alt

নগর-মহানগর

কোরবানি সামনে রেখে রাজধানীতে সক্রিয় জাল নোট চক্র

নিজস্ব বা‍র্তা পরিবেশক : রোববার, ০৯ জুন ২০২৪

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীতে জাল টাকার নোট তৈরি চক্র আবার সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তারা সংবদ্ধভাবে জাল নোট তৈরি করে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলা শহরে কুরিয়ার সার্ভিসসহ নানা মাধ্যমে পাঠাচ্ছে।

শনিবার রাজধানীর কদমতলী এলাকায় সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ধারাবাহিক অভিযান চালিয়ে দেশি-বিদেশি জাল নোট তৈরি চক্রের প্রধান জাকিরসহ ৪ জনকে ডিবি গ্রেপ্তার করেছে।

তাদের আস্তানা থেকে এক কোটির বেশি জাল নোট ও তিন কোটি জাল টাকা তৈরির আলামতসহ অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) উপ-পুলিশ কমিশনার মশিউর রহমান সাংবাদিকদেরকে এই সব তথ্য জানিয়েছেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, লিয়াকত হোসেন জাকির ওরফে মাজার জাকির ওরফে গুরু জাকির, তার স্ত্রী মমতাজ, লিমা আক্তার রিনা ও সাজেদা আক্তার। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

তাদের কাছ থেকে ২শ’, ৫শ’ ও এক হাজার টাকার নোট ও ভারতীয় রুপির জাল নোট উদ্ধার করা হয়েছে।

ডিবি কর্মকর্তারা বলেছেন, কোরবানির ঈদকে টার্গেট করে চক্রটি কয়েক কোটি টাকার জাল নোট গরুর হাটসহ বিভিন্ন বাজারে ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। রাজধানীর কদমতলীকে তৈরি এই জাল নোট বিক্রির জন্য যোগাযোগ হত অনলাইনে। কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পাঠানো হয় জাল নোট। বেশিরভাগ জাল নোট জেলা ও গ্রাম পর্যায়ে কোরবানির পশুর হাটে।

ডিবি কর্মকর্তারা বলেছেন, গতকাল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অভিযানের সময় দুইটি বাসা থেকে সোয়া কোটি জাল টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। আর জাল নোট তৈরির কাগজ, কাপড়, কালি, র‌্যাপটপ, চারটি প্রিন্টার, বিভিন্ন সাইজের কয়েক ডজন স্ক্রিন, ডাইস, সাদা কাগজ, হিটার মেশিন, নিরাপত্তা সূতাসহ জাল টাকার তৈরির নানা ধরনের সঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

এই চক্র বর্তমানে ১শ ও ২শ টাকার জাল নোট তৈরি করত। কিছুদিন ধরে এক হাজার টাকার নোট জাল তৈরি করছে চক্র।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, জাল নোট তৈরি চক্রের সদস্যরা সারাদেশে তাদের মাঠ পর্যায়ের গ্রুপের কাছে এক লাখ জাল নোট ১৮ থেকে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করত। এই চক্রের সঙ্গে নারী-পুরুষ মিলে ১৫ থেকে ২০ জন সদস্য রয়েছে। তাদের মাসে বেতন-ভাতাও দিত। কিছুদিন আগে এই চক্রের এক নারী সদস্য ৫০ লাখ টাকার জাল নোট নিয়েছে। তাদের নিজস্ব এজেন্টও রয়েছে। এই জাল নোট তৈরি চক্রের কারিগর জাকির অত্যন্ত দক্ষ। এই চক্রের কদমতলীর আস্তানার চার পাশে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে নজরদারিও করা হতো।

ডিবি কর্মকর্তারা জানান, জাল টাকা নোট তৈরি চক্রের অনেক সদস্য এর আগেও একাধিকবার গ্রেপ্তার হয়েছে। এদের মধ্যে অনেকেই জামিনে ছাড়া পেয়ে আবার জাল নোট তৈরি ও বিক্রি করার সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছেন। এর মধ্যে নারী সদস্যও রয়েছে।

জাল নোট তৈরি চক্রের প্রধান জাকির এর আগেও একাধিকবার গ্রেপ্তার হয়েছে। তার মতো অন্যান্য অপরাধীরা কারাগার থেকে জানিয়ে ছাড়া পেয়ে আবার একই অপরাধ করছে।

ডিবি কর্মকর্তাদের পরামর্শ আসন্ন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে পশুর হাটে সতর্কতার সঙ্গে লেনদেন করার ও টাকা যাচাই করে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। কয়েকদিন আগেও এক নারী তাদের চক্রের কাছ থেকে ৫০ লাখ টাকা জাল নোট নিয়েছে। উল্লেখ্য, এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে র‌্যাবক-৩ টিম রাজধানীর শ্যামপুর এলাকা থেকে জালনোট প্রস্তুতকারী চক্রের মূলহোতা হৃদয় মাতব্বরকে (২২) গ্রেপ্তার করেছে। তার আস্তানা থেকে জাল নোট তৈরির ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি ও বিপুল জালনোটসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অভিযানে আসামির কাছে জালনোট তৈরিতে ব্যবহৃত একটি সিপিইউ, একটি মনিটর, একটি প্রিন্টার, একটি রাউটার, একটি পেপার কাটার, ৯টি ভুয়া এনআইডি কার্ড, তিনটি ভুয়া ভারতীয় এনআইডি কার্ডের ফটোকপি এবং ১০০ ও ৫০০ টাকার জাল নোট উদ্ধার করেছে।

এর আগে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এওকাধিক সূত্র জানায়, রাজধানীতে জাল নোট তৈরি চক্রের কমপক্ষ্যে ২০টি চক্র রয়েছে। প্রতিটি চক্রে ৫ থেকে ৭ জন করে রয়েছে। তারা রাজধানীর বিভিন্ন থানা ও পশুর হাটসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান কেন্দ্রিক জাল নোট বিক্রি করছে। ডিএমপির একাধিক অভিযানের পর তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিকে ক্রাইম ডিভিন থেকে পুলিশ কর্মকর্তারা ওই তালিকা তৈরি করে অভি যান চালাচ্ছে। এখন চক্রের পরিধি সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। টার্গেট গ্রাম-গঞ্জের সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে ১শ’ ও ২শ’ টাকার নকল নোট বাজারে বিক্রি করা। ওই চক্রের সদস্যদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। অপরাধী যেই হোক কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ছবি

স্বাভাবিকতার পথে নগরজীবন

ছবি

কোটা সংস্কার আন্দোলনের ‘শাটডাউন’ কর্মসূচিতে রামপুরায় বিটিভি ভবনে অগ্নিকাণ্ড

ছবি

বাড্ডায় কোটা সংস্কার আন্দোলনে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ, একজন নিহত

ছবি

মেট্রোরেলের মিরপুর অংশে চলাচল বন্ধ

ছবি

বাড্ডায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতর থেকে পুলিশের রাবার বুলেট ও ছররা গুলিতে আহত অনেকে

ছবি

উত্তাল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক, যান চলাচল বন্ধ

ছবি

মিরপুর-১০ রণক্ষেত্র, আ.লীগের সমাবেশ পণ্ড

ছবি

রামপুরা পুলিশ বক্সে আগুন, সড়কে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

ছবি

সংঘর্ষে রণক্ষেত্র যাত্রাবাড়ী-শনির আখড়া

ছবি

সহিংসতা পরিহার করুনঃ পুলিশ সদর দপ্তর

ছবি

ঢাকার শনির আখড়ায় পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগ, শিশুসহ ৬ জন গুলিবিদ্ধ

ছবি

ঢাকায় কোটা সংঘর্ষে নিহত ২ঃ পুলিশ বলছে দায় আন্দোলনকারীদের

ছবি

আজ গায়েবানা জানাজা ও কফিন মিছিল কর্মসূচি

ছবি

সায়েন্সল্যাবে কলেজ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ

ছবি

"তাণ্ডবের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পুলিশের মোতায়েন"

ছবি

"কোটা আন্দোলন: ঢাকা মেডিকেলের সামনে সংঘর্ষ ও হাত বোমা বিস্ফোরণ"

রাজধানীতে গ্যাস সংকট, চুলা জ্বলে না বাসাবাড়িতে

ছবি

ডিএনসিসির চিঠি, ‘আতঙ্কে’ গরুর খামারিরা

ছবি

চার দফা দাবিতে রাজধানীতে হরিজন সম্প্রদায়ের বিক্ষোভ সমাবেশ

ছবি

প্রবল বর্ষণে রাজধানীতে বিদ্যুতায়িত হয়ে চার শ্রমজীবীর মৃত্যু

৫ বছর পড়ে আছে ৩৮ কোটির সিজেএম ভবন

ছবি

কোটাবিরোধী আন্দোলন: শিক্ষার্থীদের নামে পুলিশের মামলা

ছবি

সকাল থেকে ঝুম বৃষ্টি, ভাসছে ঢাকা

ছবি

বেবিচক এর মাঠ পর্যায়ের কার্যালয়সমূহের সাথে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষর অনু্ষ্ঠান

ছবি

‘ভুয়া ভুয়া’ স্লোগানে উত্তাল শাহবাগ, পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে দিল শিক্ষার্থীরা

ছবি

আত্মসাত মামলা: ইউনূসের আবেদনের রায় ২১ জুলাই

ছবি

এসি নষ্ট, আকাশে ৩৭ মিনিট উড়ে ঢাকায় ফিরল বিমান

ছবি

কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে হরিজনদের ওপর হামলার অভিযোগ

ছবি

বাংলাদেশ এগ্রিকালচার রিপোর্টার্স ফোরামের নেতৃত্বে সবুজ-কাওসার

ছবি

বিসিএস ও মেডিকেল প্রশ্নফাঁসকারীদের বিচার চায় জবি শিক্ষার্থীরা

ছবি

কোটা : ঢাবির পর এবার জবি শিক্ষার্থীদের জিরো পয়েন্ট অবরোধ

ছবি

বাংলা ব্লকেডে’ অচল সড়ক, মেট্রোতে উপচেপড়া ভিড়

ছবি

কোটা : স্থিতাবস্থা বজায় রাখার আদেশ আপিল বিভাগের

ছবি

আজও ‘বাংলা ব্লকেড’, তীব্র যানজটের মুখে পড়বে নগরবাসী

ছবি

সাহারা খাতুনের রাজনীতি অনুকরণীয়: মতিয়া চৌধুরী

ছবি

আড়াই ঘন্টা পর জিরো পয়েন্ট ছাড়লো জবির আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

tab

নগর-মহানগর

কোরবানি সামনে রেখে রাজধানীতে সক্রিয় জাল নোট চক্র

নিজস্ব বা‍র্তা পরিবেশক

রোববার, ০৯ জুন ২০২৪

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীতে জাল টাকার নোট তৈরি চক্র আবার সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তারা সংবদ্ধভাবে জাল নোট তৈরি করে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলা শহরে কুরিয়ার সার্ভিসসহ নানা মাধ্যমে পাঠাচ্ছে।

শনিবার রাজধানীর কদমতলী এলাকায় সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ধারাবাহিক অভিযান চালিয়ে দেশি-বিদেশি জাল নোট তৈরি চক্রের প্রধান জাকিরসহ ৪ জনকে ডিবি গ্রেপ্তার করেছে।

তাদের আস্তানা থেকে এক কোটির বেশি জাল নোট ও তিন কোটি জাল টাকা তৈরির আলামতসহ অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) উপ-পুলিশ কমিশনার মশিউর রহমান সাংবাদিকদেরকে এই সব তথ্য জানিয়েছেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, লিয়াকত হোসেন জাকির ওরফে মাজার জাকির ওরফে গুরু জাকির, তার স্ত্রী মমতাজ, লিমা আক্তার রিনা ও সাজেদা আক্তার। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

তাদের কাছ থেকে ২শ’, ৫শ’ ও এক হাজার টাকার নোট ও ভারতীয় রুপির জাল নোট উদ্ধার করা হয়েছে।

ডিবি কর্মকর্তারা বলেছেন, কোরবানির ঈদকে টার্গেট করে চক্রটি কয়েক কোটি টাকার জাল নোট গরুর হাটসহ বিভিন্ন বাজারে ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। রাজধানীর কদমতলীকে তৈরি এই জাল নোট বিক্রির জন্য যোগাযোগ হত অনলাইনে। কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পাঠানো হয় জাল নোট। বেশিরভাগ জাল নোট জেলা ও গ্রাম পর্যায়ে কোরবানির পশুর হাটে।

ডিবি কর্মকর্তারা বলেছেন, গতকাল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অভিযানের সময় দুইটি বাসা থেকে সোয়া কোটি জাল টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। আর জাল নোট তৈরির কাগজ, কাপড়, কালি, র‌্যাপটপ, চারটি প্রিন্টার, বিভিন্ন সাইজের কয়েক ডজন স্ক্রিন, ডাইস, সাদা কাগজ, হিটার মেশিন, নিরাপত্তা সূতাসহ জাল টাকার তৈরির নানা ধরনের সঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

এই চক্র বর্তমানে ১শ ও ২শ টাকার জাল নোট তৈরি করত। কিছুদিন ধরে এক হাজার টাকার নোট জাল তৈরি করছে চক্র।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, জাল নোট তৈরি চক্রের সদস্যরা সারাদেশে তাদের মাঠ পর্যায়ের গ্রুপের কাছে এক লাখ জাল নোট ১৮ থেকে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করত। এই চক্রের সঙ্গে নারী-পুরুষ মিলে ১৫ থেকে ২০ জন সদস্য রয়েছে। তাদের মাসে বেতন-ভাতাও দিত। কিছুদিন আগে এই চক্রের এক নারী সদস্য ৫০ লাখ টাকার জাল নোট নিয়েছে। তাদের নিজস্ব এজেন্টও রয়েছে। এই জাল নোট তৈরি চক্রের কারিগর জাকির অত্যন্ত দক্ষ। এই চক্রের কদমতলীর আস্তানার চার পাশে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে নজরদারিও করা হতো।

ডিবি কর্মকর্তারা জানান, জাল টাকা নোট তৈরি চক্রের অনেক সদস্য এর আগেও একাধিকবার গ্রেপ্তার হয়েছে। এদের মধ্যে অনেকেই জামিনে ছাড়া পেয়ে আবার জাল নোট তৈরি ও বিক্রি করার সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছেন। এর মধ্যে নারী সদস্যও রয়েছে।

জাল নোট তৈরি চক্রের প্রধান জাকির এর আগেও একাধিকবার গ্রেপ্তার হয়েছে। তার মতো অন্যান্য অপরাধীরা কারাগার থেকে জানিয়ে ছাড়া পেয়ে আবার একই অপরাধ করছে।

ডিবি কর্মকর্তাদের পরামর্শ আসন্ন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে পশুর হাটে সতর্কতার সঙ্গে লেনদেন করার ও টাকা যাচাই করে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। কয়েকদিন আগেও এক নারী তাদের চক্রের কাছ থেকে ৫০ লাখ টাকা জাল নোট নিয়েছে। উল্লেখ্য, এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে র‌্যাবক-৩ টিম রাজধানীর শ্যামপুর এলাকা থেকে জালনোট প্রস্তুতকারী চক্রের মূলহোতা হৃদয় মাতব্বরকে (২২) গ্রেপ্তার করেছে। তার আস্তানা থেকে জাল নোট তৈরির ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি ও বিপুল জালনোটসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অভিযানে আসামির কাছে জালনোট তৈরিতে ব্যবহৃত একটি সিপিইউ, একটি মনিটর, একটি প্রিন্টার, একটি রাউটার, একটি পেপার কাটার, ৯টি ভুয়া এনআইডি কার্ড, তিনটি ভুয়া ভারতীয় এনআইডি কার্ডের ফটোকপি এবং ১০০ ও ৫০০ টাকার জাল নোট উদ্ধার করেছে।

এর আগে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এওকাধিক সূত্র জানায়, রাজধানীতে জাল নোট তৈরি চক্রের কমপক্ষ্যে ২০টি চক্র রয়েছে। প্রতিটি চক্রে ৫ থেকে ৭ জন করে রয়েছে। তারা রাজধানীর বিভিন্ন থানা ও পশুর হাটসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান কেন্দ্রিক জাল নোট বিক্রি করছে। ডিএমপির একাধিক অভিযানের পর তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিকে ক্রাইম ডিভিন থেকে পুলিশ কর্মকর্তারা ওই তালিকা তৈরি করে অভি যান চালাচ্ছে। এখন চক্রের পরিধি সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। টার্গেট গ্রাম-গঞ্জের সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে ১শ’ ও ২শ’ টাকার নকল নোট বাজারে বিক্রি করা। ওই চক্রের সদস্যদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। অপরাধী যেই হোক কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

back to top