alt

নগর-মহানগর

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীর আত্মহত্যা, স্ত্রী পলাতক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : শনিবার, ০৭ মে ২০২২

রাজধানীর বনানী এলাকার শ্বশুরবাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক শেখ সোহেব সাজ্জাদ। স্ত্রীর অনৈতিক সম্পর্ক এবং মানসিক নির্যাতনে বাধ্য হয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ করেছে পরিবার।

আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে ওই প্রবাসীর স্ত্রী সাবরিনা শারমিন (৩০) ও তার প্রেমিক কাজী ফাহাদের (২৭) বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলাটি দায়ের করেন নিহতের ভাই শেখ সোহেল সায়াদ আহমেদ।

দায়েরকৃত মামলায় ইতোমধ্যে শুক্রবার (৬ মে) মামলার দুই নম্বর আসামি কাজী ফাহাদকে ওয়ারী এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে পলাতক রয়েছেন এক নম্বর আসামি নিহতের স্ত্রী সাবরিনা শারমিন।

পরিবারের অভিযোগ, কাজী ফাহাদের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়ান সাবরিনা। এতে বাধা দেওয়ায় ফাহাদ ও সাবরিনা প্রতিনিয়ত সাজ্জাদকে মানসিক নির্যাতন করতেন। যার মাধ্যমে তাকে আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দেওয়া হয়েছে।

ক্যান্টনমেন্ট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তাসলিমা আক্তার জানান, গ্রেফতার কাজী ফাহাদকে আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাওয়া হবে। অপর আসামি সাবরিনাকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

মামলার এহাজার সূত্রে জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাজ্জাদের বাবার নাম শেখ তৌফিক আহমেদ। তাদের বাড়ি ওয়ারীর ওয়ারস্ট্রিট রোডে। যুক্তরাষ্ট্রে পরিচয় সূত্রে সেখানেই ২০১৭ সালে সাজ্জাদ ও সাবরিনার বিয়ে হয়। ২০১৮ সালের মে মাসে সাবরিনা একা দেশে ফিরে শ্বশুরবাড়ি ওয়ারীতে বসবাস শুরু করেন।

সে সময় ওই বাড়ির পাশের বাসার ভাড়াটে কাজী ফাহাদের সঙ্গে পরিচয় হয় সাবরিনার। এক-পর্যায়ে তারা অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। সাজ্জাদ ও তার পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি জেনে গেলে এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। ফাহাদের সঙ্গে সম্পর্ক না রাখার বিষয় নিয়ে প্রায়ই সাজ্জাদের সঙ্গে ঝগড়া করতেন সাবরিনা। এ অবস্থায় গত ১৬ মার্চ দেশে ফেরেন সাজ্জাদ।

দেশে ফেরার পর শ্বশুরবাড়িতেই স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করছিলেন সাজ্জাদ। এ সময় কৌশলে স্বামীর আমেরিকান পাসপোর্ট ও মোবাইল ফোন নিয়ে নানাভাবে মানসিক নির্যাতন শুরু করেন সাবরিনা। পরে এসব ফেরত না দিয়ে ১৫ এপ্রিল সাবরিনা বাসা থেকে চলে যান।

সাজ্জাদ ও তার শ্বশুর ফোন করে সাবরিনা এবং কাজী ফাহাদের কাছে পাসপোর্ট ও ফোন ফেরত চান। কিন্তু তারা সেসব না দিয়ে সাজ্জাদের ওপর নানা ধরনের চাপ সৃষ্টি করেন। একপর্যায়ে ৩০ এপ্রিল শ্বশুরের বাসায় সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন সাজ্জাদ। আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে সাবরিনা ও ফাহাদের বিরুদ্ধে ১ মে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।

ছবি

ভোক্তা অধিকার বিভাগ চায় ক্যাব

কারাগারেই যেতে হলো হাজী সেলিমকে

ছবি

হাজী সেলিমের সংসদ সদস্য পদ বহাল থাকা নিয়ে প্রশ্ন

ঢাকায় অস্ট্রেলিয়ান শিক্ষা মেলা

মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্য প্রদর্শনী চলছে জাতীয় জাদুঘরে

ছবি

“আইইবি’তে কৃতি প্রকৌশলীদের আজীবন ও মরণোত্তর সম্মাননা প্রদান এবং ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত”

ছবি

বিদ্যুতের দাম না বাড়িয়ে ভর্তুকির পরামর্শ এফবিসিসিআইয়ের

ছবি

ডিএমপির মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৭২, মামলা ৫৬

ছবি

শনিবার গ্যাস থাকবে না রাজধানীর যেসব এলাকায়

ছবি

শ্রীলঙ্কা ঋণ খেলাপির খাতায় নাম লেখাল

ছবি

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৯২, মামলা ৭২

সমান অধিকার-মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় বৈষম্য বিরোধী বিলে পরিবর্তনের আভাস

হাড় জোড়া লাগানোর অস্ত্রোপচারে শিশুর মৃত্যু

উচ্চ শব্দে হর্ণ কান জ্বালাপালা ১২ চালককে জরিমানা

মোটরসাইকেল চোর চক্রের আটক ৬, ৮টি উদ্ধার

ছবি

জাহানার ফাউন্ডেশনে প্রাচীন মুদ্রা প্রদর্শনী

হাত পচে দুর্গন্ধ, ঢামেক ওয়ার্ডে ঠাঁই হয়নি যুবকের!

তামাকপণ্যের দাম বাড়ালে মৃত্যু-স্বাস্থ্যব্যয় কমবে

ঢাকার হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় ১২ ডেঙ্গু রোগী

ছবি

এনায়েত উল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে মামলা

ছবি

রাত ৮টার পর দোকানপাট বন্ধ রাখতে চান মেয়র তাপস

ছবি

ভূমিহীন পরিবারগুলোর সমস্যার সমাধানের দাবি

ছবি

সম্রাটের উন্নত চিকিৎসা দরকার : বিএসএমএমইউ পরিচালক

স্বাধীন সাংবাদিকতার বাধা আইন প্রত্যাহারের আহ্বান সম্পাদক, সাংবাদিক নেতাদের

যাত্রাবাড়ীতে মাদক কারবারি গ্রেপ্তার

প্রসূতি মায়ের জন্য জরুরি বি পজিটিভ রক্তের প্রয়োজন

ছবি

ঢাকা কলেজ ও আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ

যাত্রাবাড়ীতে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ মাদক কারবারি গ্রেপ্তার

ছবি

রফিকুল-হারুনদের মুক্তি চেয়ে আদালত প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ

ছবি

ক্যাসিনোকান্ডের সম্রাট আপাতত ‘হাসপাতালেই থাকবেন’

ছবি

হাতিরঝিলে ইয়াবাসহ কারবারি আটক

ছবি

নিউমার্কেটে সংঘর্ষ : ফাস্টফুডের দোকানের দুই কর্মচারী গ্রেফতার

ছবি

মেট্রোরেলের উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশের কাজ সম্পন্ন

ছবি

ঈদের ছুটি শেষ, অফিস-আদালত এখনও ফাঁকা

ছবি

গুলিস্তান হকার্স মার্কেটে অবৈধ দোকান উচ্ছেদ শুরু

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২১

tab

নগর-মহানগর

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীর আত্মহত্যা, স্ত্রী পলাতক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

শনিবার, ০৭ মে ২০২২

রাজধানীর বনানী এলাকার শ্বশুরবাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক শেখ সোহেব সাজ্জাদ। স্ত্রীর অনৈতিক সম্পর্ক এবং মানসিক নির্যাতনে বাধ্য হয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ করেছে পরিবার।

আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে ওই প্রবাসীর স্ত্রী সাবরিনা শারমিন (৩০) ও তার প্রেমিক কাজী ফাহাদের (২৭) বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলাটি দায়ের করেন নিহতের ভাই শেখ সোহেল সায়াদ আহমেদ।

দায়েরকৃত মামলায় ইতোমধ্যে শুক্রবার (৬ মে) মামলার দুই নম্বর আসামি কাজী ফাহাদকে ওয়ারী এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে পলাতক রয়েছেন এক নম্বর আসামি নিহতের স্ত্রী সাবরিনা শারমিন।

পরিবারের অভিযোগ, কাজী ফাহাদের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়ান সাবরিনা। এতে বাধা দেওয়ায় ফাহাদ ও সাবরিনা প্রতিনিয়ত সাজ্জাদকে মানসিক নির্যাতন করতেন। যার মাধ্যমে তাকে আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দেওয়া হয়েছে।

ক্যান্টনমেন্ট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তাসলিমা আক্তার জানান, গ্রেফতার কাজী ফাহাদকে আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাওয়া হবে। অপর আসামি সাবরিনাকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

মামলার এহাজার সূত্রে জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাজ্জাদের বাবার নাম শেখ তৌফিক আহমেদ। তাদের বাড়ি ওয়ারীর ওয়ারস্ট্রিট রোডে। যুক্তরাষ্ট্রে পরিচয় সূত্রে সেখানেই ২০১৭ সালে সাজ্জাদ ও সাবরিনার বিয়ে হয়। ২০১৮ সালের মে মাসে সাবরিনা একা দেশে ফিরে শ্বশুরবাড়ি ওয়ারীতে বসবাস শুরু করেন।

সে সময় ওই বাড়ির পাশের বাসার ভাড়াটে কাজী ফাহাদের সঙ্গে পরিচয় হয় সাবরিনার। এক-পর্যায়ে তারা অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। সাজ্জাদ ও তার পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি জেনে গেলে এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। ফাহাদের সঙ্গে সম্পর্ক না রাখার বিষয় নিয়ে প্রায়ই সাজ্জাদের সঙ্গে ঝগড়া করতেন সাবরিনা। এ অবস্থায় গত ১৬ মার্চ দেশে ফেরেন সাজ্জাদ।

দেশে ফেরার পর শ্বশুরবাড়িতেই স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করছিলেন সাজ্জাদ। এ সময় কৌশলে স্বামীর আমেরিকান পাসপোর্ট ও মোবাইল ফোন নিয়ে নানাভাবে মানসিক নির্যাতন শুরু করেন সাবরিনা। পরে এসব ফেরত না দিয়ে ১৫ এপ্রিল সাবরিনা বাসা থেকে চলে যান।

সাজ্জাদ ও তার শ্বশুর ফোন করে সাবরিনা এবং কাজী ফাহাদের কাছে পাসপোর্ট ও ফোন ফেরত চান। কিন্তু তারা সেসব না দিয়ে সাজ্জাদের ওপর নানা ধরনের চাপ সৃষ্টি করেন। একপর্যায়ে ৩০ এপ্রিল শ্বশুরের বাসায় সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন সাজ্জাদ। আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে সাবরিনা ও ফাহাদের বিরুদ্ধে ১ মে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।

back to top