alt

অর্থ-বাণিজ্য

মূলধন কমলো সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা, ১০ কোম্পানিতেই ৩৮ শতাংশ লেনদেন

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ আগের সপ্তাহের তুলনায় কমেছে। গত সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৫৪০ কোটি ১০ টাকা যা মোট লেনদেনের ৩৮ দশমিক ৩৮ শতাংশই দশ কোম্পানির দখলে রয়েছে। ওই দশ কোম্পানি একাই লেনদেন হয়েছে ৯৭৫ কোটি ১ টাকা। শেয়াবাজারে মূলধন পরিমাণ কমেছে ৩ হাজার ৬৯৭ কোটি টাকা। সব ধরনের সূচক পতন হয়েছে। বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে। ডিএসইতে কোম্পানির শেয়ার দর উত্থানের তুলনায় পতন ৯ দশমিক ৪০ বেশি।

গত ১০ অক্টোবর পুঁজিবাজারে সরকারি বন্ডের লেনদেন শুরু হয়। এরপর ডিএসইতে ২৫০ বন্ডের লেনদেন হয়। এতে ডিএসইর বাজার মূলধন ২ লাখ ৫২ হাজার ২৬৩ কোটি ১৩ লাখ টাকা বেড়ে ৭ লাখ ৭৩ হাজার ৯৩৯ কোটি ৫৮ লাখ টাকায় দাঁড়িয়েছিল। এরপর গত ২৭ অক্টোবর বাজার মূলধন কমে দাঁড়িয়েছিল ৭ লাখ ৬৯ হাজার ৪৬৫ কোটি ৭২ লাখ টাকা। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গত বৃহস্পতিবার বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৭ লাখ ৬১ হাজার ৮৯৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকায়। এর আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছিল ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৫৯১ কোটি ৫৯ লাখ টাকায়। এক সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন কমেছে তিন হাজার ৬৯৬ কোটি ৯২ লাখ টাকা।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৫৪০ কোটি ১০ লাখ টাকা।

আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ৫৮৪ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে লেনদেন কমেছে ৪৪ কোটি ৮৭ লাখ টাকা বা ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ। ডিএসইতে প্রতিদিন গড়ে লেনদেন হয়েছে ৫০৮ কোটি ২ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে গড়ে লেনদেন হয়েছিল ৬৪৬ কোটি ২৪ লাখ টাকা। গেল সপ্তাহে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত ৪০০টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এরমধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৫টির, দর কমেছে ১৪১টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২২২টি কোম্পানির। লেনদন হয়নি ২২টি কোম্পানির শেয়ার।

সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স পতনে লেনদেন শেষ হয়। এক সপ্তাহে ব্যবধানে ডিএসইএক্স ৩৯ দশমিক ৯৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৬ হাজার ২২০ দশমিক ২৪ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএসই৩০ সূচক ৮ দশমিক ২১ পয়েন্ট এবং শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস ৫ দশমিক ৪৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় যথাক্রমে ২ হাজার ২১৮ দশমিক ৭৬ পয়েন্টে এবং ১ হাজার ৩৫৬ দশমিক ৮৫ পয়েন্টে। এদিকে গত সপ্তাহের শেষে ডিএসইর পিই রেশিও অবস্থান করে ১৪ দশমিক ৩৫ পয়েন্টে যা আগের সপ্তাহের শেষে ছিল ১৪ দশমিক ৪০ পয়েন্টে।

গত সপ্তাহে এ ক্যাটাগরির শতভাগ কোম্পানির শেয়ার টপটেন লেনদেনে অবস্থান করেছে। সপ্তাহটিতে মোট লেনদেনের ৩৮ দশমিক ৩৮ শতাংশ শেয়ার ১০ কোম্পানির দখলে রয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে রুপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স শেয়ারে। একাই মোট শেয়ারের ৫ দশমিক ৭১ শতাংশ লেনদেন করেছে।

এছাড়া জেনেক্স ইনফোসিস ৪ দশমিক ৬৩ শতাংশ, সি পার্ল বিচ ৪ দশমিক ৪৯ শতাংশ, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স ৪ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ, এডিএন টেলিকম ৩ দশমিক ৮৫ শতাংশ, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ ৩ দশমিক ৭০ শতাংশ, আমরা নেটওয়ার্ক ৩ দশমিক ৬২ শতাংশ, বিডি কম ৩ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ, ইস্টার্ন হাউজিং ২ দশমিক ৬২ শতাংশ এবং বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন ২ দশমিক ৫৭ শতাংশের শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ আগের সপ্তাহের তুলনায় কমেছে ৯ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

শেয়ারবাজার মূলধন পরিমাণ কমেছে ৩ হাজার ৫৫১ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। কমেছে সব ধরনের সূচকেও। সিকিউরিটিজ হাউজগুলোতে বিক্রেতার চাপ ছিল বেশি। কোম্পানিগুলোর শেয়ার দর উত্থানের তুলনায় পতন দেড় গুণ বেশি ছিল। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গত বৃহস্পতিবার মূলধন দাঁড়ায় ৭ লাখ ৪৮ হাজার ৫০০ কোটি ৬ লাখ টাকায়। এর আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গত বৃহস্পতিবার বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছিল ৭ লাখ ৫২ হাজার ৫১ কোটি ৭১ লাখ টাকায়। এক সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন কমেছে ৩ হাজার ৫৫১ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। গত সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৫৭ কোটি ১৩ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৬৩ কোটি ৮ লাখ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে লেনদেন কমেছে ৫ কোটি ৯৫ লাখ টাকা বা ৯ দমমিক ৪৩ শতাংশ। তালিকাভুক্ত ২৬৬টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এরমধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৮টির, দর কমেছে ৮৩টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ১৬৫টি কোম্পানির যা কোম্পানিগুলো শেয়ার দর পতন তুলনায় উত্থান ১ দশমিক ৫৫ গুণ বেশি।

সব ধরনের সূচক পতনে লেনদেন শেষ হয়। এক সপ্তাহে ব্যবধানে প্রধান সূচক সিএএসপিআই দশমিক ৫২ শতাংশ কমে দাঁড়ায় ১৮ হাজার ৩৫২ দশমিক ৭১ পয়েন্টে। এছাড়া সিএসই৫০ সূচক দশমিক ২৫ শতাংশ, সিএসই৩০ সূচক দশমিক ১৪ শতাংশ, সিএসইসিএক্স সূচক দশমিক ৫২ শতাংশ, সিএসআই সূচক দশমিক ৩৭ শতাংশ এবং সিএসই এসএমইএক্স ৩ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ কমে দাঁড়ায় যথাক্রমে ১ হাজার ৩২০ দশমিক ৫৬ পয়েন্টে, ১৩ হাজার ৩৩৩ দশমিক ৯২ পয়েন্টে, ১১ হাজার ১ দশমিক ৭১ পয়েন্টে, ১ হাজার ১৫৬ দশমিক ৯০ পয়েন্টে এবং ১ হাজার ৬০৯ দশমিক ৭০ পয়েন্টে।

গত সপ্তাহে এ ক্যাটাগরির ৮০ ভাগ কোম্পানির শেয়ার টপটেন লেনদেনে অবস্থান করেছে। বি ক্যাটাগরির ২০ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর টপটেন লেনদেনে রয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে এডিএন টেলিকমের শেয়ার। একাই ৯ কোটি ৬৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে।

এছাড়া বাংলাদেশ ফাইন্যান্স ৭ কোটি ৪৯ লাখ টাকা, এইচ. আর টেক্সটাইল ৭ কোটি ১০ লাখ টাকা, সি পার্ল বিচ ৫ কোটি ৬৮ লাখ টাকা, বেঙ্গল ইউন্ডসর (বি ক্যাটাগরি) ২ কোটি ১৩ লাখ টাকা, দি প্রিমিয়ার ব্যাংক ১ কোটি ৭৩ লাখ টাকা, ওরিয়ন ফার্মা ১ কোটি ৩২ লাখ টাকা, শাইনপুকুর (বি ক্যাটাগরি) ১ কোটি ১৭ লাখ টাকা, জেনেক্স ইনফোসিস ১ কোটি ৮ লাখ টাকা এবং বসুন্ধরা পেপার ১ কোটি ৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

ছবি

ঈদে মানুষের মাঝে স্বস্তি দেখেছি : বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

ছবি

বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি বিশ্ব ব্যাংকের চেয়ে বেশি দেখছে এডিবি

ছবি

মার্চে দেশে মূল্যস্ফীতি বেড়ে ৯.৮১ শতাংশ

ছবি

ঈদের আগে পাঁচ দিনে দেশে এলো ৪৬ কোটি ডলার

ছবি

শিল্পাঞ্চলের বাইরের কারখানায় গ্যাস-বিদ্যুৎ আর নয়, পাবেনা ঋণও

এবার ঈদে পর্যটন খাত চাঙ্গা হওয়ার আশা

ছবি

জাতীয় লজিস্টিক নীতির খসড়ার অনুমোদন

সোনালীতে একীভূত হচ্ছে বিডিবিএল

ছবি

সোনার দাম আবার বাড়লো, ভরি ১ লাখ ১৭ হাজার ৫৭৩ টাকা

ছবি

সিটি ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত হচ্ছে রাষ্ট্রীয় বেসিক ব্যাংক

ছবি

বিজিএমইএর দায়িত্ব নিলেন এস এম মান্নান কচি

ছবি

বাজার মূলধন কিছুটা বাড়লো, তবু লাখ কোটি টাকার ওপরে ক্ষতি

ছবি

নতুন বিদেশী ঋণ নিয়ে পুরনো ঋণ শোধ করছে সরকার : সিপিডি

ছবি

ব্যাংক একীভুতকরনে নীতিমালা জারি

রাষ্ট্রীয় চার ব্যাংক একীভূত হয়ে হবে দুই

ছবি

এবার একীভূত হচ্ছে ‘সোনালীর সাথে বিডিবিএল’ ও ‘কৃষির সাথে রাকাব’

ছবি

শেয়ার প্রতি ১ পয়সা লভ্যাংশ দেবে একমি পেস্টিসাইড

এসেনসিয়াল ড্রাগস কোম্পানী লিমিটেডের কর্মীদের জন্য মেটলাইফের বীমা সুরক্ষা

গাজীপুরে এক বছরে ট্রাফিক পুলিশের ৫ কোটি টাকা রাজস্ব আয়

ছবি

প্রবৃদ্ধি কমে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ হবে: বিশ্বব্যাংক

ছবি

সিএসআর ফান্ডের আওতায় কৃষকদের আর্থিক সহযোগিতা করল সাউথইস্ট ব্যাংক

ছবি

ডেমরায় বাস গ্যারেজে আগুন

ছবি

নিত্যপণ্যের দাম বাড়লেও সেইহারে বাড়েনি তামাকপণ্যের দাম

ছবি

প্রকাশ্যে ঘুষ নেওয়া সেই ভূমি অফিস কর্মী সাময়িক বরখাস্ত

ব্যাংক ঋণের সুদহার আরও বাড়লো

ছবি

বেক্সিমকোর ২ হাজার ৬২৫ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন দিলো বিএসইসি

শ্রমিকের অধিকার সুরক্ষিত রাখতে কাজ করব : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

ছবি

ঈদে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট বাড়াল বিমান

ছবি

ডিজেল-কেরোসিনের দাম লিটারে ২.২৫ টাকা কমলো

ছবি

ফেনীতে টপটেন মার্ট উদ্বোধন করলেন তামিম

ছবি

উচ্চ খেলাপি ঋণ আর্থিক খাতের জন্য বিরাট হুমকি : বাংলাদেশ ব্যাংক

ছবি

শেয়ারবাজারে পতন : ফ্লোর প্রাইস, আতঙ্ক না জুয়া

ছবি

আলুর দাম বাড়ছে, অন্যান্য পণ্যের বাড়তি দাম অপরিবর্তিত

রিজার্ভ কমে দাঁড়ালো এক হাজার ৯৪৫ কোটি ডলারে

ছবি

সবজিতে স্বস্তি, চাল পেঁয়াজ আলু চড়া

ছবি

ব্যাংক খাতে অনেক চ্যালেঞ্জ, ‘গ্লোবাল স্ট্যান্ডার্ড’-এ যেতে চাইঃ শাহ্জালাল ব্যাংকের এমডি

tab

অর্থ-বাণিজ্য

মূলধন কমলো সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা, ১০ কোম্পানিতেই ৩৮ শতাংশ লেনদেন

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ আগের সপ্তাহের তুলনায় কমেছে। গত সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৫৪০ কোটি ১০ টাকা যা মোট লেনদেনের ৩৮ দশমিক ৩৮ শতাংশই দশ কোম্পানির দখলে রয়েছে। ওই দশ কোম্পানি একাই লেনদেন হয়েছে ৯৭৫ কোটি ১ টাকা। শেয়াবাজারে মূলধন পরিমাণ কমেছে ৩ হাজার ৬৯৭ কোটি টাকা। সব ধরনের সূচক পতন হয়েছে। বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে। ডিএসইতে কোম্পানির শেয়ার দর উত্থানের তুলনায় পতন ৯ দশমিক ৪০ বেশি।

গত ১০ অক্টোবর পুঁজিবাজারে সরকারি বন্ডের লেনদেন শুরু হয়। এরপর ডিএসইতে ২৫০ বন্ডের লেনদেন হয়। এতে ডিএসইর বাজার মূলধন ২ লাখ ৫২ হাজার ২৬৩ কোটি ১৩ লাখ টাকা বেড়ে ৭ লাখ ৭৩ হাজার ৯৩৯ কোটি ৫৮ লাখ টাকায় দাঁড়িয়েছিল। এরপর গত ২৭ অক্টোবর বাজার মূলধন কমে দাঁড়িয়েছিল ৭ লাখ ৬৯ হাজার ৪৬৫ কোটি ৭২ লাখ টাকা। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গত বৃহস্পতিবার বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৭ লাখ ৬১ হাজার ৮৯৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকায়। এর আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছিল ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৫৯১ কোটি ৫৯ লাখ টাকায়। এক সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন কমেছে তিন হাজার ৬৯৬ কোটি ৯২ লাখ টাকা।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৫৪০ কোটি ১০ লাখ টাকা।

আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ৫৮৪ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে লেনদেন কমেছে ৪৪ কোটি ৮৭ লাখ টাকা বা ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ। ডিএসইতে প্রতিদিন গড়ে লেনদেন হয়েছে ৫০৮ কোটি ২ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে গড়ে লেনদেন হয়েছিল ৬৪৬ কোটি ২৪ লাখ টাকা। গেল সপ্তাহে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত ৪০০টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এরমধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৫টির, দর কমেছে ১৪১টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২২২টি কোম্পানির। লেনদন হয়নি ২২টি কোম্পানির শেয়ার।

সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স পতনে লেনদেন শেষ হয়। এক সপ্তাহে ব্যবধানে ডিএসইএক্স ৩৯ দশমিক ৯৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৬ হাজার ২২০ দশমিক ২৪ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএসই৩০ সূচক ৮ দশমিক ২১ পয়েন্ট এবং শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস ৫ দশমিক ৪৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় যথাক্রমে ২ হাজার ২১৮ দশমিক ৭৬ পয়েন্টে এবং ১ হাজার ৩৫৬ দশমিক ৮৫ পয়েন্টে। এদিকে গত সপ্তাহের শেষে ডিএসইর পিই রেশিও অবস্থান করে ১৪ দশমিক ৩৫ পয়েন্টে যা আগের সপ্তাহের শেষে ছিল ১৪ দশমিক ৪০ পয়েন্টে।

গত সপ্তাহে এ ক্যাটাগরির শতভাগ কোম্পানির শেয়ার টপটেন লেনদেনে অবস্থান করেছে। সপ্তাহটিতে মোট লেনদেনের ৩৮ দশমিক ৩৮ শতাংশ শেয়ার ১০ কোম্পানির দখলে রয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে রুপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স শেয়ারে। একাই মোট শেয়ারের ৫ দশমিক ৭১ শতাংশ লেনদেন করেছে।

এছাড়া জেনেক্স ইনফোসিস ৪ দশমিক ৬৩ শতাংশ, সি পার্ল বিচ ৪ দশমিক ৪৯ শতাংশ, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স ৪ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ, এডিএন টেলিকম ৩ দশমিক ৮৫ শতাংশ, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ ৩ দশমিক ৭০ শতাংশ, আমরা নেটওয়ার্ক ৩ দশমিক ৬২ শতাংশ, বিডি কম ৩ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ, ইস্টার্ন হাউজিং ২ দশমিক ৬২ শতাংশ এবং বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন ২ দশমিক ৫৭ শতাংশের শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমাণ আগের সপ্তাহের তুলনায় কমেছে ৯ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

শেয়ারবাজার মূলধন পরিমাণ কমেছে ৩ হাজার ৫৫১ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। কমেছে সব ধরনের সূচকেও। সিকিউরিটিজ হাউজগুলোতে বিক্রেতার চাপ ছিল বেশি। কোম্পানিগুলোর শেয়ার দর উত্থানের তুলনায় পতন দেড় গুণ বেশি ছিল। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গত বৃহস্পতিবার মূলধন দাঁড়ায় ৭ লাখ ৪৮ হাজার ৫০০ কোটি ৬ লাখ টাকায়। এর আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গত বৃহস্পতিবার বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছিল ৭ লাখ ৫২ হাজার ৫১ কোটি ৭১ লাখ টাকায়। এক সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন কমেছে ৩ হাজার ৫৫১ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। গত সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৫৭ কোটি ১৩ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৬৩ কোটি ৮ লাখ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে লেনদেন কমেছে ৫ কোটি ৯৫ লাখ টাকা বা ৯ দমমিক ৪৩ শতাংশ। তালিকাভুক্ত ২৬৬টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এরমধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৮টির, দর কমেছে ৮৩টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ১৬৫টি কোম্পানির যা কোম্পানিগুলো শেয়ার দর পতন তুলনায় উত্থান ১ দশমিক ৫৫ গুণ বেশি।

সব ধরনের সূচক পতনে লেনদেন শেষ হয়। এক সপ্তাহে ব্যবধানে প্রধান সূচক সিএএসপিআই দশমিক ৫২ শতাংশ কমে দাঁড়ায় ১৮ হাজার ৩৫২ দশমিক ৭১ পয়েন্টে। এছাড়া সিএসই৫০ সূচক দশমিক ২৫ শতাংশ, সিএসই৩০ সূচক দশমিক ১৪ শতাংশ, সিএসইসিএক্স সূচক দশমিক ৫২ শতাংশ, সিএসআই সূচক দশমিক ৩৭ শতাংশ এবং সিএসই এসএমইএক্স ৩ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ কমে দাঁড়ায় যথাক্রমে ১ হাজার ৩২০ দশমিক ৫৬ পয়েন্টে, ১৩ হাজার ৩৩৩ দশমিক ৯২ পয়েন্টে, ১১ হাজার ১ দশমিক ৭১ পয়েন্টে, ১ হাজার ১৫৬ দশমিক ৯০ পয়েন্টে এবং ১ হাজার ৬০৯ দশমিক ৭০ পয়েন্টে।

গত সপ্তাহে এ ক্যাটাগরির ৮০ ভাগ কোম্পানির শেয়ার টপটেন লেনদেনে অবস্থান করেছে। বি ক্যাটাগরির ২০ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর টপটেন লেনদেনে রয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে এডিএন টেলিকমের শেয়ার। একাই ৯ কোটি ৬৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে।

এছাড়া বাংলাদেশ ফাইন্যান্স ৭ কোটি ৪৯ লাখ টাকা, এইচ. আর টেক্সটাইল ৭ কোটি ১০ লাখ টাকা, সি পার্ল বিচ ৫ কোটি ৬৮ লাখ টাকা, বেঙ্গল ইউন্ডসর (বি ক্যাটাগরি) ২ কোটি ১৩ লাখ টাকা, দি প্রিমিয়ার ব্যাংক ১ কোটি ৭৩ লাখ টাকা, ওরিয়ন ফার্মা ১ কোটি ৩২ লাখ টাকা, শাইনপুকুর (বি ক্যাটাগরি) ১ কোটি ১৭ লাখ টাকা, জেনেক্স ইনফোসিস ১ কোটি ৮ লাখ টাকা এবং বসুন্ধরা পেপার ১ কোটি ৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

back to top