্রুয়ারিতে সাবমেরিন ক্যাবলে বিদ্যুৎ যাচ্ছে কুতুবদিয়া দ্বীপে

ছবি

ফেব্রুয়ারির প্রথম দিনেই শুরু হচ্ছে অমর একুশে বইমেলা

ছবি

ডিজিটাল অভিযাত্রায় বিশ্বব্যাংকের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে: বিশ্ব ব্যাংক

tab

অর্থ-বাণিজ্য

বিকাশ-রকেটে সরাসরি আসবে রেমিট্যান্স

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২

বিকাশ, রকেট, উপায়ের মতো মোবাইলে আর্থিক সেবাদানকারী (এমএফএস) প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সরাসরি প্রবাসী আয় বা রেমিট্যান্স আনার সুযোগ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের লাইসেন্স প্রাপ্ত এমএফএস প্রতিষ্ঠানে এ সেবা পাবেন প্রবাসীরা। এতে করে তাৎক্ষণিকভাবে রেমিট্যান্স পাঠাতে পারবেন। এতোদিন বিদেশি কোনো ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিট্যান্স এনে ওই অর্থ গ্রাহকের মনোনীত ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দিতে। এখন এমএফএস প্রতিষ্ঠানগুলো সরাসরি রেমিট্যান্স আনতে পারবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এখন থেকে লাইসেন্স প্রাপ্ত মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারেরা প্রবাসী আয় প্রত্যাবাসনের জন্য বিদেশস্থ অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ে সার্ভিস প্রোভাইডার, ব্যাংক, ডিজিটাল ওয়ালেট, কার্ড স্কিম ও এগ্রিগেটর পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হতে পারবে।

আগ্রহী মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস প্রোভাইডারদের আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে আয় প্রত্যাবাসন সংক্রান্ত কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে অনুমোদন চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে আবেদন করতে হবে। সার্কুলারের ভাষ্য অনুযায়ী, বিদেশি প্রতিযোগীদের সঙ্গে স্থানীয় মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস প্রোভাভাইডারদের চুক্তিবদ্ধ হতে হবে। সহযোগী প্রতিষ্ঠানের হিসেবে বৈদেশিক মুদ্রা জমা হবে, যা প্রবাসীর মোবাইল ফাইনান্সিয়াল হিসেবে টাকায় জমা হবে। বিদেশে কর্মরত প্রবাসীরা যথাযথা ই-কেওয়াইসি পরিপালন করে মোবাইল ব্যাংকিং অর্থাৎ এমএফএসে হিসাব খুলতে পারবেন।

এ দেশীয় ব্যাংক মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারদের সেটেলমন্টে অ্যাকাউন্ট সুবিধা দেবে। ব্যাংকের বিদেশি নস্ট্রো হিসাবে অর্থ জমার পর ওই অর্থের সমপরিমাণ টাকা সেটেলমেন্ট হিসাবে জমা হবে।

সংশ্লিষ্টদের মতে, বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নীতিমালার আওতায় স্থানীয় বিকাশ, রকেটের মতো মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারেরা বিদেশ থেকে প্রবাসী আয় প্রত্যাবাসনের সুযোগ পাবে, যা অনানুষ্ঠানিকভাবে প্রবাসী আয় প্রত্যাবাসন বন্ধ করতে সহায়তা করবে।

নস্ট্রো অ্যাকাউন্ট হচ্ছে বৈদেশিক মুদ্রায় বিদেশের দায়-দেনা পরিশোধের জন্য বিদেশের ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশি ব্যাংকগুলোর অ্যাকাউন্ট। এই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে গ্রাহকের পক্ষে বিদেশি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে সংশ্লিষ্ট পণ্য বিক্রেতার এলসি মূল্য পরিশোধ করা হয়। আবার রপ্তানি বিল ও রেমিট্যান্সের অর্থ ওই নস্ট্রো অ্যাকাউন্টে যোগ হয়।

back to top